Home » Uncategorized » [History Of The Day] আজ ৬ মার্চ ২০১৭, দেখে নিন এই দিনের ইতিহাস।

5 months ago (Mar 06, 2017) 262 views

[History Of The Day] আজ ৬ মার্চ ২০১৭, দেখে নিন এই দিনের ইতিহাস।

Category: Uncategorized Tags: , by


১৯৫৬ সালের এই দিনে মরক্কো ফ্রান্সের কাছ থেকে স্বাধীনতা পুনরুদ্ধার করে ।
• ১২৫২ সালের এই দিনে ইতালির সাধু রোজের জন্ম ।
• ১৪৫৯ সালের এই দিনে জার্মান ব্যবসায়ী ও ব্যাংকার জ্যাকবের জন্ম ।
• ১৪৭৫ সালের এই দিনে ইতালির চিত্রশিল্পী, স্থপতি ও কবি মাইকেলেঞ্জেলোর জন্ম ।
• ১৫০৮ দ্বিতীয় মুঘল সম্রাট হুমায়ুনের জন্ম।
• ১৫২২ সালের এই দিনে জার্মানীর ক্যাথলিক ও প্রোটেস্টান্টদের দ্বিতীয় বারের মত বড় ধরনের যুদ্ধ অনুষ্ঠিত হয় ।
• ১৭৭৪ সালের এই দিনে রোমক সম্রাট ও ফ্রান্সের রাজার মধ্যে রাস্টাড শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় ।
• ১৭৭৫ সালের এই দিনে রঘুনাথ রাও ও ব্রিটিশ রাজের মধ্যে সুরাট চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় ।
• ১৭৮৭ সালের এই দিনে একজন জার্মান আলোকবিজ্ঞানী ইয়োসেফ ফন ফ্রাউনহোফার জন্মগ্রহন করেন ।
• ১৭৯৯ সালের এই দিনে নেপোলিয়ন প্যালেস্টাইনের জাফা দখল করেন
• ১৮০৬ সালের এই দিনে ইংরেজ কবি এলিজাবেথ বেরেট ব্রাউনিংয়ের জন্ম।
• ১৮১২ সালের এই দিনে কবি-সম্পাদক ঈশ্বর গুপ্তের জন্ম।
• ১৮৩৬ সালের এই দিনে ১৩ দিনের অবরোধের পর মেক্সিকোর সেনাবাহিনীর হাতে টেস্কাসের সান এন্টোনিওর পতন। এ অভিযানে মোট নিহত হয় ১৮৬ জন।
• ১৮৯৯ সালের এই দিনে ফলিক্স হফম্যান অ্যাসপিরিন প্যাটেন্ট করেন ।
• ১৯০০ সালের এই দিনে জার্মান আবিস্কারক জি. ডায়মলার ৬৪ বছর বয়সে মারা যান ।
• ১৯০০ সালের এই দিনে ইংরেজ রসায়নবিদ জন ডালটনের মৃত্যু ।
• ১৯০২ সালের এই দিনে ব্রিটিশ সেনারা দায়িত্ব পালনকালে বা অন্য সময়ে চশমা ব্যবহারের অধিকার পায়।
• ১৯২৮ সালের এই দিনে কলম্বিয়ার নোবেলজয়ী ঔপন্যাসিক গাব্রিয়েল মার্কুয়েজের জন্ম।
• ১৯৩০ সালের এই দিনে লন্ডনে প্রথম হিমায়িত খাদ্য বিপণন শুরু হয়।
• ১৯৪৪ সালের এই দিনে মার্কিন বাহিনী দিবালোকে বার্লিনে বোমাবর্ষণ শুরু করে।
• ১৯৫৭ সালের এই দিনে ঘানা স্বাধীনতা লাভ করে ডক্টর কাওয়াম নকরোমোর নেতৃত্বে।
• ১৯৬২ সালের এই দিনে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামী অম্বিকা চক্রবর্তীর মৃত্যু ।
• ১৯৭১ সালের এই দিনে মার্কিন ঔপন্যাসিক পার্ল এস বাকের মৃত্যু।
• ১৯৭৪ সালের এই দিনে রোমক সম্রাট ও ফ্রান্সের রাজার মধ্যে ‘রাস্টার্ড শান্তি চুক্তি’ স্বাক্ষরিত হয়।
• ১৯৭৫ সালের এই দিনে ইরান ও ইরাকের মধ্যে সীমান্ত বিরোধ নিরসন সংক্রান্ত আলজিয়ার্স চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
