কচুর পরিচয় :
স্থলাভূমি ও জলাভুমিতে জন্মকৃত সবুজ পাতা বিশিষ্ট এক ধরণের বিশেষ গাছকে কচুর গাছ বলে। এর পাতাগুলো খুব মসৃণ ও মোলায়েম হয়, যার কারণে বৃষ্টির পানি পাতার উপর পড়ার সাথেই মাটিতে পড়ে যায়। আমাদের টিম গবেষণা করে যা পেয়েছে তা হচ্ছে, পাতা ছাড়া কচু গাছের মূল থেকে কাণ্ড পর্যন্ত যা থাকে তাকেই কচু বলে। তবে কিছু কিছু কচুর জাতগুলোতে গাছের মূলে মাটির নিচে আলুর মতো করে হয়।
.
কচু নিয়ে কিছু হাস্যকর বাক্য :
১। যখন কেউ কোনো কিছু না বুঝেও বলে ‘বুঝেছি’ তখন তাকে বলা হয়, “তুই মিয়া কচু বুঝেছিস।”
২। হোস্টেলে বসে চা খাচ্ছি। ইতিমধ্যে এক বন্ধুর সাথে দেখা। সে বলতেছে, “বন্ধু কি খাচ্ছোস?” আমি বললাম, “কচু খাচ্ছি। দেখতেছিসই তো কি খাচ্ছি। ঐ হোটেল ম্যানেজার এরে এক কাপ কচু দে তো।”
৩। মাঠে ফুটবল খেলতে গেলাম। কেবল দুটো শট মেরেছি তাতেই পা মচকে গেলো। কোনো রকম বাড়িতে আসলাম। এবার মা বলতেছে, “এখন থেকে বাড়িতে বসে বসে উন্নতমানের কচু খাবি। এবার তো তোর দাফাদাফিটা কমবে।”
৪। যখন প্রিয় মানুষের সাথে রাগ হয়, তখন অন্য কোনো গালি বের না হলেও “কচুপোঁড়া” শব্দটা বের হয়।
৫। ধুর হারামজাদা, তোর মাথায় কচু আছে। সব সময় দুই লাইন বেশি বুঝোস!
৬। কচু গাছের লগে ফাঁসি দিমু!!
.
বর্ণনা :
কচু একটি গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টিকর সবজি। আমাদের দেশে কচু তেমন সমাদৃত নয়। কচুকে অনেকটা অবহেলার দৃষ্টিতে দেখা হয়। অথচ কচু শাকে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন ‘এ’, ‘বি’ ও ‘সি’, ক্যালসিয়াম, লৌহ ও অন্যান্য পুষ্টি উপাদান রয়েছে। আর এদিকে আমরা সেই ক্লাস টু থেকে পড়ে আচ্ছি যে, রাতকানা রোগীকে বেশী করে কচুশাক খাওয়াতে হবে।

.
কচুর প্রকারভেদ :
বনে জঙ্গলে যেসব কচু জন্মায় সেগুলোকে সাধারণত বুনো কচু বলা হয়। এর সবগুলো মানুষের খাবারের উপযোগী নয়। খাবার উপযোগী জাতগুলোর অন্যতম হচ্ছে, “মুখীকচু, পানিকচু, পঞ্চমুখী কচু, ওলকচু, দুধকচু,
মানকচু, শোলাকচু ইত্যাদি।”
.
কচু ও কচুপাতার উপকারিতা :
১। কারো গায়ে এলার্জি থাকলে ধারাবাহিক এক সপ্তাহ কচুপাতা গায়ে ঘষাঘষি করলে চুলকানি বেশ কমে যেতে পারে।
২। যার বৌয়ের বাচ্চা হয় না! নিয়মিত কচুশাক তথা কচুপাতা খেতে বলুন। কাজ হতে পারে।
৩। যাদের পড়া মনে থাকে না কিংবা অঙ্ক সহজে মাথায় ঢুকতে চায় না! তারা বেশী করে ওলকচু ও পানিকচু খাবেন। কাঁচায় না খেলে ফায়দা অনিশ্চিত।
৪। যে ছেলেমেয়েদের রাগ বেশী! তারা যেন প্রতিদিন এক গ্লাস করে মুখীকচু ও বুনো কচুর পাতার রস খায়।
৫। সর্বপরি যারা নিয়মিত কচু ও কচুশাক খায়, তাদের মন ও স্বাস্থ্য সর্বদা কচুপাতার মতো ফ্রেশ থাকে।

