আসসালামু আলাইকুম, বড় বড় ফাইল ডাউনলোড করার সময় ফেইল্ড হওয়া টা একটা দুঃস্বপ্নের মতো। এটার খুব দুঃখজনক ব্যাপার যখন ১ জিবি প্লাস ডাউনলোড করার পরে ডাউনলোড ফেইল্ড হয়ে যায়। অনেক সময় আমরা কোন ফাইল অর্ধেক ডাউনলোড করেই পজ করে রেখে দেই আর দুই তিন দিন পরে রিজিউম করার সময় দেখি ডাউনলোড ফেইল্ড, অধিকাংশ সময় এমনটি হয় ডাউনলোড এর লিঙ্ক টি মেয়াদ উত্তির্ন হয়ে যাওয়ার কারনে। কিন্তু আপনি জেনে খুশি হবেন যে “আইডিএম( ইন্টারনেট ডাউনলোড ম্যানেজার)” থেকে ফেইল্ড হওয়া ডাউনলোড প্রসেস আবার সেখান থেকেই শুরু করা সম্ভব যেখান থেকে বন্ধ হয়েছিল । চলুন দেখে নেওয়া যাক।

যেহেতু এটা আইডিএম এর টেকনিক তাই আইডিএম সফটওয়্যার টি আগে ডাউনলোড করা প্রয়োজন। (আগেই বলে রাখি এই টিউটোরিয়াল আমি অ্যান্ড্রয়েড এর জন্য লিখতেছি।) আপনি প্লে স্টোর থেকে সার্চ করে আইডিএম সফটওয়্যার টি পেয়ে যাবেন।

এখন আসুন দেখে নেই: কিভাবে সেখান থেকে ডাউনলোড শুরু করবেন যেখান থেকে বন্ধ হয়েছিল। এখানে একটি বিষয় লক্ষণীয় যে, কিছু কিছু সাইট (রিজিউম Resume) করার অনুমদন দেয়না তাই এই টিউটোরিয়াল সেইসব ফাইলের জন্য কার্যকর নয় যেগুলো Resume অনুমোদিত নয়। (নিচে চিত্র দেখুন)

কিন্তু যেগুলোতে রিজিউম অনুমোদিত সেগুলোতে ডাউনলোড পজ করে ১০ মাস পরেও রিজিউম করা সম্ভব।

লেট’স কাম টু দ্যা মেইন পয়েন্টে। একাধারে নিচের স্টেপ গুলো ফলো করুন।

স্টেপ ১: কোন ফাইল এর রিজিউম চালু করবেন সেটা আগে দেখে নিন। রিজিউম এ ক্লিক করার পরে যদি দেখেন ডাউনলোড হচ্ছে না তবে স্টেপ ২ ফলো করুন।

স্টেপ ২: সেই ফাইলের ডাউনলোড পেজে চলে যান যেখান থেকে আপনি আগে ডাউনলোড করেছিলেন। ( ডাউনলোড ফেইল্ড হওয়া ফাইলটির ডাউনলোড পেজে) আর অবশ্যই আইডিএম এর ব্রাউজার টি ব্যবহার করুন। এখন ডাউনলোড লিঙ্কে ক্লিক করুন( ডাউনলোড স্টার্ট করবেন না)। ডাউনলোড উইন্ডো টি আসলে ডাইরেক্ট ডাউনলোড লিঙ্ক টি কপি করুন Copy বাটনটিতে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৩: ব্রাউজার থেকে ডাউনলোড ম্যানেজারে ফেরত আসুন আর আপনার ফেইল্ড হয়ে যাওয়া ফাইলটির পাসে থাকা থ্রি ডট মেনুতে ক্লিক করে “Refresh Link” অপসন টিতে আলত চাপুন।

স্টেপ ৪: আপনার সামনে একটি ইনপুট বক্স উইন্ডো আসবে। সেখানে কপি করা ডাউনলোড লিঙ্কটি পেস্ট করুন । তারপরে “স্টার্ট” ক্লিক করুন দেখবেন সেখান থেকেই ডাউনলোড স্টার্ট হয়ে যাবে যেখান থেকে ডাউনলোড বন্ধ হয়েছিল।

লক্ষনীয়তা: (১) যেটা ডাউনলোড করবেন সেটা যেন রিজিউম সমর্থিত হয়। (২) ফাইল স্টোরেজ থেকে অর্ধেক ডাউনলোড করা ফাইলটি ডিলিট করলে এই টিউটোরিয়াল কার্যকর হবে না।

আমার রেকমেন্ড থাকল Idm ব্যবহার করার জন্য।

উপসংহার: পোস্ট লিখতে লিখতে হাত ব্যথা হয়ে গেল। আমি আশা করি অনেকে উপকৃত হয়েছেন। যদি কৃতজ্ঞ থাকেন তবে একটা সুন্দর কমেন্ট করুন যাতে করে পরবর্তীতে আরো ভালো পোস্ট লিখতে পারি। কোথাও ভুল করলাম কিনা জানাবেন। আর হ্যা আমার এই ফেসবুক গ্রুপ Smart It And Knowledge তে জয়েন করবেন। এই টুকুই কামনা করি । আল্লাহ হাফেজ।

10 thoughts on "ডাউনলোড ফেইল্ড সমাধান: ফেইল্ড হওয়া ডাউনলোড ফাইল সেখান থেকে আবার স্টার্ট করুন"

  1. 444mdzahid 444mdzahid Contributor says:
    ভালো পোস্ট
    1. SOYEB SOYEB Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
    1. SOYEB SOYEB Author Post Creator says:
      Thanks
  2. jahid71 jahid71 Contributor says:
    ডাউনলোড করার জন্য কি IDM আ্যাপ ব্যাবহার করতে হবে?
    নাকি অন্য যেকোনো ব্রাউজারের ডাউনলোড resume করা যাবে?
    1. SOYEB SOYEB Author Post Creator says:
      Idm ব্রাউজার ব্যবহার করতে হবে।
  3. A M A M Contributor says:
    title a idm likha uchit chilo jehetu just idm er jonne ei trick 🙁
  4. SOYEB SOYEB Author Post Creator says:
    ওভাবে টাইটেল দিলে সেটা এসইও ফ্রেন্ডলি হয় না। তাছারা টাইটেলটি অসুন্দরও হয়ে যায়।
  5. Abedin Contributor says:
    Vai idm/adm konta sob ceye best.r adm oto mone hoi idm ar moto kaj kore
    1. SOYEB SOYEB Author Post Creator says:
      আইডিএম এ বেশি ফিচার পাওয়া যায়। আমার কাছে আইডিএম টাই বেস্ট মনে হয়।

Leave a Reply