ব্লগ কি? ব্লগিং কেন করবেন? ব্লগ থেকে কিভাবে ইনকাম করবেন? আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর :

ব্লগ লেখার নিয়ম, বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্লগ সাইট, ব্লগ সাইট, ব্লগ থেকে আয়, ব্লগ কি, কিভাবে ব্লগার হওয়া যায়, কিভাবে ব্লগ তৈরী করব, ব্লগিং কি,

বেশ পরিচিত একটি নাম ব্লগ।  এটি শুধু একটি নামই না এই ব্লগ নিয়েই লক্ষ লক্ষ মানুষ সপ্ন দেখে অনলাইনে কেরিয়ার গরার। আজ আমি আপনাদের সাথে সেয়ার করব blog কি, bloging কেন করবেন, blog থেকে কিভাবে ইনকাম করবেন A-Z সকল বিষয়ে আপনাদের বলব এবং আপনাদের সকল প্রশ্নের উত্তর দিব। 

ব্লগ এবং ব্লগিং কি?

কোন বিষয়ের উপরে ধারাবাহিক ভাবে লেখা বা প্রতিদিনের কোন ঘটনা বা আপনি যে সকল বেপারে জানেন সেটি ধারাবাহিক ভাবে লেখার মাধ্যমে ইন্টারনেটে ছরিয়ে দেয়াকে বা সবার সাথে সেয়ার করাকে বলা হয় ব্লগিং। এবং আপনার এসব লেখা যে ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয় বা পোস্ট করা হয় সেটি হচ্ছে ব্লগ। 

ওয়েবসাইট আর ব্লগ এর মধ্যে পার্থক্য কি?

আমরা জারা নতুন তারা আসলে এই দুইটি গুলিয়ে ফেলি মূলত ব্লগ হচ্ছে এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে শুধু মাত্র রেজিষ্ট্রেশন করেই আপনার লেখা পোস্ট করতে পারেন।  এবং কেও পরতে পারববে এবং মন্তব্য করতে পারবে। ব্লগ হচ্ছে সম্পুর্ন ফ্রি এখানে আপনাকে টাকা খরচ করে কিছু করতে হয় না। এছারাও আরো অনেক কিছু আছে যা ধারা ব্লগ এবং ওয়েবসাইটের পার্থক্য বোঝা সম্ভব।

ব্লগিং কেন করবেন? 

ব্লগিং করা দুইটি কারন থাকে 
১) ব্লগ থেকে আয় করা
২) যারা লেখালেখি পছন্দ করে
আসলে যোগসূত্রে আপনার দুটিই হয়ে গেল মানে আপনার লেখা লেখি ভাল লাগে লিখতে থাকলেন এবং ব্লগ থেকে ইনকাম করতেও পারলেন। এমন হতে পারে আপনার লেখা লখ লক্ষ মানুষ পরবে তারা উপকৃত হবে আপনিও অনেক বড় একজন ব্লগার হয়ে গেলেন আর তখন আয়টাও হবে অকল্পনীয়।

ব্লগে এডসেন্স পেতে হলে কি করতে হবে? 

এখন অনলাইনে ইনকাম এর জন্য অনেকেই ব্লগ সাইট বেছে নিয়েছে কিন্তু সঠিক পদ্ধতি না জানায় অনেকেই হতাস হয়ে ব্লগিং ছেরে দিচ্ছে। আসলে ব্লগে এডসেন্স পাওয়া খুবই সহজ সে জন্য প্রথমে যা করতে হবে সেটি হচ্ছে কোন কন্টেন্ট কপি পেস্ট করা যাবে না। যা লিখবেন সব নিজের লিখতে হবে।  ভাল মানের ২৫-৩০ টা পোস্ট করেই আপনি এডসেন্স পেতে পারেন। আর অবশ্যই এডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করার আগে ব্লগে কয়েকটি পেজ বানিয়ে নিবেন নাহলে এপ্রভ পাবেন না। যেমন – Contact us, privacy policy, disclaimer, about us, terms and conditions,  এডসেন্সে এপ্লাই করার আগে অবশ্যই এই পেজ গুলো ক্রিয়েট করে নিবেন। তাহলে ২৫-৩০ টা পোস্ট করেই এডসেন্স পাবেন। 

কাস্টম ডোমেইনে কি এডসেন্স পাওয়া যায়? নাকি টপ লেভেল ডোমেইন লাগে?

উপরের সর্ত গুলো মানলে আপনি টপ লেভেল ডোমেইন ছারাই এডসেন্স পেতে পারেন।  তবে আমি সাজেস্ট করব টপ লেভেল ডোমেইন নেয়ার জন্য।  তাহলে আপনার ব্লগ সার্চ ইঞ্জিনে রেংক পাবে অল্প সময়ে।  তবে আপনি যদি ফ্রিতে ব্লগিং করতে চান তাহলেও করতে পারেন।

ব্লগ থেকে সফল হতে কত দিন সময় লাগে? 

