আমরা সবাই জানি যে, আজকের দিনে প্রায় ৫.২০ বিলিয়ন মানুষ মোবাইল ফোন ব্যবহার করে। আর বর্তমান পৃথিবীর প্রায় ২.৩ বিলিয়ন মানুষ অনলাইনে থাকা বিভিন্ন ধরনের সামাজিক মাধ্যম গুলো ব্যবহার করে থাকে।

কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং করে ইনকাম করা যায় দেখুন

কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং করে ইনকাম করা যায় দেখুন

আর অনলাইন প্লাটফর্মে এতো বেশি ইউজার থাকার কারনে ডিজিটাল মার্কেটিং ক্রমেই জনপ্রিয়তা অর্জন করতে শুরু করেছে।

Digital Marketing এর এতো বেশি সুবিধা আছে। যার কারনে বিশ্বের বড় বড় কোম্পানি গুলো আজ তাদেরকে ধরে রাখার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর নির্ভর করে আছে।

আর অনলাইন প্লাটফর্মে নিজেকে প্রকাশ করার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং হলো সবচেয়ে সহজ এবং উপযোগী একটি মাধ্যম। 

আর আজকের আর্টিকেল টি মূলত সেই উদ্দেশ্যে নিয়েই লেখা হয়েছে। তাই যদি আপনার ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে বিষদভাবে জানার ইচ্ছা থাকে।

তবে আজকের এই পুরো লেখাটি মন দিয়ে পড়বেন৷ তাহলে আজকের পর থেকে আপনিও Digitel Marketing সম্পর্কে অনেক অজানা বিষয়ে জেনে নিতে পারবেন। 

ডিজিটাল মার্কেটিং কি?

সহজ ভাষায় বলতে গেলে, যখন আপনি কোনো পন্যের প্রচার করার জন্য অনলাইন প্লাটফর্ম কে বেছে নিবেন। এবং সেই প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে আপনি আপনার পন্যের প্রচার করতে পারবেন।

তাকে এক কথায় বলা হবে ডিজিটাল মার্কেটিং। হয়তবা বিষয়টি আপনি ক্লিয়ার ভাবে বুঝতে পারেন নি। তাই চলুন এবার একটু সহজভাবে বোঝার চেস্টা করি।

মনে করুন, আপনি ফেসবুক এর মতো আরও একটি জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া তৈরি করলেন।

কিন্তুু আপনার তৈরি করা এই সোশ্যাল মিডিয়াটি একেবারে নতুন৷ যার ফলে মানুষ এ সম্পর্কে কোনো কিছু জানতে পারবে না।

ঠিক এই সময়ে আপনি যদি অনলাইন এর মাধ্যমে আপনার সোশ্যাল মিডিয়াটির প্রচার প্রচারনা করেন। তাহলে কিন্তুু অনেক মানুষ এ সম্পর্কে জানতে পারবে।

এবং আপনার তৈরি করা Social media টি ব্যবহার করতে আগ্রহী হবে। 

তো আপনি যে অনলাইন এর মাধ্যমে প্রচার প্রচারনা করলেন৷ সেটাকেই বলা হয়ে থাকে, ডিজিটাল মার্কেটিং। যার মাধ্যমে অনলাইন এর মাধ্যমে আপনি আপনার পন্যের প্রচার করতে পারবেন।

যা আজকের দিনের বিশ্বের বড় বড় কোম্পানি গুলো করে আসছে। 

কেন ডিজিটাল মার্কেটিং করা দরকার?

সব কাজের পেছনে কোনো না কোনো উদ্দেশ্য থাকে। ঠিক তেমনিভাবে আপনি আসলে কেন ডিজিটাল মার্কেটিং করবেন। আর আপনি যদি ডিজিটাল পদ্ধতি তে মার্কেটিং করেন।

তবে আপনি কি কি সুবিধা ভোগ করবেন৷ এবার সে নিয়ে একটু বিস্তারিত আলোচনা করার চেস্টা করবো। তো চলুন শুরু করা যাক। 

