আচ্ছালামু আলাইকুম
আসা করি সবাই ভালো আছেন!
কারণ ট্রিকবিডির সাথে থাকলে সবাই ভালো থাকে:~

আমার আজকের লেখাটি তাদের জন্য যারা ফটোশপে নতুন, শিখতে ও কাজ করতে চাইছেন। ফটোশপের বিভিন্ন টুলসের ব্যবহার এখানে সহজ ভাষায় ক্রমান্বয়ে তুলে ধরার চেষ্টা করব। এখানে আপনি খুব বেসিক একটা ধারনা পাবেন আশা করি যা আপনাকে প্রাথমিক ফটোশপের কাজ করতে সাহায্য করবে।

মেনু বারঃ

ঠিক টাইটেল বারের নিচে মেনুবার থাকে, এখানে আপনি File, Edit, Image, Layer, Select, Filter, View, Windows, Help মেনুগুলো দেখতে পাবেন। এদের প্রত্যেকটিতে ক্লিক করলে একাধিক সাবমেনু দেখায়। যার দ্বারা ইমেজের ও ফাইলের জন্য বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কমান্ড দেয়া যায়।

টুলস বক্সঃ

এডোবি ফটোশপের স্ক্রিনের বাম পাশে খাড়াখাড়িভাবে টুলস বক্স থাকে। এসকল টুলের আলাদা আলাদা কাজ রয়েছে , চলুন তবে জেনে নেয়া যাক বেশি প্রয়োজনীয় কিছু টুলের কাজ।

1. Marquee tool :

এই টুলের চার ধরনের কাজ, এগুলো হল –

Rectangular Marquee Tool:

এর সাহায্যে আপনি ড্র্যাগ করে বর্গাকার ভাবে ছবি নির্বাচন করতে পারবেন।

Elliptical Marquee Tool:

এর সাহায্যে আপনি ড্র্যাগ করে বৃত্তাকার ভাবে ছবি নির্বাচন করতে পারবেন।

Single row Marquee Tool:

এর সাহায্যে আপনি ছবিতে রো আকারে দাগ দিয়ে নির্বাচন করতে পারবেন।

Single Column Marquee Tool:

এর সাহায্যে আপনি ছবিতে কলাম আকারে দাগ দিয়ে নির্বাচন করতে পারবেন।

2. Move tool:

এই টুলের সাহায্যে আপনি ছবির লেয়ারকে স্থানান্তর করতে পারবেন, এতে ক্লিক করলেই দুই বা ততোধিক লেয়ার থাকলেও আপনার একটিভ লেয়ারটি নির্বাচিত হবে এবং আপনি ড্র্যাগ করে মুভ করাতে পারবেন।

3. Lasso Tool:

এর সাহায্যে ছবির বিভিন্ন স্থান নির্বাচন করা যায়। এটি তিন ধরনের কাজ করে, যেমনঃ

Lasso tool:

সাধারনত এর কাজ পেন্সিলের মত, ক্লিক করে ধরে রেখে ছবির যে জায়গার উপর টুলটি ঘুরাবেন সেই জায়গা নির্বাচিত হয়ে যাবে।

Polygonal Lasso tool: ছবির যে জায়গাটুকু নির্বাচন করতে চান তার উপর এক জায়গায় ক্লিক করে এরপর বিভিন্ন পয়েন্ট তৈরির মাধ্যমে জায়গা নির্বাচন করতে পারবেন।

Magnetic Lasso tool:

ছবির যে যে জায়গায় এর দ্বারা ক্লিক করবেন সেই সেই জায়গা রঙের তারতম্য অনুযায়ী নির্বাচন করে যাবে।

Magic wand tool:

এর মাধ্যমে যে রঙের উপর রেখে নির্বাচন করা হবে সেই অংশটুকু নির্বাচিত হয়ে যাবে।

Crop tool:

এর সাহায্যে ছবিকে যেকোন জায়গা মনমতো সাইজে কেটে আলাদা করে নিতে পারবেন।

Healing brush tool:

এতে বেশ কিছু কমান্ড রয়েছে,

Spot healing brush tool: ধরুন আপনার ছবিতে মুখের দাগ রয়েছে তা এই টুলের দ্বারা মুছে ফেলা যাবে, কিন্তু ছবি সম্পূর্ণ অক্ষত থাকবে।

Healing brush tool: এই টুল সক্রিয় করে যে জায়গা থেকে কপি করবেন সেখানে টুলটি রেখে কিবোর্ডের alt বাটন চেপে মাউসে ক্লিল করুন ও যেখানে নিয়ে আসতে চান টেনে আনুন, অবজেক্ট কপি হয়ে যাবে।

