বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে মোবাইল
ফোনের সিম নিবন্ধন বা পুনঃনিবন্ধনের
সময় গ্রাহকের কাছ থেকে টাকা আদায়
করলে সংশ্লিষ্ট ‘রিটেইলারকে’ কালো
তালিকাভুক্ত করে তার অনুমোদন বাতিল
করা হবে বলে টেলিযোগাযোগ
প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম
জানিয়েছেন।
বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে মোবাইল ফোন
অপারেটদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা
ও প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক শেষে
তিনি এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, “আমার ফেইসবুক
পেইজে অনেক অভিযোগ এসেছে- সিম
নিবন্ধনে গ্রাহকের কাছ থেকে টাকা
আদায় করা হচ্ছে। এ পর্যায়ে বাড়তি
টাকা নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই।”
তিনি বলেন, “আলোচনা করে সিদ্ধান্ত
হয়েছে, অপারেটররা এ বিষয়ে তদন্ত করে
দোষীদের চিহ্নিত করে তাদের
ব্ল্যাকলিস্টেড করবে এবং তাদের
রিটেইলারশিপ বাতিল করবে।”
অপারেটরগুলোকে এ ব্যাপারে দ্রুততার
সঙ্গে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে
প্রতিমন্ত্রী বলেন, “অতি দ্রুত দৃষ্টান্ত
দিতে হবে, এভাবে যারা টাকা আদায়
করছে তাদের মধ্যে কমপক্ষে দুই থেকে
তিনজনকে ব্ল্যাকলিস্টেড করে জানাতে
হবে।”
গত ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশে মোবাইল
ফোনের সিম নিবন্ধনে বায়োমেট্রিক

পদ্ধতি চালু হয়। এর ফলে গ্রাহকরা এখন
আর আঙুলের ছাপ ছাড়া নতুন সিম কিনতে
পারছেন না।
পাশাপাশি বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে
পুরনো সিমের পুনঃনিবন্ধন চলছে, যা
আগামী এপ্রিলের মধ্যে শেষ করার কথা
রয়েছে।
ওই সময়ে পুনঃনিবন্ধন শেষ হবে কি-না
জানতে চাইলে তারানা হালিম বলেন,
“আশা করছি, এ সময়ের মধ্যেই কাজ শেষ
হবে।”
গত মঙ্গলবার সাংবাদিকদের সঙ্গে এক
আলোচনায় তারানা হালিম
বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনের
অগ্রগতি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ
করেছিলেন।
এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তারানা
বলেন, “অপারেটরদের আরও মনোযোগী
হতে হবে, রিটেইলাররা কি করছে- তা
অপারেটরদের দেখতে হবে। তাদের টিম
আছে, মনিটরিং করবে; প্রান্তিক
পর্যায়ে মনিটরিং আরও জোরদার করে
কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া দরকার।”
জাতীয় পরিচয়পত্রে ভুল থাকলে সিম
নিবন্ধনে সমস্যা হচ্ছে বলে অভিযোগ
করেছেন গ্রাহকরা। এ ক্ষেত্রে কী
ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে জানতে চাইলে
তারানা হালিম বলেন, যে কোনো গ্রাহক
তার পরিচয়পত্র বা পাসপোর্ট বা
ড্রাইভিং লাইসেন্স দিয়ে সিম নিবন্ধন
করতে পারবেন, তবে তা ছয় মাসের জন্য।
এরপর তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর
দিয়ে নিশ্চিত করতে হবে।
যেসব গ্রাহক জাতীয় পরিচয়পত্র
সংশোধনের আবেদন করেছেন, সেই
কাগজের কপি বা প্রমাণ দেখালেও
নিবন্ধন করা যাবে বলে তারানা হালিম
জানান।
অপারেটরদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন
অফ মোবাইল টেলিকম অপারেটর অব
বাংলাদেশের (অ্যামটব) মহাসচিব টি
আই এম নুরুল কবির বলেন, “টাকা নিলে
রিটেইলারদের ব্ল্যাকলিস্টেড করে
তাদের অনুমোদন বাতিল করার
সিদ্ধান্তে সব অপারেটর একমত
হয়েছেন।”
টেলিযোগাযোগ সচিব ফয়জুর রহমান
চৌধুরী, বিটিআরসি চেয়ারম্যান
শাহজাহান মাহমুদ, রবি’র ব্যবস্থাপনা
পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা
সুপুন বীরাসিংহে, এয়ারটেলের প্রধান
নির্বাহী কর্মকর্তা পিডি শর্মা,
টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক
গিয়াসউদ্দিন আহমেদসহ অন্যান্য
অপারেটরদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা
বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

আমার
সাইট
একবার সময় পেলে ঘুরে আসবেন

4 thoughts on "সিম নিবন্ধনে টাকা নিলে ব্যবস্থা নেবে সরকার: প্রতিমন্ত্রী"

  1. DjSHasan DjHasan Contributor says:
    hmm taka nei report korbo koi
  2. kamru zzaman kamru zzaman Subscriber says:
    Mama kivabe report korbo :::
  3. kzkhan kzkhan Contributor says:
    রিপোর্ট করবো কোথায়?

Leave a Reply