আপনার পোস্ট গুলো গুগলে র‍্যাংক পেতে কিছুটা সময় লাগে নিয়মিত পোস্ট করতে থাকবে ৩-৪ মাস পর দেখবেন রেজাল্ট  আপনার পোস্ট কোয়ালিটি যদি ভাল হয় অনেক ভিজিটর পাবেন। আর আপনি যদি ভাল পরিমান ইনকাম করতে চান তাহলে লেগে থাকুন ১০০০ পোস্ট করুন আপনার ব্লগে।  ১০০০ পোস্ট হওয়ার পর দেখবেন মেজিক নিজেকে তখন সফল মনে হবে আপনার। ৫০-১০০ টা পোস্ট লিখেও ইনকাম আসবে কিন্তু তা দিয়ে আপনার কিছুই হবে না। দিন দিন পোস্ট বারতে থাকবে আর আপনার ইনকামও বারতে থাকবে। 

ব্লগ থেকে কত টাকা ইনকাম করা সম্ভব?

এটা সঠিক বলা যায়না কত টাকা ইনকাম করা সম্ভব। এটি সম্পুর্ন আপনার উপর আর ব্লগে কি পরিমান ভিজিটর আসে তার উপর নির্ভরশীল। তবে ব্লগ থেকে অনেক ভাল পরিমান আয় করা সম্ভব৷ আর আপনার ব্লগটি যদি ইংলিশ কন্টেন্ট এর হয়ে থাকে তাহলে ভাই কিছু না বল্লাম। লেগে থাকুন প্রতিদিন অল্প সময় দিন একটা দুইটা করে লিখুন। এমন সময় আসতে পারে যখন শুধু ব্লগ থেকেই প্রতি মাসে ৩০-৪০ হাজার টাকা অনায়াসে ইনকাম করতে পারবেন। প্রয়োজন শুধু ধর্য আর কিছুটা সময়।

ব্লগে প্রতিদিন কতটি পোস্ট করা ভাল?

প্রতিদিন ৪-৫ টা করা ভাল তবে আপনার সময় কম থাকলে প্রতিদিন ১ টি করে পোস্ট লিখুন তবে মনে রাখবেন ১০০ টা পোস্ট না করে ইউনিক আর কোয়ালিটি ১ টা পোস্ট করলেই যথেষ্ট।  তাই প্রতিদিন কম পক্ষে ১ টি পোস্ট লিখুন।ব্লগে বাংলা লিখলে ভাল নাকি ইংলিশ? 

আপনি জানেন আপনি কোনটি ভাল পারেন তবে ইংলিশ কন্টেন্টএ ইনকাম অনেক বেশি। তাই আপনি যদি ইংলিশে লেখালেখি করতে পারেন তাহলে বাংলা আর্টিকেল এর থেকে ইংলিশ আর্টিকেলে আয় বেশি করতে পারবেন। 

ব্লগে কি কপি পেস্ট করা যাবে? অন্য কারো পোস্ট করে করে আপনার ব্লগে দেয়া যাবে? 

না এটি কখনই করবেন না। তাহলে আপনার ব্লগের র‍্যাংক হারাবেন সাথে এডসেন্স তাই কপি করার কথা ভাবলে এখনি এটি মাথা থেকে সরিয়ে ফেলুন। নিজে যেতুকু পারেন সেটুকু লিখুন ভূল করেও অন্যের লেখা কপি করবেন না। 

কিছু কথাঃ আমরা স্মার্টফোন হাতে পাওয়ার পর থেকে অনেকেই চিন্তা করি যদি অনলাইন থেকে কিছু ইনকাম করা যেত? অন্তত নিজের খরচটা নিজে চালাতে পারলেই হত? তখন আমরা লেগে পরি ইউটিউব সহ বিভিন্ন ওয়েবসাইটে। যেখান থেকে আমরা কিছু এপ্স পাই বা পিটিসি সাইট। অনেকে কাজ করেন কিন্তু টাকা পান না। আবার এত কম পরিমান পান যা দিয়ে আপনার এম্বি খরচই উঠে না। তাই আমি বলব ওইসব এপ এবং ওয়েবসাইট দিয়ে সুধুই সময় নস্ট হবে এছারা আর কিছুই না। তাই ওগুলো বাত দিয়ে ভাল কিছু করুন ব্লগিং করুন হ্যা মানলাম সাথে সাথে রেজাল্ট পাবেন না তবে ধর্য ধরে থাকুন নিয়মিত কন্টেন্ট ঢালুন তারপর দেখবেন আপনার কেরিয়ার। ধন্যবাদ সবাইকে দোয়া করবেন আমার জন্য। 

তথ্যপ্রযুক্তির যুগে এখানেই শেষ নয়। আরও তথ্য পেতে ভিজিট করুন lessonery.com
এবং patrika71.com























2 thoughts on "ব্লগ কি? ব্লগিং কেন করবেন? ব্লগ থেকে কিভাবে ইনকাম করবেন? আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর"

  1. Noyon Contributor says:
    Bangla post ke english e translate edit kore post kori tahole adsense pabo
    1. Mohin Author Post Creator says:
      Ji na. Translate hbe na. Translate kore edit kore mansommoto kore tarpor dite hbe sorasori translate kore post korle kono laav nai. Change korte hbe onek ksu abr add korte hbe amon

Leave a Reply