আসসালামু আলাইকুম,

কেমন আছেন সবাই? আশা করছি মহান আল্লাহর রহমতে আলহামদুলিল্লাহ ভালোই আছেন। এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের টেলিগ্রাম এর API ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে এমন দুটি App এর কথা বলবো যেটি Telegram এর Original যে App টি আছে সেটির থেকেও বেশি ফিচারে ভর্তি।

Original Telegram App এ নিয়মিত প্রচুর Feature যুক্ত করা হচ্ছে। কিন্তু কিছু কিছু এমন Feature আছে যা এখনো যুক্ত করা হচ্ছে না কিন্তু সেগুলো বেশ গুরুত্বপূর্ণ ও দরকারী। এই App গুলোর মধ্যে আপনারা সেসব Feature গুলো দেখতে পারবেন যেগুলো আপনারা সাধারনত Original Telegram App এ দেখেন না।

আপনারা Apps গুলোর ফিচারগুলো দেখে অবাক ও মুগ্ধ দুটোই হবেন। কেননা আপনাদের অনেকেরই হয়তোবা ধারনাই নেই যে টেলিগ্রামের মাধ্যমে এত কিছু করা যায়। মূলত Original Telegram App এ যেসব ফিচার অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি বা যেসব ফিচার এর অভাব রয়েছে সেসব ফিচার দিয়েই এই App গুলোকে ডেভেলপাররা তৈরি করেছেন।

প্রচুর ফিচারে ভরা এই App টি আপনার একবার হলেও ব্যবহার করে দেখা উচিত। আপনারা যারা Telegram ব্যবহার করেন তারাই বুঝবেন আমি কেন এ কথা বলছি।

আর কথা না বাড়িয়ে মূল টপিকে চলে যাই।

2) App Name : Telegram X

Link : Playstore

 

এটি Telegram এর যে মূল ডেভেলপাররা বা মূল কোম্পানি যেটি আছে তারাই এই App তৈরি করেছে। মানে এটি একটি Official App।
এবার এক এক করে এর ফিচারগুলো সম্পর্কে কথা বলা যাক।

১) Telegram X এ আপনাদের প্রথমেই Log in করতে হলে আপনার Number টি দেওয়ার পর আপনি দেখতে পারবেন এখানে আপনার ফোন নাম্বারে কোনো code যাচ্ছে না। কারন সে Code টি যাবে আপনার telegram App এ। আমি জানি এটা কোনো ফিচার না। তবুও এটা জানিয়ে রাখলাম। না হলে পরে অনেকেই অনেক কথা বলতে পারেন।

 

২) Interface :

Log in করার পর দেখতে পাবেন Home screen Telegram original App থেকে একদম আলাদা। এটি Whatsapp এর মতো করে কিছুটা Design করা হয়েছে। Calls ও Chats এর জন্যে আলাদা আলাদা দুটি Tab দেখতে পাবেন।

৩) Dark Mode/Night Mode :

এরপর যদি Side এ Menu তে যান তবে দেখতে পাবেন এখানেও আলাদা ভাবে ডিজাইন করা। যেমনঃ নিচের দিকে Dark mode এর জন্যে আলাদা করে একটা dedicated button দেওয়া আছে। এতে dark mode on করা অনেক সহজ হয়ে যায়। যাদের Amoled display আছে তারাই এই dark mode এর আসল স্বাদ পাবেন।

Telegram X App এ Automatic Night mode নামেরও একটি Option আছে যা আপনার ফোনের Sensor গুলোকে Detect করে রাতের বেলায় automatic night mode On করতে পারে। আপনি চাইলে Schedule করে রাখতে পারবেন কখন আপনার Night mode প্রয়োজন আর কখন Light mode.

৪) Multiple Accounts :

এরপর যে ফিচারটির কথা বলবো সেটি অনেকেরই প্রয়োজন কিন্তু তা টেলিগ্রামে নেই।

Multiple Accounts। হ্যাঁ টেলিগ্রাম একসাথে ৩ টি Account এ Log in করা যায়। এর বেশি না। কিন্তু Telegram X এ আপনারা যত ইচ্ছা Account Log in করে রাখতে পারবেন এবং সবগুলো একসাথে ব্যবহার করতে পারবেন।

৫) Lite & Fast :

