আমাদের আজকের টপিক হচ্ছে ফ্রিতে মেকানিক্যাল বিভিন্ন বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ নেওয়ার বিষয়ে। গত টপিকে আমরা আলোচনা করেছিলাম ফুড সেক্টরের ফ্রি প্রশিক্ষণ গ্রহণের ব্যাপারে এবং সেখানে বলেছিলাম যে, প্রস্তুত থাকার জন্য। কারণ আমি আপনাদের সামনে আরো কিছু এই ধরনের ফ্রি প্রশিক্ষণ কোর্সের বিষয় নিয়ে হাজির হবো। যে কথা সেই কাজ আমি আমার কথামতো আজকের এই টপিক নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি। আমাদের আজকের টপিকের বিষয় হচ্ছে অনেকেরই পরিচিত প্রতিষ্ঠান বিটাক নিয়ে অর্থাৎ বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র-কে নিয়ে। যেখানে মোটামুটি প্রতি বছরই বেকার নারী ও পুরুষদেরকে বিভিন্ন মেকানিক্যাল বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করে থাকে। যা নিয়েই মূলত আমাদের আজকের এই আয়োজন।

বিটাক প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশঃ
বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক) এর পক্ষ থেকে গত ০১লা আগস্ট ২০২২ইং তারিখে দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় বিভিন্ন মেকানিক্যাল বিষয়ের উপর ০৩ (তিন) মাস ব্যাপি ফ্রিতে প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যাপারে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে যা যা উল্লেখ করা হয় তা আমি নিচে বিস্তারিতভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করব। তাই আপনার কাজ হচ্ছে ধৈর্য সহকারে পুরো বিষয়টি পড়া।

প্রশিক্ষণের বিষয়সমূহঃ
বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক) এর অধীনে প্রায় ১০টির মতো মেকানিক্যাল বিষয়ের উপর উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। নিচে সেগুলির তালিকা তুলে ধরা হলো,
☞ ইলেকট্রিক্যাল মেইনটেন্যান্স
☞ রেফ্রিজারেশন এন্ড এযারকন্ডিশন
☞ ওয়েল্ডিং (আর্ক এন্ড গ্লাস)
☞ মোবাইল সার্ভিস/মেইনটেন্যান্স
☞ অটোক্যাড
☞ হাউজহোল্ড অ্যাপ্লায়েন্স মেইনটেন্যান্স
☞ হ্যান্ডিক্রাফট
☞ প্লাস্টিক প্রসেসিং
☞ প্লাস্টিক প্রসেসিং (কাস্টমাইজ)
☞ মেশিন শপ

বিটাক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রসমূহঃ
উপরোল্লিখিত বিষয়ের উপর সারা দেশব্যাপী বিটাকের বিভিন্ন আঞ্চলিক কার্যালয়গুলিতে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। কেন্দ্রগুলি হচ্ছে,

☞ ঢাকা আঞ্চলিক কার্যালয়
☞ চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয়
☞ খুলনা আঞ্চলিক কার্যালয়
☞ বগুড়া আঞ্চলিক কার্যালয়
☞ চাঁদপুর আঞ্চলিক কার্যালয়

আবেদন করার পদ্ধতিঃ
উপরোল্লিখিত বিষয়ের উপর কোর্স করতে আপনাকে বিটাকের একটি নির্দিষ্ট আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। যেটি বিটাকের উপরোল্লিখিত কেন্দ্র থেকে একদম ফ্রিতে সংগ্রহ করে নিতে পারবেন। ফরমটি হাতে পাওয়ার পর ফরমে উল্লেখিত সকল তথ্যগুলি আপনাকে নিজ হস্তে বা হাতে পূরণ করে নিতে হবে। উক্ত ফরমে আপনাকে যা যা পূরণ করতে হবে তা আমি নিচের স্ক্রিনশটের মাধ্যমে বিস্তারিত বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব। তাই ভালো করে স্ক্রিনশট এবং লেখাগুলি খেয়াল করুন।

