বন্ধুরা সবাইকে আসসালামু আলাইকুম সবাই কেমন আছেন আশা রাখছি আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন।
আর আমি তো আপনাদের দোয়ায় আলহামদুলিল্লাহ মোটামুটি ভালই।
এসে গেছে এসে গেছে এসে গেছে। আবে ওই কি আসছে রে?। পর্ব ২। মানে?। মানে টা খুবই সিম্পল বাজেটের সেরা স্মার্টফোন পর্ব ২। ও আচ্ছা এখন বুঝলাম হ্যাঁ ভালো চালিয়ে যা।
এখন অল্প কিছু বাজেটেও তো পাওয়া যাচ্ছে দারুন সব ফিচারের গতিময় স্মার্টফোন। ঈদের সেরা স্মার্টফোন এ তালিকায় এই পর্বে থাকছে।
৩ জিবি র্যামের সেরা স্মার্টফোন গুলোর খোঁজ।
সবথেকে ইন্টারেস্টিং বিষয় হচ্ছে এ বাজেটে যেমন জনপ্রিয় বড় ব্র্যান্ডের
ফোন আছে তেমনি আমাদের বাংলাদেশের নির্মিত ফোনের চাহিদাও বেশ লক্ষ্য করা যাচ্ছে বাজারে।
তো যারা ১৫ হাজার টাকা হাতে নিয়ে ভাল মানের ফোন কেনার কথা ভাবছেন?
কিন্তু কোনটি কিনবেন তা খুঁজে পাচ্ছেন না তাদের কাজকে সহজ করতে ট্রিকবিডি খুঁজে বের করছে যেসব ফোন বর্তমানে বেশি মার্কেটে চলছে।
এমন কিছু মডেলের ফোনের সাথেই পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্যই থাকছে আজকের এই পর্ব।
তো চলুন আমরা আজকের পোস্টটি শুরু করে ফেলি তো যারা পোস্টটিতে এখনো লাইক দেননি একটা লাইক দিয়ে দিন।

ওয়ালটন প্রিমো এস ৬ ডুয়াল
যারা দেশি স্মার্ট ফোন ব্যবহার করতে বেশি পছন্দ করেন তাদের জন্য ওয়ালটন এনেছে ৩ জিবি গিগাবাইট র্যামের দারুন একটি ফোরজি ডিভাইস। এবং ফোনটি কেনার জন্য আপনাকে গুনতে হবে মাত্র ১৪৯৯০ টাকা।
আর ফোনটিতে পিছনের ক্যামেরা দেয়া হয়েছে ১৩-২ মেগা পিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা এবং সামনের ৮ মেগাপিক্সেলে।
আর সাথে ফেস আনলক ফিচার টা তো থাকছেই। আর ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে ৩৫০০ মিলিএম্পিয়ার এর শক্তিশালী একটি ব্যাটারি।
ফোনটির ডিসপ্লে থাকছে ৫.৭ ইঞ্চি।
ও সবদিক থেকে দেখতে গেলে ফোনটি মোটামুটি আমার কাছে ভালোই লেগেছে চাইলে এই ফোনটি ও আপনার চয়েস এ আনতে পারেন।


হুয়াওয়ে ওয়াই ৭ ২০১৯
কোয়ালকম অক্টাকোর প্রসেসরের এই ফোনটি কেনা যাবে ১৪৯৯০ টাকায়। ফোনটির র্যাম থাকছে ৩ গিগাবাইট এবং ইন্টার্নাল স্টরেস থাকছে ৩২-৬৪ জিবি।
৬.২৬ ইঞ্চি নচ ডিসপ্লের এ ফোনে ভালো ব্যাকআপ নিশ্চিত করতে থাকছে ৪০০০ মিলিএম্পিয়ার ব্যাটারি।
ফোনটির ক্যামেরা দেয়া হয়েছে সামনের জন্য ১৬ মেগাপিক্সেলের এবং পিছনে ১৩-২ মেগা পিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা।
ফোনটিতে আরো রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও দুইটা সিমে ফোরজি ব্যবহার করার সুবিধা।
ফোনটি ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের ভার্সনটি কিনতে গেলে আপনাকে গুনতে হবে ১৫৯৯৯ টাকা।
সব দিক থেকে দেখতে গেলে এটা মোটামুটি দারুণ একটি স্মার্টফোন হবে এই বাজেটে?

