আসক্তি থেকে মুক্ত থাকার জন্য প্রতিকার ও প্রতিরোধমূলক কাজসমূহ নিয়ে আমার আজকের আটিকেল । আশা করি সকলে আমার আজকের লেখাটি পড়বেন । ভালো লাগলে কমেন্ট করবেন ।

~~আমি গতদিনে আসক্তি কী তা জানিয়েছিলাম । আসক্তিতে জজরিত হয়েছেন কি না তা আমার আগের আটিকেলটি পড়লেই বুঝতে পারবেন । কিন্তু আপনি যদি কোন কিছুতে আসক্ত হয়ে যান তাহলে কী করবেন?? এই প্রশ্নটির জবাব আপনারা আমার আজকের আটিকেলটি পড়লেই বুঝতে পারবেন ।

^^^ এখন আমাদেরকে সবপ্রথম যে বিষয় দুইটিকে খেয়াল করতে হবে সেটি হলো প্রতিরোধ ও প্রতিকার । এই দুটি একেবারেই ভিন্ন বিষয় । তবে আমাদের দেশের বতমান লোক সমাজ এই দুইটি বিষয়কে একত্রিত করে ফেলেছে । আমাদের এ বিষয়গুলোর প্রতি জ্ঞান বৃদ্ধি করতে হবে । শুধু তাই নয় সে অনুযায়ী অন্যান্য কাজ পরিচালনাও করতে হবে ।

প্রতিরোধ :- কোন কাজ সংঘটিত হয়ে গেছে তা থেকে পরিত্রান পাওয়ার জন্য যে কাজগুলো করা উচিত তা হলো প্রতিরোধ । উদাহরণ হিসেবে আসক্তিকে নিয়েই বলা যাক । মনে করুন আপনি কম্পিউটার গেমের প্রতি আসক্তি হয়ে গেছেন । এখন এটি থেকে মুক্তির জন্য যে কাজগুলো করা উচিত তা হলো প্রতিরোধ । প্রতিকার সম্পকে জানলে এ বিষয়টি আরও পরিষ্কার হওয়া যাবে ।

প্রতিকার :- কোন কাজ সংগঠিত হয় নি কিন্তু তা থেকে মুক্ত থাকতে অগ্রিম পরিকল্পনা হলো প্রতিকার । আসক্তিকে দিয়েই বিষয়টি সম্পকে পরিষ্কার ধারণা নেওয়া যাক । মনে করুন আপনি কম্পিউটার গেমে আসক্ত নন । তবুও আপনি তা থেকে দূরে থাকতে আগে থেকেই কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন তা হবে প্রতিকার । আশা করি এখন সম্পূণ বিষয়টি পরিষ্কার হয়েছে । এখন আমাদের জানার বিষয়টি হলো আসক্তি থেকে মুক্ত থাকার প্রতিকার ও প্রতিরোধগুলো কী কী?? এগুলোকে আমি নিম্নে বণিত করেছি ।

১। প্রথমত আসক্তি থেকে মুক্তি পাওয়ার সহজ উপায় খেলাধুলা করা । একমাত্র খেলাধুলায় পারে সকল মানুষকে সকল ধরনের আসক্তি থেকে দূরে থাকতে । আর খেলাধুলা স্বাস্থ্যের পক্ষেও উপকারী । মানুষের দেহে রোগ জীবাণুকে বাসা বাঁধতে দেয় না ।

২। ধমীয় অনুশাসনের ভিত্তিতে নিয়মিত ধমীয় ইবাদত পালন করা । যদি মানুষগণ তাদের ধমের ইবাদত পালন করে সে নিশ্চিতভাবে যে কোন প্রকার আসক্তি থেকে মুক্তি পাবে ।

৩। নিজেকে দুশ্চিন্তা মুক্ত রাখা । আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষ আসক্তিতে জড়িয়ে পড়ে দুশ্চিন্তার কারণে । এই দুশ্চিন্তা তাকে কখনো কখনো মৃত্যুর দিকেও ধাবিত করে ।

৪। প্রতিযোগীতামূলক কাজে অংশগ্রহণ করা । যদি কেউ প্রতিযোগীতামুলক কাজে যোগ দান করে তাহলে তার মাথায় প্রতিযোগীতার বিষয় ছাড়া অন্য কোন বিষয় আসবেই না । এটি প্রতিরোধের ক্ষেত্রে অধিক গুরুত্বপূণ ।

8 thoughts on "আসক্তি থেকে মুক্তি পেতে প্রতিরোধ ও প্রতিকারমূলক কাজসমূহ"

  1. কি পোষ্ট!পোষ্টের মাথা গোরা কিছু বুঝি না!এরকম পোষ্ট থেকে বিরত থাকুন।
    1. Aubdulla Al Muhit Author Post Creator says:
      ভালোভাবে পড়লেই বুঝতে পারবেন । আপনি তো অথোর ছিলেন । কন্ট্রিবিউটর হলেন কিভাবে?
  2. Prottoy Saha Author says:
    আরো মানসম্মত হওয়া উচিত ছিল
    1. Aubdulla Al Muhit Author Post Creator says:
      চেষ্টা করব । মতামত ব্যক্ত করার জন্য ধন্যবাদ ।
    2. pranta Author says:
      🤔
  3. Hridoy Islam Contributor says:
    মূল কথা হচ্ছে যতটা সম্ভব নিজেকে ব্যাস্ত রাখা উচিত আর নিজের উপর অধিক বিশ্বাস রাখা উচিত…।
  4. pranta Author says:
    Nice … But আরো ভালো হতে পারত
    1. Aubdulla Al Muhit Author Post Creator says:
      I will try the best.

Leave a Reply