আসসালামু আলাইকুম সবাই কেমন আছেন…..? আশা করি সবাই ভালো আছেন । আমি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছি ।আসলে কেউ ভালো না থাকলে TrickBD তে ভিজিট করেনা ।তাই আপনাকে TrickBD তে আসার জন্য ধন্যবাদ ।ভালো কিছু জানতে সবাই TrickBD এর সাথেই থাকুন ।

বড় চারটি রোগ থেকে মুক্তি পাবেন

প্রিয় পাঠক আজকে আমরা এমন একটি আমল নিয়ে আলোচনা করব ইনশাআল্লাহ। যে আমলটি করলে আল্লাহ তায়ালা আপনাকে বড বড়় চারটি রোগ থেকে হেফাজত করবেন। প্রিয় পাঠক নবী কারীম সাল্লাহু সাল্লাম বলেছেনঃ যে ব্যক্তি ফজরের নামাজের পর এই দোয়াটি পড়বেন ঐ ব্যক্তিকে আল্লাহ তাআলা বড় বড় চারটি রোগ থেকে হেফাজত করবেন। যেকোন রোগ শোক বালা মুসিবত আল্লাহ তা’আলার পক্ষ থেকে আসে এর দুটি কারণ প্রথমত বান্দার জন্য পরীক্ষাস্বরূপ দ্বিতীয়তঃ বান্দার পাপের কর্মফল অথবা বান্দার পাপমোচনের উসিলা। এই রোগ শোক বিপদ-মুসিবত ইত্যাদির বিনিময় আল্লাহ তায়ালা তাকে পরকালে নাজাত দিয়ে দিবেন, তার সমস্ত গুনাহ সমূহ ধুয়ে মুছে সাফ করে দেবেন।আবার ল আল্লাহ তায়ালা হুকুম ব্যতিত আমরা রোগ শোক থেকে পরিত্রান পাওয়া অসম্ভব।

পবিত্র কুরআনে বলেছেন, এই পবিত্র কুরআন মুমিনের অন্তরের জন্য রহমত ও রোগের শেফা বা চিকিৎসা। অর্থাৎ শারীরিক-মানসিক সমস্ত রোগ দুশ্চিন্তা হতাশা সকল বিষয়ে পবিত্র কোরআনে কারিমে সমাধান দিয়ে রয়েছে। সুতরাং আসুন প্রিয় পাঠক আমরা জেনে নেই, সেই চারটি রোগ সম্পর্কে, যে চারটি রোগ থেকে মুক্তি পাবেন এই আমলটি মাধ্যমে।

প্রথমতঃ পাগলামি বা স্মৃতি ভ্রষ্টতা। যদি কারো মানসিক সমস্যা হয়, অথবা কোন জিনিস ভুলে যায় বা স্মরণশক্তি কমে যায় কোন কিছু মনে থাকে না। মোটকথা ব্রেইনের সাথে সম্পর্কিত যে কোন সমস্যা হোক না কেন উক্ত আমল করলে তা থেকে রক্ষা পাবেন ইনশাআল্লাহ। প্রিয় পাঠক আজকের পৃথিবীর দিকে তাকালে আমরা দেখতে পাই, অধিকাংশ যুবক মধ্য বয়সী, বৃদ্ধ মানুষ, এমনকি ছাত্ররা পর্যন্ত এ ভুলে যাওয়া রোগে আক্রান্ত। এর মূল কারণ হচ্ছে মোবাইল কম্পিউটার এর অপ্রয়োজনীয় অধিক পরিমাণ সময় ব্যয় করা। এটি আমাদের স্মরণশক্তিকে অর্ধেকের বেশি কমিয়ে দেয়।

দ্বিতীয় রোগটি হচ্ছেঃ চেহারার আকৃতি নষ্ট হয়ে যাওয়া। যেমন অনেকের দেহে সাদা স্পট পড়ে যায়, অনেকেরই ব্রণ মেছতা বা চোখের ডার্ক সার্কেল পড়ে যায়। চেহারার উজ্জ্বলতা বিনষ্ট হয়ে যায়, আবার কখনো কখনো চেহারাতে অস্বাভাবিক রুক্ষভাবে চলে আসে এবং চেহারাতে কালো দাগ পড়ে যায়। অথবা বয়সের ছাপ পড়ে যায়। শরীরের চামড়া সম্পর্কিত যত রোগ আছে সমস্ত রোগের জন্য উপকার নিয়ে আসে।

তৃতীয় রোগটি হলোঃ অন্ধত্ব। দৃষ্টিশক্তি নষ্ট হয়ে যাওয়া অথবা দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়া। চোখের দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়া এই রোগে অধিকাংশ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। যার কারণেই তাদের অনেকের চশমা ব্যবহার বাধ্যতামূলক হয়ে পড়ে বা চোখের অসুখ দীর্ঘ হয়। আবার অনেকের কাছে চশমা ব্যবহার ব্যক্তিগতভাবে অপছন্দ তা সত্ত্বেও ব্যবহার করতে হয়। সুতরাং উক্ত আমলটি করলে তাদের এই সমস্যাগুলো আর হবেনা ইনশাআল্লাহ।

চতুর্থ নাম্বারঃ প্যারালাইজড বা অবশ রোগ। এরফলে মানুষের দেহের একাংশ অকেজো হয়ে যায় বা কোন একটি হাত অথবা বিকল হয়ে পড়ে। মোটকথা দেহের সকল কমযুরী দূর হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ। কোন প্রকার অপারগতা থাকবে না ইনশাআল্লাহ। প্রিয় পাঠক এই দোয়াটি রাসূল সাল্লাহু সাল্লাম এর অত্যান্ত প্রিয় একটি দোয়া। যখনই সময় পাবেন এ দোয়াটি দিনে বা রাতে একবার হলেও পড়ে নিবেন। তাহলে আপনি আজকের আলোচ্য উপকারিতাগুলো পেয়ে যাবেন ইনশাআল্লাহ। প্রিয় পাঠক চলুন আমরা জেনে নেই এই রোগ গুলো থেকে বেচে থাকার দোয়াটি কি….?

অর্থাৎ আল্লাহ পবিত্র, সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য, আল্লাহ ছাড়া আর কোন উপাস্য নেই, আল্লাহ মহান এবং তিনি সবকিছুর উপর ক্ষমতাশালী।( সহিহ মুসলিম হাদিস নাম্বার ৬৭৪০, ইবনে মাজাহ হাদিস নাম্বার ৩৮০৬, ইবনে আবী শাইবাহ হাদিস নাম্বারঃ ২৮৪১৩, মুসনাদে আহমদ হাদিস নাম্বারঃ ৭১৬৭)

বিঃদ্রঃ দোয়াটি পাশাপাশি আপনি যে কাজ গুলো করবেন তাহলোঃ আপনি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়বেন, নিয়মিত হাটা চলা ও শারীরিক কসরত করবেন, সবুজ শাক সব্জি ও ছোট মাছ খাওয়ার অভ্যাস থাকতে হবে।

আপনার ওয়েবসাইটের জন্য আর্টিকেল প্রয়োজন হলে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন ফেসবুকে আমি

2 thoughts on "এই দোয়াটি প্রতিদিন পাঠ করুন। বড় চারটি রোগ থেকে মুক্তি পাবেন ইনশাআল্লাহ।"

    1. MD Shakib Hasan MD Shakib Hasan Author Post Creator says:
      😍

Leave a Reply