Home » Seo tricks » Off page Seo বেসিক এর সাথে পরিচিতি [লেকচার পর্ব ৩]

2 months ago (Feb 02, 2017) 288 views

Off page Seo বেসিক এর সাথে পরিচিতি [লেকচার পর্ব ৩]

Category: Seo tricks Tags: by

আশাকরি ভালো আছেন। আমি তরিকুল ইসলাম (তুষার) আপনাদের জন্য নিয়ে আসলাম এসইও এর পরিপূর্ণ টিউটোরিয়াল যারা নিজেদের সাইটে এসইও করতে চান তারা আমার টিউটোরিয়াল গুলো দেখে খুব সহজে করতে পারেন।

যারা আগের টিউন পড়েন নি তারা এখান থেকে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করে দেখে নিতে পারেন:

On Page seo সম্পর্কে আমরা পূর্বে জেনেছি। আশা করি এটা সম্পর্কে আপনাদের মোটামুটি একটা ধারণা দিতে পেরেছি। আমরা আজ Off page seo সম্পর্কে জানবো।

Off Page Seo

আশা করি আপনাদের off page seo এর সহজ সংজ্ঞা মনে আছে, অন্যরা আপনার ওয়েবসাইট সম্পর্কে যা বলছে সেটাই হল Off Page Seo।
যখন আপনি মনে করবেন যে হ্যা আমার on page এর কাজ শেষ, তখন কিন্তু আপনার চুপ করে বসে থাকলে হবেনা, তখন থেকে আপনার off page seo এর কাজ করতে হবে। অফ পেজ এসইও এর প্রধান কাজ হল ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করা। কে কতভাবে তার creativityকে কাজে লাগিয়ে Backlink তৈরি করতে পারে।

বিঃদ্রঃ Off page seo কিন্তু আগের মত নেই, তার মানে আপনি একরাতে ৫০০০লিঙ্ক করলেন আর গুগল এ TopRank এ চলে গেলেন, এমন কিন্তু নয়। Google অনেক স্মার্ট, তাই আপনার ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করতে হবে ঠিকই, কিন্তু সেটা দেখে যেন মনে হয় natural link building। আরো অনেক ব্যাপার অবশ্য খেয়াল রাখতে হয় যেমন- লিঙ্ক পপুলারিটি, পেজ অথরিটি ইত্যাদি।
আপনি যদি Natural way তে লিঙ্ক বিল্ড করতে পারেন তাহলে আপনি বেনিফিটেড হবেন অন্যথায় আপনার র‌্যাঙ্ক করার সুযোগ ক্ষীণ হয়ে যাবে।

কিভাবে ন্যাচারাল লিঙ্ক বিল্ড করবেন?

এখন আমি আপনাদের ন্যাচারাল লিঙ্ক বিল্ড সম্পর্কে কিছু আইডিয়া দেয়ার চেষ্টা করবো। আশা করি সেগুলো নিয়ে ভালভাবে চিন্তা করলেই আপনারাও অনেক নতুন নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবন করতে পারবেন।

