গুগলে প্রায় 200 টিরও বেশি রেংকিং ফ্যাক্টর রয়েছে, এই ব্যাংকিং সেক্টর গুলোর উপরে নির্ভর করে আপনি গুগলের প্রথম পেইজে জয়েন করতে পারবেন কিনা।

আপনার ওয়েবসাইট কিংবা কনটেন্ট ব্যাংকিং সেক্টর গুলো যতটা মেনে চলবে আপনার রেংকিং এর মান তত বেশি উন্নত হবে।

আর গুগলে রেংকিং সেক্টরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য একটি হল ব্যাকলিংক তৈরী করা বা লিংক বিল্ডিং, এটি আপনার রেংকিং এর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আপনি যদি কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারেন তাহলে এটি আপনার রেংকিং অনেকটা এগিয়ে দেবে। তবে এই ব্যাকলিংক তৈরী করা কিন্তু অনেকগুলো ধাপ রয়েছে।

যে যত বেশি ওই বিষয়গুলোতে মনোযোগ দেবে সে তত বেশি ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবে, কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পাওয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি উপায় হল অন্যান্য ওয়েবসাইটে guest পোস্ট করা।

গেস্ট পোস্ট আসলে কি?

guest পোস্ট হল এমন এক ধরনের ব্লগিং, যার মাধ্যমে আপনি আপনার লেখার স্টাইল গুলো অন্য ব্লগ সাইটে প্রকাশ করেন এবং এর পরিবর্তে আপনি কিছু ডলার কিংবা অন্য কোনো স্বার্থ সিদ্ধি করেন.।

তবে অনেক ব্লগার রয়েছেন যারা গেস্ট পোস্ট করার জন্য শুধুমাত্র একটি কোয়ালিটি ব্যাকলিংক আশা করেন, ব্যাপারটা নিঃসন্দেহে ভালো যে আপনি যদি গেস্ট পোস্ট করে কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পান তাহলে এটা আপনার রেংকিং এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

একদম সহজ ভাবে বলতে গেলে গেস্ট পোস্টিং বলতে বুঝায় অন্যান্য ওয়েব সাইটে আপনার আর্টিকেলগুলো পাবলিশ করা, আর সেটা প্রায় ক্ষেত্রে অনেক কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

guest blogging কিভাবে করবেন?

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা গেস্ট ব্লগিং করে কোয়ালিটি ব্যাকলিংক নিতে চান, কারণ একটিমাত্র কোয়ালিটি ডুফলো ব্যাকলিংক আপনার রেংকিং অনেকটা বৃদ্ধি করতে পারে।

এছাড়াও গেস্ট ব্লগিং এর দ্বারা আপনি চাইলে যে সমস্ত ওয়েবসাইটগুলোতে সবচেয়ে বেশি ভিজিটর আছে তাদের ওয়েবসাইট থেকে কোয়ালিটি ভিজিটর নিয়ে আসতে পারেন।

আপনি যদি একটি সফল গেস্ট পোস্ট করতে চান তাহলে এই পোস্টটি অবশ্যই কন্টিনুয়ে করুন, আশা করি এখানে আপনি পরিপূর্ণ গাইড লাইন পেয়ে যাবেন।

guest blogging সিক্রেট টিপস

গেস্ট ব্লগিং করতে হলে আপনি যে সমস্ত বিষয়গুলো অবশ্যই মাথায় রাখবেন সে সমস্ত বিষয় গুলোর একটি লিস্ট আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি।

▪ কোয়ালিটি Content
▪ একটি হাই অথরিটি সাইট
▪ বেশি ভিজিটর
▪ Spam score

কোয়ালিটি কনটেন্ট

আপনি যদি অন্য যে কোন ওয়েব সাইটে আপনার আর্টিকেল এর অনুমোদন নিতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই একটি কোয়ালিটি আর্টিকেল বা কনটেন্ট লিখতে হবে।

এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই যেকোনো একটি সময়োপযোগী টার্গেটেড টপিক নির্বাচন করতে হবে এবং তার পরে এটা নিয়ে ভালোভাবে research করতে হবে।