উপরের স্ক্রিনশটের মতো আপনাকে প্রথমে আপনি যে কেন্দ্রে আবেদন করবেন সে কেন্দ্রের নামের পাশের বক্সে টিক (√) চিহ্ন দিন। ক্রমিক নম্বর ১ এর জায়গায় আপনার নাম বাংলা ও ইংরেজিতে লিখুন। ২ এর জায়গায় পিতার নাম বাংলা ও ইংরেজিতে লিখুন। তারপর মোবাইল নাম্বার, জীবিত নাকি মৃত এবং পেশা কি তা উল্লেখ করুন। ৩ এর জায়গায় মাতার নাম বাংলা ও ইংরেজিতে লিখুন। তারপর মোবাইল নাম্বার, জীবিত নাকি মৃত এবং পেশা কি তা উল্লেখ করুন। আবেদনকারী যদি মহিলা হয়ে থাকেন এবং স্বামী থেকে থাকে তাহলে ৪ এর জায়গার তথ্যগুলি পূরণ করুন। ৫ এর জায়গায় আপনার ইমেইল অ্যাড্রেস দিন। ৬ এর জায়গায় আপনার মোবাইল নাম্বার লিখুন। ৭ এর জায়গায় আপনার জন্ম তারিখ লিখুন। ৮ এর জায়গায় আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধনের নাম্বার লিখুন। ৯ এর জায়গায় আপনার বৈবাহিক অবস্থা অনুযায়ী পাশের বক্সে টিক (√) চিহ্ন দিন। ১০ এর জায়গায় আপনার বর্তমান ঠিকানা লিখুন। ১১ এর জায়গায় আপনার স্থায়ী ঠিকানা লিখুন। ১২ এর জায়গায় আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা লিখুন। ১৩ এর জায়গায় আপনি প্রাথমিকে পড়ার সময় কোনো বৃত্তি পেয়েছেন কিনা তার পাশে টিক (√) দিন। ১৪ এর জায়গায় আপনি জুনিয়রে পড়ার সময় কোনো বৃত্তি পেয়েছেন কিনা তার পাশে টিক (√) চিহ্ন দিন। ১৫ এর জায়গায় আপনার কোনো অতিরিক্ত বিষয়ে অভিজ্ঞতা আছে কিনা তা উল্লেখ করুন। ১৬ এর জায়গায় আপনি কোনো কিছু করেন কিনা তা উল্লেখ করুন। ১৭ এর জায়গায় আপনার পরিবারের সদস্য সংখ্যা কত তা লিখুন। ১৮ এর জায়গায় আপনার পরিবারের যেকোনো একজনকে অভিভাবক হিসেবে চিহ্নিত করুন। ১৯ এর জায়গায় আপনার কোনো শারীরিক প্রতিবন্ধকতা আছে কিনা তা উল্লেখ করুন।

২০ এর জায়গায় আপনি যদি একজন নারী হয়ে থাকেন মেয়েদের জন্য প্রযোজ্য কলামে এখানে উল্লেখিত কোন বিষয়ে কোর্স করতে চান সেটির পাশের ঘরে সেটির সিরিয়াল অনুযায়ী অর্থাৎ আপনার যদি “হাউজহোল্ড অ্যাপ্লায়েন্স মেইনটেন্যান্স” পছন্দ হয়ে থাকে তাহলে তার সিরিয়াল অনুযায়ী ২ লিখুন। অথবা আপনি যদি একজন পুরুষ হয়ে থাকেন ছেলেদের জন্য প্রযোজ্য কলামে এখানে উল্লেখিত কোন বিষয়ে কোর্স করতে চান সেটির পাশের ঘরে সেটির সিরিয়াল অনুযায়ী অর্থাৎ আপনার যদি “ইলেকট্রিক্যাল মেইনটেন্যান্স” পছন্দ হয়ে থাকে তাহলে তার সিরিয়াল অনুযায়ী ১ লিখুন। ২১ এর জায়গায় লেখা অনুযায়ী পুরো শর্তটি আপনাকে পূরণ করতে হবে। ২২ এর জায়গায় আপনার অভিভাবকের নাম, সম্পর্ক, ঠিকানা এবং মোবাইল নাম্বার লিখুন। ২৩ এর জায়গায় আপনার স্বাক্ষর, নাম এবং যে তারিখে আবেদন করবেন সে তারিখ লিখুন। তারপর সর্বশেষ অঙ্গীকারনামা এর এখানে আপনার স্বাক্ষরটি দিয়ে দিন।

