Home » Islamic Stories » ক্যামেরায় ছবি তোলা কি জায়েজ? অনেক গুরুত্বপূর্ণ পোষ্ট। আশা করি সবাই পড়বেন।

3 weeks ago (Jan 02, 2018) 1,121 views

ক্যামেরায় ছবি তোলা কি জায়েজ? অনেক গুরুত্বপূর্ণ পোষ্ট। আশা করি সবাই পড়বেন।

Category: Islamic Stories Tags: by

আশা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন। ইসলামিক পোষ্টটি সবাই মনোযোগ দিয়ে পড়বেন।

প্রশ্ন : ক্যামেরায় ছবি তোলা কি জায়েজ? অনেকেই মনে করেন ক্যামেরায় ছবি তোলা হারাম, কোনটি সঠিক?

উত্তর : আসলে ক্যামেরার মাধ্যমে যে ছবিগুলো তোলা হয়ে থাকে, সেগুলো অনেকটাই ইমেজ এবং এই ইমেজগুলোতে সুস্পষ্টভাবে কোনো প্রতিকৃতি অথবা পরিপূর্ণ আকার ধারণ করা হয় না। ক্যামেরায় এমন একটি ছবি আসে, যেখানে তেমন কিছুই থাকে না।

রাসুল (সা.) যেখানে ছবির কথা হারাম করেছেন, সেখানে কি তিনি এই ছবির কথা বলেছেন, নাকি একজন মানুষের মূর্তি আবিষ্কার করা বা পরিপূর্ণ ছবি ধারণ করা সেটা বুঝিয়েছেন? এই নিয়ে পরবর্তী যুগের আলেম বা এই যুগের আলেমদের মধ্যে মতবিরোধ আছে।

মূল কথা হচ্ছে, ক্যামেরার যে ইমেজগুলো আছে, রাসুল (সা.)-এর হাদিস দ্বারা সেগুলোকে বোঝানো হয়নি। তাই এই ইমেজ যদি কেউ ধারণ করে থাকেন, সেটাকে যতক্ষণ পর্যন্ত আপনি ছবির আকার না দেবেন, ততক্ষণ পর্যন্ত এটি ধারণ করা জায়েজ, নাজায়েজ নয়। ক্যামেরার মাধ্যমে এটি করতে পারেন।
কিন্তু এক্ষেত্রে আলেমদের একটি দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে। এটি ইশতেহাদি বিষয়, সেটি হচ্ছে, সুস্পষ্ট কোনো দলিলের মাধ্যমে বা রাসুলের (সা.) কোনো সুস্পষ্ট হাদিসের মাধ্যমে এটি সাব্যস্ত হয়নি, সেটি হল— অপ্রয়োজনীয়, অহেতুক কারণে বারবার ছবি তোলা বা ছবির কাজেই লিপ্ত থাকা। অনেক সময়ই দেখা যায় যে, হজ করার সময় আল্লাহর ঘরে তাওয়াফ করছেন, তখন তিনি ছবি তুলছেন।

অথচ তাওয়াফের ইবাদত গুরুত্বপূর্ণ একটি সময়, ইবাদত কবুলের সময়, তখন আপনি ছবি তুলবেন কেন! তাই প্রয়োজন যদি না থাকে, সেক্ষেত্রে ছবি না তুলে, প্রয়োজনীয় কাজ শেষ করা আপনার জন্য উত্তম। প্রয়োজনীয় সময়ে ছবি তোলা বৈধ, এটি জায়েজ, আপনি ছবি তুলতে পারেন। এটি রাসুল (সা.) যে নিষেধ করেছেন, তার আওতাভুক্ত হবে না।

সূত্রঃ আপনার জিঙ্গাসা, এনটিভি অনলাইন

Report

About Post: 21

Md Liton Shakh

যা জানি তা জানাতে এবং যা জানিনা তা জানতে ভালবাসি।

15 responses to “ক্যামেরায় ছবি তোলা কি জায়েজ? অনেক গুরুত্বপূর্ণ পোষ্ট। আশা করি সবাই পড়বেন।”

  1. Rakib_sarkar (Contributor) says:

    অযথা মিথ্যা ফতোয়া দিয়ে মানুষকে প্রতারিত করবেন না।ছবি তোলা একেবারে নাযায়েজ। যদি ছবি তোলা জায়েজ হত তবে আমাদের নবি(সঃ) এর ছবি অবশ্যই থাকত, কিন্তু তা নেই। তাই প্রমান হয় ছবি তোলা একেবারে হারাম

    • Md Liton Shakh Md Liton Shakh (Author) says:

      আমি মিথ্যা ফতোয়া দেই না, একবার কি সেই সময়ের কথা ভেবে দেখেছেন, আর এই পোষ্টে সুন্দর যুক্তি আছে বলে মনে করি,।

    • Sabbir Hossain Sabbir Hossain (Author) says:

      আপনি না যেনে মন্তব্য করবেন না। নবি সাঃ এর সময় ডিজিটাল ক্যামেরা ছিল না। ছবি হারাম হওয়ার জন্য তার কিছু গুন থাকা দরকার। যা ডিজিটাল ক্যামেরার ছবিতে নেই। এটি প্রিন্ট করার আগ পর্যন্ত হারাম হয় না। সকল ধরনের আঁকা ছবি ও প্রিন্ট ছবি হারাম। তবে ডিজিটাল ক্যামেরার ছবি হারাম ন। তবে অযথা ব্যাবহার করা উচিত নয়।

      • Md Liton Shakh Md Liton Shakh (Author) says:

        ঠিক ভাই। অনেক ধন্যবাদ, আপনাকে এত সুন্দর যুক্তি তুলে ধরার জন্য।
        ওরা না বুঝে কমেন্ট করে এমনিতে।

    • kingboyy (Contributor) says:

      জি ভাই আপনি ঠিক বলেছেন…

      ছবু তুলা নাজেয়েজ আমু নিজে শুনেছি

  2. Js Saruf (Contributor) says:

    ভালো যুক্তি। কিন্তু প্রথম কমেন্ট টা ভাবাচ্ছে!

  3. Mr. JIZ Mr. JIZ (Author) says:

    বর্তমান এ অনেক কাজের ক্ষেত্রে ছবি আবশ্যক আর তাই আমাদের ছবি তুলতে হয়।
    আমি শুনেছি দরকার ছাড়া ছবি তোলাই নাজায়েজ। বিঃ দ্রঃ আমি কোনো ফতোয়া জানিনা এটা আমার শোনা একটি ফতোয়া।
    আমরা না জেনে কোনো ভুল করে থাকলে, আল্লাহ্‌ আমাদের মাফ করুন।

  4. TrickBD User TrickBD User (Author) says:

    সুন্দর পোস্ট, প্রতিদিন যদি কেউ এই রকম ইসলামিক একটা করে পোষ্ট করতো তাহলে খুব ভালো হতো।।।।।

  5. Ashik523 (Contributor) says:

    r jara photographer hote chay ,tader ki hobe…?

  6. Mahbub Mahbub (Author) says:

    Onek kisu jante parlam

Leave a Reply