আমাদের সবচেয়ে কমন সমস্যা হলো আমারা ভুলে যাই। ভুলে যাওয়ার জন্য আমাদেরকে প্রাত্যহিক জীবনে অনেক অসুবিধায় পড়তে হয়। একটা কাজ আপনি করতে চাচ্ছেন বিকাল সারে ৪ টার দিকে কিন্তু ফেসবুক স্ক্রল করতে করতে কিংবা ইউটিউব দেখতে দেখতে কখন যে সেই সময় টি পার হয়ে যায় তা বোঝাই যায় না। বিশেষ করে আজকের এ যুগে স্মার্টফোন সবার হাতে হাতে তাই এই সমস্যা টি আরো ভয়ানক অকার ধারন করেছে।

শুরু করার আগে আপনাদের কাছে আমি ক্ষমা প্রার্থি। কেননা, আমি প্রায় ২ বছর যাবত ট্রিকবিডিতে কোন লেখালেখি করিনি। এজন্য আন্তরিক ভাবে দুঃখিত। এখন অ্যাক্টিভ আছি। আশাকরি আপনাদের নতুন কিছু দেওয়ার চেষ্টা করবো।

সমস্যা যেহেতু আছে সেহেতু তার সমাধানও আছে। আপনার সেই স্মার্টফোনেই আছে সেই সমাধান। এই আর্টিকেলে আমি সেরকমই সিম্পল কিন্তু অনেক কাজের ২ টি পদ্ধতি বলবো যেগুলোর অনেকেই জানেন আবার অনেকেই হয়তো জানেন না। তো চলুন শুরু করা যাক।

রিমাইন্ডার ব্যবহার করুন
আপনি কোন কাজ একটি নির্দিস্ট সময়ে করতে চাইলে রিমাইন্ডার অ্যাপ ব্যবহার করা একটি ভালো সমাধান হতে পারে। প্লে স্টোরে সার্চ দিলে এখনি হাজারটা অ্যাপ আসবে এরকম। কিন্তু আমি আপনাকে সেগুলোর একটাও ইন্সটল করতে বলছি না। কেননা আপনি এই কাজটি আপনার ফোনে থাকা একটি ডিফল্ট অ্যাপ্লিকেশন দিয়েই করতে পারবেন।

আমি বলছিলাম গুগল কিপ যে অ্যাপটি আছে সেটার কথা। এটি কমবেশি অনেক ফোনেই পি-ইন্সটলড অ্যাপ হিসেবেই থাকে। তবে কিছু ব্রান্ড আছে যারা নিজেদের অ্যাপ দিয়ে রাখে এটার বদলে, সে ক্ষেত্রে আপনাকে ইন্সটল করে নিতে হবে। যাই হোক, গুগল কিপ যেটা একটা নোট অ্যাপ। নোট করে রাখার জন্য অত্যন্ত ভালো। এমনকি নোটগুলো ক্লাউডেও সেইভ থাকে যার কারনে কখনই হারাবে না। এই অ্যাপেরই একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার হলো রিমাইন্ডার। কিভাবে করবেন দেখাই।

প্রথমে আপনার টাইটেল নোট টি লেখুন। নোট এবং টাইটেলে এমনকিছু লেখুন যা আপনাকে খেয়াল করতে সাহায্য করবে। এবার উপরে ডান পাসে দেখুন নটিফিকেশন আইকন দেখতে পাবেন সেটাতে ক্লিক করুন। এরপরে Pick a Date and Time অপশনে ক্লিক করুন। এবং আপনার সময় সিলেক্ট করে দিয়ে সেইভ করুন। আপনি চাইলে নেক্সট দিনের জন্যও রিমাইন্ডার সেট করতে পাবরেন এখান থেকে। (নিচে স্ক্রিনশট)

