Ping কি? আপনার জন্য কোনটি বেশি গুরুত্বপূর্ণ। লো পিং রেট নাকি হাই স্পীড ব্যান্ডউইথ রেট? (প্রত্যেকটি গেমারের এবং ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল)
আপনার আইএসপি বা ব্রডব্যান্ড কোম্পানি আপনার কাছে প্রত্যেক সেকেন্ডে প্রতি কিলোবিট বা মেগাবিট স্পীড আকারে ইন্টারনেট বিক্রি করে। কোন ইন্টারনেট কানেকশনে কেবিপিএস বা এমবিপিএস বাদেও আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ টার্ম রয়েছে, আর তা হলো পিং (Ping) বা লেটেন্সি। আসলে “পিং” হলো একটি পরিমাপ করার স্ট্যান্ডার্ড, যা এটা পরিমাপ করতে সাহায্য করে যে, আপনার ক্লায়েন্ট ডিভাইজ (ল্যাপটপ, ডেক্সটপ, ট্যাবলেট, মোবাইল) থেকে ইন্টারনেট সার্ভারে সংযুক্ত হতে আপনার কতটা সময় লাগছে। আবার পিং কে কেবল একটি কম্যান্ড লাইন ও বলতে পারেন, যা প্রত্যেকটি প্রধান অপারেটিং সিস্টেমে রয়েছে। যেমন উইন্ডোজ পিসি তে কম্যান্ড প্রমট ওপেন করে “পিং” টেস্ট করতে পারেন।

আপনি ইন্টারনেটে যাই করুন না কেন—কোন ফাইল ডাউনলোড করুন, অনলাইন গেমিং করুন, ট্রিকবিডি থেকে আর্টিকেল পড়ুন, আপনার ব্রাউজারের প্রত্যেকটি ক্লিকে আপনাকে Ping এর সাথে মুখোমুখী হতে হবে। কোন ওয়েব সার্ভারের সাথে দ্রুত কানেক্ট হতে অবশ্যই কম পিং রেটের গুরুত্ব সবচাইতে বেশি, এতে কতো কেবিপিএস বা এমবিপিএস কানেকশান ব্যবহার করছেন তাতে কোন যায় আসে না, তবে একবার সার্ভারের সাথে কানেক্ট হয়ে গেলে, সার্ভার থেকে প্যাকেট গুলো (ইমেজ, টেক্সট, কোড) দ্রুত আপনার ডিভাইজ পর্যন্ত পৌঁছাতে কেবিপিএস বা এমবিপিএস এর ভূমিকা রয়েছে। তো চলুন, আজকের বিষয়টি থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলো আরোহণ করার চেষ্টা করি।

পিং কোথায় ব্যবহৃত হয়?


“পিং” মানে যে শুধু দুটি কম্পিউটারের মাঝে কানেক্ট হওয়ার সময় তাই না, এটি পরিমাপ করে একটি কম্পিউটার থেকে আরেকটি কম্পিউটারে প্রত্যেকটি প্যাকেট কতো সময়ে রিসিভ হয়। প্যাকেট সম্পর্কে না জানলে ইন্টারনেট কীভাবে কাজ করে আর্টিকেলটি পড়তে পারেন। আপনি হয়তো লক্ষ্য করে দেখেছেন, আপনি যখন কোন ওয়েবসাইটে ক্লিক করেন ওপেন করার জন্য, এটি কিন্তু সাথেসাথে লোড নেয় না, আবার ওয়েবসাইটটি একবার খোলার পড়ে যখন অন্য কোন পেজে ক্লিক করেন তখনও এটি কিছু সময় নেয়, আর এটাই হলো লেটেন্সি

