আসসালামু আলাইকুম,

সবাই কেমন আছেন?

দু’আর অনেক গুরুত্ব ও ফযিলত রয়েছে ।

আল্লাহ বলেছেন মুসলিম বান্দাদের যে, তোমরা আমার কাছে চাও, আমাকে ডাকো, আমি তোমাদের ডাকে সারা দেব।

এই দু’আ কবুলের বিশেষ সময় ও স্থান রয়েছে ।

দু’আ কবুলের বিশেষ স্থান সমূহঃ

#১ আরাফার মাঠ

উসামা বিন যায়েদ (রাঃ) বলেন, আমি আরাফার মাঠে রাসূলুল্লাহ (সঃ) এর সওয়ারির পেছনে ছিলাম, তিনি সেখানে দু’হাত তুলে দু’আ করলেন। অতঃপর তা উটনী তাকে নিয়ে ঝুকে পড়ল। ফলে তা লাগাম পড়ে গেল। তারপর তিনি একহাত দিয়ে তার লাগাম উত্তোলন করলেন; কিন্তু তার অপর হাত উঠানোই ছিল ।(নাসাঈ, হাদিস নং ৩০১১)

#২ সাফা মারওয়া পাহাড়ে

জাবির (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ (সঃ) সাফা পাহাড়ের উপর উঠে আল্লাহর প্রশংসা করলেন এবং তার সামর্থ অনুযায়ী দু’আ কিরলেন। একই ভাবে মারওয়া পাহাড়ে উঠে আল্লাহর প্রশংসা করলেন এবং দু’আ করলেন। (নাসাঈ, হাদিস নং ২৯৭২)

দু’আ কবুলের বিশেষ সময় সমূহঃ

#১ সিয়ামরত অবস্থায় দুয়া কবুল হয়

আবু হুরায়রা (রাঃ) হতে বর্নিত, রাসূল (সঃ) বলেছেন, তিন শ্রেনির লোকের দু’আ ফেরত দেওয়া হয় না তার মদ্ধ্যে একজন হলেন সিয়াম পালনকারী, যতক্ষন পর্যন্ত না সে ইফতার করে।(তিরমিযী, হাদিস নং ৩৫৯৮)

#২ লাইলাতুল ক্বদর দু’আ কবুলের অন্যতম সময়

লাইলাতুলকদর এর রাত হল হাজার মাসের চেয়েও উত্তম । রাসূল (সঃ) এই রাতে আয়শা(রাঃ) কে দু,য়া শিক্ষা দিয়েছিলেন।

#৩ জুময়ার দিন দুয়া কবুল হয়

রাসূল (সঃ) বলেছেন ,জুময়ার দিন একটি বিশেষ সময় রয়েছে যে, ঐ সময় যদি কোন বান্দা দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করে আর দু’আ করে তাহলে তার দু’আ কবুল হয়ে যায়। তিনি হাত ইশারা করে বললেন যে এই সময় খুব অল্প।( সহিহ বুখারি, হাদিস নং ৯৩৫)

#৪ দু’আ কবুলের উপযুক্ত সময় হল রাতের শেষ ভাগ

এবং সালাতের শেষে দু’আ কবুল হয়

হযরত উমামা (রাঃ) বলেন, রাসূল (সঃ) কে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল – কোন সময় দুয়া বেশি কবুল হয়? তিনি বলকেন শেষ রাতে ও ফজরের সালাতে শেষে। (তিরমিযি ,হাদিস নং ৩৪৯৯)

এছাড়াও দুয়া কবুলের বিশেষ কয়েকটি সময় রয়েছে ।

– আরাফার দিনে দু’আ কবুল হয়।

– হজ্জ পালন কালে পাথর নিক্ষেপের পর।

– আজান ও ইকামাতের মধ্যখানে ।

– যুদ্ধ্যের মাঠে শত্রুর সাথে মোকাবেলার সময়।

– নামাজে সিজদার সময় দুয়া কবুল হয় ।

ভাল লাগলে আমার সাইটটি একবার ঘুরে আসবেন।
www.seratune.com

7 thoughts on "দু,আ কবুলের বিশেষ স্থান ও সময়"

  1. Abdus Sobhan Abdus Sobhan Author says:
    Good Post..


  2. Rakib ahammed Rakib ahammed Contributor says:
    ভাই জুম্মারদিন কোন সময়
    1. Imran Mir Contributor Post Creator says:
      ভাই জুম্মার দিন কোন কোন সময় নির্দিষ্ট করে দেওয়া নাই। অনেক যায়গায় এসেছে আসরের নামাজ এর পর আবার অনেক যায়গায় এসেছে খুতবার মাঝামাঝি সময়। মোটকথা জুম্মার দিন আপনাকে এই সময় পেতে হলে সারাদিন ইবাদাতের মধ্যে থাকতে হবে।
      আমি যতটুকু জানি সেটুকু আপনার সাথে শেয়ার করলাম।

Leave a Reply