নোটপিন অ্যাপ
এই অ্যাপটি আমার পার্সোনাল ফেভারিট। আপনারও তাই হওয়া উচিত বলে আমি মনে করি। এটি মূলত একটি নোটপ্যাড অ্যাপ কিন্তু আপনি যা নোট করবেন তা এই অ্যাপটি আপনার ফোনে নোটিফিকেশন আকারে দেখাবে সবসময়। অনেকটা রিমাইন্ডার এপ এর মতোই তবে পার্থক্য হচ্ছে রিমাইন্ডার অ্যাপ একটা নির্দিষ্ট সময়ে আপনাকে নোটিফিকেশন পাঠাবে কিন্তু এই অ্যাপে আপনি যেটা নোট করে রাখবেন তা সর্বদাই আপনার নোটিফিকেশন প্যানেলে থেকে যাবে। দেখা যায় যে ভুলবশত রিমাইন্ডার অ্যাপের যে নোটিফিকেশনটি সেটি ক্লোজ হয়ে যায় কিন্তু এই অ্যাপটিতে সেটার কোন চান্স নেই। আপনার নোটটি সব সময় নোটিফিকেশনে থাকবে এবং আপনাকে তা বারবার বারবার খেয়াল করাবে।

চলুন প্রাক্টিক্যালি বলা যাক প্রথমে প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করুন এখানে লিঙ্ক। এবার অ্যাপটি ওপেন করুন। সকল স্টেপ নেক্সট করে Get Started Now বাটনে ক্লিক করুন।

এবার প্লাস আইকনে ক্লিক করুন এবং টাইটেল এর স্থানে আপনারা টাইটেল দিন এবং ডেসক্রিপশনে বিস্তারিত লিখতে পারেন। এবার নোটটি সেইভ’এ ক্লিক করলে সেটা আপনি নোটিফিকেশন প্যানেলে দেখতে পারবেন। হা আর হ্যাঁ, এই নোটিফিকেশন কিন্তু ক্লোজ করা যায় না তাই ভুলবশত ক্লোজ হয়ে যাবার কোন সম্ভাবনা নেই।

এইবার এই অ্যাপের জন্য ব্যাটারি অপটিমাইজেশন বন্ধ করতে হবে যাতে করে এটি ব্যাকগ্রাউন্ডে থেকে ডেড/কিল হয়ে না যায়। এজন্য সবার আগে অ্যাপ এর ইনফোকে হতে চলে যান। সেখান থেকে ব্যাটারি তারপরে ব্যাটারি অপটিমাইজেশন অফ করে দেন(Optimized থেকে Not/Don’t Optimize করে দিতে হবে) এতে করে অ্যাপটি আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে ডেড/কিল হয়ে যাবে না।

তো এই ছিল আমার পোস্ট। কেমন লাগলো জানাবেন কমেন্টে। দীর্ঘদিন ট্রিকবিডিতে লেখালেখি করি নাই আশা করি এখন নিয়মিত লিখব। দোয়া করবেন আমার জন্য, ধন্যবাদ।

10 thoughts on "ভুলে যাওয়ার সমাধান; ফোন কেই দায়িত্ব দিন আপনাকে খেয়াল কারানোর জন্য।"

  1. Levi Author says:
    প্রোডাক্টিভ অ্যাপ গুলো নিয়ে পোস্ট করবেন।
    1. SOYEB Author Post Creator says:
      দুঃখিত, কিন্তু এটা কোন অ্যাপ রিভিউ ছিলো না।
    2. Levi Author says:
      জ্বী।বুঝেছি সেটা পোস্ট পড়ে।
  2. MD Musabbir Kabir Ovi Author says:
    বাহ তাহলে তো ভালই হলো🙂
    1. SOYEB Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
    2. MD Musabbir Kabir Ovi Author says:
      আপনাকেও ধন্যবাদ
  3. MD Tamim Ahmed Author says:
    পোস্টটা খারাপ না।
  4. MD Tamim Ahmed Author says:
    এখন থেকে তাই করা লাগবে মনে হচ্ছে।

Leave a Reply