Home » Uncategorized » (জেনে রাখুন) বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী কিছু দেশ ও Powerful Army, এছাড়া মায়ানমার এবং বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর অবস্থান ও শক্তি?

2 months ago (Oct 25, 2017) 2,043 views

(জেনে রাখুন) বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী কিছু দেশ ও Powerful Army, এছাড়া মায়ানমার এবং বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর অবস্থান ও শক্তি?

Category: Uncategorized Tags: , , by

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা, ট্রিকিবিডিতে ট্রিক এর পাশাপাশি কিছু বিষয় জানা সবারই দরকার আর সেই জন্য আজকের পোস্ট


সামরিক শক্তিতে যার দৌড় বেশি, বিশ্বে তার কর্তাগিরি তত বেশি। এ ছাড়া নিজের দেশের সুরক্ষার বিষয়টা তো আছেই। তাই সামরিক শক্তিতে এগিয়ে থাকার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশের দৌড়ঝাঁপের শেষ নেই। নিজেদের অন্যদের থেকে শক্তিশালী প্রমাণে সব লেগে থাকে নতুন মারণাস্ত্র আবিষ্কার ও বেচা-কেনার প্রতিযোগিতা।

এই পাল্লায় বিশ্বের কোন দেশ কতটা এগিয়ে তার তালিকা তৈরি করেছে গ্লোবাল ফায়ারপাওয়ার ইনডেস্ক নামের একটি ওয়েবসাইট। ১৩৩ দেশের সামরিক বাহিনীর ৫০টি তথ্য বিশ্লেষণ করে ২০১৭ সালের জন্য তালিকাটি করা হয়েছে।

১৩৩টি দেশের মধ্যে প্রথম অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এর পরেই প্রথম দশের তালিকা দখল করেছে যথাক্রমে রাশিয়া, চীন, ভারত, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, জাপান, তুরস্ক, জার্মানি ও মিসর। তালিকায় শেষের পাঁচটি দেশ হলো, সেন্ট্রাল আফ্রিকা রিপাবলিক, মৌরিতানিয়া, সিয়েরালিয়ন, সুরিনাম ও ভুটান।

তালিকা তৈরি করতে গিয়ে দেশগুলোর মানবসম্পদ, প্রাকৃতিক সম্পদ, ভৌগোলিক গুরুত্ব, বিমান, নৌ ও সেনাবাহিনীর শক্তি ছাড়াও সৈন্যদের দক্ষতাকে বিবেচনায় নেওয়া হয়।

প্রকাশ করা নতুন এই তালিকা থেকে দেশগুলোর সামরিক শক্তির পার্থক্য স্পষ্টভাবে উঠে এসেছে। এতে যুদ্ধাস্ত্রের সঙ্গে সঙ্গে যুদ্ধ করার উপযোগী জনবলও বিবেচনায় নেওয়া হয়।

তালিকায় বাংলাদেশে রয়েছে ৫৭তম অবস্থানে। আর বর্তমানে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে বিরোধপূর্ণ সম্পর্কে থাকা প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমার রয়েছে ৩১ নম্বরে। দেখে নেওয়া যাক সামরিক শক্তিতে বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিস্তারিত-

▶যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত তালিকায় প্রথম অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির মোট সেনাসদস্য ২৩ লাখ ৬৩ হাজার ৬৭ ৫জন। রয়েছে পাঁচ হাজার ৪৮৪টি ট্যাংক, ৪১ হাজার ৬২টি বিভিন্ন ধরনের সাঁজোয়া যান, তিন হাজার ২৩৩টি কামান ও এক হাজার ৩৩১টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের যান। বিমানবাহিনীতে মোট বিমানের সংখ্যা ১৩ হাজার ৭৬২টি। দেশটির বিমানবাহিনীকে বিশ্বের সবচেয়ে আধুনিক হিসেবে ধরা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীতে রয়েছে ১৯টি বিমানবাহী রণতরী, আটটি ফ্রিগেট, ৬৩টি ডেস্ট্রয়ার ও ৭০টি সাবমেরিনসহ ৪১৫টি তরী।

▶রাশিয়া

যুক্তরাষ্ট্রের পর সামরিক শক্তির দিক থেকে এগিয়ে রয়েছে রাশিয়া। তবে মার্কিনিদের থেকে তাঁদের সেনা সদস্য অনেক বেশি। দেশটিতে মোট ৩৩ লাখ ৭১ হাজার ২৭ জন সেনা রয়েছে। রয়েছে ২০ হাজার ২১৬টি ট্যাংক, ৩১ হাজার ২৯৮টি বিভিন্ন ধরনের সাঁজোয়া যান, ১০ হাজার ৫৯৭টি কামান ও তিন হাজার ৭৯৩টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের যান। রাশিয়ার বিমানবাহিনীতে মোট বিমানের সংখ্যা তিন হাজার ৭৯৪টি। নৌবাহিনীতে রয়েছে একটি বিমানবাহী রণতরী, ছয়টি ফ্রিগেট, ১৫টি ডেস্ট্রয়ার ও ৬৩টি সাবমেরিনসহ ৩৫২টি তরী।

▶চীন

সামরিক শক্তিতে তৃতীয় ক্ষমতাধর দেশ চীন। দেশটির মোট সেনা সদস্য ৩৭ লাখ ১২ হাজার ৫০০ জন। ট্যাংকের সংখ্যা ছয় হাজার ৪৫৭টি। রয়েছে চার হাজার ৭৪৪টি সাঁজোয়াযান। বিভিন্ন ধরনের কামানের সংখ্যা সাত হাজার ৯৫৬টি। এ ছাড়া ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার যান এক হাজার ৭৭০টি। চীনের বিমানবাহিনীতে মোট বিমানের সংখ্যা দুই হাজার ৯৫৫টি। নৌবাহিনীতে রয়েছে একটি বিমানবাহী রণতরী, ৫১টি ফ্রিগেট, ৩৫টি ডেস্ট্রয়ার ও ৬৮টি সাবমেরিনসহ ৭১৪টি তরী।

