আসসালামুয়ালাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ !
সুপ্রিয় পাঠক ও দ্বীনি ভাই , কেমন আছেন ? আশা করি আল্লাহর অশেষ রহমতে ভালোই আছেন । আমি রিফাত । আজ একটি সত্য ঘটনা আপনাদের সাথে আমি শেয়ার করবো মনোযোগ দিয়ে পড়ুন । সত্য ঘটনা অবলম্বনে বিধায় অনেকেরই জানা থাকতে পারে ।

অনেক দিন আগের কথা , এক চোর প্রায়ই মসজিদ থেকে জুতা চুরি করে । তাতে সবাই অতিষ্ঠ হয়ে গেছে ।
একদিন সে ঘোষনা শোনলো যে , ” তাকবীর ওয়ালার সাথে ৪০ দিন ৫ ওয়াক্ত নামাজ আল্লাহর খুশির জন্য মনোযোগ দিয়ে পড়বে তার কাছে বাদশা তার একমাত্র মেয়ে বিয়ে দিবে। ”

তাই, জুতা চোর, জুতা চুরি বাদ দিয়ে এখন থেকে প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ সুন্দর করে আদায় শুরু করে।

ভাবে চলতে চলতে বাদশা ৩৯ দিন খবর
নিয়ে জানতে পারলো জুতা চোর যুবকটিই
একটানা ৩৯ দিন এক টানা ৫ ওয়াক্ত নামাজ
সময় মত আদায় করেছে। তাই বাদশা
আগামিকাল এসে তাকে রাজ দরবারে এসে,
বাদশার মেয়েকে বিয়ে করতে বলে। কিন্তু,
যুবকের ৪০ দিন, ৪১,৪২ দিন যায় কিন্তু সে আর আসে না !!!
বাদশা তালাশ করতে করতে যুবককে খুজে বলতে লাগলো – “তোমাকে জোর করে বিয়ে করতে বলছিনা, কেন আসলেনা তুমি ??? ”

যুবকবলতে লাগলো : “ও বাদশা !! আপনি জানেন না! আমি ভাল মানুষ নই, জুতা চোর!” বাদশা বলে, “তবুও আমি তোমার কাছেই আমার মেয়ে বিয়ে দিব!”

এবার, যুবকের চোখ হতে পানি টপ টপ করে
পড়ছে। সে বলতে শুরু করে ,
” ৪০ দিনের দিনও আমি রাজকুমারি আর রাজ্য হাসিল করার স্বপ্ন দেখছি কিন্তু বাদশা, ৪০ তম দিনের শেষ নামাজের শেষ রাকাতের শেষ
সেজদায় আমি যেন জান্নাতের প্রশান্তি পেতে শুরু করলাম।আমার হৃদয় প্রশান্তিতে ভরে গেছে, জীবনের সব খুশি ভুলে গেলাম। আমার দয়াময় আল্লাহ যেন ভালবাসা ভরে দিয়েছে !! আমার হৃদয় পাল্টিয়ে গেছে !
আজ আমি নারী চাই না, রাজ্য চাইনা, চাই
শুধু নামাজের সেজদার সেইজান্নাতি
প্রশান্তি !!!! ”
একবার বলেন না সুবহানাল্লাহ !!!
নামাজ মানুষ কে পরিবর্তন করতে পারে , মন ও হৃদয়কে পরিবর্তন করতে পারে । জীবন বদলে দিতে পারে ! শুধু মাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের উদ্দেশ্যে মনযোগ সহকারে সালাত আদায় করা উচিত । নামাজ আদায় করার সময় কল্পনা করবেন আল্লাহ পাক আপনাকে আমাকে দেখছে , আমরা আল্লাহর সামনে দাঁড়িয়ে । তাহলে দেখবেন মনে অন্য রকম একটা অনুভূতি চলে আসবে । প্রশান্তির অনুভূতি ।

কখনোই বলবেন না কাল থেকে শুরু করবো । সেই কাল আদো আমরা পাবো কিনা ঠিক নেই ।
– রিফাত

লা হাওলা ওলা ক্কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ ।

ইসলামিক পোস্ট পড়তে আগ্রহী হওয়ার চেষ্টা করতে হবে । অনিহা প্রকাশ করলে হবে না । মাত্র কিছুটা সময় , নষ্ট হবে না । কাজে লাগবে ।

ধন্যবাদ 💝💝

11 thoughts on "একটি জুতা চোরের জীবন কীভাবে বদলে গেল ( সত্যঘটনা )। আল্লাহপাক রব্বুল আল আমিনকে সিজদা দেওয়ার মতো প্রশান্তির কাজ দ্বিতীয়টি নেই । সম্পূর্ণ পড়ুন ।"

    1. Rifat Rifat Author Post Creator says:
      Ai post ta ami kokhono dekhini Facebook a .. mile gele kicu korar nei… Suban vai 🌹🌹🌹
    2. Abdus Sobhan Abdus Sobhan Author says:
      ami kichui boli ni bolle link diye boltam.
      ami sudhu apnake obogoto korte cheyechilam se karonei link diyechi nahole normally ami link pore dei amar kichu bolar thakle ta age prokas kore thaki
    3. Abdus Sobhan Abdus Sobhan Author says:
      ar facebook ar kotha bolle vhai ami sudhu 1ta link dilam same story facebook ar aro onek jaigai posted
    4. Darkweb Contributor says:
      তো উনি কি বানিয়ে বানিয়ে ইসলামিক গল্প দিবেন?
    5. Abdus Sobhan Abdus Sobhan Author says:
      Darkweb
      apni hocchen j.o.n.m.o goto a.b.a.l jar kaj jhamela toiri kora tai apnar nikot onurodh vhalo chan to onnoder majhe dhukte jaben na
    6. Rifat Rifat Author Post Creator says:
      Darkweb , Please don’t mind brother . I’m sorry .
      Subhan bhai please amon kotha bolben na jate kew mind kore .
      Ja bolar amake bolben , No problem , Ami abal no problem . Insult me.

      But please , No reader should be insulted .

    7. Abdus Sobhan Abdus Sobhan Author says:
      Are Rifat vhai apni mind a nicchen kano kotha jai hocche apnar ar amar majhe kotha theke chole ase jhamela pakacche
  1. A M A M Contributor says:
    আল আমিন / আ’লামীন বিষয় টা জেনে নিয়েন আমার মনে হয় আ’লামীন হবে 🙂
  2. Rifat Rifat Author Post Creator says:
    #Darkweb I’m extremely sorry . Please don’t mind . Sorry

Leave a Reply