গরমের সময়টাতে মানুষ বেশি অসুস্থ
হয়ে পড়ে। ড্রিহাইড্রেশন, অবসাদ
ছাড়াও এই সময় জ্বর, ঠান্ডা, কাশি
হয়ে থাকে। সূর্যের অতিরিক্ত তাপের
কারণে এই অসুখগুলো দেখা দিয়ে
থাকে। তাই সুস্থ থাকার জন্য এইসময় একটু বেশি সতর্ক থাকতে হয়। একটু
সর্তক থাকলে আর কিছু নিয়ম মেনে
চলে সুস্থ থাকা সম্ভব এই গরমেও। এই
গরমে সুস্থ থাকার জন্য মেনে চলুন এই
নিয়মগুলো। ১। প্রচুর পানি পান করুন গরমে সবচেয়ে
বেশি যে সমস্যা হয়ে থাকে, তা হল
ড্রিহাইড্রেশন বা পানিশূনতা।
অতিরিক্ত ঘাম হওয়ার কারণে শরীর
থেকে পানি বের হয়ে যায়। যার
কারণে ড্রিহাইড্রেশন বা পানি শূন্যতা দেখা দিয়ে থাকে। তাই
এইসময় স্বাভাবিক সময়ের থেকে
বেশি পরিমাণে পানি পান করা
উচিত। ২। ক্যাফিন এড়িয়ে চলুন আপনার চা
অথবা কফি অনেক পছন্দ। চা বা

কফিতে থাকা ক্যাফিন ফসফরিক
অ্যাসিড পরিপাক নালীর আস্তরণে
ক্ষতি করে থাকে, যা হজমে সমস্যা
সৃষ্টি করে থাকে। তাই এই সময় ক্যাফিন জাতীয় পানীয় এড়িয়ে চলা
উচিত। ৩। সকালে নাস্তা করুন অনেক মানুষ
সময় বা ডায়েটের কারণে সকালে
নাস্তা করেন না। সকালে নাস্তা না
করার কারণে শরীর পুষ্টিহীনতায় ভুগে
থাকেন। সারা দিনের কাজের শক্তি
পেয়ে থাকেন সকালের নাস্তা থেকে। সঠিক খাবার না খাওয়ার
কারণে আপনাকে শরীর পুষ্টিহীনতা
সৃষ্টি করে যা পানিশূন্যতা, দূর্বলতা,
হিট অ্যাটাক সহ অন্যান্য সমস্যা
দেখা দিয়ে থাকে। ৪। ড্রাই ফ্রুটস এড়িয়ে চলুন অনেকেই
নাস্তা হিসেবে ড্রাই ফ্রুটস খেয়ে
থাকেন। যদিও এটি দ্রুত কাজের শক্তি
দিয়ে থাকে তবুও গরমের দিনে এটি
কম খাওয়া উচিত। ড্রাই ফ্রুটসের
পরিবর্তে ফ্রেশ ফল খাওয়া যেতে পারে। ৫। গরম খাবার কম খান শরীর গরম করে
এমন খাবার কম খাওয়ার চেষ্টা করুন।
পালং শাক, পেঁয়াজ, রসুন,
ক্যাপসিকাম এই খাবারগুলো শরীরকে
গরম করে থাকে। এই সময় এই খাবার
গুলো এড়িয়ে চলুন। ৬। মিষ্টি জাতীয় খাবার কম খান
চিনি এবং চিনি জাতীয় খাবার
শরীরের তাপ বৃদ্ধি করে থাকে। মধু
এবং গুড় এড়িয়ে চলুন। অতিরিক্ত চিনি
এবং চিনি জাতীয় খাবার খাওয়া বন্ধ
করুন। ৭। চোখের সুরক্ষা সূর্যের কড়া রোদ
এবং ধুলাবালি থেকে রক্ষা করার
জন্য সানগ্লাস ব্যবহার করুন। ঘর থেকে
বের হওয়ার সময় ছাতা নিতে ভুলবেন
না। এটি রোদের তাপ থেকে রক্ষা
করে আপনাকে সুস্থ থাকতে সাহায্য করবে।

আরো নতুন আফার পেতে চোখ রাঙ্গানো অসাধারন AmarRound.Com সাইটি ঘুরে আসেন ভাই।

One thought on "প্রচণ্ড গরমে কীভাবে সুস্থ থাকা যায়।"

  1. Rashed Khan Rashed Khan Contributor says:
    এই একই পোস্ট ট্রিকবিডিতে কয়বার দেখব?


Leave a Reply