শীর্ষ নিউজ, ঢাকা : ভুয়া ও অনিবন্ধিত
সিম যাচাই ও বাছাই করার দায়িত্ব নিচ্ছে
জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান প্রকল্প
কর্তৃপক্ষ। মুঠোফোন অপারেটররা নিজেদের
বিক্রি হওয়া সিমের তথ্য-উপাত্ত জাতীয়
পরিচয়পত্র প্রদান প্রকল্প কর্তৃপক্ষকে
জমা দেবে।
আগামী রোববার থেকেই এ প্রক্রিয়া শুরু
হবে। এখন আর পুরোনো গ্রাহকদের নিজ
উদ্যোগে নতুন করে সিম নিবন্ধন করতে
হচ্ছে না।
আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে আয়োজিত এক
সংবাদ ব্রিফিংয়ে ডাক ও
টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা

হালিম এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন,
প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার আগেই পরিচয়পত্র
প্রদান প্রকল্প কর্তৃপক্ষ ও অপারেটররা
নিজেদের মধ্যে সমঝোতা করে নেবে।
তিনি বলেন, নিবন্ধন যাচাই ও বাছাইয়ে
মানুষের ভোগান্তি কমাতে এ সিদ্ধান্ত
নেওয়া হয়েছে। এর আগে মুঠোফোনের সব
অপারেটর ও জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান
প্রকল্প কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তাঁর বৈঠক
হয়েছে বলে তিনি জানান।
তারানা হালিম বলেন, ‘এ পর্যন্ত
অপারেটররা যত সিম বিক্রি করেছেন, তার
তথ্য-উপাত্ত জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান
প্রকল্প কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেবে।
প্রকল্প কর্তৃপক্ষ এসব তথ্য যাচাই ও বাছাই
করবে। এ ব্যাপারে মন্ত্রণালয়কে
প্রতিবেদন দেবে প্রকল্প কর্তৃপক্ষ। পরে এ
তথ্যের ভিত্তিতে অনিবন্ধিত ও ভুয়া
সিমগুলোর মালিককে বার্তা পাঠানো
হবে নিবন্ধন করার জন্য। এরপরেও নিবন্ধন
না হলে সেসব সিম বাতিল করে দেওয়া
হবে।’
তারানা হালিম বলেন, এভাবে নিবন্ধন
প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর মোবাইল
অপারেটররা যন্ত্রে আঙুলের ছাপ নিয়ে
সিম বিক্রি করবে।

One thought on "গ্রাহকরা নয়, সিম পুনর্নিবন্ধন করবে কর্তৃপক্ষ"

  1. Salmanbiswas Contributor says:
    amader je sim gulo nibondhito noy segulor ki hobe.


Leave a Reply