Telegram X টি Telegram Original App থেকে বেশি Lite ও Fast । আপনি নিজেই ব্যবহার করলে বুঝতে পারবেন। এর Ui কে এত সুন্দর ভাবে Customize করা হয়েছে যে Telegram এর Original app থেকে এটি বেশি Lite ও Fast।

৬) Themes :

টেলিগ্রাম এ এখন অনেক ভালো ভালো Themes পাওয়া যায়। কিন্তু সেগুলোতেও কিছুটা কমতি দেখা যায়। যারা আমার মতো Customization Lover আছেন তাদের কাছেই বেশিরভাগ এই অভাব টা পরিলক্ষিত হয়।

আগের পোস্টে আমি কিভাবে Telegram Original App এ Themes বানাতে হয় সেটা বলেছিলাম। কিন্তু সেখানেও Themes Design এর‍ Options গুলো ছিল খুবই কম।

Telegram X এ আপনারা ৯ টি Colour এর Themes পাবেন যা দেখতে এতটাই সুন্দর যে আপনাকে মুগ্ধ করতে বাধ্য। Classic, Blue, Red, Orange, Green, Pink, Cyan, Night Blue, Night Black এ ৯ টি Theme Default ভাবে পেয়ে যাবেন।

সবার কাছে পছন্দ আবার নাও হতে পারে। তবে আমি Telegram X এর Theme নিয়ে বেশিরভাগই Positive Review ই দেখেছি।
Themes Customization এর বিষয়ে যা বলছিলাম, Telegram X এ আপনারা প্রচুর Options পাবেন Theme Customization এর। প্রচুর মানে প্রচুর।

এখানে আপনারা Ui, Background, Chats, Accent, Content, Header, Control, Media, Bubbles, Instant View, Service, Voice, photo,video ইত্যাদি সবকিছু Customize করতে পারবেন আপনার নিজের মতো। তাই Customization যারা করতে পারেন ও Customization করতে ভালোবাসেন তারা অবশ্যই Check out করবেন।

আরো একটা কথা। আপনারা চাইলে প্রত্যেক Account এর জন্যে আলাদা আলাদা Themes Apply করতে পারবেন যা আপনাকে একসাথে অনেকগুলো Themes ব্যবহার করার সুযোগ করে দেয়।

 

৭) Saved Massages :

আমি জানি অনেকেই হয়তোবা বলবেন Telegram এ তো Already Saved Massages এর Option আছেই। হ্যাঁ আছে। কিন্তু Telegram X এ একটু ব্যতিক্রম। আপনারা Telegram X এ Saved Massages এ গেলে Messages, Media, Documents, Links, Audio, Gifs, Voice, Video প্রত্যেকটা কাজের জন্যে আলাদা আলাদা Category পাবেন।

Home screen থেকে একবার side এ scroll করলেই যে Menu পাবেন সেখানেই দেখতে পাবেন Saved Messages এর আলাদা Dedicated একটি Option দেওয়া আছে।

আমরা সবাই জানি Telegram এ Saved Messages এর Option টা কতটা উপকারি। বেশিরভাগ ব্যবহারকারীই একে একটি Cloud Storage হিসেবে ব্যবহার করে। কিন্তু Telegram এ সবকিছু একসাথে Category করে সাজানো থাকে না সবকিছু।

যার ফলে দরকারী সময়ে গুরুত্বপূর্ণ ফাইলগুলো দ্রুত পেতে সমস্যা হয়। কিন্তু Telegram X এ আপনারা এই সমস্যার সমাধান সহজেই করতে পারবেন।

 

৮) Interface :

Telegram Original App এ এই Option টি আপনারা পাবেন না। Telegram X এ আলাদা ভাবে Settings এ এই Option টি দেওয়া আছে। এর কারন হচ্ছে Extra কিছু কাজের জন্যে।

কি কি কাজ আসুন জেনে নিই।

#1) Autoplay Gifs (ON-OFF)

Gif গুলো Automatic ভাবে Play হওয়া চালু অথবা বন্ধ করতে পারবেন।

#2) In app Browser (ON-OFF)

Telegram এর ভিতরে কিংবা Telegram এর বাইরের কোনো external browser দিয়ে লিংক Open করতে পারবেন এমনটা আলাদা ভাবে Set করতে পারবেন।

#3) Chat previews (ON-OFF)

কোনো Chat এর ইনবক্সে না ঢুকে প্রথমে Preview করে দেখতে পারবেন। এতে Message seen করার যে ভয়টা আছে সেটা থেকে মুক্তি পেতে পারবেন 😁।