  1. আমরা সবাই জানি যে, আজকের দিনের মানুষ অফলাইনের পাশাপাশি অনলাইনে বেশি একটিভ থাকে৷ আর আপনি যদি কোনো নতুন পন্যের প্রচার করার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং কে বেছে নেন। তাহলে আপনি খুব সহজেই আপনার টার্গেট করা অডিয়্যান্স এর নিকট পৌঁছে যেতে পারবেন৷ 
  2. আমি উপরে একটা পরিসংখ্যান উল্লেখ করেছি। যেখানে বলা আছে যে, আজকের দিনে প্রায় ২.৩ বিলিয়ন মানুষ অনলাইনে থাকা বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যম গুলো কে ব্যবহার করে।
  3. এতো বেশি ইউজারের মধ্যে আপনি খুব সহজেই আপনার টার্গেটেড অডিয়্যান্স কে খুজে নিতে পারবেন। 
  4. এখনকার দিনের মানুষ কোনো পন্য কিনে নেয়ার আগে প্রথমে অনলাইন থেকে সেই পন্য সম্পর্কে জেনে নেয়। আর আপনি যদি আপনার পন্যের প্রচার অনলাইনের মাধ্যমে করে থাকেন।
  5. তাহলে আপনি খুব সহজেই আপনার পন্য সম্পর্কে কাস্টমারদের ধারনা দিতে পারবেন। 
  6. এছাড়াও ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিশেষ কিছু গুন আছে। যেমন, এখানে আপনি অনেক কম টাকা ব্যয় করে অধিক সংখ্যক মানুষের নিকট পৌঁছাতে পাড়বেন। যা আপনার বিজনেস এর গ্রোয়িং লেভেল কে এক ধাপ এগিয়ে দিতে সহায়তা করবে। 

তো এগুলো ছাড়াও আরও অনেক ধরনের কারন আছে। যেগুলোর জন্য অবশ্যই আপনার ডিজিটাল মার্কেটিং করার দরকার হবে।

যখন আপনি নিজে থেকে এই মার্কেটিং এর সাথে যুক্ত থাকবেন। তখন আপনি নিজেই এসব বুঝে যাবেন। 

ডিজিটাল মার্কেটিং এর কাজ গুলা কি কি ?

প্রতিটি কাজের পেছনে যেমন নির্দিষ্ট কিছু উদ্দেশ্য থাকে। ঠিক তেমনিভাবে কোনো একটি কাজ করার জন্য বিশেষ কিছু ধাপ অতিক্রম করার দরকার হবে।

আর ডিজিটাল মার্কেটিং ও এসব থেকে ভিন্ন নয়৷ বরং আপনি যদি Digital Marketing করতে চান। তাহলে আপনাকে পূর্বে থেকেই বেশ কিছু কাজে যথেষ্ট ধারনা নিতে হবে। যেমনঃ

০১| এসইওঃ

SEO হলো এমন একটি মাধ্যম। যাকে কাজে লাগিয়ে আপনি আপনার নির্দিষ্ট (Targeted) অডিয়্যান্স এর নিকট পৌঁছে যেতে পারবেন।

আর এসইও এর পূর্নরুপ হলো, Search engine optimization. আর ডিজিটাল মার্কেটিং করার জন্য অবশ্যই আপনাকে এসইও সম্পর্কে জানতে হবে।

০২| কন্টেন্ট মার্কেটিংঃ

আপনি উপরের আলোচনা থেকে জেনেছেন যে, মানুষ একজন কোনো পন্য ক্রয় করার পূর্বে। অনলাইনে সার্চ করে সেই পন্য সম্পর্কে তথ্য জেনে নেয়।

আর অনলাইনে থাকা এই তথ্য গুলো কে বলা হয় কন্টেন্ট।

আর আপনি যদি কোনো ভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনাকে কন্টেন্ট মার্কেটিং সম্পর্কে জানতে হবে।

০৩| সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংঃ

ডিজিটাল মার্কেটিং এর অপরিহার্য একটি অংশ হলো Social media marketing. কেননা, আজকের দিনে যতো বেশি অনলাইন ইউজার আছে।

তাদের প্রায় বেশিরভাগ মানুষ ই এই ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া গুলো ব্যবহার করে থাকে। যার কারনে আপনি যদি আপনার টার্গেটেড অডিয়্যান্স কে খুজে পেতে চান।

তাহলে অবশ্যই আপনাকে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং জেনে নিতে হবে।

০৪| ইমেইল মার্কেটিংঃ

বর্তমান সময়ে ডিজিটাল মার্কেটিং করার অন্যতম একটি মাধ্যম হলো Email Marketing. যার মাধ্যমে আপনি আপনার পন্যের প্রচার করতে পারবেন। আর এই কাজটি সম্পন্ন করার জন্য অবশ্যই আপনাকে পূর্নাঙ্গ ভাবে ইমেল মার্কেটিং সম্পর্কে জেনে নিতে হবে। 

কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং করে টাকা আয় করা যাবে?

