প্যারাময় লাইফের প্যারাসিটামল বই রিভিউঃ

সত্যি বলতে ঝংকার মাহবুব ভাইয়ের এই বইটিকে অসাধারণ বা চমৎকার বললে ডাহা মিথ্যা কথা হবে, এই বইটি চমৎকার, অসাধারণ, সেরা এগুলোর চেয়েও দশগুণ বেশী ভালো। যাইহোক বইটিকে আমি অসংখ্য ভালো একটি বই বলবো যদিও এতে কমতি হয়ে যায় তবুও এর চেয়ে বেশী ভালো শব্দ আমার মাথায় আসছেনা এখন। প্যারাময় লাইফের প্যারাসিটামল বইটি ১২-২৫ বছর বয়সী লোকজনেরা অবশ্যই পড়বেন।

এই বারো থেকে পঁচিশ বছরের লোকদেরকে পড়তে বলছি জানেন? এই সময়টাই হলো প্রধানত জীবনের বীজ বপনের সময়। এই বয়সটাতে যদি কিছু করতে না পারেন তাহলে সারাজীবন গরীব হয়ে বাচার সম্ভাবনা বেশীই থাকে। এই বইটাতে এমন কিছু সিক্রেট লেখা রয়েছে যেগুলো এই বয়সের লোকদের মগজকে উর্বর করতে সক্ষম। চৈত্রের শুকনো ফাটা মাটিকে যেমন বৃষ্টির পানিতে উর্বর করতে পারে, তেমনি ১২-২৫ বছর বয়সী লোকদের মগজটা উর্বর করতে পারে ঝংকার ভাইয়ের এ বই।

এছাড়াও সকল বয়সী লোকেরাই পড়তে পারেন। এ বইটি পড়ার পড়ে আপনার মুল্যবান সময়গুলো আর ডাস্টবিনে ফেলে দিবেননা আশাকরি। এবং এরফলে জীবনের সকল প্যারা গুলো থেকে রক্ষা পাবেন। তাই দেরি না করে এখনই বইটা রকমারি বা বইবাজার থেকে অর্ডার করে নিয়ে নিন। অথবা কাছের লাইব্রেরি থেকে নিয়ে নিন।

প্যারাময় লাইফের প্যারাসিটামল বইটির ইন্টারেস্টিং কিছু কন্টেন্টঃ

ভুল করে কেউ এভারেস্ট জয় করে না,
সময় ড্রেনে ফেল্লে টার্গেট এচিভ হয় না।
ভয়ের সঙ্গে পাজ্ঞা, ফিউচার হবে চাজ্ঞা।
প্রেম স্বৈরাচারী করে, পালিয়ে বাঁচে লাফাঙ্গা।
না থাকলে ফোকাস কপাল হবে ফাটাবাশ,
এটেনশন হইলে ফাস রেজাল্ট হবে জিন্দালাশ।
আম ছাড়া আচার ফ্যাশন ছাড়া ফিউচার।
অল্প অল্প ডিপোজিট, মাস শেষে ভালো হ্যাবিট,
প্রোকাষ্টিনেশনকে ফ্রাই করে, ডেসটিনেশনের সার্কিট।

বইয়ের নামঃ প্যারাময় লাইফের প্যারাসিটামল
বইয়ের লেখকঃ ঝংকার মাহবুব (ঝংকার মাহবুব ভাইয়ের All PDF Download)
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১২৪ টি।
বইয়ের ধরনঃ ছাত্রজীবন উন্নয়ন
পিডিএফ সাইজঃ ১৬ মেগাবাইট প্রায়।
ডাউনলোডঃ Read Online / Download

আরো পড়ুনঃ👇

১। মোটিভেশনাল / আত্ম-উন্নয়ন মুলক (২৩ +) PDF বই Download
২। ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসোর্সিং (১৭+) PDF বই Download

4 thoughts on "প্যারাময় লাইফের প্যারাসিটামল বই Pdf Download : ঝংকার মাহবুব"

  1. V3L0X V3L0X Contributor says:
    Ei boi ta koto sale release hoyse?


    1. মোঃ হৃদয় মোঃ হৃদয় Author Post Creator says:
      ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং
    1. মোঃ হৃদয় মোঃ হৃদয় Author Post Creator says:
      Thanks bhai

Leave a Reply