আপনি যেকোন রকমের এবার নির্বাচনের আগে প্রথমে আপনাকে এই কী-ওয়ার্ড এর ভ্যালু এবং একটি কতটা ইউনিক বা কতটা ভিজিটর বয়ে নিয়ে আসতে পারবে সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে।

আপনি চাইলে কি ওয়ার্ড নির্বাচনের ক্ষেত্রে সবচেয়ে জনপ্রিয় কিছু কিওয়ার্ড টুলস এর সহযোগিতা নিতে পারেন. নিচের দেয়া পোস্ট থেকে আপনি জনপ্রিয় কীওয়ার্ডস টুলস গুলো সংগ্রহ করতে সক্ষম হবেন।

keywordtool
secockpit
Jaaxy
Soovle

যখনই আপনি উপরুক্ত ওয়েবসাইট থেকে সমস্ত কিওয়ার্ড টুলস এর লিস্ট সংগ্রহ করে নিবেন তখন আপনি এখান থেকে যেকোন একটি টুলস নির্বাচন করে নিন।

এবং তারপরে ওই টুলস এর সাহায্যে আপনার যেকোনো একটি কিওয়ার্ড রিসার্চ করে নিন, আপনি সবচেয়ে হাই বেলু প্রোভাইড কোন কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারেন।

কিওয়ার্ড রিসার্চ করা হয়ে গেলে এবার আপনাকে আপনার কনটেন্ট এর মান উন্নয়নের দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে. কনটেন্টকে পুরোপুরি ব্যবহার উপযোগী করে তুলতে হবে।

এই সমস্ত কাজ সম্পাদনের জন্য আপনি নিয়ে ছেড়ে দেয়া বিষয়গুলো আপনার কনটেন্ট এর ভিতরে ঢুকিয়ে ফেলতে পারেন।

▪ ইমেজ।
▪ ইনফোগ্রাফিক্স।
▪ ভিডিও।
▪ অডিও এবং পডকাস্ট।

আপনাকে মূলত উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো আপনার আর্টিকেল এর মধ্যে প্রবেশ করাতে হবে, কারণ এই সমস্ত বিষয়গুলো আপনার আর্টিকেল কে আরো বেশি উন্নত করে তুলবে।

আর যখনই আপনি একটি ভাল কিওয়ার্ড রিসার্চ এবং আর্টিকেল লিখে ফেলবেন, তখন আপনি এটি চাইলে যে কোন ওয়েব সাইটে সাবমিট করতে পারেন। সাবমিট করার আগে আপনাকে যে বিষয়গুলো সবচেয়ে বেশি মনোযোগ দিতে হবে সেগুলো হলো:

▪ ভালো ডোমেইন অথরিটি।
▪ এই সাইটের অর্গানিক ট্রাফিক।
▪ ট্রাস্টেড স্কোর।

আপনি যখন উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো সম্পর্কে পুরোপুরি নিশ্চিত হয়ে যাবেন এবং এই বিষয়বস্তুগুলো সংখ্যা যখন আপনি লক্ষ্য করবেন সর্বাধিক রয়েছে, তখন আপনি ঐ সমস্ত সাইটের guest blogging নিঃসন্দেহে করতে পারবেন।

এবার প্রশ্ন হল আপনি যখন সবচেয়ে ভালো একটি আর্টিকেল লিখে ফেলবেন তখন আপনি ওই আর্টিকেল পাবলিশ করার মতো ওয়েবসাইট কোথায় পাবেন?

guest blogging Site কিভাবে পাবেন?

আপনি যদি একটি হাই ডু মিন অথরিটি যুক্ত গেস্ট ব্লগিং ওয়েবসাইট এর অনুসন্ধান করেন তাহলে আপনি প্রথমে গুগল সার্চ বারে গিয়ে টাইপ করতে পারেন আপনার Keyword এবং তারপরে write for us.