তো উপরের আলোচনা গুলো জানার পর। এখন অনেকের মনে প্রশ্ন জেগে থাকবে যে, ডিজিটাল মার্কেটিং থেকে টাকা আয় করা যাবে কিনা।

তো এই প্রশ্নের উওরটা আমি একটু অন্যভাবে দিতে চাচ্ছি৷ যেন আপনার বুঝতে সুবিধা হয়। কারন, যেহুতু ডিজিটাল মার্কেটিং এর পদ্ধতি গুলো ভিন্ন। সেহুতু এখানে আপনি ভিন্নভাবে টাকা আয় করতে পারবেন ৷

দেখুন, আপনি যদি সরাসরি ডিজিটাল মার্কেটিং থেকে আয় করতে চান। তাহলে প্রথমত আপনাকে ডিজিটাল মার্কেটিং সার্ভিস প্রদান করতে হবে।

আর এই সার্ভিস দেয়ার বিনিময়ে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন। 

যেমন ধরুন, আপনাকে একটি কোম্পানি থেকে হায়ার করা হলো। এবং আপনি সেই কোম্পানির মার্কেটিং করার জন্য যেসব কাজ করার দরকার হবে।

সেই কাজগুলো করে দিবেন। আর তার বিনিময়ে আপনি উক্ত কোম্পানি থেকে টাকা আয় করতে পারবেন

কিন্তুু আপনি যদি নিজের কোনো কোম্পানির জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং করেন ৷ তাহলে কি সেখান থেকে টাকা আয় করতে পারবেন? – হুমমম! আপনি এই পদ্ধতির মাধ্যমেও টাকা আয় করতে পারবেন।

[Pro Tips: ফ্রিতে টাকা ইনকাম করতে পারবেন জানতে এই আর্টিকেলটি  পড়ুন  অনলাইনে ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার উপায়]

তবে এখানে আপনি সরাসরি টাকা আয় করতে পারবেন না। বরং ডিজিটাল মার্কেটিং করে আপনি যে টার্গেটেড অডিয়্যান্স নিয়ে আসবেন৷ সেই অডিয়্যান্স কে দিয়ে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন। 

ডিজিটাল মার্কেটিং কিভাবে শিখা যাবে?

আপনি যদি কোনো কাজে সফলতা অর্জন করতে চান। তবে প্রথমত আপনাকে সেই কাজ শিখতে হবে। সেই কাজে পূর্নাঙ্গ ধারনা অর্জন করতে হবে।

এবং এরপর আপনি যা শিখবেন, সেগুলোর সঠিক প্রয়োগ করার মাধ্যমে যেকোনো কাজে সফলতা অর্জন করতে পারবেন ৷

ঠিক একইভাবে আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে সফলতা অর্জন করতে চান। তবে প্রথমে আপনাকে এই কাজ রিলেটেড সমস্ত বিষয় শিখে নিতে হবে।

আর আপনি চাইলে বিভিন্ন মাধ্যমে Digital Marketing শিখতে পারবেন৷ যেমন, আপনি যদি ফ্রি সোর্স থেকে শিখতে চান ৷ তবে আপনাকে প্রচুর পরিমানে গুগল আর ইউটিউবে ঘাটাঘাটি করতে হবে।

আর যদি আপনার অর্থ ব্যয় করার মতো সামর্থ্য থাকে। তবে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং শেখার বিভিন্ন কোর্স কিনেও শিখে নিতে পারবেন ৷

মূলত আপনি আসলে কোন পদ্ধতি অনুসরন করবেন৷ তা সম্পূর্ন আপনার উপরেই নির্ভর করবে। 

আমাদের শেষকথা 

এই ছোট্ট আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি ডিজিটাল মার্কেটিং কে স্বল্প আকারে তুলে ধরার চেস্টা করেছি। আশা করি এই সংক্ষিপ্ত আলোচনা থেকে আপনি Digital marketing কি, সে সম্পর্কে একটা পরিস্কার ধারনা পেয়ে গেছেন।

বাংলাই অনলাইন ইনকাম এবং ব্লগিং টিপস পেতে ভিসিট করুন www.Banglaitblog.com

আর এমন সব অজানা বিষয় গুলোকে সহজভাবে জানতে Trickbd এর সাথে থাকবেন। ধন্যবাদ। 

 

Leave a Reply