হ্যালো প্রিয় ভিজিটর আশা করি আপনারা সকলে ভালো আছেন। আপনাদেরকে আবারো আমাদের সাইটে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক স্বাগতম জানাই। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা ২০২১-২০২২ এই বিষয় টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করা যাক।

এই তো মাত্র ১ সপ্তাহ আগে ৩০ শে ডিসেম্বর পুরো বাংলাদেশের এস এস সি ২০২১ শিক্ষার্থীদের পরিক্ষার রেজাল্ট দেওয়া হলো। এর ই সাথে শুরু হল সকল শিক্ষার্থী দের ২০২১ সালে কলেজে ভর্তি হওয়ার তোর-জোর। তবে অনেকে জানে না যে কিভাবে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে হবে। কারণ এখন আর আগের মতো স্কুলে গিয়ে ভর্তি পরিক্ষা দিয়ে নয়, বরং অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করে আবেদন করতে হবে ভর্তির জন্য। যার কারণে অনেকে বুঝছে না কিভাবে অনলাইনে আবেদন করতে হবে এবং কোথা থেকে আবেদন করতে হবে। আজকের পোস্ট এ আমি সেই বিষয়েই জানাবো।

অনলাইনে কতদিন ভর্তির জন্য আবেদন করা যাবে।

২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি প্রক্রিয়া অনলাইনের মাধ্যমে শুরু হবে ৮ জানুয়ারি ২০২২ থেকে, চলবে ২ মার্চ ২০২২ তারিখ পর্যন্ত।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন ২০২১-২০২২

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা শুধূ অনলাইনে www.xiclassadmission.gov.bd এই সাইটের মাধ্যমে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন।

ভর্তি নীতিমালায় বলা হয়েছে, পুনঃনিরীক্ষণের ফল পরিবর্তিত শিক্ষার্থীদের আবেদন নেওয়া হবে ২২ ও ২৩ জানুয়ারি। ২৪ জানুয়ারি পছন্দক্রম পরিবর্তনের সুযোগ দেওয়া হবে। ২৯ জানুয়ারি প্রথম দফায় নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে। ৩০ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি শিক্ষার্থীদের সিলেকশন নিশ্চয়ন করতে হবে। সিলেকশন নিশ্চয়ন না করলে তাকে পুনরায় ফিসহ আবেদন করতে হবে।

৭ ও ৮ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদন নেওয়া হবে। পছন্দক্রম অনুযায়ী প্রথম মাইগ্রেশনের ফল এবং দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে ১০ ফেব্রুয়ারি। ১১-১২ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের সিলেকশন নিশ্চয়ন করতে হবে। এ সময়ের মধ্যে সিলেকশন নিশ্চয়ন না করলে আবেদন বাতিল হবে।

১৩ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন নিয়ে পছন্দক্রম অনুযায়ী দ্বিতীয় মাইগ্রেশনের ফল এবং তৃতীয় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে ১৫ ফেব্রুয়ারি।

১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের সিলেকশন নিশ্চয়ন করতে হবে। এ সময়ের মধ্যে সিলেকশন নিশ্চয়ন না করলে আবেদন বাতিল হবে। ১৯ থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারি শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হবে। ২ মার্চ থেকে কলেজগুলোতে একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হবে।

একাদশ শ্রেণির ভর্তি নীতিমালা ২০২২

এবার একাদশ শ্রেণিতে যে কোনো বয়সের শিক্ষার্থীরা ভর্তি হতে পারবে। এজন্য উন্ক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করা শিক্ষার্থীদের ২২ বছর বয়সের শর্ত তুলে দেওয়া হয়েছে।

সাধারণ ও কারিগরি এবং মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডের ২০১৯ সালের আগে পাস করা শিক্ষার্থীরা সংশ্লিষ্ট বোর্ডের অনুমতি নিয়ে ভর্তি হতে পারবে।

এছাড়া ২০১৯-২০২১ সালের মধ্যে পাস করা শিক্ষার্থীরাও একাদশে ভর্তি হতে পারবে। ভর্তির জন্য অনলাইন আবেদন ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫০ টাকা।

২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা অফিসিয়ালি প্রকাশ হওয়ার ভর্তি সংক্রান্ত আরো বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে। এই নীতিমালা ভর্তি প্রক্রিয়া শুরুর আগেই প্রকাশ করবে কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, যথারীতি চার্চ পরিচালিত নটর ডেম কলেজ, হলিক্রস কলেজ, সেন্ট জোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং সেন্ট গ্রেগরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ পরীক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে ভিন্নভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করবে।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির যোগ্যতা

১. ২০১৯, ২০২০, ২০২১ সালে দেশের যে কোন শিক্ষা বোর্ড এবং বাংলাদেশের উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১৯, ২০২০ ও ২০২১ সালে এস. এস. সি বা সমমানের পরিক্ষায় উত্তির্ণ শিক্ষার্থীগণ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে নীতিমালার অন্যান্য বিধানাবলি সাপেক্ষে কোন কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির যোগ্য বিবেচিত হবে। এছাড়া উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চলতি বছরে উত্তির্ণ শিক্ষার্থীসহ অন্যান্য বছরের শিক্ষার্থীরাও ভর্তির জন্য বোর্ডে ম্যানুয়ালি আবেদন করতে পারবে।

২. বিদেশি কোন বোর্ড বা অনুরুপ কোন প্রতিষ্ঠান হতে সমমানের পরীক্ষায় উত্তির্র্ণ শিক্ষার্থীগণ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা কর্তৃক তার সনদের মান নির্ধারণের পর দফা (২.১) এর অধীনে ভর্তির যোগ্য বিবেচিত হবে।

