আসসালামু আলাইকুম । আশা করি সকলে ভালো আছেন । আমিও আলহামদুলিল্লাহ আপনাদের দোয়ায় অনেক ভালো আছি।

হ্যালো Views আজকের টপিকটা খুব ইন্টারেস্টিং । টাইটেল দেখে হয়তো বুঝে গেছে কি নিয়ে আলোচনা করবো।

আজকে দেখাবো নিজের পেনড্রাইভকে কিভাবে হ্যাকিং ল্যাব বানাবেন ।চলুন শুরু করা যাক।

হ্যাকিং ল্যাব কি?

আমরা হ্যাকিং জন্য যে সব দরকারী টুলস বা অ্যাপস বা অপারেটিং সিস্টেম প্রয়োজন সব গুলো একসাথে করাকে হ্যাকিং ল্যাব বলে ।

আমরা যে Kali Linux or parrot os আছে সেগুলো ইনস্টল করতে গেলে আমাদের আলাদা ডিসক কিনে বা ডাউনলোড করে সেটআপ দিতে পারি কিন্তু সেটা আমার disk এ স্থায়ী ভাবে থেকে যায় তখন চাইলেও আমরা windows এ যেতে পারি না ।যদি যেতে হয় তাহলে আবার windows দিতে হয়।

কিন্তু আজকে দেখাবো কিভাবে শুধু পেনড্রাইভ দিয়েই রান করবেন।

যা যা লাগবে :

  1. Pendrive
  2. Kali Linux live version
  3. Rufus

Kali Linux live কেন প্রয়োজন?

আমরা যেহেতু পেনড্রাইভেই রান করবো তাই live version টা দরকার।

Live version এই জন্য নিবো যাতে করে আমাদের windows সেটআপ দেওয়া না লাগে একবার পেনড্রাইভেই সেটআপ দিতে সেটা Linux operation system হয়ে যাবে।

Rufus

Kali Linux 

প্রথমে আমরা Rufus portable version টা ডাউনলোড করবো।

ওপেন হলে আমরা এই রকম দেখতে পারবো প্রথমে পেনড্রাইভ শো করবে ২ আমাদের ডাউনলোড করা Kali Linux live ফাইলটি দিবো তারপর পার্টশন দিবো তারপর disk অনুযায়ী partition scheme সিলেক্ট করে দিবো ।

আপনাদের সুবিধার্থে আমি ABC দিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করছি।

A = এখানে শুধু মাত্র আপনার পেনড্রাইভটি সিলেক্ট করবেন। সিলেক্ট করা লাগে না আটো সিলেক্ট হয়ে যায়।

B= আমরা  Kali official থেকে যে ফাইল ডাউনলোড করছি সেটা সিলেক্ট করে দিবো ।অবশ্যই এখানে ISO file দিবেন।

C= মানে পার্টিশন আমরা আমাদের কালির জন্য কতটুকু স্টোরেজ দিবো সেটা সিলেক্ট করে দিবো। যদি 32 নিচে হয় তাহলে ১৬ বা তার বেশি দিতে পারেন আমি recommended করবো আপনার পেনড্রাইভের অর্ধেক সিলেক্ট করবেন। কারণ আমরা যে টুলস গুলো ইনস্টল দিবো সেটা এখানে থেকে যাবে মোট কথায় আমরা যা করবো সব এখানে থেকে যাবে তাই স্টো‌রেজ একটু বেশি দিয়ে নিবেন।

D = partition scheme আপনার Disk অনুযায়ী সিলেক্ট করে নিবেন। কিভাবে দেখবেন right button  this PC >manager >Disk management >any partition click right button >Properties >Volume > দেখতে পারবেন।

E= সব দেওয়া হলে আমরা start click করবো।

এই রকম পপআপ আসলে yes করে দিবো।

আমাদের পেনড্রাইভ রেডি মানে হ্যাকিং ল্যাব রেডি।

আমাদের এই হ্যাকিং ল্যাব ওপেন করার জন্য আমাদের boot menu থেকে পেনড্রাইভ দিয়ে ওপেন করবো । motherboard অনুযায়ী boot menu থাকে  তাই আর boot menu key বলছি না ।

পেনড্রাইভ দিয়ে ওপেন করার সময় এই রকম আসবে আমরা ৪ নাম্বারটি সিলেক্ট করে ওপেন করবো।

সব সময় 4 টা সিলেক্ট করে ওপেন করবো।

দেখতে পাচ্ছেন আমার ওপেন হয়ে গেছে।
যাদের বুঝতে অসুবিধা তারা ভিডিওটি দেখতে পারেন।


তো আজ এই পর্যন্তই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আল্লাহ্ হাফেজ।

TRICKBD

13 thoughts on "কিভাবে যেকোন পেনড্রাইভকে হ্যাকিং ল্যাব বানাবেন চলুন দেখে আশা যাক ।"

  1. MD Musabbir Kabir Ovi Author says:
    সত্যিই এটা কাজে লাগাতে হবে
    1. abir Author Post Creator says:
      Ji
    1. abir Author Post Creator says:
      Tnq
  2. কাজের পোষ্ট করেছেন ভাই।
    1. abir Author Post Creator says:
      Tnq
    2. ওয়েলকাম আপনাকে।
  3. Sayed Contributor says:
    Wow Awesome Trick bro
    1. abir Author Post Creator says:
      Tnq
  4. md mourad Contributor says:
    ১ম এ বলে রাখি ভাই আপনার পারসিস্টেন করার নিয়ম বা সিস্টেম কোনটাই টিক নাই। এর পরের দাফ কে করবে আমাকে বলুন।
    আগে ভাল করে জেনে বুজে পোস্ট পাভিলিশ করবে।
    1. James009 Contributor says:
      তাহলে সঠিক নিয়ম কি? 🥹
    2. abir Author Post Creator says:
      ভাই সঠিক নিয়ম টা বলেন আর পরের কি আসে সেটাও বলেন।

Leave a Reply