• ১৯৯৯ সালের এই দিনে যশোরের টাউন হলে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে টাইম বোমা বিষ্ফোরণ।
• ১৫২২ সালের এই দিনে জার্মানীর ক্যাথলিক ও প্রোটেস্টান্টদের দ্বিতীয় বারের মত বড় ধরনের যুদ্ধ অনুষ্ঠিত হয় । এ যুদ্ধেও প্রোটেস্টান্টরা পরাজিত হয়েছিল। অস্ট্রিয়ায় অনুষ্ঠিত এ যুদ্ধে স্পেন-সম্রাট শার্লকন, প্রুশিয়া ও অস্ট্রিয়া ছিল ক্যাথলিকদের নেতৃত্বে। অন্যদিকে প্রুশিয়া ও অস্ট্রিয়ার প্রটেস্টান্ট অধ্যুষিত শহরগুলোর শাহজাদারা ছিল প্রোটেস্টান্টদের নেতৃত্বে এবং তাদেরকে সমর্থন যুগিয়েছিল ফ্রান্স। এর আগে ১৫৪৬ সালে ক্যাথলিক ও প্রোটেস্টান্টদের মধ্যে প্রথম যুদ্ধ অনুষ্ঠিত হয় এবং ঐ যুদ্ধে প্রোটেস্টান্টরা শোচনীয়ভাবে পরাজিত হয়েছিল শার্লকনের হাতে। ষোড়শ শতকের প্রথম দিকে মার্টিন লুথার কিং প্রোটেস্টান্ট সম্প্রদায়ের গোড়া পত্তন করেন।
আজকের দিনে ফ্রান্স ও স্পেনের সাথে হেগের মহাজোট তথা বৃটেন, হল্যান্ড ও জার্মানীর ১৩ বছরের যুদ্ধের অবসান ঘটে। যুদ্ধশেষে অস্ট্রিয়া ও প্রুশিয়ার সম্রাট ষষ্ঠ শার্ল এবং ফ্রান্সের রাজা চতুর্দশ লুইয়ের মধ্যে সন্ধি-চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। ১৩ বছরের এ যুদ্ধের উস্কানীদাতা ছিল বৃটেন এবং এ যুদ্ধে উভয় পক্ষের হাজার হাজার সেনা নিহত হয়। তবে অন্য সবার চেয়ে এ যুদ্ধে ফ্রান্সই বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল।
• ১৯০০ সালের এই দিনে জার্মান আবিস্কারক জি. ডায়মলার ৬৪ বছর বয়সে মারা যান। তিনি মটরসাইকেলের আবিস্কারক এবং মটরগাড়ীসহ এক ধরনের বাস নির্মাণ শিল্পের রূপকারও এই ডায়মলার।
এ দিনে ইরানের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ও বৃটিশ উপনিবেশবাদীদের ক্রীড়নক আলী রাযম আরা মুসলিম বিপ্লবীদের হাতে নিহত হন। সাবেক এই জেনারেল প্রধানমন্ত্রী হবার পরও সেনাবাহিনীর ওপর নযরদারী বজায় রেখেছিলেন। দেশের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা এবং রাষ্ট্র পরিচালনায় তার দূর্নীতির কারণে ইরানের আলেম সমাজ তার প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছিল। যারা ইরানের সংসদে বসে বৃটেনের সূতোর টানে তেল সম্পদের জাতীয়করণে বাধা দিচ্ছিল এ ঘটনা ছিল তাদের প্রতি সতর্ক-সংকেত। তাহমাসবির আন্দোলন ও আলী রাযমের হত্যার পর সংসদে তেল সম্পদের জাতীয়করণ বিল অনুমোদিত হয় ।
