আসসালামু আলাইকুম,
আশা করছি সবাই অনেক ভাল আছেন।
আজকের এই পোস্টে আপনারা জানতে পারবেন পাঁচটি অ্যাপ এর ব্যাপারে।
যে পাঁচটি অ্যাপ আপনাদের অনেক ক্ষেত্রে অনেক সময় অনেক হেল্প করবে।
তো চলুন বেশি কথা না বাড়িয়ে জেনে নেওয়া যাক সেই পাঁচটি দুর্দান্ত অ্যাপ এর ব্যাপারে।


১। TAG WAG
আমরা সাধারণত সোশ্যাল মিডিয়াতে যখন কোন ছবি পোস্ট করি।
তখন সেখানে ক্যাপশন টা কি দেওয়া যেতে পারে?
সেটা খুঁজে বের করতে গেলে অনেকেরই মুশকিলে পড়তে হয়?
তো এই সমস্যার সমাধান করতে এই অ্যাপটি খুবই কাজের।
অ্যাপটির মধ্যে যখন আপনার ছবি ইনপুট করবেন তো সেই ছবির সাথে রিলেটেড করে বেশ কিছু ক্যাপশন।
অটোমেটিকলি সাজেস্ট করবে।
তোর সেগুলোর মধ্যে আপনার যেটা পছন্দ হবে। আপনি সেটি কপি করে।
পোস্টে আপনি ব্যবহার করতে পারেন সেই সুন্দর ক্যাপশন গুলো।
আর হ্যাঁ শুধুমাত্র ক্যাপশন ই না, আমরা অনেকে পোস্টে হ্যাশট্যাগ ইউজ করে থাকি।
তো আপনারা যখন ছবি ইমপোর্ট করবেন এই অ্যাপটির মধ্যে।
তো আপনার ছবির সাথে রিলেটেড করে হ্যাশট্যাগ ও বের করে দিবে।
তো আপনার যেই হাসতে একটি সাধারন তো পছন্দ হবে সেটি কপি করে নিয়ে এসে। আপনার ফেসবুক পোস্টে ব্যবহার করতে পারেন।


২।GRAPHIONICA
তো এই অ্যাপটি ও খুবই কাজের, কারণ এই অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি। ফেসবুক এবং ইন্সটাগ্রাম এর জন্য চমৎকার চমৎকার স্টোরি ভিডিও বানাতে পারবেন।
অ্যাপটির মধ্যে ডিফল্ট ভাবে খুব সুন্দর সুন্দর টেমপ্লেট রয়েছে।
যে টেম্পলেটগুলো খুবই সুন্দর এবং ক্লিন একটা লুক আপনারা দেখতে পারবেন। প্রত্যেকটি টেমপ্লেট এই।


৩। DIMS
অনেকে দেখা যায় ঔষধ কেনার ক্ষেত্রে, একটু বিভ্রান্তিতে পড়ে থাকেন ফার্মেসিতে গিয়ে হয়তো।
তো এই অ্যাপটি ব্যবহার করলে আপনি অ্যাপের মধ্যে সার্চ অপশন পাবেন ঠিক প্রথমেই।

তো ওই সার্চ অপশনে গিয়ে আপনি যখনই যে কোন ওষুধের নাম যখন আপনি সার্চ করবেন, দেন সেই ওষুধের সমস্ত বিস্তারিত আপনি জেনে নিতে পারবেন।

এমনকি এটাও জানতে পারবেন সেই ঔষুধের দাম আসলে কত নির্ধারিত রয়েছে।
তো এই খুবই দরকারী ব্যাপার গুলো কিন্তু আপনি একদমই নিশ্চিত হয়ে নিতে পারবেন এই অ্যাপটির দ্বারা।


৪।  Headliner
এই অ্যাপটি দিয়ে আপনার অডিও প্রেস গ্রাউন্ড ভিডিও আপনারা তৈরি করতে পারবেন।।
আর খুবই মজার ব্যাপার হচ্ছে আপনি চাইলে আপনার ছবি দিয়ে এগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

তো অ্যাপটিকে ওপেন করে একটি মধ্য থেকে আপনার অডিও ফাইল টিকে ইমপোর্ট করতে হবে। যেটাতে আপনি সেই ভিডিওটা মেক করবেন।
তারপর এক্সপেক্ট রেশিও সিলেক্ট করতে হবে।
তারপর ইমেজ সিলেট করবেন যেটা দিয়ে আপনি ব্যবহার করবেন মূলত স্প্রেডট্রাম এনিমেশন।

তো আপনি চাইলেই অ্যাপটির মধ্যে এডজাস্ট করে নিতে পারবেন মানে কোন পজিশনে রাখবেন আর কি।
এবং একটির মধ্যে ডিফল্ট ভাবে অনেক রকম স্পেস গ্রাম এর ডিজাইন আছে।
তো চাইলে আপনার পছন্দমত চুস করে নিতে পারেন।

তো সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আপনি ফাইনালি ভিডিওটাকে এক্সপোর্ট করে নিজের গ্যালারিতে সেভ করে নিতে পারেন।


৫। DESIGN EVO
অবশ্য গুগল প্লে স্টোর এর লোগো মেকার অনেক অ্যাপই আছে।
তবে আমার কাছে এই অ্যাপটি সবচাইতে বেস্ট মনে হয়।
তার কারণ হলো এই অ্যাপটির মধ্যে আপনি অনেকগুলো ক্যাটাগরি পাবেন, আপনার লোগোটি প্রফেশনালভাবে ডিজাইন করার জন্য।

তো আপনার নরমালি এই ক্যাটাগরিতে পছন্দ হবে যেই লোগোটি পছন্দ হবে সেটার ওপর জাস্ট ক্লিক করবেন।
দেন সেটা কি আপনি কাস্টমাইজ করে নিতে পারবেন নিজের মতো করে।
ফর এক্সাম্প্লে টেক্সট রিমুভ করতে পারবেন। লগো তেও আপনি কিছু কাজ করতে পারবেন। টেক্সট এর কালার ও পরিবর্তন করা যাবে।

তো এই ব্যাপার গুলো হয়তো বা অনেকে জেনে থাকবেন, তো যদিও এই লোগো মেকার অ্যাপ অনেক আছে তো আমার কাছে এই অ্যাপটি অনেক ইউজার ফ্রেন্ডলি মনে হয়েছে তার জন্য শেয়ার করলাম।

ওয়েল ,এই ছিল আমাদের আজকের পোস্ট কোন অ্যাপটি আপনার কাছে সবচাইতে ভালো লাগলো তা অবশ্যই কমেন্ট এ আমাকে লিখে জানাতে পারেন।
ট্রিক বিডি থেকে আমি প্রান্ত আজকে এখানেই বিদায় নিচ্ছি আল্লাহ হাফেজ 🤗❤️

2 thoughts on "TOp 5 মোবাইল অ্যাপস | যেগুলো অনেক কাজের!"

  1. al+imran Contributor says:
    Hiphop 6k vi ata kamne somvob
    1. হৃদয় Author Post Creator says:
      আপনার লাগবে? ফোন করুন ❤️

Leave a Reply