  • ১. মনে করুন কেউ একরাতে ১০০০ লিঙ্ক বিল্ড করলো, তার অর্থ বের করতে পারবেন- আসলে কি ঘটেছে। এটা বলা খুবই সহজ কাজ, হয় সে কারোর কাছ থেকে টাকা দিয়ে লিঙ্ক গুলো কিনেছে অথবা সে হয়তো ২০০ লোককে টাকা দিয়ে প্রতিজনের কাছ থেকে ৫ টা করে লিঙ্ক নিয়েছে অথবা এরকম আরো অনেক কিছু ঘটতে পারে। তার অর্থ কেউ তাকে ভালোবেসে বা তার কন্টেন্ট ভাল বলে ব্যাকলিঙ্ক দেয়নি, ব্যাকলিঙ্ক দিয়েছে টাকার বিনিময়ে, আর এটা তো কোন ন্যাচারাল ঘটনা না। এটা ঘটানো হয়েছে কৃত্রিমভাবে। তাই গুগল যখন দেখে যে কেউ রাতারাতি অনেক ব্যাকলিঙ্কের মালিক হয়ে গিয়েছে তখন গুগল এটাকে ভালভাবে নেয়না। যে কোন সময় আপনার ওয়েবসাইটকে পেনাল্টি করতে পারে।
    এখানেও অবশ্য সেই প্রবাদ বাক্য খাটে Old is gold. যেমন ধরুন Wikipedia যদি একদিনে ৫০০০হাজার ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করে তাও গুগল কিছু মনে করবে না করবে কারন এটা অনেক পুরনো ও ইনফরমেটিভ একটা সাইট কিন্তু আপনার নতুন সাইটে আপনি দিনে ১০০লিঙ্ক তৈরি করলেও পেনাল্টির শিকার হতে পারেন। কাজেই সাবধান। নিজেকে জিজ্ঞাসা করুন – একদিনে আপনার দ্বারা কতটি Link তৈরি করা সম্ভব – সেই কয়টাই লিঙ্ক তৈরি করুন তার বেশি তৈরি করতে যাবেন না ধরা খাবেন।
  • ২. আবার ধরুন আপনার সাইট একদম New একটা সাইট আপনি চিন্তা করলেন, হ্যা আমি দিনে ১০টা ব্যকলিঙ্ক তৈরি করব তাহলেত natural flow থাকবে। হ্যা এটা ন্যাচারাল কিন্তু চিন্তা করেছেন ব্যাকলিঙ্ক মানে কি, ব্যাকলিঙ্ক মানে হল অন্যের কাছ থেকে লিঙ্ক পাওয়া। আমি যা বলতে চাচ্ছি তাহলো, আপনার siteএ যদি প্রতিদিন unique visitor থাকে ৫জন, আর আপনি যদি ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করেন তার ডাবল তার অর্থও এটা দাড়াল যে এটা Natural flow না হয় আপনি নিজে তৈরি করছেন নয়তো অন্য কাউকে দিয়ে তৈরি করাচ্ছেন। তাহলে আপনি কি করবেন? সবচেয়ে উচিৎ হবে আপনি যদি আপনার সাইটে যে পরিমান ভিজিটর হয় তার তিন ভাগের এক ভাগ ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করেন। যেমন আপনার ভিজিটর যদি ৫০জন হয় তাহলে আপনি দৈনিক ১৫-২০টা ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করতে পারেন। আশা করি আস্তে আস্তে আপনাদের ধারনা গুলি পরিষ্কার হচ্ছে। আমি হয়ত অনেক সময়, সময়ের অভাবে আপনাদের সব টার্ম সর্ম্পকে বলতে পারব না বা হয়ত আমার মনে নাও থাকতে পারে তাই নতুন কোন শব্দ যদি আমি ব্যবহার করি আর আপনাদের বুঝতে যদি কষ্ট হয় তবে অনুগ্রহ পূর্বক গুগলে সার্চ করবেন। আশা করি ১নম্বর রেজাল্ট এই শব্দগুলোর অর্থ পেয়ে যাবেন। যেমন- এখানে আমি Unique visitor শব্দটা ব্যবহার করেছি কিন্তু কোন ব্যাখ্যা দেইনি।
  • ৩. তারপর মনে করুন আমাদের উদাহরণ এর সাইটটার প্রধান কিওয়ার্ড হল My Kindle reviews, তাই আপনারা যদি মনে করেন হ্যা আমার সমস্ত ব্যাকলিঙ্ক এর Anchor text এ my kindle reviews লেখা থাকবে। তাহলে আপনি মস্ত বড় ভুল করবেন। কারন একটা সাইটের সমস্ত ব্যাকলিঙ্ক এর anchor text একই হতে পারে না, তাই গুগল সহজেই ধরে ফেলবে যে আপনি keyword stuffing করছেন। তাই Anchor text ব্যবহার করার সময় খেয়াল রাখুন যেন এতে variation থাকে। যেমন: হয়ত ৩০% exact keyword ব্যবহার করলেন, 20% broad match, 20% LSI keyword (electronic reading device এটা kindle এর সাথে related কিন্তু একটু অন্যভাবে, lsi keywords finder দিয়ে গুগল করেন), ৩০% general keyword (click here, check out this etc). আপনি যদি আপনার সাইটের Anchor text এভাবে বিন্যাস করেন তাহলে সেটা অনেক বেশি ন্যাচারাল হবে। বেশি Long tail keyword গুলো ব্যবহার করুন।
  • ৪. আপনার আর্টিকেল এর ট্যাগ হিসেবে ৩টার বেশি কিওয়ার্ড ব্যবহার করবেন না।
  • ৫. আপনার সাইটের Dofollow এবং Nofollow ব্যাকলিঙ্ক এর একটা সমন্বয় করুন যেন Nofollow backlink অনেক বেশি না হয়ে যায়।
  • ৬. সব ধরনের Top level domain থেকে ব্যাকলিঙ্ক নিন, যেমন: .com, .net, .org, .edu ইত্যাদি। সব ধরনের ব্যকলিঙ্ক যদি আপনার থাকে তাহলে এটা অনেক বেশি ন্যাচারাল হবে।
  • ৭. প্রতিদিন কিছু কিছু লিঙ্ক তৈরি করুন। কারন আপনি যদি একদিনে ১০০ আর তারপর হয়ত একসপ্তাহ কোন লিঙ্ক তৈরি করলেন না, তাহলে গুগল এটাকে suspicious activity হিসেবে গণ্য করবে।
  • ৮. আপনার সোশ্যাল সাইটের একটিভিটির পরিমান বৃদ্ধি করুন।
  • ৯. বিভিন্ন ধরনের কন্টেন্ট তৈরি করুন যেমন: ভিডিও, অডিও, পাওয়ার পয়েন্টে প্রেজেন্টেশন, পিডিএফ এবং এই কন্টেন্ট গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইটে পাবলিশ করুন সেখান থেকে ব্যাকলিঙ্ক পাবেন আবার ভিজিটরও পাবেন। এমন কয়েকটা সাইট হতে পারে, youtube.com, vimeo.com, slideshare.net, odiogo.com ইত্যাদি।

 

Report

About Post: 17424

Toriqul Islam Tusher

Professional SEO Expert At (Finch Data Soft)

2 responses to “Off page Seo বেসিক এর সাথে পরিচিতি [লেকচার পর্ব ৩]”

  1. Biddut hossen Biddut hossen (Contributor) says:

    Vaia amer phone es file inistall nescana .app not inistall bolca.phone restart deace.but hosca na .kao parla help Koran.plz

Leave a Reply