• ১৯৫৭ সালের এ দিনে ঘানা স্বাধীনতা লাভ করে ডক্টর কাওয়াম নকরোমোর নেতৃত্বে। পঞ্চদশ শতকে ঘানায় পতূর্গালের ‌ঔপনিবেশিক শাসনের সূচনা হয়েছিল। এরপর স্বর্ণের খনির জন্য বিখ্যাত ঘানায় প্রতিষ্ঠিত হয় বৃটেনের ‌ঔপনিবেশিক শাসন। বিংশ শতকের মাঝামাঝি সময়ে ঘানার জনগণের স্বাধীনতা আন্দোলনের ফলে দেশটি স্বায়ত্তশাসন অর্জনের দিকে এগিয়ে যায়। এ আন্দোলনের পর সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হয়ে কাওয়াম নকরোমো প্রধানমন্ত্রী হন। তিনি ১৯৫৭ সালে ঘানার স্বাধীনতা ঘোষণা করেন ।
• ১৯৭৫ সালের এ দিনে ইরান ও ইরাকের মধ্যে সীমান্ত বিরোধ নিরসন সংক্রান্ত আলজিয়ার্স চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এ চুক্তি অনুযায়ী শাতিল আরব বা আরভান্দ নদীর সবচেয়ে গভীর স্থানকে সীমান্ত হিসেবে মেনে নেয় উভয় দেশ। এ চুক্তি অনুযায়ী ইরানের তৎকালীন শাহ সরকার ইরাকের কূর্দী বিদ্রোহীদের সহায়তা বা উস্কানী দেয়া বন্ধ করতে সম্মত হয়। কিন্তু ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামী বিপ্লবের পর এক বছর না যেতেই ইরাকের বাথিস্ট প্রেসিডেন্ট সাদ্দাম হোসেন আলজিয়ার্স চুক্তিকে বাতিল ঘোষণা করেন এবং ১৯৮০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ইরানে ইরাকী আগ্রাসন শুরু হয়। অবশ্য সাদ্দাম হোসেন ১৯৯০ সালে আলজিয়ার্স চুক্তিকে পুনরায় স্বীকৃতি দিতে বাধ্য হন ।
• ১১৭০ বছর আগে ২৬০ হিজরীর এ দিনে বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ)’র পবিত্র আহলে বাইত (আঃ)’র সদস্য হযরত ইমাম হাসান আসকারী (আঃ) শাহাদত বরণ করেন। ২৩২ হিজরীতে মদীনায় তাঁর জন্ম হয়েছিল। ইমাম হাসান আসকারী (আঃ)’র পিতা ছিলেন আহলে বাইত (আঃ)’র অন্যতম সদস্য হযরত ইমাম হাদী (আ:)। পিতার শাহাদতের পর তিনি মুসলমানদের সুপথ দেখানোর দায়িত্বপ্রাপ্ত বা ইমাম হন। হযরত ইমাম মাহদী(আ:)’র জন্মের কারণে ইমাম হাসান আসকারী (আঃ) ‘র ইমামত ছিল অত্যন্ত বিপদ-সংকুল। কারণ, আব্বাসীয় শাসকরা মুসলমানদের শেষ ইমামকে হত্যার জন্য সদা-প্রস্তুত ছিল। কিন্তু আল্লাহর অনুগ্রহে শেষ ইমাম ইমাম মাহদী(আ:) জন্ম গ্রহণ করেন এবং পিতার শাহাদতের পর লোকচক্ষুর অন্তরালে চলে যান । মহান আল্লাহর নির্দেশে তিনি আবার লেকাসমক্ষে ফিরে আসবেন এবং সারা বিশ্বে ন্যায়-বিচারে পরিপূর্ণ ইসলামী শাসন প্রতিষ্ঠা করবেন। ইমাম হাসান আসকারী (আঃ) বলেছেন, দুটি গুণ আল্লাহর কাছে অন্য সব কিছুর চেয়ে প্রিয়, প্রথমটি হল, আল্লাহর প্রতি ঈমান এবং অন্যটি হল ভাইয়ের বা মানুষের উপকার করা।



>>

Report

About Post: 19524

Arman Arif

I Love Trickbd Always {{{{{{{}}}}}}}

5 responses to “[History Of The Day] আজ ৬ মার্চ ২০১৭, দেখে নিন এই দিনের ইতিহাস।”

  1. Bittu Debnath Bittu Debnath (Author) says:

    Thanks..onek new kichu janlam

  2. Arman Arif Arman (Contributor) says:

    Thanks all

Leave a Reply