অনেকেই এই সমস্যায় ভুগেন, যে কারো মেসেজ Seen না করতে চাওয়া সত্তেও Seen হয়ে যায় তখন আর কোনো উপায় থাকে না। আবার কি মেসেজ দিয়েছে অপর পাশের ব্যক্তি সেটিও দেখতে চান কিন্তু মেসেজ যেন Seen না হয়।

এই ফিচারটি Telegram X এই পেয়ে যাবেন। অনেকেরই উপকারে আসবে। Telegram অন্যান্য Messenger App গুলো থেকে এক্ষেত্রে এগিয়ে আছে।

#4) Custom Vibrations (ON-OFF)

আপনি চাইলে Custom Vibrations চালু কিংবা বন্ধ করতে পারবেন।

#5) Reduce Motion (ON-OFF)

Motion Reduce করতে পারবেন।

#6) Animated emoji (ON-OFF)

অনেকেই Animated emoji দেখতে চান না। তারা এটি বন্ধ কিংবা চালু দুটিই করতে পারবেন।

#7) Big emoji (ON-OFF)

বড় ইমোজিগুলো দেখতে না চাইলে বন্ধ করতে পারবেন। আবার চালুও করতে পারবেন।

#8) Loop Animated Stickers (ON-OFF)

Animated Sticker গুলো বার বার চলতেই থাকে এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন এই ফিচারটির মাধ্যমে।

#9) Swipe Actions

Swipe করে মেসেজের Reply দিবেন নাকি Share করবেন এটা আপনি নিজের মতো করে সেট করে রাখতে পারবেন।

#10) Send By Enter (ON-OFF)

Keyboard এর Enter e Press করে Send করার অপশনটিও এখানে আছে।

#11) Hide Keyboard on chat scroll (ON-OFF)

Chat scroll করার সময় Keyboard Hide করে রাখতে পারবেন।

#12) Open in instant view

টেলিগ্রাম এর সকল লিংক Instant View করবেন নাকি শুধু Telegram.ph/ telegram.org এর লিংকগুলো instant view করবেন এটা set করতে পারবেন। কিংবা কোনো লিংকই যদি আপনি Instant view করতে না চান তবে সেটিও এখানে সেট করে রাখতে পারবেন।

Telegram এর Original App এ এই ফিচারটি নেই যা অনেক দরকার হয় অনেক সময়ই।

#13) preview external links

external link গুলোকে preview করতে পারবেন।

#14) separate photo and video তাবস (ON-OFF)

ছবি ও ভিডিও দুটির জন্যই আলাদা ট্যাব সেট করে রাখতে পারবেন। না চাইলে বন্ধ করে রাখতে পারেন।

#15) record high quality round videos

HD Quality তে Round Video Record করে রাখতে পারবেন।

#16) compress audio (ON-OFF)

Audio Compress যদি আপনি করতে চান তবে করতে পারেন। আর না চাইলে বন্ধ করে রাখতে পারেন।

#17) inapp camera customization

TelegramX/Lgeacy/System যে ক্যামেরা দিয়ে আপনি Photo/Video Record করতে চান আপনি করতে পারবেন।

#18) press volume key to take pictures or record videos/zoom/system volume

volume button এর মাধ্যমে ভিডিও কিংবা ছবি তুলতে পারবেন অথবা জুম করতে পারবেন। যদি না চান তবে বন্ধ করে Default System এও ফিরে যেতে পারবেন।

এছাড়াও আরো কিছু ফিচার আছে যা আপনারা নিজেরা ব্যবহার করে Exolore করুন।

নিচে App টির কিছু Screenshots দিয়ে দিচ্ছি দেখে নিবেনঃ

 

 

01) App Name : Telegraph (Graph Messenger)

Link – Playstore

শুরুতেই বলে দিতে চাই এটি আমার দেখা সেরা Telegram Alternative গুলোর মধ্যে একটি। এতে এত এত ফিচার আছে যা আপনি এই পোস্টটি যদি মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলেই বুঝতে পারবেন।

আমি এক এক করে সেরা যেসব ফিচারগুলো এই এপ্লিকেশনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে সবগুলোর কথা বলছি। আশা করছি আপনারা না পড়ে যাবেন না। কেননা লিখতে অনেক কষ্ট হয়।