একাদশে ভর্তির গ্রুপ নির্বাচন যেভাবে

১. বিজ্ঞান গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যে কোন ১টি;

২. মানবিক গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যে কোন ১টি এবং

৩. ব্যবসায় গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক গ্রুপের যে কোন ১টি;

৪. যেকোন বিভাগ (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা) থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী গার্হস্থ্য অর্থনীতি ও সংগীত গ্রুপের যেকোন ১টি;

৫. মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড থেকে বিজ্ঞান বিভাগে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোন ১টি এবং সাধারণ বিভাগ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোন ১টি।

আরো পড়ুনঃ ক্যালেন্ডার- ২০২২ সালের সরকারি ছুটির তালিকা

অনলাইনে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ২০২১-২০২২

১. শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক অনুমোদিত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। অনলাইনে আবেদনের জন্য ওয়েবসাইট এর ঠিকানা : https://www.xiclassadmission.gov.bd

২. শিক্ষার্থীরা শুধু অনলাইনে আবেদন করতে পারবে। অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে ১৫০ টাকা আবেদন ফি জমা সাপেক্ষে সর্বনিম্ন ৫টি এবং সর্বোচ্চ ১০টি কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানের জন্য পচ্ছন্দক্রমের ভিত্তিতে আবেদন করতে পারবে। একজন শিক্ষার্থী যতগুলো কলেজে আবেদন করবে তার মধ্য থেকে শিক্ষার্থীর মেধা, কোটা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ও পচ্ছন্দক্রমের ভিত্তিতে একটি মাত্র কলেজ তার অবস্থান নির্ধারন করা হবে।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ও ভর্তি ফি ২০২১-২০২২

১.অনুসরণপূর্বক কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠান বোর্ড কর্তৃক নির্ধারিত আসন সংখ্যা (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপ শিফট, পুরুষ, মহিলা/সহশিক্ষা, ভার্সন) এবং বোর্ড কর্তৃক নির্ধরিত ভর্তি ফিসহ অনুমদিত অন্যান্য সকল ফি, ভর্তির নুন্যতম যোগ্যতা ইত্যাদি তথ্য ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করে প্রতিষ্ঠানের নোটিশ বোর্ড এবং ওয়েব সাইটে প্রকাশ করবে।

২. বোর্ড পূর্বানুমতি ব্যতীত নির্ধারিত আসন সংখ্যার অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে না। বোর্ড সমূহে স্ব স্ব অধিক্ষেত্রে অবস্থিত কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানে এই বিধানের ব্যত্যয় রোখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

৩. অনলাইনে বোর্ড থেকে প্রাপ্ত ভর্তিযোগ্য প্রার্থীদের মেধাক্রম তালিকা কলেজের নোটিশ বোর্ড ও সংশ্লিষ্ট কলেজ/ সমমানের প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে প্রকাশের ব্যবস্থা করবে

৪. ভর্তির সময় প্রার্থীকে মূল একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট/নম্বরপত্র দাখিল করতে হবে;

৫. শিক্ষা বোর্ড শিক্ষার্থীর নিকট হতে ভর্তির প্রাথমিক নিশ্চায়ন করার সময় শিক্ষার্থী প্রতি নিম্নোক্ত ফি প্রদান করবে –

১. রেজিস্ট্রেশন ফি – ১৩৫/-

২. ক্রীড়া ফি ৫০/-
৩. রোভার/রেঞ্জার ফি ১৫/-
৪. রেড ক্রিসেন্ট ফি (৪০/-টাকার ৪০%=১৬/-টাকা ১৬/-
৫. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফি ৭/-
৬. বি. এন. সি. সি. ফি ৫/-
সর্বমোট- ২২৮/-টাকা

➤শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতি শিক্ষার্থীর নিকট থেকে রেড ক্রিসেন্ট ফি (৪০/- টাকার ৬০%) ২৪/- টাকা গ্রহণ করবে;

➤প্রতি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বার্ষিক ক্রিড়া মঞ্জুরি ফি বাবদ ২০০/- (দুইশত) টাকা বোর্ড প্রেরণ করতে হবে।

তো প্রিয় ভিজিটর আশা করছি আপনাদের কাছে আজকের এই পোস্ট টি ভালো লেগেছে। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কিন্তু কমেন্ট করে জানাবেন। এবং আমাদের সাইটে এরকম আরো অনেক হেল্পফুল পোস্ট রয়েছে সেগুলো পড়তে চাইলে আমাদের ShopTips24.CoM সাইটটি একবার ভিজিট করুন। আর আজকের মতো এখানেই বিদায়, ভালো থাকবেন সুস্থ্য থাকবেন।

5 thoughts on "একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন ২০২১-২০২২।একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা"

  1. Mr.Juel Author says:
    দেখে নিন প্রথম পোষ্টঃ

    https://trickbd.com/ssc-exam-result/748130

    1. max niloy Author Post Creator says:
      জী ভাইয়া আমিও দেখেছি পোস্টটি।
      কিন্তু ওই পোস্টটা গুছানো ছিলো না।এই পোস্টটি গুছিয়ে লিখার চেষ্টা করেছি।
  2. Mr.Juel Author says:
    ধন্যবাদ ভাই ।
  3. MD Rayhan Hossen Contributor says:
    ভর্তির নীতিমালা এগুলা সবার মুখস্থ, দয়া করে ভর্তির প্রসেস ডিটেইলে পোস্ট করুন।
  4. msayem440 Contributor says:
    Bai.4. e bollen je Academic transcript dakil korte obe…ata main copy or photo copy) then main copy ole ata ki pirot dibe?….karon amr jsc ssc certificate songsudon koracci … marksheet diye fressh cpy board teke ante obe

Leave a Reply