Home » Android root » [Android] ফোন রুট করার সবচেয়ে সহজ এবং ১০০% নিরাপদ উপায়!

12 months ago (Dec 03, 2016) 536 views

[Android] ফোন রুট করার সবচেয়ে সহজ এবং ১০০% নিরাপদ উপায়!

Category: Android root Tags: by

এক সময় এন্ড্রয়েড ফোন রুট করা অনেক কঠিন একটা ব্যাপার ছিল। কিন্তু এখন রুট করাটা অনেক সহজতর ব্যাপার হয়েগেছে। আমি আপনাদের আজকে ০৪ টি উপায়ে রুট করার কৌশল দেখাবো। ০৩ টি পদ্ধতী দেখাবো কিভাবে কম্পিউটার ছাড়াও আপনার নিজস্ব মোবাইলের মাধ্যমে রুট করতে হয়। আর ৪র্থ পদ্ধতীতে দেখাবো কম্পিউটার দিয়ে কিভাবে এন্ড্রয়েড মোবাইল রুট করতে হয়। ০৪ টি পদ্ধতীই খুব সহজ এবং নিরাপদ। যার যার চাহিদামত কম্পিউটার অথবা মোবাইলের মাধ্যমে আপনার প্রিয় এন্ড্রয়েড মোবাইলটি-কে রুট করে নিতে পারবেন। যাদের কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপ নেই তারা চাইবে মোবাইলের সাহায্যে রুট করে নিতে। আর যাদের কম্পিউটার আছে তারা ইচ্ছা করলে ০৪ টির মধ্যে যে কোন একটি উপায়ে রুট করে নিতে পারবেন। সবার চাহিদার কথা ভেবে আমি আপনাদের জন্য এই চারটি পদ্ধতি একসাথে শেয়ার করে দিলাম। তবে আমার পরামর্শ হচ্ছে যাদের কম্পিউটার আছে তারা অবশ্যই কম্পিউটার এর মাধ্যমে রুট করে নিবেন। কারণ কম্পিউটার এর মাধ্যমে রুট করা সবচেয়ে সহজ এবং নিরাপদ।
T
রুট কিঃ শব্দটি এতোই প্রচলিত হয়ে গেছে যে, রুট ইউজার বলার বদলে সবাই এটিকে সরাসরি রুট বলে থাকে। সবচেয়ে সহজ শব্দে বলা যায়, রুট হচ্ছে অ্যাডমিনিষ্ট্রেটর বা প্রশাসক। যদিও এর বাংলা অর্থ গাছের শিকড়, লিনাক্সের জগতে রুট বলতে সেই পারমিশন বা অনুমতিকে বোঝায়, যা ব্যবহারকারীকে সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী করে তোলে। রুট হচ্ছে একটি অ্যাডমিনিষ্ট্রেশন পারমিশন বা অনুমতি। এই অনুমতি থাকলে ব্যবহারকারী সেই ডিভাইসে যা ইচ্ছে তাই করতে পারেন। উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে ব্যবহারকারী অ্যাডমিনিষ্ট্রেটর প্রিভিলেজ ছাড়া সিস্টেম ফাইলগুলো নিয়ে কাজ করতে পারেন না। লিনাক্সেও তেমনি রুট পারমিশন প্রাপ্ত ইউজার ছাড়া সিস্টেম অ্যাডমিনিষ্ট্রেশনের কাজগুলো করা যায় না। যিনি লিনাক্স-চালিত কম্পিউটার বা সার্ভারে যা
ইচ্ছে তাই করতে পারেন অথবা যার সব কিছু করার
অনুমতি রয়েছে, তাকেই রুট ইউজার বলা হয়। নিচে
আমি বর্ণনা করবো কিভাবে রুট করতে হয়।

× আপডেটঃ টিউনটি সর্বশেষ ২৪/১১/২০১৬ তারিখে
আপডেট করা হয়েছে।

প্রথম পদ্ধতী – মোবাইলের মাধ্যমে
রুটঃ

এ পদ্ধতীতে দেখাবো কিভাবে Kingroot অ্যাপ
দিয়ে মোবাইলের মাধ্যমে খুব সহজে আপনার
এন্ড্রয়েড ফোন রুট করবেন। এন্ড্রয়েড
ফোন রুট করার জন্য বর্তমান সময়ে এটি খুবই
সহজ এবং জনপ্রিয় একটি অ্যাপ। এটি শুরুর দিকে Chines
Version ছিল। অল্প কিছু দিন হয়েছে এর English
Version বের হয়েছে। এটি দিয়ে মাত্র এক ক্লিক
করেই আপনার ফোনটি রুট করতে পারবেন। এটি
দিয়ে অনেকট আপডেট ভার্সন পর্যন্ত রুট করা
সম্ভব।
প্রথমে এখান থেকে (4.9.6 Updated) অ্যাপটি ডাউনলোড 😉 :\ :/ 🙂