১) Log In করার পরই দেখতে পাবেন সুন্দর একটি Home screen interface। এখানে আপনাকে প্রথমেই কোন Tool এর কি কাজ সব বিস্তারিত বলে দিবে। সবগুলো নয় আবার। যেগুলো ফিচার নতুন নতুন এড করা হয় সেগুলোই বলে দেয়। সবগুলো নিয়ে আমিই বলে দিচ্ছি এক এক করে।

২) Saved Messages :

প্রথমেই বলে দিই এখানে Saved masseges এর Option টা side এ slide করে পাবেন না। উপরে 3 dot এ ক্লিক করলে Saved messages এর Option টি পেয়ে যাবেন।

৩) Timeline :

উপরে 3 dot এ ক্লিক করলে Timeline এর Option টি পেয়ে যাবেন।

আপনারা সবাই Facebook এর Timeline সম্পর্কে জানেন ও ধারনা রাখেন। Telegram er Official App টিতে এই ফিচারটি নেই। অনেকেই প্রতিদিন একবার করে টেলিগ্রামে ঢুকে হাজার হাজার মেসেজ পড়তে চায় না সব গ্রুপ চ্যানেলের। তারা এই টাইমলাইন ফিচারটির মাধ্যমে প্রত্যেক গ্রুপে কি কি বিষয় নিয়ে কথা চলছে তা একসাথে দেখতে পারবেন। অনেকটা ফেসবুকের মতই।

৪) Favourite Messages :

উপরে 3 dot এ ক্লিক করলে Favourite messages এর Option টি পেয়ে যাবেন।

এখানে আপনারা যেকোনো মেসেক কাউকে সেন্ড বা ফরওয়ার্ড না করে বুকমার্ক হিসেবে Favourite messages এ সেভ করে রাখতে পারবেন। পরে যখন ইচ্ছা এখান থেকে সে মেসেজটি দেখতে পারবেন

৫) Contacts :

এখানে আপনারা Contacts এর ক্ষেত্রে অনেকগুলো Option পাবেন View করার। যেমনঃ Filter করতে পারবেন Mutual contacts, not mutual contacts, online contacts, blocked contacts, probably blocked you contacts গুলোকে।
এখানে আপনারা Nearby search এর Option ও পাবেন যা Telegram এর Original App এ নেই।

৬) Screen Light & Colour Filter :

আমি আপনাকে বলে বুঝাতে পারবো না এই ফিচার টি আমি কত খুজেছি আর এটি কতটা দরকারী আপনার আমার সবার জন্যই।
কেন দরকারী বলছি। এই ফিচারটির মাধ্যমে আপনারা আপনাদের চোখকে সুরক্ষিত রাখতে পারবেন।

আমি এর আগেও Blue light filter নিয়ে একটি পোস্টে দিয়েছিলাম। অনেকেই সেখানে বলেছিল বর্তমানে বেশিরভাগ মোবাইলেই এই ফিচারটি ইনবিল্ট থাকে। হ্যাঁ আমি সেটা মানছি। কিন্তু আপনি আপনার স্ক্রিন এর ব্রাইটনেসকে কতটা কমাতে পারবেন? এই App এর মাধ্যমে এতটাই ব্রাইটনেস কমাতে পারবেন যে আপনি আর চোখে দেখতে পারবেন না।

ব্রাইটনেস এর কথা বাদ দিলাম। এখানে আপনারা Red/Green/Blue তিন ধরনের Filter ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি এগুলো নিজের ইচ্ছামতো Customize করতে পারবেন। তবে এখানে আলাদাভাবে Night Filter এর Option ও আছে। Incase আপনি এত Customize এর দিকে যেতে চান না।
চোখের সুরক্ষার জন্য এই এপ্লিকেশনটিকে বেশ ভালোভাবেই ডেভেলপ করা হয়েছে।

৭) Dark Mode :

এ নিয়ে তেমন কিছুই বলার নেই। কারন এটি আপনারা পেয়ে যাবেন মেনু তে গেলেই।

৮) Special Features :

এখানে Special কিছু Features দেওয়া আছে যা অন্যান্য Telegram App গুলোতে আপনারা পাবেন না। Telegram এর Official App এও পাবেন না।

কি কি স্পেশাল ফিচার পাচ্ছেন তা বলছিঃ

1) Download Manager :

