আসসালামু আলাইকুম ট্রিক বিডিতে সবাইকে স্বাগতম আমি অভি আছি আপনাদের সাথে।

সবাইকে জানাই রমজানুল মোবারক, রমজানের শুভেচ্ছা সবাইকে 🥰

দেখতে দেখতে মাহে রমজান এর সূচনা হলো আমাদের মধ্যে, আজকে চলছে পঞ্চম রমজান,।

সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত মাগরিব আযান এর আগ পর্যন্ত সকল প্রকার পানাহার থেকে বিরত থেকে সংযত থাকা হলো রোজা।

কিন্তু প্রায় ১২ থেকে ১৩ ঘন্টা একটানা কিছু খাবার গ্রহণ না করার জন্য আমাদের অনেকেই আছেন ইফতার করার সময় বা সেহরি এর সময় সমস্যাতে পড়েন

যেহুতু সারাদিন না খেয়ে থাকতে হবে সুতরাং এই সময় শরীরে এনার্জি ধরে রাখতে হলে ইফতার এবং সেহেরী তে পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। এবং পর্যাপ্ত পানি খেতে হবে।

এই সময় আমাদের মধ্যে অনেকেই আছি না জেনে বুঝে খাবার গ্রহণ করি যার ফলে বদহজম সহ পেটের বিভিন্ন সমস্যা তে পড়তে হয়।

চলুন জেনে নেই এই রমজান মাসে সুস্থ থাকতে হলে কি ধরনের খাবার গ্রহণ করতে হবে।

ইফতার এর সময় যেসব খেতে পারেন

সারাদিন পানহার থেকে বিরত থেকে রোজা ভাঙার আসল সময় হলো ইফতার করার সময়।

এই সময় খাবার এর তালিকায় শসা, কলা, খেজুর ফল এইসব খেতে হবে, কারণ এইসব খাবার পুষ্টিগুণে ভরপুর, এবং ইনস্ট্যান্ট এনার্জি দিতে সক্ষম।

সরবত এর জন্য এই সময় এর মৌসুমী ফল তরমুজ রাখতে পারবেন, মূলত পানি জাতীয় খাবার এটি যা শরীরে পানি শূন্যতা কাটাতে সাহায্য করবে

এই সময় খাবার এর সময় আগেই পানি খাওয়া যাবে না নাহলে সারাদিন খালি পেটে থাকার পর পানি পান করলে পেট এর মধ্যে ব্যাথা অনুভব করতে পারেন।

তাই ইফতারের সময় সরাসরি পানি পান করা থেকে বিরত থেকে কিছু খেয়ে তারপর পানি পান করুন।

ইফতার এর সময় ভারী খাবার বা অতিরিক্ত তৈলাক্ত খাবার যেমন বিরিয়ানি, হালিম, কাবাব, তেহারি ইত্যাদি পরিহার করুন।

কারণ সারাদিন না খেয়ে থাকার ফলে অ্যাসিড জমা হয় শরীরে এবং তৈলাক্ত খাবার গ্রহণ করলে অনেকেই আছেন যাদের পেটে সহ্য করতে পারবে না।

যার ফলে এসিডিটি সহ বদহজম ইত্যাদি হতে পারে। তাই বিরত থাকুন।

সেহেরীতে যা যা খেতে পারেন

সেহেরী এর সময় এমনিতে চাইলেও বেশি কিছু খাওয়া সম্ভব হয় না, এই সময় ভারী খাবার বা চর্বি যুক্ত খাবার খাওয়া যাবে না।

এই সময় অতিরিক্ত মসলা জাতীয় খাবার খাওয়া যাবে না, সাস্থকর এবং সহজপাচ্য খাবার গ্রহণ করা উচিত।

চাইলে ডাল,সবজি এবং ঝোল জাতীয় খাবার খেতে পারেন, যা পেট কে ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করবে।

এই সময় আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন প্রয়োজন এর অতিক্রম করে বেশি খাবার খেয়ে ফেলেন এবং পেটে সমস্যা হয়।

এই সেহেরী এর সময় যতটা সম্ভব নিজের প্রয়োজনমতো অল্প পরিমাণ খাবার খেতে হবে, খাওয়ার জন্য সুষম খাবার গ্রহণ করতে হবে।

যার ফলে সারাদিন না খেলেও সেই খাবার গুলো শরীরে শক্তি সরবরাহ করে দেহকে কর্মক্ষম রাখতে সাহায্য করবে।

সেহেরী তে দুধ, ডিম, মাছ জাতীয় খাবার গুলো গ্রহণ করা উচিত, আর এই সময় যেহুতু একবারই খাবার শেষ সময় যতটা সম্ভব শরীরে পানির চাহিদা পূরণ করতে হবে।

এই সময় যতটুকু সম্ভব পানি পান করতে হবে, এই সময় চাইলে লেবু পানি খেতে পারেন।

তবে চা কফি এইসব খাওয়া থেকে বিরত থাকুন কারণ চা এবং কফি তে ক্যাফেইন থাকে যা শরীর এর মধ্যে পানি শুষে নেয় এবং পিপাসা এর সৃষ্টি করে।

তাই যতটা সম্ভব সেহেরী এর সময় চা কফি খাওয়া যাবে না, বিরত থাকুন এই সময়।

তো মূলত মাহে রমজানের সময় এইসব খাবার গুলো খাদ্য তালিকা তে গ্রহণ করা হলে শরীর সুস্থ থাকবে।

এই ছিল বিস্তারিত ধন্যবাদ সবাইকে আমার পোস্টটি পড়ার জন্য trickbd এর সাথেই থাকুন

4 thoughts on "রমজানে সেহেরী এবং ইফতারে খাদ্য তালিকায় যা যা রাখবেন জেনে নিন!!"

  1. Rasedul Hasan Contributor says:
    বিশ্বাস করেন ভাই,
    আপনার পোস্ট দেখলে মনে হয়। একজন মানুষ এত বিষয় কিভাবে জানে।
    1. MD Musabbir Kabir Ovi Author Post Creator says:
      ভাই আমি ক্ষুদ্র মানুষ এতবেশি কিছু জানি না😊

      তবে যতটুকু জানি জানানোর চেষ্টা করি আমি

  2. M.Rubel Author says:
    ভাই সময়োপযোগী পোস্ট।
    কিন্তু ভাই যারা একটু গরিব মানুষ তাদের জন্য কি রাখা যায় এরকম একটা যদি পোস্ট দিতেন তাহলে ভালো হতো গরিবদের জন্য
    1. nahianuday Contributor says:
      YES

Leave a Reply