চলুন ব্যাপারটাকে আরেকটু পরিষ্কার করার জন্য একটি উদাহরণ নেওয়া যাক, মনে করুন আপনি একটি পানির পাম্পের মুখে একটি নল লাগালেন, আপনার বাগানের গাছে পানি দেওয়ার জন্য। আপনি যখন পাম্পটি স্টার্ট করবেন তখন সাথেসাথে কিন্তু পানি নলের আরেক প্রান্ত দিয়ে পড়তে শুরু করবে না, প্রথমে নলটি আগে পানি দ্বারা পরিপূর্ণ হবে এবং পরে আরেকদিন দিয়ে পানি পড়তে শুরু করবে। তো পাম্পের মুখ থেকে নলের আরেক প্রান্ত পর্যন্ত পানি আসতে যে দেরি লাগলো সেটিই হলো লেটেন্সি। আর দুটি কম্পিউটারের মধ্যের সংযুক্ত হওয়ার এই লেটেন্সিকেই পিং পরিমাপ করে। অনেকে “পিং” এবং লেটেন্সিকে একই মনে করে, আসলে দুইটি জিনিষ একই হলেও তা এক নয়। “পিং” হলো লেটেন্সি পরিমাপ করার একটি মাপ এবং “লেটেন্সি” হলো সার্ভার এবং ক্লায়েন্টের মাঝে সংযুক্ত হওয়ার সময়।

পিং রেট কতটা গুরুত্বপূর্ণ?

আমি আগেই উল্লেখ করেছি যে, কোন সার্ভারের সাথে বা কোন ওয়েব সাইটের সাথে দ্রুত কানেক্ট হওয়ার জন্য পিং এর গুরুত্ব সবচাইতে বেশি। মনেকরুন, আপনার অফিসের ইন্টারনেট স্পীড ২০এমবিপিএস, কিন্তু ঐ কানেকশনের পিং-রেট ২০০এমএস (মিলি-সেকেন্ড)। আবার ধরুন আপনার বাসার ইন্টারনেট স্পীড ১০এমবিপিএস কিন্তু এই কানেকশনের পিং-রেট ২০এমএস, তাহলে কোনটা উত্তম? আসলে পিং-রেট বা ব্যান্ডউইথ স্পীডের উপর নির্ভর করে এই প্রশ্নের সঠিক উত্তরটি দেওয়া সম্ভব নয়। এটি নির্ভর করবে, আপনি ইন্টারনেট কানেকশনটি দিয়ে কি করছেন, তার উপরে। যদি আপনি অনলাইন গেমিং করেন, তবে সেখানে কম পিং-রেটের গুরুত্ব অনেক বেশি, এখানে শুধু ব্যান্ডউইথ স্পীড থাকলেই হবে না। আপনার পিং-রেট যদি অনেক বেশি হয়, তবে গেমে আপনার প্রদানকৃত ইনপুট গেম সার্ভারটির কাছে পৌঁছাতে অনেক দেরি হয়ে যাবে। ফলে দেখা যাবে কোন অ্যাকশন গেমে আপনি গুলি করেছেন কিন্তু তার আগে আপনাকেই কেউ গুলি মেরে দিয়েছে, আপনি হয়তো ঠিক সময়েই গুলি করেছিলেন, কিন্তু আপনার কম্যান্ডটি সার্ভারের কাছে পৌঁছাতে গিয়ে দেরি হয়ে গেছে—কেনোনা আপনার লেটেন্সি বা পিং-রেট অনেক বেশি। আর এই জন্য অনলাইন গেম বা মাল্টিপ্লেয়ার গেম গুলোতে স্ক্রীনে পিং-রেট বা লেটেন্সি শো করে।

আবার অন্যদিকে আপনি যদি একজন সাধারন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী হোন, মানে সাধারন ইন্টারনেট ব্রাউজিং, ডাউনলোড, ভিডিও স্ট্রিম করার জন্য ইন্টারনেট ব্যবহার করেন তবে পিং-রেটের চাইতে আপনার প্রয়োজন পড়বে বেশি ব্যান্ডউইথ স্পীড। আপনার পিং বেশি হলে হয়তো প্রত্যেকটি পেজ আসতে একটু দেরি হবে, যদিও লোড নিতে দেরি হবে না, কিন্তু আপনি যখন কোন ফাইল ডাউনলোড করবেন বা ইউটিউব ভিডিও প্লে করবেন তখন ব্যান্ডউইথ স্পীডই সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হবে। বেশি পিং-রেটে প্যাকেট গুলোর সাথে কানেক্ট হতে একটু সময় লাগতে পারে, কিন্তু একবার কানেক্ট হয়ে গেলে তা দ্রুত আপনার কম্পিউটারে পৌঁছাতে ব্যান্ডউইথ স্পীড কাজ করবে। তবে এখানেও একটি ব্যাপার রয়েছে, মনেকরুন আপনি একসাথে ব্রাউজারে অনেক গুলো পেজ ওপেন করে রেখেছেন, এবং কিছু কিছু পেজ ব্যাকগ্রাউন্ডে রিফ্রেস হচ্ছে তবে এই কাজটি করতে আপনার কম্পিউটারকে একসাথে বহুত ইনকামিং এবং আউটগোয়িং ট্র্যাফিকের সাথে কাজ করতে হচ্ছে, এখন এখানে যদি লেটেন্সি বেশি থাকে তবে ঠিক মতো ওয়েব ব্রাউজ করতেই পারবেন না।এখানে পিং-রেটের গুরুত্ব বেশি।