▶ভারত

সামরিক শক্তিতে ভারত রয়েছে চতুর্থ অবস্থানে। দেশটির সেনাসদস্য রয়েছে ৪২ লাখ সাত হাজার ২৫০জন। রয়েছে চার হাজার ২২৬টি ট্যাংক, ছয় হাজার ৭০৪টি বিভিন্ন ধরনের সাঁজোয়া যান, সাত হাজার ৭৪০টি কামান ও তিন হাজার ২৯২টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের যান। রাশিয়ার বিমানবাহিনীতে মোট বিমানের সংখ্যা দুই হাজার ১০২টি। নৌবাহিনীতে রয়েছে তিনটি বিমানবাহী রণতরী, ১৪টি ফ্রিগেট, ১১টি ডেস্ট্রয়ার ও ১৫টি সাবমেরিনসহ ২৯৫টি তরী।

▶মিয়ানমার

সামরিক শক্তিতে মিয়ানমারের অবস্থান ৩১। দেশটির সেনা সংখ্যা পাঁচ লাখ ১৬ হাজার। বিমান বাহিনীর মত বিমানের সংখ্যা ২৪৯টি। মিয়ানমারের দখলে ট্যাংক রয়েছে ৫৯২টি। রয়েছে এক হাজার ৩৫৮টি বিভিন্ন ধরনের সাঁজোয়া যান, ৯৯৬টি কামান ও ১০৮টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের যান। মিয়ানমারের নৌবাহিনীতে রয়েছে পাঁচটি ফ্রিগেটসহ ১৫৫টি তরী।

▶বাংলাদেশ

১৩৩টি দেশের মধ্যে সামরিক শক্তিতে বাংলাদেশের অবস্থান ৫৭তম। সামরিক বাহিনীর মোট সদস্য সংখ্যা ২২ লাখ পাঁচ হাজার। বিমান বাহিনীর বিমানের সংখ্যা ১৬৬টি।বাংলাদেশের ট্যাংক রয়েছে ৫৩৪টি। আছে ৯৪২টি বিভিন্ন ধরনের সাঁজোয়া যান, ১৮টি কামান ও ৩২টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের যান। নৌবাহিনীতে রয়েছে ছয়টি ফ্রিগেট, চারটি করভেট ও দুটি সাবমেরিনসহ ৯১টি তরী।

সূত্রঃ ইন্টারনেট

অনেক কষ্ট করে পোস্ট গুলা বানাই আপনাদের ভাল লাগার জন্য, আর না ভাল লাগলে বলবেন। অতি দ্রুত সরিয়ে ফেলব। অনেকেই হইতো এটা জানতেন না, তাই দিলাম তো
সবাই ভাল থাকবেন, নতুন কিছু পেতে । Trickbd এর সাথেই থাকবেন । সবার কমেন্ট আশা করি, ধন্যবাদ।

→→→→→♥Mojar Trick♥←←←←←← ভাল লাগলে এখানে ক্লিক করে আমাদের এই Channel টি Subscribe করে রাখুন। আর ভিতরে গিয়ে দেখুন আপনার মন জয় করার মত কিছু ভিডিও আছে।

আর হা সবসময় ট্রিকবিডির সাথে থাকুন।

Report

About Post: 22479

OMOR FARUK ANIK

আমি প্রযুক্তিকে ভালবাসি, আর সেই জন্য Trickbd তে নিজের অজানা বিষয় শিখতে এসেছি এবং আমার জানা বিষয় অন্যকে শিখাতে এসেছি।।। আমি ফেজবুকে Facebook.com/OmorFarukAnikBD

35 responses to “(জেনে রাখুন) বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী কিছু দেশ ও Powerful Army, এছাড়া মায়ানমার এবং বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর অবস্থান ও শক্তি?”

  1. Sabbir Hossain Sabbir Hossain (Author) says:

    পোস্টটি বর্তমান পরিস্তিতে পাকিস্তান ও উত্তর কোরিয়ার তথ্য দরকার ছিল।

  2. AɾʆɑԵ AʀԲɑԵ (Author) says:

    Thanks For Sharing

  3. mamunabdullahal410 (Contributor) says:

    Thanks for sharing… Onek kicu janlam…

  4. Nayem hasan Nayem hasan (Author) says:

    eyta 2014 te maybe ekn 300000 mot.50000 researve.

  5. Nayem hasan Nayem hasan (Author) says:

    ২২ লাখ পাঁচ হাজার। wrong information ২ লাখ পাঁচ হাজার bangladesher.

  6. দুরন্ত সৈনিক প্রান্তরে (Contributor) says:

    বাংলাদেশ পিছিয়ে পরার অন্যতম কারন হলে
    মুক্তিযোদ্ধা কোটার জন্য,
    এই কোটার ফলে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তানদের কোন রকম যোগ্যতা ছারাই সেনাবাহিনী তে জয়েন করচে, কিন্তু অপরর দিকে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের না হউয়ায় অনেক যোগ্যতা সম্পূর্ণ ছেলে রা চাকরি টা পাচ্ছে না,
    তাহলে কিভাবে উন্নত হবে, বলেন

  7. Jony Jony (Author) says:

    আগেই জানতাম।সেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

Leave a Reply