আয়নায়।দেখে নারীদের মতো অনেক পুরুষও আফসোস।করে থাকেন নিজেকে নিয়ে। কেন আরেকটু দেখতে ভালো হলাম না, একটু হ্যান্ডসাম হলেই বা কি ক্ষতি ছিল ধরণের আফসোস করেন
না পুরুষেরা বললে আসলেই কিন্তু ভুল
বলা হবে।
অনেকের মতে হ্যান্ডসাম মানেই
অনেক সুন্দর চেহারা এবং বডিবিল্ডার
ধরণের ছেলেরা। আসলে কিন্তু তা নয়।
হ্যান্ডসাম হতে গেলে আহামরি সুন্দর
চেহারাও লাগে না আবার মাসল
ফোলানো বডিবিল্ডার হওয়ারও
প্রয়োজন নেই সত্যিই।
কিছু অভ্যাস তৈরি করে নিন এতে
করেই নিজেকে সকলের চোখে
নিজেকে হ্যান্ডসাম করে উপস্থাপন
করতে পারবেন। এবং নিজের
আত্মবিশ্বাসটাও ফিরে পাবেন খুব
সহজেই।

১) সোজা হয়ে হাঁটাচলা করুন :
আপনি যদি খুব বেশি লম্বা নাও হয়ে
থাকেন তারপরও নিজেকে একেবারে
ফেলনা ভাববেন না। অনেক সময়
শুধুমাত্র সঠিক অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমেও
নিজেকে অনেক হ্যান্ডসাম দেখাতে
পারেন। মাথা ও ঘাড় সোজা করে চলুন।
ঝুঁকে চলবেন না একেবারেই। এতে করে
আপনার বডি স্ট্রাকচারও সঠিক
দেখাবে।

২) যত্ন নিন নিজের :

হ্যান্ডসাম হতে সুন্দর হওয়ার প্রয়োজন
নেই, শুধুমাত্র পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা
এবং নিজের প্রতি যত্ন নেয়াই যথেষ্ট।
নিয়মিত যত্ন নেবেন নিজের। সবসময়
পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকুন, খাম
খেয়ালী ভাব কমিয়ে দিন। একটু হলেও
নিজের কথা ভেবে চলুন।

৩) ত্বকের দিকে খেয়াল রাখুন :
ছেলেরা খুব বেশি ফর্সা হলেও কিন্তু
মানায় না, তবে হ্যান্ডসাম দেখাতে
কিছুটা হলেও সুন্দর ত্বকের প্রয়োজন
রয়েছে। ছেলেরা এইসবের প্রতি
একেবারেই নজর করেন না। কিন্তু
নিজের সত্যিকারের সৌন্দর্য বের
করতে হলেও নজর দিন নিজের ত্বকের
প্রতি। অন্য কিছু না পারুন, নিয়মিত ত্বক
পরিষ্কার রাখুন এবং প্রচুর পানি পান
করুন যাতে ত্বক ময়েসচারাইজ থাকে
এবং দেহ থাকে হাইড্রেট।

৪) দেহ মজবুত করতে সঠিক খাবার ও
ব্যায়াম :
বডিবিল্ডার মানেই হ্যান্ডসাম নয়,
কিন্তু যদি পুরুষের দেহ একেবারেই নরম
ধরণের হয় তাহলে একেবারেই ভালো
লাগে না। বিশেষ করে দেহের ত্বক
টানটান হওয়া এবং দেহের আকার
সঠিক রাখার বিষয়টি। সিক্স প্যাক না
থাকুন তবে যেনো ভুঁড়ি না থাকে
সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। দেহের সুস্থতায়
সঠিক খাবার বেছে নিন এবং অল্প
হলেও শারীরিক ব্যায়াম করুন।

৫) ধূমপান মদ্যপান ছেড়ে দিন :
আগে ভাবা হতো ধূমপান স্মার্টনেসের
প্রতীক। কিন্তু এখন ধূমপান কারী সকলের
চোখেই বিরক্তিকর। এছাড়াও নিয়মিত
ধূমপানের প্রভাব আপনার দেহ ও ত্বকের
উপরে পড়ে যা আপনার স্বাভাবিক
সৌন্দর্যও কেড়ে নেয়। তাই ধূমপান ও
মদ্যপানকে না বলুন দয়া করে।

৬) মিষ্টভাষী হোন ও আচরনে আনুন
মাধুর্য :
মানুষের বাহ্যিক সৌন্দর্য দেখে
মানুষটি হ্যান্ডসাম কিনা তা
বিবেচনা করা যায় শুধু বাহ্যিকভাবেই।
আপনিই ভাবুন একজন অনেক সুন্দর ও
হ্যান্ডসাম মানুষের মুখের ভাষা ও
আচরন অনেক খারাপ হলে কি তিনি
আপনার কাছে আগেই মতোই আকর্ষণীয়
হবেন? মোটেই নয়। মানুষের আচরণ,
স্বভাব, কথাবার্তা ও ব্যক্তিত্ব তার
সৌন্দর্যের বাহক।

একই সাথে Tunebd24.Com এ প্রকাশিত

3 thoughts on "সকলের চোখে হ্যান্ডসাম ও আকর্ষণীয় হয়ে ওঠার ৬ টি অভ্যাস।"

  1. Sadikul Islam Hoque Mohammad Akash Author says:
    অবাক বিষয়


  2. মোঃ জুয়েল juel Author says:
    ভাল লাগল।
    অনেক ধন্যবাত আপনাকে।
  3. Kazi Abdul Wakil Kazi Abdul Wakil Contributor Post Creator says:
    Thanks, All Commenter

Leave a Reply