পিং-রেট কম বেশি কেন হয়?

বিভিন্ন আইএসপি বা বিভিন্ন সার্ভারের পিং-রেট বা রেসপন্স টাইম বা লেটেন্সি কম বেশি হওয়ার উপরে অনেক গুলো বিষয় নির্ভর করে। আপনি যে ওয়েব সার্ভার থেকে প্যাকেট রিসিভ করতে চাচ্ছেন, সেই সার্ভার যদি অনেক দূরে থাকে তবে পিং-রেট বেড়ে যেতে পারে। আবার সার্ভার এবং আপনার কম্পিউটারের মাঝের কানেকশনে যেমন ফাইবার অপটিক ক্যাবল যদি খারাপ হয়, তবেও পিং-রেট বেড়ে যেতে পারে। আপনার ব্রডব্যান্ড কানেকশনের পিং-রেট ১এমএস হলেই যে আপনি যেকোনো সার্ভারের সাথে ১এমএস পিং-রেটেই কানেক্ট হতে পারবেন, এমনটা কিন্তু নয়। যদি সার্ভারের পিং-রেট বেশি হয় বা সার্ভারটি অনেক দূরে থাকে তবে আপনার ১মএস পিং-রেট হয়েও লাভ নেয়।

জিরো পিং-রেট কি সম্ভব?

এক কথায় উত্তর দিতে গেলে জিরো পিং-রেট কখনোয় সম্ভব নয়। পদার্থ বিজ্ঞান অনুসারে যেমন প্রত্যেকটি বস্তু কোথাও থেকে আসতে কোন নির্দিষ্ট সময় লাগে ঠিক তেমনি ডাটা প্যাকেট গুলোকেও এক কম্পিউটার থেকে আরেক কম্পিউটার পর্যন্ত আসতে কিছু সময় লাগবে। আপনার সার্ভারটি যতো কাছেই হোক না কেন এমনকি আপনার হোম সার্ভার বা আপনার লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্কে থাকা কোন কম্পিউটারকে পিং করলেও সেটি থেকে জবাব আসতে ১-২ মিলিসেকেন্ড লেগে যাবে।

আপনি যতো উন্নত ফাইবার অপটিক ক্যাবলই ব্যবহার করুন না কেন সেটি দিয়েও ডাটা প্যাকেট আলোর গতির চাইতে বেশি দ্রুত আসতে পারবে না। তবে আপনার নিজের কম্পিউটারে ping localhost কম্যান্ড ব্যবহার করে নিজে থেকে পিং করলে পিং-রেট জিরো দেখায়। তবে ব্যস্তবিকভাবে এটিও সত্য নয়—কেনোনা আপনার কম্যান্ডটি প্রসেস করতে কম্পিউটারের সফটওয়্যারের কিছু সময় লেগেছে, যদিও সেই সময় অতি সামান্য তবেও সেটি জিরো হতে পারে না।

তাই বলা যেতে পারে, ব্যস্তবিকভাবে, বৈজ্ঞানিক ভাবে, বা তাত্ত্বিকভাবে কোন ভাবেই জিরো পিং-রেট সম্ভব নয়। তবে ভবিষ্যতে আমরা নেটওয়ার্ক লেটেন্সি অনেক কমিয়ে এনে আরো ভালো এবং উপযুক্ত ইন্টারনেট তৈরি করতে পারবো এতে কোন সন্দেহ নেই।

শেষ কথা,

তো এই ছিল আজকের পোস্ট, জানি হয়তো কিছু বিষয় একটু ট্যাঁরা প্রকৃতির ছিল, তারপরেও হয়তো আমি সফলভাবে বোঝাতে সক্ষম হয়েছি। এখন থেকে আপনি নিশ্চয় জানলেন যে, আপনার বেশি ব্যান্ডউইথ স্পীড প্রয়োজন, নাকি কম পিং-রেট প্রয়োজন।
যদি কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে আমাকে কমেন্ট সেকশনে জানান।

কোন প্রয়োজনে আমার ফেসবুক আইডিঃ S.m Tariqul Islam Anny.

