কাইওস মোবাইলগুলো ব্যবহার অসুবিধা সংক্রান্ত সকল তথ্য

সবাইকে আরও একবার স্বাগতম জানাচ্ছি আজকের পোস্টে । গত পোস্টের কথামতো আজ কাইওস ফোনের অসুবিধা নিয়ে আলোচনা করব যা আমি টাইটেলের মাধ্যমে প্রকাশ করেছি । তো চলুন কাইওস মোবাইল ব্যবহারের অসুবিধাগুলো জেনে নেওয়া যাক ।

 

প্রতিটি জিনিসের কিছু সুবিধা ও অসুবিধা থাকে । ঠিক তেমনি কাইওস ফোনেরও সুবিধার পাশাপাশি কিছু অসুবিধাও আছে । গত পোস্টে সুবিধা নিয়ে আলোচনা করেছিলাম । আজ অসুবিধাগুলো নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি । তো চলুন শুরু করা যাক ।

কাইওস ফোন ব্যবহারের অসুবিধাগুলো নিম্নে আলোচনা করা হলো :

১) কাইওস ফোন মূলত বাটন ফোনকেই নির্দেশ করে । কাইওস ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের সাধারণ সুবিধাগুলো উপভোগ করা যায় । কাইওস ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের কিছু ফিয়েচার যুক্ত করলে তা নিঃসন্দেহে অ্যান্ড্রয়েড ফোন হয়ে যেত । অন্যদিকে একটি কাইওস ফোনের দাম প্রায় ৪হাজার টাকা বা তার কাছাকাছি যা দিয়ে একটি নিম্নমানের অ্যান্ড্রয়েড ফোন হয়ে যায় । এক্ষেত্রে এটি একটি বড় অসুবিধা । কারণ অ্যান্ড্রয়েডের অতি প্রয়োজনীয় সুবিধা কাইওস ফোনে উপভোগ করা যায় না ।

২) কাইওস ফোনের Ram মাত্র ৫১২ এমবি । কিছু অতি প্রয়োজনীয় জিনিস যা আকারে বড় ফাইলের মতো তা মোবাইলে রাখা শুরু করলেই মোবাইল তুলনামূলকভাবে ধীরগতি সম্পন্ন হয়ে যায় । এটিও একটি বড় অসুবিধা ।

৩) কাইওস ফোনগুলোর বেশিরভাগই ভারী ও মোটা । ব্যাটারিও খুব ভারী । পকেটে নিয়ে বেড়ানো ভারী দুঃষ্কর । অন্যদিকে একটি জাভা ফোন কিংবা অ্যান্ড্রয়েড ফোন মোটা ও ভারী হয় না । পকেটে করে নিয়ে বেড়ানো যায় । এক্ষেত্রে কাইওস ফোন ব্যবহার আরামদায়ক নয় ।

৪) কাইওস ফোনগুলোর ব্যাটারি অনেক মোটা যা বাজারে পাওয়া যায় না । অফিশিয়ালি অর্ডার করা ছাড়া আর কোন উপায় থাকে না । উদাহরণ হিসেবে জিও ফোনগুলোর কথা আলোচনা করা যেতে পারে । জিও ফোন ৪থেকে ৬ মাস ব্যবহার করার পরপরই ব্যাটারি ফুলতে শুরু করে । জিও ফোনের মোবাইলগুলো স্টক আউট । তাই ব্যাটারিও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না । তাই অনেকের মোবাইল থাকার পরও ব্যবহার করতে পারছে না । এতও আরও এক বড় সমস্যা ।

৫) কাইওসের অ্যাপ স্টোরে থাকা অ্যাপগুলো ব্যতীত অন্য কোন অ্যাপ (যেমন জাভা) ব্যবহার করা যায় না । অন্যদিকে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে সকল অ্যাপ ব্যবহার করা যায় ।

৬) জাভা ও অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ইউটিউবের ভিডিও যেকোন পথ অবলম্বন করে ডাউনলোড করা যায় কিন্তু কাইওস ফোনে ইউটিউবের ভিডিও ডাউনলোড করা যায় না । অনলাইনেই দেখে নিতে হয় । এইটাতো আরও বড় অসুবিধা ।

৭) কাইওস ফোনে ফেসবুক ব্যবহার করা যায় ঠিকই কিন্তু ভয়েস, ভয়েস কল, ভিডিও কল দেওয়া যায় না । কিন্তু কম দামি যে কোন অ্যান্ড্রয়েড ফোনে এগুলো উপভোগ করা যায় । হট্সঅ্যাপে অডিও কল ও ভয়েস ম্যাসেজ দেওয়া যায় কিন্তু ভিডিও কল দেওয়া যায় না ।

৮) কাইওস ফোনে শুধুমাত্র গুগল ডিও ব্যবহার করে ভিডিও কল দেওয়া যেত । কিন্তু বর্তমানে সেই সুবিধাটাও ভোগ করা যাচ্ছে না । কারণ গুগল তাদের ডিও কে ‘গুগল Meet’ এ রুপান্তর করে ফেলেছে ।