হ্যাঁ আপনাকে আর আলাদা ডাউনলোড ম্যানেজার ব্যবহার করতে হবে না টেলিগ্রাম থেকে ডাউনলোড করার জন্যে। এটি Idm+ এর মতোই কাজ করে।

Schedule downloading, Multi downloading, Simultaneous Downloading এর Option পেয়ে যাবেন। চাইলে সম্পূর্ণ Download Queue Delete করে দিতে পারবেন একসাথে। অথবা চাইলে পরের জন্যে সেভ করে যেকোনো সময় ডাউনলোড করতে পারবেন ফাইলগুলো।

2) File Manager :

আপনি কি এটা কল্পনাও করতে পেরেছেন যে টেলিগ্রামের মধ্যেই আপনি ফাইল ম্যানেজার ব্যবহার করতে পারবেন? হয়তো পেরেছেন। আবার হয়তো অনেকের খেয়ালেই আসেনি এই কথাটা। এটা কোনো সাধারন File manager নয়। আপনি ব্যবহার করলেই বুঝতে পারবেন। আপনার নিজে explore করুন। বেশি কিছু বলবো না 😁

3) ID Finder :

আপনি যেকারো Username দিয়ে তার Id বের করতে পারবেন এই Tool টির মাধ্যমে। আমি Bot এর কথা বলছি না।

4) Calls :

এর মাধ্যমে দেখতে পাবেন কোন কোন গ্রুপ অনলাইন কলে আছে। তাদেরকে একসাথেই পেয়ে যাবেন এই অপশনে গেলেই। এরপর যেখানে ইচ্ছা Join দিয়ে কথা বলতে পারবেন।

 

৯) Telegraph Settings (General)

এতক্ষন যেসব ফিচার নিয়ে কথা বলছিলাম সেগুলো তো কিছুই না। আরো অনেক ফিচার এখানে পাবেন।

এখানে যা যা পাচ্ছেন তার বিস্তারিত বলছি।

1) Fonts :

আপনারা অনেক Fonts পাবেন এখানে Change করার মতো ও সেগুলো ব্যবহার করার মতো। সেগুলোকে আবার Bold, Italic, mono, drawing text font ও করতে পারবেন।

2) icons :

আপনারা চাইলে এই এপ্লিকেশনটির Icon ও পাল্টাতে পারবেন। এখানে মোট ১২ রকমের সুন্দর সুন্দর icons পেয়ে যাবেন। এছাড়াও আপনারা চাইলে Notification Icon ও পাল্টাতে পারবেন।

3) Screen Layout :

আপনারা Screen Layout change করতে পারবেন Left to right অথবা Right To Left দিকে।

এরপর আরো যেসব ফিচার পাবেন সেগুলো হচ্ছেঃ

4) Persian Calender

5) Passcode Background

6) Scratch Mobile Number

7) Disable Call Feature

8) Show Status Indicator (on-off)

9) Touch on user avatar (change করতে পারবেন)

10) Touch on group avatar (change করতে পারবেন)

এগুলো ছাড়াও আরো অনেক ফিচার আছে। আমি তো মাত্র কয়েকটার কথা বললাম। সবগুলোর এক এক করে বিস্তারিত বললাম না কারন পোস্ট ৫০০০ Word এর মত ক্রস করবে। কারন এত ফিচার আছে যে এগুলো নিয়ে বিস্তারিত লিখতে গেলে আমার ১ পোস্টই লিখতে এক সপ্তাহ লেগে যাবে।
তাই এগুলো আপনারা নিজেরা Explore করুন।

১০) Telegraph Settings (Chats List – Main page)

1) Main page icons পাল্টাতে পারবেন।

2) Main page avatar, title bar decoration করতে পারবেন।

3) Default Tab পাল্টাতে পারবেন।

4) Tab bar, action bar, list, sizes, categories, shadows ইত্যাদি সবকিছুই ইচ্ছামতো Customize করতে পারবেন।

এগুলো ছাড়াও আরো অনেক ফিচার আছে। আমি তো মাত্র কয়েকটার কথা বললাম।
সবগুলোর এক এক করে বিস্তারিত বললাম না কারন পোস্ট ৫০০০ Word এর মত ক্রস করবে। কারন এত ফিচার আছে যে এগুলো নিয়ে বিস্তারিত লিখতে গেলে আমার ১ পোস্টই লিখতে এক সপ্তাহ লেগে যাবে।
তাই এগুলো আপনারা নিজেরা Explore করুন।

