যারা নতুন ওয়েবসাইট তৈরি করতে চাচ্ছেন তারা অনেক সময়ই দ্বিধায় পড়ে যান। ব্লগার, নাকি ওয়ার্ডপ্রেস কোনটা দিয়ে ওয়েবসাইট খুলব। কোনটা দিয়ে আপনি ওয়েবসাইট খুলবে সেটা জানার আগে আমরা আগে জেনে নিন ব্লগার এবং ওয়াডপ্রেস এর সুবিধাগুলো ও অসুবিধাগুলো…

Blogger এর সুবিধা ও অসুবিধা:
ব্লগার মূলত গুগলের একটি সার্ভিস। ব্লগারে আপনি ওয়েবসাইট খুললেন আপনাকে আলাদা করে কোন হোস্টিং নিতে হবে না। আপনি চাইলে ব্লগারে কোন প্রকার ডোমেইন যুক্ত না করেই গুগোল এডসেন্সের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন। তবে আমার সাজেশন থাকবে আপনি একটা ডোমেইন আপনার ওয়েবসাইটে যুক্ত করে নিন, এতে করে ওয়েবসাইটটা প্রফেশনাল লাগবে।

ব্লগার যেহেতু গুগলের সার্ভিস সেহেতু আপনি এখানে সর্বোচ্চ পরিমাণ সিকিউরিটি পাবেন। তবে ব্লগারের সবচেয়ে বড় অসুবিধা হলো, এটা যেহেতু গুগলের সার্ভিস, তাই গুগোল যেকোন সময় আপনার ওয়েবসাইট সাসপেন্ড করে দিতে পারবে।

এছাড়া ব্লগার এ সমস্ত সুবিধা গুলো সীমিত, যার কারণে আপনি অনেক ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন না। তবে আপনি যদি ভালো কোডিং জানেন সেক্ষেত্রে কিছু ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন। তবুও ওয়ার্ডপ্রেসের মত সুবিধা পাবেন না।

WordPress এর সুবিধা ও অসুবিধা:
ওয়ার্ডপ্রেস থেকে আপনি ওয়েবসাইট খুলতে হলে আপনাকে প্রথমে একটি হোস্টিং এবং ডোমেইন কিনে নিতে হবে। তবে কিছু কিছু কোম্পানি আপনাকে হোস্টিং এবং ডোমেইন ফ্রী দিবে। সেগুলো ব্যবহার না করাই ভালো, কারন এগুলো ভালো হয় না।

ওয়ার্ডপ্রেসে আপনি ওয়েবসাইট খুললেন আপনার অবশ্যই কিছু খরচ হবে। সেটা আপনার ওয়েবসাইটের উপর নির্ভর করবে, আপনি কি ধরনের ওয়েবসাইট খুলতে চাচ্ছেন।

ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়েবসাইটকে বিভিন্ন এক্সটেনশন ব্যবহার করে খুব সহজে যেকোনো সার্চ ইঞ্জিনে খুব সহজেই seo করতে পারবেন। এছাড়া ওয়ার্ডপ্রেসে আপনি অনেকগুলো টুলস পেয়ে যাবেন যেগুলোর মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটকে প্রফেশনাল ভাবে তৈরি করতে পারবেন। আপনি কোডিং না জানলেও বিভিন্ন এক্সটেনশন ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইটকে অনেক সুন্দর করে তুলতে পারবেন।

ওয়ার্ডপ্রেস এর মধ্যে আপনি প্রচুর পরিমাণে সিকিউরিটি পেয়ে যাবেন। তবে সিকিউরিটিটা সম্পূর্ণ আপনার উপর নির্ভর করবে। আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটে কোন হ্যাকিং টুলস বা এক্সটেনশন ব্যবহার না করেন, সেক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইট হ্যাকিংয়ের থেকে অনেকটাই বেঁচে যাবে।

সবশেষে বলবো, আপনি যদি নতুন অবস্থায় ওয়েবসাইট শুরু করতে চান, কোন টাকা খরচ না করে, সেক্ষেত্রে আপনি ব্লগার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। আর যদি আপনি প্রফেশনাল মানের একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান, এবং যথেষ্ট ইনভেস্ট রয়েছে, সেক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই ওয়ার্ডপ্রেসে ওয়েবসাইট তৈরি করুন।

আর ব্লগারে ওয়েবসাইট খুললে পরবর্তীতে আপনি ওয়ার্ডপ্রেসে সেটা ট্রানস্ফার করতে পারবেন।

সবাই ভাল থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ।

ভার্চুয়াল Ram (Virtual Ram) কি? ভার্চুয়াল Ram এর সুবিধা এবং অসুবিধা What is virtual Ram in Bangla

ই-সিম (Embedded Sim) কি? ই-সিম এর সুবিধা এবং অসুবিধা What is esim in Bengla

8 thoughts on "Blogger, নাকি WordPress?? কোনটা দিয়ে আপনার ওয়েবসাইট শুরু করবেন"

  1. Tech Noyon Contributor says:
    Vai wapka valo hobe ki wapka tha onek feature add kora hoice
    1. Md Nuhu Author Post Creator says:
      দুঃখিত, আমি এখনো wapka নিয়ে কাজ করিনি তাই বলতে পারব না।
      তবে প্রফেশনালরা wapka নিয়ে কাজ করে না, তারা ওয়ার্ডপ্রেস বা ব্লগার নিয়েই কাজ করে।
    2. Md Nuhu Author Post Creator says:
      Wapka তে আপনি টুলস বা ডাউনলোড রিলেটেড ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। তবে অ্যাডভান্স লেভেলের ওয়েবসাইট তৈরি করতে গেলে আপনাকে অবশ্যই ওয়ার্ডপ্রেসে ‌যেতে হবে।
  2. Tech Noyon Contributor says:
    আপনি কি জানেন আমাদের ট্রিকবিডি প্রথমে wapka তেই ছিল আর ট্রিকবিডি তো একটি ফরম সাইট
    1. Md Nuhu Author Post Creator says:
      ট্রিকবিডি এখনতো ওয়াডপ্রেসেই আছে নাকি?? ওয়াডপ্রেস, blogger এবং wapka থেকে ভালো। আমি সেটাই বুঝাতে চাচ্ছি।
      আপনি কোথায় ওয়েব সাইট খুলবেন এটা সম্পূর্ণ আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার।
  3. Tech Noyon Contributor says:
    Ar ektha khota english blog aa jodi daily usa abong india theke 100 visitor ashe tahole ki adsense theke mashe 30 theke 50 dollar income hobe naki aro kom
    1. Md Nuhu Author Post Creator says:
      usa ভিজিটর আনতে পারলে এর থেকেও বেশি ইনকাম হবে

Leave a Reply