৯) জিও ফোনে প্রয়োজনীয় অনেক অ্যাপ এবং ব্রাউজার পাওয়া যায় না । নিচে এগুলো উল্লেখ করা হলো :

twitter, Instagram, telegram, google duo, zoom, chrome, vidmate, Gmail এবং অন্যান্য অ্যাপ । তবে এর মধ্যে অনেক অ্যাপ তৈরি করে ফেলেছে বাংলাদেশের লোকেরা । তবে এগুলো স্ট্যান্ডার্ড মানের নয় ।

১০) বায়োস্কোপে লাইভ দেখার সময় এদিক ওদিক স্ক্রোল করলেই ক্রাশ খেয়ে অটোমেটিক হোমপেজে নিয়ে চলে আসে ।

১১) কাইওস ফোনে ব্রাউজার দিয়ে কোন টেক্সট ও লিংক কপি করা যায় না । এটা সব থেকে বড় সমস্যা ।

তো এসকল দিকগুলোর প্রতি আলোচিত হয়ে নিশ্চয় বুঝতে পেরেছেন যে কাইওস ফোনের অসুবিধাগুলো কোথায়?? ভিডিও ও লাইভ স্ট্রিমিং দেখার জন্য এটি সেরা ।

তবে একটি বিষয় লক্ষণীয় যে বাংলাদেশের প্রোগ্রামাররা অনেক অ্যাপ তৈরি করে ফেলেছে । তাদের মধ্যে অন্যতম বায়স্কোপ, মাইজিপি, গুগল ডিও সহ আরও অনেক ।

সবাই সুস্থ্য থাকুন, ভালো থাকুন।

23 thoughts on "কাইওস মোবাইল ব্যবহারের অসুবিধা সংক্রান্ত সকল তথ্য একসাথে"

  1. MD FAYSAL Contributor says:
    good ami kios user
    1. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      I am too.
    2. Najmul Nazu Author says:
      পার্ফরম্যান্স কী খুব ভালো?
  2. MD Musabbir Kabir Ovi Author says:
    এই সম্পর্কে পোস্ট না করার অনুরোধ থাকলো, কাইওএস কম লোক ব্যাবহার করে
    1. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      এই পোস্টটা কি শুধু কাইওস ইউজারদের জন্য? নাকি যারা কাইওস ব্যবহার করতে ইচ্ছুক তাদের জন্য?

      অযথা ভুলভাল কমেন্ট করে কোন লাভ নাই ।

    2. MD Musabbir Kabir Ovi Author says:
      আমি আমার নিজস্ব মন্তব্য করেছি ভুলভাল কিছু বলি নি
    3. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      নিজস্ব মন্তব্যটাও সঠিক করা উচিত ।
    4. MD Musabbir Kabir Ovi Author says:
      আগে নিজে ঠিক হয়ে অন্য কে উপদেশ দিয়েন।

      সবাই জানে কে অযথা মানুষ এর পোস্ট এ কমেন্ট

      করে। Mind it

    5. Najmul Nazu Author says:
      মেসেঞ্জারে পোল ক্রিয়েট করা নিয়ে পোস্ট করলে কিছু নাই, একটা ব্রান্ডের বৃত্তান্ততে আপনার এত সমস্যা কেনো?
      ভুলে যাবেন না, ট্রিকবিডির এডমিন আছেন।
      নিজেকে এডমিন ভাববেন না!
    6. Xein Ahmed Author says:
      amio vai kaios er post dkhte dkhte birokto🫠
    7. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      Xein ahmed কাইওস ফোন নিয়ে ৩টা পোস্ট করলাম । আর আপনি বিরক্ত হয়ে গেলেন?
  3. amer mahmod Contributor says:
    Symphony PD1 4G. Khob valo disign ta khob valo pokete nilew comfort lage. Geo r chaite onek better .
    1. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      জিও ফোন সাভিস দিতে ব্যথ হচ্ছে ।
  4. Raisul Islam Nill Contributor says:
    কাইওস? নাকি কাই-ওএস (KaiOS)? কোনটা সঠিক?
    1. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      কাই-ওএস এইটা সঠিক । কারণ এটি কাই ওপারেটিং সিস্টেমের সংক্ষিপ্ত রুপ । ভূল ধরিয়ে দেওয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ ।
  5. Najmul Nazu Author says:
    এই অপারেটিং সিস্টেমের নাম শুনছি অনেক আগে বাট এরকম ফোন কারও হাতে আজ পর্যন্ত দেখলাম না!
    1. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      Apni nijei robi shop theke symphony pd1 order korte paren.
    2. Najmul Nazu Author says:
      না ভাই আমার লাগবে না এখন 😑
  6. Amit Baidya Author says:
    Asob Phone Tmon Use kore na akon
    1. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      সবাই বুঝে গেছে যে এটা অ্যান্ড্রয়েডের মতো সুবিধা দেয় না ।
    2. Amit Baidya Author says:
      হ্যা
  7. Sajid Blue Author says:
    যতই os ই আসুক না কেন। নোকিয়ার S40, S60, এবং Meego Harmattan এর মত os কেউ আনতে পারবে না। আহা কি সময় ছিল। অনেক মিস করি নোকিয়ার সেই Java ফোন গুলা।
    1. Aubdulla Al Muhit Contributor Post Creator says:
      YES BROTHER

Leave a Reply