আজকে যে বিষয়ে লিখব সেটা হলো
পরা শোনায় কিভাবে মনযোগি হব
ছাত্র ছাত্রীদের মনে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন হলো পরাশোনায় কিভাবে মনযোগ দেয়া যায়।
বা লেখা পরায় মনযোগ বৃদ্ধির উপায় কী?
দেখুন যদিও আপনি মনযোগে পরাশোনা করতে চাইছেন তাহলে পরাশোনার সঠিক নিয়মকানুন গুলো আপনাকে জানতে হবে।
পরা শুনা শুরু করার আগে ছাত্র ছাত্রীদের মনে এটা বিশ্বাস রাখতে হবে যে আমি পরব এবং জীবনে পরাশোনা ছাড়া কিছু নেই।
তাই আমারা যত বর উদ্দেশ্য রাখিনা কেন জীবনে সেটা পূরণ করতে হলে আমাদের পরাশোনা ভালো করে করতেই হবে।
তাই এটা মেনে চলতে পারলেই মনে মারাত্মক ভাব জেগে উঠবে এবং লেখা পরার প্রতি আগ্রহ বারবে।
যদি পরা নিয়ে আগ্রহ না থাকে তাহলে বেশিক্ষণ পরালেখায় মন থাকবে না।ফলে ছাত্র ছাত্রীর মনে হতাশা জন্ম নিবে।
তাই এই টিপস গুলো গুরুত্বপূর্ণ
চলুন উপায়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত দেখে আসি।

লেখা পরায় মনযোগ বৃদ্ধির উপায়

তাহল চলুন
১.মনযোগ নিয়ে পড়তে বসার কিছু ছোট নিয়ম:টেবিলে পড়তে বসা।পড়ার জিনিস পত্রগুলো হাতের কাছে রাখা। বিছানায় পরতে না বসা।পরার জায়গা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখা তাই মনযোগে অধিক সময় পরতে হলে এই ছোট্ট ছোট্ট নিয়মকানুন গুলো মেনে চলতে হবে।

২.পড়ার জন্য নিদিষ্ট সময় নিধারিত করা।সময়ের পড়া সময়ে পড়তে হবে।
পরাশুনা করার জন্য নির্দিষ্ট রুটিন করে নিলে পরতে আনেক সুবিধা হবে। কারন এতে কখনো কি বিষয়ে পরতে হবে সেটা আগে থেকে জানা থাকে। রুটিন বানানো না থাকলে বা টাইম টেবিল ঠিক না থাকলে সব বই একসঙ্গে নিয়ে বসে ছাত্র ছাত্রীরা বিভ্রান্তে পরে যায়।
৩.পড়ার জন্য একটি শান্ত এবং সঠিক জায়গা ঠিক করা।নিরব স্থানে পড়া।
পরার জায়গা বেশি গরম বা ঠান্ডা যাতে না হয়।যদি পরা যায়গা শান্তি পরিবেশ না হয় চিল্লাচিল্লি বা টিভি ইত্যাদি চালানো থাকে তাহলে যত মন দিয়ে পরুকনা কেন পরা শিখা হবে না।তাই মন দিয়ে পরার জন্য জায়গা শান্তি পূর্ণ ও পরিস্কার হতে হবে।

৪.পড়ার সময় অন্য জিনিসে ধ্যান না করা।অমনোযোগি হবেন না। আজ কাল বর হোক বা বাচ্চা হোকনা মোবাইল সবাই ব‍্যাবসার করে।স্মাট্ ফোনে ভিবিন্ন গেমস ফেসবুক ইন্টারনেটে ব‍্যাস্থ থাকে।ফলে পরা লেখার প্রচন্ড ক্ষতি হয়। তাই পরতে হলে এই জিনিস গুলো দুরে রাখতে হবে হ
৫.মেডিটেশন দ্বারা পড়তে মনযোগ আনা।ধ্যান করুন।এতে মাথা ফ্রেশ থাকে।
আমরা শারীরিক ভাবে যতই ঠিক থাকিনা কেন মানসিক ভাবে সুস্থ থাকা অনেক জরুরি।তাই মোডিটেসন খুব জরুরি।
৬.পড়ার মাঝে মাঝে বিরতি নেয়া।অতিরিক্ত কোন কিছুই ভালো না।
আমরা যে কোনো কাজ যদি লাগাতার করে থাকি এটা কিন্তু অবশ্যই খুব খারাপ। তাই পরার মাঝে মাঝে বিরতি রাখা জরুরি।
৭.সব সময় নোটিস বানিয়ে পড়া।এতে গুরুত্বপূন পড়াগুলো সহজে খুজে পাবে।
নোটিশ বানাতে থাকলে পরা শিখতে এবং বুঝতে সুবিধা হয়।
৮.পুরনো প্রশ্নের সমাধান করা।এতে পরিক্ষার ভালো ধারনা আসে।
যদি গত তিন বা পাচ বছরের পুরোনো গুলো পরিক্ষার সময় সুচি হিসাবে সমাধান করতে পারেন।
৯.ভালো ঘুম অনেক জরুরি।দিনে কমপক্ষে ৮ ঘন্টা ঘুমানো জরুরি।

মনোযোগ দিয়ে পরার জন্য ভালো ঘুম দরকার কারণ ঘুম না হলে আমরা যতই জোর করে পরিনা কেন সারাদিন দূর্বল লাগবে। তাই ঘুম জরুরি।
পড়া মুখস্ত ১০.রাখার উপায়:নিবির পরিবেশে পড়া,খুব সকালে বা গভির রাতে মুখস্ত করা।
দিনে ভাগে অনেক পরায় মন বসতে আসুবিদা হয়ে থাকে। সেটা মনে থাকেনা হ
তবে অনেক বাচ্চারা যখন খুব ভোরে পরতে বসে তখন কিন্তু দারুণ মনযোগে তারা পরে।
এছাড়া ভোরের সময় অনেক তারাতারি পরি মনে হয়ে যায়।তাই পরা মনে রাখতে যদি সমস্যা হচ্ছে তাহলে অবশ্যই ভোরে পরার চেষ্টা করুন।

5 thoughts on "পড়ার লেখায় মনযোগ বাড়ানোর কাযকারী উপায় ২০২২।"

  1. Aubdulla Al Muhit Author says:
    ভাই কিছু কিছু বানান ভুল গিয়েছ । যেমন পড়াশোনা হবে আপনি লিখেছেন পরাশোনা । এরকম বানান ভুল রয়েছে । তাছাড়া এটি অসাধারণ আটিকেল ।

    আর একটা বিষয় উল্লেখ করা ভালো ছিল যে পড়াশোনায় মনযোগ দেওয়ার সবচেয়ে ভালো উপায় সময় পেলে খেলা করা । আপনার আসল জিনিসটা বাদ পড়ে গেল । কারণ খেলা মানুষের মনে প্রশান্তি এনে দেয় ।

    1. Md Mahabub Khan Contributor Post Creator says:
      সত্যিইত ভাই আমিতো ভুলেই গেছিলাম। আর ভাই কিবোডে ড় টা একটু খুজে পাচ্ছিলামনা।
  2. Md Mahabub Khan Contributor Post Creator says:
    ভুল ত্রুটি হলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।
  3. Md Mahabub Khan Contributor Post Creator says:
    “আমার সফলতার গল্প” এটা পোষ্ট টাইটেল।
    এই পোষ্টটা কোন টপিকে দিতে হবে?
    প্লিজ বলবেন।

Leave a Reply