Patch tool: এর কাজ অনেকটাই লেসো টুলের মতো।

Color replacement tool: এক রঙের জায়গায় আরেক রঙ ফেলাই হল এর কাজ, কালার প্যালেট থেকে রং নির্বাচন করে ড্র্যাগ করে আনলেই হবে।

Brush tool: এই একটি মাত্র টুল দিয়ে আপনি ফটোশপের অনেক কাজ কাভার করতে পারবেন। রং করা হচ্ছে তার মধ্যে অন্যতম। ব্রাশের চিকন থেকে মোটা রং করার অনেকগুলো নাম্বার থাকে, যা উপরে মেনুবারের নিচে দেখা যায়।

Stamp tool: এখানে দুইটি টুল রয়েছে –

Clone stamp tool: এর কাজ হুবুহু Healing brush tool এর মতই।

Pattern stamp tool: এর মাধ্যমে বিভিন্ন প্যাটার্ন স্ট্যান্ডার্ড টুলবার থেকে নিয়ে ছবিতে প্রয়োগ করা যাবে।

History brush tool:

যদি কোন কারনে মনে হয় ছবিটি প্রাথমিক অবস্থায় নিয়ে যেতে চাইছেন তবে এক্ষেত্রে এই টুলটি কাজ করবে।

Eraser tool: ছবিতে কিছু মুছতে এর ব্যবহার হয়, এর তিন ধরনের ব্যবহার হয় –

Eraser tool সিলেক্ট করে ড্র্যাগ করে এনে আপনি অপ্রয়োজনীয় দাগ মুছতে পারবেন,

Background eraser tool এর সাহায্যে ব্যাকগ্রাউন্ড লেয়ারের কালার মুছতে পারবেন,

Magic eraser tool এই টুল ও Background eraser tool এর কাজ করে তবে একই সাথে এর দ্বারা একই কালার সবটুকু সিলেক্ট করে মুছে ফেলা যায়।

Gradient tool: বিভিন্ন কালার সমন্বয় করতে এই টুল প্রয়োজন হয়,

Gradient tool: এই টুলের সাহায্যে বিভিন্ন গ্র্যাডিয়েন্ট নির্বাচন, সাইজ ও বিভিন্ন পরিবর্তন করতে পারবেন। গ্র্যাডিয়েন্ট টুলে ক্লিক করলে স্ট্যান্ডার্ড টুলবারে গ্র্যাডিয়েন্ট অপশন দেখাবে সেখান থেকেই সিলেক্ট করা যাবে।

Paint bucket tool: এই টুল দিয়ে বিভিন্ন রকম প্যাটার্ন করা যাবে।

Blur tool:

এই টুলের সাহায্যে ছবিকে মসৃন করা হয় অথবা আপনি কোন ছবি ঝাপসা করতে চাইছেন ছবির প্রয়োজনেই এই কাজ ও এই টুলের সাহায্যেই করা যাবে।

Sharp tool:

ছবিকে শার্প বা তীক্ষ্ণ করার জন্য এই টুল ব্যবহার করা হয়।

Smudge tool:

ছবিতে কোন রকম দাগ থাকলে তা মুছে দেয় কিন্তু ব্যাকগ্রাউন্ডের কোন কিছু মুছে না। এই টুল সিলেক্ট করে তা ছোট বাঁ বড় সুবিধামত সাইজ করে দাগের উপর ঘষলেই দাগ মুছে যাবে।

Dodge tool: এর দ্বারা ছবির ব্রাইটনেস বাড়ানো বাঁ আলো দেওয়া যায়। এর সাবমেনু আছে,

Burn tool: এর সাহায্যে ব্রাইটনেস কমানো বাঁ কাল করা হয়। যেমন, চুল, ব্রু বাঁ ব্যাকগ্রাউন্ড কালো করা।

Sponge tool: এই টুল এর সাহায্যে কোন ছবির উপর আলো স্পঞ্জের মতো বসিয়ে দেয়া হয় বাঁ আলো শুষে নেয়া হয়। তাই একে স্পঞ্জ টুল বলা হয়।

Path selection tool: এর দুইটি কমান্ড হল – Path selection tool এর সাহায্যে ছবিতে কোন পাথ বাঁ লেয়ার সিলেক্ট করা এবং Direct Selection Tool এর সাহায্যে পুরো লেয়ার সিলেক্ট করা হয়।

