সাধারণত ব্যাটারীর চার্জ ১০০% থেকে শেষ করতে করতে ০% এ এনে তারপর একটানা চার্জে দিয়ে ১০০% করাকে ব্যাটারী ক্যালিব্রেশন বলে।…তবে এন্ড্রয়েডের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা সামান্য ভিন্ন। এন্ড্রয়েড সিস্টেমে ‘Battery Stats’ নামে একটা ফাইল থাকে সেটা ব্যাটারির বর্তমান অবস্থা সহ যাবতীয় তথ্য রাখে। কিন্তু এই ফাইলটা করাপ্টেড হয়ে গেলে হঠাৎ করে ব্যাটারির চার্জ কমে যায় (যেমনঃ ৪০% থেকে ঠুস করে ১২% এ) অথবা ০% এ আসার আগেই বন্ধ হয়ে যায়। যে উপায়ে এই করাপ্টেড ফাইলের তথ্যগুলো ঠিক করা হয় তাকে ব্যাটারি ক্যালিব্রেশন বলে।

কখন করবেন?


কিছু না হলেও ব্যাটারি দুই মাস পর পর ক্যালিব্রেশন করানো উচিত, এটা ম্যানুফ্যাচারারেরাই বলে, এটা
মোবাইলের ব্যাটারি হোক কিংবা ল্যাপটপের ব্যাটারী। তবে রম ফ্ল্যাশ দেয়ার পরে এটি করা জরুরি।
কিভাবে করবেন?

ননরুটেড এন্ড্রয়েডের ক্ষেত্রেঃ

  • মোবাইল সম্পূর্ণ চার্জ করে নিন।
  • চার্জার খুলে ফেলুন এবং চার্জ ০% না হওয়া পর্যন্ত ব্যবহার করতে থাকুন।
  • মোবাইল বন্ধ হয়ে গেলে চার্জার কানেক্ট করুন এবং এক টানা চার্জ দিয়ে ১০০% করুন।
  • ফোন অন করুন এবং কাজ শেষ…ক্যালিব্রেশন সম্পন্ন!!!
  • রুটেড এন্ড্রয়েডের ক্ষেত্রেঃ


    বাংলালিংকের ইউজাররা একটুু বেশি পেলেও রুটেড ইউজাররা অনেক বেশিই পায় 😀

  • 1. Battery Calibration নামের এপ টা নামান।
  • Download Link:
    Battery calibration.apk

  • 2. ১০০% চার্জ দিন এবং Battery Calibration বাটনে চাপ দিন।
  • 3.কনর্ফামেশন Massage পাবেন।
  • 4. এরপর ০% না হওয়ার পর্যন্ত একটানা ব্যবহার করুন। বন্ধ হয়ে গেলে ১০০% একটানা চার্জ দিন, অন করুন… কাজ শেষ !!
  • ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন আর সবসময় Trickbd এর সাথেই থাকুন।

    2 thoughts on "Battery Calibration কি ? কখন করবেন ? কিভাবে করবেন ?"

    1. redx Contributor says:
      battery calibration kore kunu lav nei faltuu…er ceeye phone root hole greenfy ba hibernation manager use koren..onk valo service dibe.


    2. Tipu sultan Author Post Creator says:
      lav asa vai. try kora dhakhan barrery ar upokar hoba……

    Leave a Reply