শাওমি রেডমি ওয়াই ৩
সেলফি উঠতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া খুবই মুশকিল তাই যারা বেশি সেলফি উঠতে পছন্দ করেন তাদের জন্য এই স্মার্টফোনটি হতে পারে দারুন একটি চয়েস।
কারণ ফোনটি সেলফি ক্যামেরা দেয়া হয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের এবং পিছনে দেয়া হয়েছে ১২+২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা।
ফোনটিতে ৩ গিগাবাইট র্যাম ও ৩২ গিগাবাইট রমের সংস্করণ পাওয়া যাচ্ছে। এবং এই সব কিছু পেতে হলে আপনাকে গুনতে হবে ১৪৯৯৯ টাকা।
ফোনটিতে আরো থাকছে ফুল এইচডি ৬.২৬ ইঞ্চির নচ ডিসপ্লে।
প্রসেসর হিসেবে থাকছে কোয়ালকম স্নাপড্রাগন ৬৩২ আর ব্যাটারি ব্যাকআপ এর ও চিন্তা করতে হবে না ইউজারদের কারণ এতে থাকছে ৪০০০ মিলিয়াম্পেরে ব্যাটারি।
ডুয়াল ফোরজি ও মেমোরি কার্ড ব্যবহারের সুবিধা তো থাকছেই। তাই এই ফোনটি যদি আপনার চয়েজ হয় তাহলে আপনি ঠকবেন না।

ভিভো ওয়াই ৯৩
যারা ভালো মানের ডিসপ্লে আছে এমন ফোন খুঁজছেন তাদের জন্য বেস্ট চয়েস হতে পারে এই ফোনটি।
ফোনটিতে ৬.২২ ইঞ্চির সম্পূর্ণ ফুল এইচডি ডিসপ্লে পাচ্ছেন। ফোনটিতে আরো থাকছে ৩ গিগাবাইট র্যাম এবং ৩২ গিগাবাইট ইন্টারনাল স্টোরেজ।
ফোনটির পিছনের ক্যামেরা থাকছে ১৩-৫ মেগাপিক্সেলের এবং সেলফি ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল।
আর ব্যাটারিও একেবারে খারাপ দেয়নি Vivo ব্যাটারি থাকছে ৪০৩০ মিলিএম্পিয়ার যা লম্বা সময় ব্যাকআপ দিবে।
আর এত কিছু পাচ্ছেন মাত্র ১৩৯৯০ টাকার বিনিময়ে। আর ফোনটি কিনলে সাথে একটি ব্যাগ ও ফ্রি গিফট পাচ্ছেন।

স্যামসাং এম ২০
যারা লম্বা সময় ব্যাটারি ব্যাকআপ দেয় এমন ফোন পছন্দ করেন তাদের জন্য বেস্ট চয়েস হতে পারে এই ফোনটির কারণ ফোনটিতে থাকছে ৫০০০ মিলি এম্পিয়ারের চমৎকার ব্যাটারি যা দিয়ে মোটামুটি দুই দিন ব্যাকআপ পাওয়া যাবে। আর এই ফোনটি কেনা যাবে মাত্র ১৪৪০০ টাকা দিয়ে।
অক্টাকোর প্রসেসরের এ ফোনে থাকছে ৩ গিগাবাইট র্যাম ও ৩২ গিগাবাইটের ইন্টারনাল স্টোরেজ, যা মেমরি কার্ড ব্যবহার করে ৫১২ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়িয়ে নেয়া যাবে।
ফোনটির ডিসপ্লে দেয়া হয়েছে ৬.৩ ইঞ্চির। সামনের ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেল এবং পিছনে ১৩ ও ৫ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা।
ফোনটিতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সুবিধাটিও মিলবে।
তাই হাতে যদি ১৫ হাজার টাকা থাকে আর আপনি যদি ওই টাকা দিয়া ফোন কেনার কথা ভাবেন তাহলে এই ফোনটি আপনার জন্য।
এই এপিসোডে আমরা দ্বিতীয় পর্ব অলরেডি শেয়ার করে ফেললাম তো এরপর থাকছে দ্বিতীয় পর্ব তো তার জন্য তো আপনাদেরকে অবশ্যই অপেক্ষা করতে হচ্ছে আরো একদিন।
তো বন্ধুরা পোস্টটি কেমন লাগলো জানাতে পারেন নিচে কমেন্ট করতে পারেন আর আপনি যদি এমনই আনকমন এবং ইন্টারেস্টিং পোস্ট ভালবাসেন তাহলে এটিও কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানিয়ে দিতে পারেন।
তো আজকের মতো এই পর্যন্তই ছিল পরবর্তী পর্বে নতুন কিছু স্মার্টফোন নিয়ে দেখা হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত ভালো থাকুন এবং নিজের খেয়াল রাখুন আজকের মত আল্লাহাফেজ।
ডলার বাই সেল করতে এখানে ক্লিক করুন

9 thoughts on "১৫ হাজার বাজেটের সেরা কিছু স্মার্টফোন পর্ব ২"

  1. Abdullah Contributor says:
    স্যামসাং এম ২০ এ কি pubg চলবে?


    1. Imran Imran Author Post Creator says:
      কি বলেন ভাই অবশ্যই চলবে
  2. Abdullah Contributor says:
    থ্যাঙ্কস ইউ ভাই
  3. ibrahim_khalil ibrahim_khalil Contributor says:
    mone hocce m20 valo hobe
  4. Md Himul Md Himul Contributor says:
    m20 best hobe
  5. Towfiq Towfiq Contributor says:
    ভাই হুয়াওয়ে ওয়াই ৭ ২০১৯ ফোনটা নেওয়া কি ভালো হবে? হুয়াওয়ে নাকি এখন বন্ধ ।
    1. Tanvir ahammed Tanvir ahammed Contributor says:
      xaomi y3 better maybe

Leave a Reply