১১) Telegraph Settings ( chat )

এখানে যা যা Customize করতে পারবেনঃ

1) Chat page icons

2) extra icons

3) chat bars

4) short messages

5) media

6) list

7) bottom pannel

8) emoji

9) sizes

এগুলো ছাড়াও আরো অনেক ফিচার আছে। আমি তো মাত্র কয়েকটার কথা বললাম।
সবগুলোর এক এক করে বিস্তারিত বললাম না কারন পোস্ট ৫০০০ Word এর মত ক্রস করবে। কারন এত ফিচার আছে যে এগুলো নিয়ে বিস্তারিত লিখতে গেলে আমার ১ পোস্টই লিখতে এক সপ্তাহ লেগে যাবে।
তাই এগুলো আপনারা নিজেরা Explore করুন।

১২) Forward :

এখানে যা যা Customize করতে পারবেনঃ

1) multi choice forward

2) show confirmation alert

3) drawing multi forward

4) folders

5) tab customization (width, mergin, style etc)

6) infinite swap

7) categoru button

8) contact tab

এগুলো ছাড়াও আরো অনেক ফিচার আছে। আমি তো মাত্র কয়েকটার কথা বললাম।সবগুলোর এক এক করে বিস্তারিত বললাম না কারন পোস্ট ৫০০০ Word এর মত ক্রস করবে। কারন এত ফিচার আছে যে এগুলো নিয়ে বিস্তারিত লিখতে গেলে আমার ১ পোস্টই লিখতে এক সপ্তাহ লেগে যাবে।
তাই এগুলো আপনারা নিজেরা Explore করুন।

১৩) Main menu :

এখানে যা যা Customize করতে পারবেনঃ

1) Main menu title decoration

2) main menu icons style

3) main items

4) quick access items

১৪) Keep original file name :

এই ফিচারটি যারা নিয়মিত টেলিগ্রাম ডাউনলোডিং এর জন্য ব্যবহার করেন তারা অনেকেই চান। এটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি ফিচার যা টেলিগ্রাম দূর্ভাগ্যবসত নেই। অনেকেই জানেন টেলিগ্রাম থেকে কোনো ফাইল ডাউনলোড করলে তার নাম Original Name থাকে না।

কিন্তু এই Option টি Enable করার মাধ্যমে আপনারা Telegram থেকে ডাউনলোড করা ফাইলগুলোর নাম যেন পালটে না যায় সেটি Set করে অনেক বড় একটি সমস্যার সমাধান করতে পারবেন।

আমি জানি এই ফিচারটি অনেকেই খুজছেন টেলিগ্রামে। টেলিগ্রামে কবে আসবে তা আমি জানি না। কিন্তু আপনারা এই এপ্লিকেশনটির মাধ্যমে এই ফিচারটিরও সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

 

১৫) Multi Accounts :

আপনারা এখানে 100 টি পর্যন্ত Multilple Account ব্যবহার করতে পারবেন। যা আশা করছি আপনাদের জন্য Enough হবে। এছাড়াও শুরুতে কতগুলো Multiple account start হবে সেটিও সেট করতে পারবেন।

কারন একসাথে সবগুলো একাউন্ট চালু হলে আপনার ফোনের Ram ও Processor এর উপর অনেক চাপ পড়বে। এ বিষয়টি মাথায় রেখেও এই ফিচারটি এখানে দেওয়া হয়েছে।

 

১৬) Auto Answer :

আপনারা এই Tool এর মাধ্যমে Automatic answer দিবে এমনটা Set করে রাখতে পারবেন। অনেকের কাছেই এটি একটি useful feature। আপনি আপনার ইচ্ছামতো এখানে Automatic answer এর জন্য message টি লিখে রাখতে পারবেন।

১৭) Pattern Lock :

telegram এ Passcode lock আছে। কিন্তু Pattern lock নেই। অনেকেই passcode এর চেয়ে বেশি pattern lock ব্যবহারে অভ্যস্ত। তাদের জনে এই ফিচারটি অনেক উপকারে আসবে বলে আশা করছি।

১৮) Lock Chats :

আপনারা চাইলে যেকোনো Chat lock করে রাখতে পারবেন। চাইলে সেখানে Pattern hide ও করে রাখতে পারবেন।

১৯) Hidden Section :

