চলতি বছরের মার্চ মাসের ৭ তারিখ যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় পরিবর্তন করে পুনরায় লঞ্চ করা হচ্ছে বিতর্কিত অ্যাপ পিপল। অ্যাপটি পেশাদার বা ডেটিংয়ের ক্ষেত্রে মানুষদেরকে রেটিং করার জন্য নিজ সদস্যদের আমন্ত্রণ জানাতো।

কোনো ব্যক্তিকে না জানিয়েই, তাকে অ্যাপটির মাধ্যমে এক থেকে পাঁচ তারকার রেটিং করা যাবে- অ্যাপের এই বিষয়টি ২০১৫ সালে সবচেয়ে বেশি বিতর্ক সৃষ্টি করেছিল। কিন্তু এখন সে বিষয়টি পরিবর্তন করা হয়েছে বলেই জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

এখন শুধু যারা সাইটে সাইন আপ করবেন, তাদেরকেই অ্যাপে দেখানো হবে। অন্য কোনো ব্যক্তিকে যোগ করা সম্ভব হবে না এবং রেটিংয়ের বিষয়টিও অ্যাপ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। রেটিংয়ের পরিবর্তে এখন অ্যাপটিতে একজন আরেকজনকে ‘রেকমেন্ড’ করতে পারবেন। অ্যাপ ব্যবহারের জন্য প্রতি মাসে ১ ডলার করে চার্জ দিতে হবে ব্যবহারকারীকে।

অ্যাপটিতে প্রধান যে চারটি পরিবর্তন আনা হয়েছে, তা হল-

১. পিপল ব্যবহারকারীর হাতেই নিজ অ্যাকাউন্টের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকবে।

২. কোনো ব্যক্তিই অন্য কোনো ব্যক্তিকে অ্যাপে যোগ করতে পারবেন না।

৩. প্রোফাইল ডি-অ্যাক্টিভেট করা সম্ভব হবে।

৪. রেটিং প্রক্রিয়ার পরিবর্তে ‘রেকমেন্ডেশন’ প্রক্রিয়া যোগ করা হয়েছে।

এ ছাড়াও পরিচয় গোপন রেখে অ্যাপটি ব্যবহার করা যাবে না, ব্যবহারকারীকে অ্যাপে প্রবেশ করতে হলে অবশ্যই ফেইসবুক লগ-ইন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তা করতে হবে।

পরিবর্তন আনা স্বত্ত্বেও অ্যাপটি নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন ইউনিভার্সিটি অফ ইস্ট অ্যাংলিয়ার আইন বিভাগের প্রভাষক ও প্রাইভেসি অ্যাডভোকেট পল বার্নাল। বার্নাল এ বিষয়ে বলেছেন, “বেশ কিছু সমস্যার সমাধান করলেও, অ্যাপটিতে বেশ গুরুত্বপূর্ণ কিছু সমস্যা রয়েই গেছে। যেমন, প্রোফাইল ডি-অ্যাক্টিভেট করলেও প্রতিষ্ঠানটির কাছে ডেটা বেশ দুর্বলভাবে থেকেই যাচ্ছে।

আমার একটি ছোট ব্লগ সাইট আছে দয়া করে সবাই ভিজিট করুন HamWap.Com

2 thoughts on "আবার আসছে বিতর্কিত অ্যাপ ‘পিপল’"

  1. Saiful8 Saiful8 Contributor says:
    vi ame ki kohono tuner hota parum na


Leave a Reply