Pen tool: এতে ৫ টি সাব টুল রয়েছে। যেমনঃ

Pen tool: লেসো টুলের মত পেন টুল দিয়ে ও ছবি সিলেক্ট করা যায় কিন্তু পেন টুলে সিলেক্ট করলে ছবির মান ভাল হয় ও চাইলে ছবি পূর্বের অবস্থায় নিয়ে যাওয়া যায়।

Free Form Pen Tool: স্বাধীন ভাবে ছবি নির্বাচন করার জন্য এই টুল ব্যবহার হয়।

Add Anchor Point Tool: পাথ অ্যাড করার জন্য এটি ব্যবহৃত হয়।

Delete Anchor Point Tool: পাথ রিমুভ করার জন্য এটি ব্যবহৃত হয়।

Convert Point Tool: আঁকা সকল পাথকে একটি পাথে কনভার্ট করা হয়।

Hand tool:

ছবিকে স্থানান্তর করতে এই টুল ব্যবহার করা হয়।

জুম ইন্ডিকেটরঃ

এই বারের সাহায্যে আপনি আপনার কারেন্ট ডকুমেন্টের জুম কত পারসেন্ট আছে বুঝতে পারবেন। এটা টুল বারের নিচে থাকে ও স্ট্যাটাস বারের বাম পাশে।

স্ট্যাটাস বারঃ

চলমান ডকুমেন্টে কোন কাজ হচ্ছে, কোন টুল ব্যবহৃত হচ্ছে ইত্যাদি সম্পর্কিত সকল তথ্য এই বারের মাধ্যমে জানা যায়।

টাস্কবারঃ

কোন কাজকে মিনিমাইজ করা হলে টাস্কবারে এসে জমা হয়, যা ইচ্ছামত অন্য কাজের সময় মিনিমাইজ করে আবার পরে ম্যাক্সিমাইজ করা যায়।

এই টুলগুলো সাধারণত খুব বেশি ব্যবহৃত হয়, তাই যদি আপনি নিজেকে ফটোশপে কাজের উপযোগী করে গড়ে তুলতে চান তবে এই টুলগুলোর ব্যবহার জানা থাকলে আশা করি আপনি লাভবান হবেন।

16 thoughts on "এবার জেনে নিন ফটোশপ এর কিছু বেসিকস টুল!By ♠£xprogrammer♠"

    1. Ex Programmer Ex Programmer Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ ভাইয়া সব সময় পাশে থাকবেন & আমিও আপনাদের পাশে থাকব!:}
    2. Toukir Ahmed Contributor says:
      ওকে ব্র—- তোমার ফেসবুক আইডির লিংকটা দেও।
  1. Alif Author says:
    Bro, apnr fb link den plz
  2. Yeasir Arafat Yeasir Arafat Author says:
    Welcome to author panel???
    1. Ex Programmer Ex Programmer Author Post Creator says:
      অনেক কস্ট করে অথর হইছি।একটা পোস্টও কপি করিনায়!মনে রাখবেন!
  3. Biplop420 Biplop420 Contributor says:
    Vaiya pc ta video edit korar jnno best software ki????
    1. Ex Programmer Ex Programmer Author Post Creator says:
      I don’t know it properly!sorry!I edit video on android kingmaster pro!
  4. Toukir Ahmed Contributor says:
    ব্র একই দিনে দুজন Author হইলাম।—-
    1. Ex Programmer Ex Programmer Author Post Creator says:
      Hmm,রানা ভাই একটু একটিভ আছেন তাই!
    2. Toukir Ahmed Contributor says:
      হুম,,,,
    3. Ex Programmer Ex Programmer Author Post Creator says:
      আচ্ছা আমার পোস্ট recent পোস্ট এ আসছেনা কেন!
  5. Toukir Ahmed Contributor says:
    Recent post এ সেই পোস্ট গুলো আসে, যেই পোস্টগুলো শেষে করা হইছে। আর ব্র আপনার পোস্ট আগে করার কারনে Recent post এ শো করে নাই। আমি কালরাত্রে পোস্ট করার কারনে Recent post এ একটি পোস্ট শো করেছে। আর আগে যে পোস্ট গুলো করছি সেই পোস্টগুলো রিছেন্ট পোস্টে শো করে নাই।
    1. Ex Programmer Ex Programmer Author Post Creator says:
      Tnx!
  6. md mishu md mishu Contributor says:
    assa vai ai PS ar pc er PS ke pry ak.e
  7. _khaled_ tanvir bijoy Contributor says:
    Thnax
    Photoshop download ER post Cai🙄

Leave a Reply