মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীরা
প্রতিনিয়ত কোনো না কোনো
সমস্যার মুখোমুখি হন, যার বেশিরভাগই
খুব সাধারণ ধরনের৷ এসব সমস্যার কারণ ও
উত্স কী, তা জানার আগ্রহ বা উত্সাহ
কম থাকায় এ সমস্যার সমাধান
আমাদের কাছে অজানাই থেকে
যায়৷ তাই এবার মোবাইল বিভাগে
কিছু সাধারণ সমস্যার কারণ
ও সমাধান তুলে ধরা হলো br />
মোবাইল ফোনের পাওয়ার সেকশন
মূলত দুটি-
চার্জিং পয়েন্ট এবং ব্যাটারি
কানেকশন পয়েন্ট৷ পাওয়ার সেকশনের
কম্পোনেন্টগুলো সাধারণত অন্যান্য
সেকশনের চেয়ে বড়৷ ক্যাপাসিটর,
পাওয়ার আইসি, ডায়োড, কয়েল,
ট্রানজিস্টর, অডিও আইসি ইত্যাদি
নিয়ে পাওয়ার সেকশন গঠিত৷
পাওয়ার সেকশনের কারণে যেসব
সমস্যা হতে পারে তা হলো br />
কল করার সময় পাওয়ার বন্ধ হওয়া
দুটি কারণে এ সমস্যা হতে পারে৷
১. ব্যাটারি এবং ফোনের কানেকশন
লুজ থাকলে৷
সমাধান br />
লুজ কানেকশন ঠিক করা৷
২. ব্যাটারি কানেক্টরে ময়লা
জমলে৷
সমাধান br />
ময়লা জমলে থিনার স্প্রে এবং ব্রাশ
দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে৷
পাওয়ার সুইচ কাজ না করলে
কী-প্যাডের কার্বন নষ্ট অথবা কী-
প্যাডে ময়লা জমলে লিকুইড কার্বন
ব্যবহার করতে হবে অথবা এসিটোন
দিয়ে ময়লা পরিষ্কার করতে হবে৷
মোবাইল চার্জ হয় না
চার্জার ঠিক আছে কি না দেখতে
হবে৷ চার্জার কানেক্টর ও মোবাইল
সেটের চার্জার সকেট ঠিক আছে কি
না দেখতে হবে৷ এসিটোন ও থিনার

দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে৷ যদি
পাওয়ার না আসে চার্জিং আইসির
ডায়োড, রেজিস্টর, ক্যাপাসিটর
ইত্যাদি ঠিক আছে কি না দেখতে
হবে৷ ঠিক না থাকলে বুঝতে হবে
চার্জিং আইসি নষ্ট৷ এক্ষেত্রে
চার্জিং আইসি পরিবর্তন করতে হবে৷
চার্জ হচ্ছে কিন্তু পাওয়ার আসছে না
এক্ষেত্রে চার্জিং আইসির অথবা
ব্যাটারির
মোবাইল সেটে কানেকশন সংক্রান্ত
সমস্যা হতে পারে৷ পাওয়ার
সেকশনের ডায়োড বা ট্রানজিস্টর
নষ্ট হতে পারে৷ যদি দেখা যায়
ডায়োড বা ট্রানজিস্টর ঠিক আছে
তাহলে পাওয়ার আইসি নষ্ট
এবং পাওয়ার আইসি পরিবর্তন করতে
হবে৷ অনেক সময় সোল্ডার পেস্ট
লাগিয়ে রিসোল্ডারিং করলে
কিছু কম্পোনেন্ট ঠিক হতে পারে৷
মোবাইল স্ক্রিনে চার্জ হচ্ছে
দেখায় কিন্তু চার্জ হয় না
এক্ষেত্রে মোবাইল চার্জারটির
মডেল ঠিক আছে কি না দেখতে হবে৷
যদি চার্জারটি ঠিক থাকে, তাহলে
ক্যাপাসিটর ঠিক আছে কি না
দেখতে হবে৷ সোল্ডার পেস্ট
লাগিয়ে রিসোল্ডারিং করতে
হবে৷ ঠিক না হলে নতুন ক্যাপাসিটর
লাগাতে হবে৷
ব্যাটারি মাঝে মাঝে চার্জ হয় না
ব্যাটারি কানেক্টরে ময়লা জমলে
বা লুজ কানেকশন হলে এই সমস্যা
দেখা যাবে৷ থিনার স্প্রে দিয়ে
পরিষ্কার করতে হবে এবং কানেকশন
লুজ থাকলে তা ঠিক করতে হবে৷
খুব তাড়াতাড়ি চার্জ হয় আবার খুব
তাড়াতাড়ি চার্জ শেষ হয়ে যায়
এক্ষেত্রে ফিল্টারিং ক্যাপাসিটর
বা পোলারাইট ক্যাপাসিটরের
সমস্যা হতে পারে৷ ফোনসেট খুলে
থিনার দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে
এবং হট এয়ার গান দিয়ে হালকা হিট
দিতে হবে৷
সেট হ্যাং হয়ে যায় বা কী-প্যাড
কাজ করে না
কী-প্যাডের সাঙ্গে কী-কানেকশন
যদি কোনোকারণে লেগে যায়
তাহলে আপনার সেটটি হ্যাং হয়ে
যাবে৷ আবার ময়লা বা পানি ঢুকলে
সেট হ্যাং হতে পারে৷ এক্ষেত্রে
থিনার বা এসিটোন দিয়ে সব কী-
কানেক্টর পরিষ্কার করতে হবে৷
তারপরও না হলে প্রোগ্রামটাকে
সফটওয়্যার দিয়ে রিফ্ল্যাশ করতে
হবে৷
কিছু কিছু কী কাজ করে না
এ ধরনের সমস্যা হলে সেক্ষেত্রে কী-
প্যাড পরিষ্কার করতে হবে৷ এরপর যদি
না হয় তাহলে কী-কানেক্টর কমন
রেখে অন্য নষ্ট লাইনের সাঙ্গে
ম্যাজিকওয়্যার দিয়ে কানেকশন শর্ট
করে দিলে ঠিক হবে৷ এছাড়া কিছু
গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো ব্যাটারি ঠিক
আছে
কি না প্রথমে তা চেক করতে হবে৷
তারপর পাওয়ার সুইচ ও চার্জার ঠিক
আছে কি না দেখতে হবে৷
মাদারবোর্ডের ভোল্টেজ মেপে
দেখতে হবে যে রিডিং যদি ৫-এর
নিচে হয়, তাহলে পাওয়ার আইসি
পরিবর্তন করতে হবে৷ পাওয়ার
সেকশনের কম্পোনেন্টগুলো হলো
১. পাওয়ার আইসি
২. চার্জিং আইসি
৩. ইন্টারফেসিং আইসি
৪. ক্লক ক্রিস্টাল/আরটিসি
৫. ব্যাকআপ ব্যাটারি
৬. সিম সকেট

All Sim Free Net Tips Click Here

Leave a Reply