আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা অনলাইনে ইনকাম করার জন্য প্রতিনিয়ত অনলাইনে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। আবার অনেকেই বিভিন্ন সাইট এবং অ্যাপস এ কাজ করে ধোকাও খেয়েছেন। যেহেতু অনলাইন, তাই আপনাকে কিছু সাবধানতা অবলম্বন করে চলতে হবে। তাহলে চলুন সেগুলো জেনে নেই…

• ওয়েবসাইট বা অ্যাপসে কাজ:
এমন কোন ওয়েবসাইট বা অ্যাপস এ কাজ করবেন না যেগুলো আপনার পার্সোনাল ইনফরমেশন সংগ্রহ করবে। এমন অনেক অ্যাপস বা ওয়েবসাইট রয়েছে, যেগুলো তাদের প্রয়োজনের থেকেও অতিরিক্ত ইনফরমেশন নিয়ে থাকে। এগুলো থেকে সাবধানতা অবলম্বন করবেন।

তাই উল্টাপাল্টা কোন অ্যাপস বা ওয়েবসাইটে কাজ করা থেকে বিরত থাকুন।

• নতুন ইনকামের ওয়েবসাইট বা অ্যাপস:
অনলাইনে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন অনেক ইনকামের অ্যাপস বা ওয়েবসাইট আসে। সেগুলো ব্যবহার করার আগে, অবশ্যই সেগুলো সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নেবেন। তা না হলে আপনি ঠকবেন।

• নিজের পার্সোনাল ইনফরমেশন:
অনলাইনে অনেক থার্টি অ্যাপস বা ওয়েবসাইট রয়েছে যারা আপনার বিভিন্য পার্সোনাল ইনফরমেশন (যেমন জাতীয় পরিচয় পত্র, মোবাইল নম্বর, ব্যাংকিং তথ্য ইত্যাদি) চাইবে সেগুলো দেওয়া থেকে বিরত থাকবেন।

বিশ্বস্ত ওয়েবসাইট বা অ্যাপস হলে দিতে পারেন। তা না হলে দেওয়ার দরকার নেই। নিজের পার্সোনাল ইনফরমেশন দিলে কিন্তু পরে আপনি বিপদে পড়তে পারেন।

• পেইমেন্ট:
অনেকেই নতুন অবস্থায় অনেক ফালতু ওয়েবসাইট এবং অ্যাপসে কাজ করেন। পরে তারা আর পেমেন্ট পায় না। তাই অবশ্যই কোন অ্যাপস বা ওয়েবসাইটে কাজ করার আগে, সেই ওয়েবসাইট বা অ্যাপস এর পেমেন্ট সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নেবেন।

তারা কিভাবে পেমেন্ট দিবে, এই বিষয়টাও ভালোভাবে জেনে নেবেন।

• কাজের ইনফর্মেশন:
কোন ওয়েবসাইট বা অ্যাপস এ কাজ করার আগে, সেই ওয়েবসাইটে কোন ধরনের কাজ করতে হবে, সেটা সম্পর্কে ভালো ধারণা নিয়ে নিন। তা না হলে কিন্তু পরে কাজ করবেন, কিন্তু পেমেন্ট পাবেন না।

• অবৈধ ওয়েবসাইট:
বিভিন্ন অবৈধ ওয়েবসাইট রয়েছে যারা অনলাইনে বিভিন্ন লোভনীয় অফার দিয়ে আপনার থেকে কাজ করিয়ে নেবে। এই ধরনের ওয়েবসাইট গুলো থেকে দূরে থাকুন। এছাড়া এই ধরনের ওয়েভসাইটে আপনার থেকে বিভিন্ন অবৈধ কাজ (যেমনঃ ওয়েভসাইট হ্যাক করা ইত্যাদি) করিয়ে নিবে।

অবৈধ ওয়েবসাইটে কাজ করলে কিন্তু আপনার জেল ও হতে পারে। তাই এগুলো থেকে দূরে থাকাই উত্তম।

• ক্রিপ্টোকারেন্সি:
বাংলাদেশে যেহেতু ক্রিপ্টোকারেন্সি অবৈধ, তাই ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে দূরে থাকাই উত্তম। তবে সীমিত বা কম পরিমাণে ক্রিপ্টোকারেন্সি হলে কাজ করতে পারেন। আর বেশি পরিমাণে ক্রিপ্টোকারেন্সি হলে, আপনি অবৈধ লেনদেনের আওতায় পড়ে যাবেন।

বাংলাদেশে এরকম অনেককেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে বৈধ উপায়ে লেনদেন করলে সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা নেই। অবৈধ উপায়ে লেনদেন করলে আপনার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আজকে এই পর্যন্তই। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ।

ভার্চুয়াল Ram (Virtual Ram) কি? ভার্চুয়াল Ram এর সুবিধা এবং অসুবিধা What is virtual Ram in Bangla

ই-সিম (Embedded Sim) কি? ই-সিম এর সুবিধা এবং অসুবিধা What is esim in Bengla

8 thoughts on "অনলাইন ইনকাম করতে গিয়ে নিজেই বিপদে পড়তে যাচ্ছেন না তো? অনলাইন ইনকামের সাবধানতাগুলো জেনে নিন"

  1. Nishat Contributor says:
    kintu kisu kisu airdrop er jonno j KYC verify korte hoy, eta ki risky?
    1. Md Nuhu Author Post Creator says:
      অবশ্যই রিস্কি।
    1. Md Nuhu Author Post Creator says:
      জি
  2. The Matrix Contributor says:
    BD gov sara jibon Crypto Bitcoin ke Illegal bolte bolte 2025 Chole asbe then Indian Exchange gula Bangladesh e ase Bebsa start korbe. BD government o bole crypto legal but ai somai apnar mto jara believed korto crypto illegal tara hoggaa mara khabe. Toto din e BTC 250k hoye jabe
  3. The Matrix Contributor says:
    Internet duniya din din crypto dependable hoche so ai dhoroner negative idea matha theke sorate hbe. Bangladesh er mto fokir government crypto ke illegal korle Developed country plus big industry gula already Bitcoin reserve kore rekheche karon in future e tara poor government er kache beshi dam e sell korte pare
    1. Md Nuhu Author Post Creator says:
      আমি কোথাও নেগেটিভ কোন আইডিয়া দেই নি। বাংলাদেশ যেটা ইলিগ্যাল সেটাই বলছি। আপনার মনে চাইলে আপনি ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে কাজ করেন, সেটা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার।
  4. Mu SA Contributor says:
    Risky but dont have a option😊

Leave a Reply