করে ইনস্টল করুন। (নোটঃ
সম্প্রতি এই App টির Developer Team বলছেন এটি
দিয়ে এন্ড্রয়েড 2.3 থেকে শুরু করে
সর্বশেষ ভার্সন 6.1 পর্যন্ত রুট করা যাবে)।

ইনস্টল হওয়ার পর অ্যাপটি অপেন করলে
কিছুক্ষনের মধ্যে আপনার মোবাইলটি স্ক্যান
হবে এবং নিচের চিত্রটি শো করবে। রুট করার
জন্য অবশ্যই আপনার মোবাইলের ইন্টারনেট
একটিভ করে রাখবেন।
Tasnim
$$$$ এখানের নীল রংয়ের Try it বাটনে ক্লিক করলে
ফোনের রুট Status Verify শুরু করবে।$$$

tasnim
উপরের চিত্রের নীল কালারের Start Root
বাটনে ক্লিক করলে আপনার মোবাইল রুট হওয়া
শুরু করবে।

t

$$$$ উপরের চিত্রটিতে ১০০% না হওয়া পর্যন্ত
অপেক্ষা করতে হবে। এটি কমপ্লিট হতে ২/৩
মিনিট সময় নিতে পারে। ১০০% হয়ে গেলে
নিচের চিত্রেরমত Success ম্যাসেজ শো
করবে।$$

t
এখন আপনার মোবাইলটি Restart করুন। That’s all.
এরপর শুধু KingUser টি রেখে বাকী সব Extra
অ্যাপ Uninstall করতে পারেন।

দ্বিতীয় পদ্ধতী – মোবাইলের মাধ্যমে
রুটঃ


এই পদ্ধতীতে মোবাইলের মাধ্যমে
এন্ড্রয়েড ফোন রুট করার জন্য আপনাকে
Framaroot নামের এই অ্যাপটি ব্যবহার করতে
হবে। এটি “আল্পাজেইন” নামক একজন
এন্ড্রয়েড ডেভেলপার তৈরী করেছেন, যিনি
XDA Forums এর একজন জনপ্রিয় এন্ড্রয়েড
ডেভেলপার। মোবাইল রুট করার জন্য এটি একটি
সহজ উপায়। কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই বলতে
গেলে মাত্র এক ক্লিকেই আপনার মোবাইল রুট
করে নিতে পারবেন। এই অ্যাপটির মাধ্যমে
এন্ড্রয়েড এর 2.00 থেকে 4.4.4 ভার্সন
ব্যবহারকারীরা রুট করতে পারবেন। এর পরের
ভার্সন ব্যবহারকারীরা এটি দিয়ে রুট করতে
পারবেন না। তাই বলে হতাশ হবেন না। আমার
টিউনটির ৪র্থ পদ্ধতীর মাধ্যমে যে কোন
ভার্সন রুট করতে পারবেন।
‘ প্রথমে এখান থেকে Framaroot (1.9.3
Updated) অ্যাপটি ডাউনলোড করে নেন।

তারপর আপনার কাঙ্খিত মোবাইলে অ্যাপটি ইনস্টল
করুন।
এরপর অপেন করে নিচের চিত্রে মত ‘Install
SuperSU’ সিলেক্ট করে Gandalf এ ক্লিক করুন।
এখন কিছুক্ষণ অপেক্ষা করলে নিচের চিত্রের
মত ম্যাসেজ শো করবে ”Success- Superuser
and SU binary installed. You have to reboot your
device” তার মানে হচ্ছে আপনার রুট করা
হয়েগেছে। এখন আপনার মোবাইল ফোনটি
রিষ্টার্ট করতে হবে।
t
এই হচ্ছে মোবাইলের মাধ্যমে এন্ড্রয়েড
মোবাইল রুট করা একটি সহজতর উপায়। এখন
আপনাদের দেখাবো কম্পিউটার এর মাধ্যমে
কিভাবে এন্ড্রয়েড মোবাইল রুট করতে হয়।

পরের পর্বে ৩য়ও৪থ পর্ব দিবো

Report

About Post: 22081

TrickBD

(যদি জানো ( জানাও ) নয়ত জানো)

Leave a Reply