আবেদনপত্র পূরণ করার পর করণীয়ঃ

আবেদনপত্রের তথ্য অনুযায়ী সবকিছু ঠিকঠাকভাবে পূরণ করার পর আপনি চাইলে সরাসরি আপনার কেন্দ্রে গিয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ জমা দিয়ে আসতে পারবেন। তবে বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আপনাকে স্ক্রিনশটে উল্লেখিত ঠিকানায় ডাকযোগ বা কুরিয়ার যোগে পাঠাতে হবে। তারপর তারা আপনার কাগজপত্র যাচাই বাছাই করার পর যদি মনোনীত করে তাহলে আপনার ঠিকানায় চিঠি, মোবাইলে কল বা এসএমএসের মাধ্যমে অবগত করবে। যার পরই মূলত আপনি ভর্তি হতে পারবেন।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্রঃ
যখন একদম প্রথমে আবেদন করবেন তখন আবদেন কপির সাথে আপনাকে আপনার
☞ এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি,
☞ জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন এর কপি,
☞ শিক্ষাগত যোগ্যতার সত্যায়িত ফটোকপি জমা দিতে হবে।
আর আপনি ফাইনালি যদি ভর্তির জন্য মনোনীত হোন তাহলে আপনাকে ভর্তির সময় আপনার
☞ ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের এবং ২ কপি স্ট্যাম্প সাইজের ছবি জমা দিতে হবে,
☞ আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন এর ফটোকপি জমা দিতে হবে,
☞ আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা সত্যায়িত সনদের ফটোকপি জমা দিতে হবে,
☞ আপনার অভিভাবকের ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি জমা দিতে হবে,
☞ আপনার অভিভাবকের জাতীয় পরিচয়পত্র এর ফটোকপি জমা দিতে হবে।

আবেদনকারীর যোগ্যতাঃ
☞ আপনাকে অবশ্যই একজন বাংলাদেশী নাগরিক হতে হবে।
☞ আপনার বয়স নূন্যতম ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে।
☞ নারী পুরুষ উভয়ই আবেদন করতে পারবেন।

অগ্রাধিকারঃ
☞ সমাজের অসহায় দরিদ্রদেরকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।
☞ মেধাবীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

☞ বিধবা মহিলাদেরকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

সুযোগ সুবিধাঃ
☞ ফ্রি প্রশিক্ষণ।
☞ প্রশিক্ষণ চলাকালীন যাতায়াত, থাকা ও খাওয়া সকলকিছু ফ্রি।
☞ প্রশিক্ষণ শেষে চাকুরির ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে।

বাধ্যতামূলকঃ
☞ প্রশিক্ষণ চলাকালীন সময়ে আপনাকে অবশ্যই বিটাকের যে আঞ্চলিক কেন্দ্রে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করবেন সেখানে থাকতে হবে। অর্থাৎ সেখানের আবাসন আপনাকে গ্রহণ করতে হবে।
☞ ভর্তির জন্য মনোনীত হলে সেখানে থাকার জন্য আপনার সাথে করে বেডিং নিয়ে যেতে হবে।

কোর্সের সময়কালঃ
কোর্স শুরু হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ ধরা হয়েছে আগামী ০১লা অক্টোবর থেকে ২৯শে ডিসেম্বর ২০২২ইং তারিখ পর্যন্ত মোট ৯০ দিন। তাই আপনাকে অতি তাড়াতাড়ি আবেদন করে ফেলতে হবে। কারণ এখানে আসন সংখ্যা হচ্ছে ৩০ জন।

এই ছিলো মূলত আমার আজকের টপিকের মূল বিষয়বস্তু। আশা করি পুরো বিষয়টি সকলকে বুঝাতে সক্ষম হয়েছি। তো যারা বিটাকের বিভিন্ন বিষয়ের উপর ফ্রিতে এই প্রশিক্ষণ গ্রহণ করতে চান তারা আর দেরি না করে আবেদন করে ফেলুন এবং নিজেকে একজন দক্ষ বা অভিজ্ঞ ব্যক্তি হিসেবে গড়ে তুলুন।

আপনাদের সুবিধার্থে আমি আমার টিপস এন্ড ট্রিকসগুলি ভিডিও আকারে শেয়ার করার জন্য একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করেছি। আশা করি চ্যানেলটি Subscribe করবেন।

সৌজন্যে : বাংলাদেশের জনপ্রিয় এবং বর্তমান সময়ের বাংলা ভাষায় সকল গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ক টিউটোরিয়াল সাইট – www.TutorialBD71.blogspot.com নিত্যনতুন বিভিন্ন বিষয়ে টিউটোরিয়াল পেতে সাইটটিতে সবসময় ভিজিট করুন।

2 thoughts on "ফ্রি’তে বিভিন্ন মেকানিক্যাল বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিন বিটাক থেকে।"

  1. Kazi Sabbir Contributor says:
    ধন্যবাদ
  2. sajub871 Contributor says:
    ধন্যবাদ ভাই,
    সময়ের সাথে সাথে সব আপডেট দেয়ার জন্য❣️
    পরবর্তি তে ফ্রি তে সরকারি ভাবে ড্রাইভিং শেখানোর সময় অনুযায়ি আপডেট দেওয়া হোক💚❤️

Leave a Reply