আপনি মূলত নিচের দেয়া সিক্রেট কিওয়ার্ডগুলো সার্চ করার মাধ্যমে আপনার পছন্দের গেস্ট ব্লগিং ওয়েবসাইট গুলো খুঁজে পেতে পারেন।

▪ Digital Marketing Write for us””
▪ Online marketing Write for us”
▪ SEO Write for us”
▪ Content Marketing Write for us”

উপরে উল্লেখিত যে কিওয়ার্ডগুলো আমি নিজে থেকে দিয়েছি এগুলো মূলত আপনাকে দেখানোর জন্য, আপনি চাইলে কী ওয়ার্ড এর জায়গায় আপনার পছন্দের যে কোন টপিক লিখে তারপরে Enter press করতে পারেন।

আর এভাবেই মূলত আপনি আপনার টার্গেটেড কি ওয়ার্ড রিলেটেড কোন একটি গেস্ট ব্লগিং ওয়েবসাইট খুঁজে পাবেন।

যখনই আপনি একটি গেস্ট ব্লগিং ওয়েবসাইট খুঁজে পাবেন তখন আপনাকে ওই গেস্ট ব্লগিং ওয়েবসাইটে একটি ইমেইল প্রেরণ করতে হবে।

একটা বিষয় অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন, ওই ওয়েবসাইটে আপনার পোষ্ট পাবলিশ হবে কিনা তার সিংহভাগ নির্ভর করবে আপনার ইমেইল প্রেরণ করার কাছে, এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই একটি ইন্টারেস্টিং ইমেইল লিখতে হবে।

আপনি আপনার ইমেইল এর মধ্যে বিভিন্ন রকমের ইন্টারেস্টিং টপিক যুক্ত করতে পারেন, এবং ওই ওয়েবসাইটের এডমিনিস্টার কে ইমপ্রেস করতে পারেন।

Hello, Hope you are doing Great! My name is XX YY and I’ am Marketing Manager in web development & Digital Marketing Firm. I’ve been following your blog for quite some time now, and I love your content and the topics you share with your readers on (phpocean.com) Such a great blog and I do appreciate your insights and thoughts. I noticed that you have a few opportunities for guest posting. I’m interested in contributing content to your blog. The Articles which I will be providing you will be 100% Unique, Copy Scape Protected. Please let me know if you are interested in this. We will discuss topics and charges. Thank you so much and hope to hear from you soon. Let me know what your views.

আপনি চাইলে উপরুক্ত যে ইমেইল রয়েছে সেই ইমেইল কিছুটা এডিট করে তারপরে আপনার গেস্ট ব্লগার ওয়েব সাইটের এডমিন এর কাছে প্রেরণ করতে পারেন।

এতে আপনি খুব ভালো একটি রেসপন্স পাবেন, এবং যখন আপনি কারও রেসপন্স আদায় করে নিতে পারবেন, তখন অন্তত পক্ষে তারা হয়তো আপনার আর্টিকেলটি কম করে হলেও একবার দেখবে।

আর তাই অবশ্যই আপনি একটি ইন্টারেস্টিং ইমেইল লিখুন এবং তারপরে যে কোন ওয়েবসাইটের এডমিন এর পাত্তা দেয় করে নিন।

একটি সফল গেস্ট ব্লগিং থেকে আপনার পাওয়া

আপনি যদি একটি সফল গেস্ট ব্লগিং করতে চান তাহলে আপনি এখান থেকে যে সমস্ত বিষয় গুলো পেতে পারেন সেগুলো হলো:

▪ কোয়ালিটি ডুফলো ব্যাকলিংক
▪ ট্রাফিক
▪ ব্যান্ড সিগন্যাল
▪ রেংকিং বৃদ্ধি সহ আরো অনেক কিছু।

আপনি যদি উপরোক্ত বিষয়গুলো যথাযথভাবে মূল্যায়ন করেন এবং তারপর একটি guest পোস্ট লিখে অন্য কোন ওয়েবসাইটে পাবলিশ করার ইচ্ছা পোষণ করেন, তাহলে অবশ্যই আপনার পোস্ট এপ্রুভ হবে।

5 thoughts on "গেস্ট ব্লগিং কি? কিভাবে করবেন গেস্ট ব্লগিং?"

  1. Rafsan Jani onlyone Subscriber says:
    Guest post Exchange korben emon keu achen?
    ei site https://www.healthd-sports.com


    1. Arman Hossain Contributor says:
      Guest post Exchange korte chai
      amar blog https://writerarman.blogspot.com
  2. Abu Shafiq Contributor says:
    আমি Guest Blogging করতে চাই।
    আমার সাইট: https://techlover.xyz

Leave a Reply