এখানে একটি Hidden section দেওয়া আছে আপনার Private file গুলো সংরক্ষন করে রাখার জন্য। এটাকেও আপনারা বিভিন্নভাবে Customize করে রাখতে পারবেন ও Extra security set করে রাখতে পারবেন।

২০) Hidden Accounts :

আপনারা চাইলে Account Hide ও করে রাখতে পারবেন যেন সে একাউন্ট গুলোতে কেউ আপনার ফোন ধরলেই Access করতে না পারে।

২১) Group Bar :

আপনি যেকোনো Chat এ গিয়ে আপনার বিভিন্ন Group Manage করতে পারবেন। এর মানে হচ্ছে আপনারা একসাথে একাধিক Chat ও Group একইসাথে ব্যবহার করতে পারবেন। Multi-tasking এ যারা অভ্যস্ত তাদের অনেক কাজে আসবে বলে আশা করছি।

২২) Translate :

এখানে Translate করারও Option আছে যা আপনারা Telegram App এ দেখতে পাবেন না।

২৩) Draw on chats :

আপনারা চাইলে যেকোনো ইনবক্স থেকে Draw করেও Message পাঠাতে পারবেন। এটাও আপনারা টেলিগ্রাম এপ্লিকেশনটিতে দেখতে পাবেন না।

এছাড়াও আরো অনেক ফিচার আছে। আমি তো মাত্র কয়েকটার কথা বললাম।সবগুলোর এক এক করে বিস্তারিত বললাম না কারন পোস্ট ৫০০০ Word এর মত ক্রস করবে। কারন এত ফিচার আছে যে এগুলো নিয়ে বিস্তারিত লিখতে গেলে আমার ১ পোস্টই লিখতে এক সপ্তাহ লেগে যাবে।
তাই এগুলো আপনারা নিজেরা ব্যবহার করে Explore করুন।

আমি প্রথমেই বলেছি এটি আমার দেখা সেরা Telegram Alternative। কারন এই App টিতে আমি অনেক ফিচারই পেয়েছি যা টেলিগ্রাম এর অফিশিয়াল এপ্লিকেশনটিতে এখনো এড করা হয়নি। আর ভবিষ্যতে করা হবেও নাকি সন্দেহ আছে।

আমি প্রথমেই বলেছিলাম এই এপ্লিকেশনটি অনেক ফিচারে ভরা। যারা টেলিগ্রাম ব্যবহারের মূল স্বাদ পেতে চান তারা এই এপ্লিকেশনটিকে একবার হলেও ইন্সটল করে দেখবেন।

এতক্ষন যা যা বললাম সবকিছুর প্রমান হিসেবে স্ক্রিনশটসঃ

 

 

 

 

অবশেষে বলবো, অনেক কথা বলে ফেলেছি। এসব ফিচার আপনারা টেলিগ্রাম এর অরিজিনাল এপ্লিকেশনে পাবেন না। এক্সট্রা ফিচারের মাধ্যমে আপনারা আপনাদের অনেক কাজ আরাও সহজ ভাবে করতে পারবেন। এ কারনেই এই পোস্টটি লিখা। আশা করি কারো না কারো অবশ্যই কাজে লাগবে। যদি কাজে আসে তবে অবশ্যই আমাকে জানাবেন।

আশা করছি পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে।
ইনশাল্লাহ দেখা হবে পরের পোস্টে।
ট্রিকবিডির সাথেই থাকুন।
ধন্যবাদ।
This is 4HS4N
Logging Out…

8 thoughts on "Telegram এর দুইটি অসাধারন Alternative! (Part-2)"

  1. SD Topu Contributor says:
    Alternative মানে কি আপনি জানেন?
  2. abir Author says:
    কিছু বলতে ইচ্ছে করতাছে কিন্তু বলবো না।
  3. Shakib Author says:
    vai aita alternavites hobe nah, like as telegram app / copy as telegram
    1. Sakibur Rahman Contributor says:
      Amro same kotha😅😅
      Olpo bidda voyonkor🐸
  4. MD Musabbir Kabir Ovi Author says:
    ভাই কিছু মনে নিবেন না, পোস্ট একটু বড় হয়ে গেছে
  5. Abu Sayed Contributor says:
    MTProto দিয়ে আপনিও একটা Alternative বানাই ফেলেন! লুল!
  6. Najmul Nazu Author says:
    এমন আর কোন অ্যাপ আছে যেটাতে প্রোফাইল ব্যাজ লাগাইতে পারবো?

Leave a Reply