28 thoughts on "পিং(Ping) বা লেটেন্সি কি প্রত্যেক গেমার এবং ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট।"

  1. Saif Mohammad Mad Techer Contributor says:
    good post.keep it up!
    ??????
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      Thanks Brother.
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      Thankyou Brother.
  2. Shifat Hossin Shifat Contributor says:
    খারাপ না
  3. Shifat Hossin Shifat Contributor says:
    Tnx Er Ki ace..Ajob.??
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      Ekhane ajober kichu nai. Apnar kache kharap lage ni. Samanno holeo valo legece. Ei Compliment er joono thanks disi. 🙁
  4. C:\> IT Expert Author says:
    Another great post as I expected from you. Thank you so much. 🙂
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      Thankyou Bhai. Apni amake onek proshongsha koren tai ami valo kichu post dite pari. 🙂 Thanks again.
      1. C:\> IT Expert Author says:
        ????????
        আপনি পোষ্টই এমন করেন , যে প্রশংসা না করে থাকা যায় না। সত্যি বলছি।। আপনার যে কয়টি পোষ্টই আমি দেখেছি. খুব ভালো লেগেছে
        1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
          ধন্যবাদ ভাই। ?
  5. shuvo shuvo Contributor says:
    ভালো জিনিস☺।যদিও প্রথমে কিছু বুঝি নাই।মাঝখানে আসতে আসতে সব ক্লিয়ার হয়ে গেল?
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      Dhonnobad valo kore bujar jonno. 🙂
  6. Risat mouddit Contributor says:
    Full Copybazz author
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      Tiki Bolecen copy. Ei ping ami banay ni. Ei gulo ami net+book teke jenechi. Ar ei eita ami nijer moto kore explain korechi ar bujanur chesta korechi. Shudu Ping Jinis ta ki eta bujanur jonno. Ekon copy koreo jodi bujate pari tahole copy valo.
      1. Risat mouddit Contributor says:
        Tumi nije likhle to ar tomake copybazz boltam na.pura post e hubohu gob theke copy kora.ai post ar akta sentence o tomar nijer na.ar por theke mansommoto post koro copy cara.
        1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
          Tiki Bolecen. Eta GOB ei post hoice. Tar age eta Techubs ei post hoice. Ar ami techubs er ekjon author. Tarpor apni GOB ei dekechen.
  7. Arafat Contributor says:
    দারুন পোস্ট
  8. Hasibor Rahaman Hasibor Rahaman Contributor says:
    ping এর হিসাব টা কি রকম।।কতো হলে ভালো।মানে মনে করেন আমার এক wifi লাইন এ ping আছে ১০০ এবং অন্যটাতে ping ১০ তাইলে কোন ping টা ভালো।১০ নাকি ১০০?গেমিং এর জন্য 4mbps এ কতো ping সঠিক মাপের??!
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      First Read the post carefuly. Karon Apni Internet dia ki korben tar upor nirvor kore ping besi dorkar na kom dorkar.
      1. Hasibor Rahaman Hasibor Rahaman Contributor says:
        vai..ja e kori na kno..ami post pore eyta bojhi ny ty e jigylam..ping ki beshi hole (100+) hole valo..naki (100-) hole valo..ami jey kaj e kori…
        1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
          Na Ping Kom hole valo. Tobe ping kokono -\Minus ei jabe na. Plus ei takbe. Tobe joto kom hobe tahole toto fast apnar command server ei jave.
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      Thankyou Brother.
  9. Risent Risent Contributor says:
    গেম খেলতে কত পিং প্রয়োজন?
    1. S.m Tariqul Islam Anny S.m Tariqul Islam Anny Author Post Creator says:
      গেমস খেলতে যত কম পিং হবে ততই আপনার জন্য ভালো হবে। তাতে গেমস তত ফাস্ট কমান্ড গ্রহণ করতে পারবে।

Leave a Reply