হাই বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই ? জানি সবাই ভালোই আছেন তবুও যারা ভালো নাই তারা ভালো থাকার চেস্টা করুন এবং ধৈর্য্য ধরে আজকের টিউন দেখুন। অবশ্যই আপনার মন ভালো হয়ে যাবে।

সময়ের ব্যস্ততাই আগের মত এখন আর আসতে পারিনা। যাই হোক বেশি কথা না বলে কাজের কথাই আসি।

যারা আমার আগের টিউন দেখেন নি তারা পুর্বের টিউন গুলো ভালো ভাবে দেখে নিন।

ইতিমধ্যে ফাইভার সম্পর্কে সব কথা বলে ফেলেছি আমার আগের টিউনগুলোতে। আজ আর বেশি কথা বলতে চাই না। আজ শুধু কিছু তথ্য শেয়ার করতে চাই যেগুলো হয়তো প্রথম অবস্থায় আপনি নাও বুঝতে পারেন।

আমরা সবাই জেনেছি যে ফাইভারে আসল জিনিস হচ্ছে গিগ। আপনার গিগের ভিউ, ইম্প্রেশন, ক্লিক যত বেশি হবে আপনার গিগ তত বেশি সেল হবে। তো প্রথমেই আপনার উচিত আপনার গিগকে সুন্দর করে সাজানো যেন গিগ দেখেই বায়ার আপনার গিগ টি কিনতে আগ্রহ দেখায়। কখনো কারোর গিগ এর লেখা এবং ব্যবহার করা ইমেজ আপনার গিগে ব্যবহার করবেন না।

চলুন কিছু গিগের উদাহরন দেখি।

এখানে ক্লিক করুন ।

এখানে ক্লিক করুন ।

এখানে ক্লিক করুন ।

উপরে প্রতিটি গিগ একেকটি বিষয়ের উপর তৈরি করা।

ফাইভারে প্রাথমিক অবস্থায় আপনি ৭ টি গিগ তৈরি করতে পারবেন। আপনি যখন লেভেল ১ এ পৌছাবেন তখন আপনার গিগ তৈরির সংখ্যা বাড়ার সাথা সাথে আপনার সেল বৃদ্ধি পাবে।

আর একটা বিষয় সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ণ সেটা হল আপনাকে অবশ্যই ভালো ইংরেজি জানতে এবং বলতে হবে।

তবে এক্ষেত্রে আপনি গুগল ট্রান্সলেট এর সহায়তা নিতে পারেন।

বাইরের দেশের কাজ আমরা না পাওয়ার মুল কারন হচ্ছে আমরা বেশির ভাগই ইংরেজি ভালো পারিনা। তারা যা বলে আমরা ভালো ভাবে না বুঝেই উত্তর দিয়ে। যার কারনে আমরা কাজ সঠিক ভাবে পায়না।

তো আজ এই পর্যন্তই। আগামী পর্বে আবার দেখা হবে।

ততদিন সবাই ভালো এবং সুস্থ থাকবেন।

কোন ধরনের সাহায্যের জন্য আমাকে ফেসবুকে যোগাযোগ করবেন। সাধ্যমত সাহায্য করার চেস্টা করব।

ধন্যবাদ সাথে থাকার জন্য।

One thought on "অনলাইনের মাধ্যমে আয় করুন। (পর্ব- ৫)"

  1. Robiul Islam robiul Contributor says:
    thanks


Leave a Reply