.
কচুর অপকারিতা :
এযাবৎ আমাদের গবেষণায় কচু ও কচুপাতার অপকারিতা ধরা পড়েনি। তবে বেশী খাইলে পাতলা পায়খানা, জ্বর ও গলাচুলকানীয় রোগ হতে পারে। চিন্তা করবেন না! এর জন্য একটা “নাপা এক্সট্রা”ই যথেষ্ট।
.
পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া :
স্থানীয়ভাবে সংবেদনশীল ঘটনা বিরল। বাহ্যিকভাবে কর্টিকোস্টেরয়েড ও শুট মরিচ প্রয়োগ করলে, পর্যাপ্ত পরিমানে বিশোষিত হয়ে সিস্টেমিক কার্যকারিতা দিতে পারে।
.
সাবধানতা :
যেহেতু কচুও এক ধরণের ওষুধের মতো। সুতরাং সকল ওষুধ শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন। নবজাতকের ক্ষেত্রে দীর্ঘ মেয়াদী চিকিৎসা পরিহার করুন। নচেৎ অক্লুশন ছাড়াও এড্রেনাল সাপ্রেশন হতে পারে। শুধুমাত্র ডি-রেজিস্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শে ব্যবহার্য। শূয়োর থেকে দূরে ও যেখানে সূর্যের আলো আসতে পারে সেখানে কচুর আবাদ করুন।
.
লেখাঃ কাওছার আজাদ [কচু]

22 thoughts on "[Lifestyle] – “অবহেলিত কচু নিয়ে বিখ্যাত গবেষণা”"

  1. Alamin Hossain Arnav Alamin Hossain Arnav Author says:
    funny post 😀 ..valoi hoiche
    1. Kawsar Azad Kawsar Azad Contributor Post Creator says:
      হাহাহা, শুকরিয়া ভাই।
  2. Ajidur Rahman Ajidur Rahman Contributor says:
    ৫। সর্বপরি যারা নিয়মিত কচু ও কচুশাক খায়, তাদের মন ও স্বাস্থ্য সর্বদা কচুপাতার মতো ফ্রেশ থাকে।
    এভাবে খেলে কি উপকার হবে??
    1. Kawsar Azad Kawsar Azad Contributor Post Creator says:
      হ, কত্ত জ্বোরে।
      1. Ajidur Rahman Ajidur Rahman Contributor says:
        “কত্ত জোরে” অাবার কি ভাই?
  3. Sahariaj Sahariaj Author says:
    ভাই টাইটেল এ কচু বানান টা ঠিক করুন
    1. Kawsar Azad Kawsar Azad Contributor Post Creator says:
      বুঝলাম না। কোথায় ভুলটা!
      1. Sahariaj Sahariaj Author says:
        আপনি টাইটেলে কচু এর জায়গায় কচ লিখেছেন
  4. হা হা। একটুখানি মজা অার শিক্ষনীয় বিষয় একসাথে। দারুন হয়ছে (কচু)ভাই।
  5. হা হা। একটুখানি মজা অার শিক্ষনীয় বিষয় একসাথে। দারুন হয়ছে (কচু)ভাই।
    1. Kawsar Azad Kawsar Azad Contributor Post Creator says:
      থ্যাংকস ভাই!
  6. আপনি এত্ত কচু ভালোবাসেন কারনটা কি?
  7. আপনি এত্ত কচু ভালোবাসেন কারনটা কি?
    1. Sahariaj Sahariaj Author says:
      আপনার কি ট্রিকবিডি এপ ব্যবহার এর কারণে একই কমেন্ট বার বার হচ্ছে
      1. Kawsar Azad Kawsar Azad Contributor Post Creator says:
        হেতের পয়েন্ট বৃদ্ধি পায়।
        1. ট্রিকবিডিতে পয়েন্টের জন্য কিছুই দেয় না, তাই পয়েন্ট পেয়ে কোন লাভ অামার নেই
      2. হ্যাঁ। তার জন্যই…..__
  8. Shadin Shadin Author says:
    সুন্দর লিখছেন।
    1. Kawsar Azad Kawsar Azad Contributor Post Creator says:
      শুকরিয়া ভাই!

Leave a Reply