5+ Ayman Sadik pdf books download || Ayman Sadiq All pdf downloads


১।

স্টুডেন্ট হ্যাকস বই রিভিউঃ 

পড়াশোনা নামটাই কেমন যেনো বিরুক্তি বিরুক্তি লাগে আমাদের সবার কাছেই।
বিরুক্তি লাগাটাই স্বাভাবিক মনে করি, কথায় আছে না “পড়া না যি মরা “আর লেখা না যি ঠেকা।
উপরোক্ত কথাটি গ্রামের বুড়োবুড়িরা বাচ্চারা যখন পড়তে বা লিখতে না চায় তখনই বলে থাকে।
পড়াশোনা ব্যপারটা আমাদের সবার কাছে বিরুক্তিকর নিরষ ব্যপার।
আমরা যতটুকু পড়াশোনা করি তা পরিবারের চাপে পড়েই করে থাকি।
অথবা ভালো একটা জবের আশায়ই কিন্তু করে থাকি, নাহলে কিন্তু আমরা মোটেই পড়াশোনা করতাম না ইচ্ছেকরে তাইনা?

আমরা কেউই পড়াশোনাটাকে মিষ্টি রুচিতে উপভোগ করি না, সবাইই পড়ালেখাটাকে তেতোই মনে করি থাকি এবং তেতো হিসেবেই জোড় করে গিলে থাকি।
তেতো সিরাপ (ঔষধ) যেমন চোক নাক কান সব বন্ধ করে পানি দিয়ে জোর করে কোনোরকম গিলে খাই তেমনি জোর করে পড়াশোনা করে থাকি পরিবারের চাপে বা চাকরির জন্য বা ফেল করার ভয়ে
😉

পড়াশোনাকে কিভাবে আনন্দের সহিত করা যাবে সেই টেকনিক গুলো তুলে ধরেছেন এ বইয়ে।
পড়ার গতিকে কিভাবে বাড়ানো যায় সেই টিপস রয়েছে এ বইয়ে।
নিজেকে দিয়েই নিজে টোপ দিয়ে কিভাবে পড়ালেখাটা আদায় করে নিবেন সেই হ্যাকস টি ও শিখিয়ে দিয়েছেন এ বইয়ে।
ইত্যাদি ইত্যদি।
এছাড়াও বইটিতে কয়েক পৃষ্ঠা পর পর নিজের ক্যারিয়ার সম্পর্কে কতোটুকু সচেতন তা যাচাই করার জন্য ছক রয়েছে যা পূরন করেই নিজের ক্যারিয়ারের প্রতি বা নিজের জ্ঞানকে যাচাই করা যাবে।
আশাকরি প্রতিটি স্টুডেন্টের ক্ষেত্রেই স্টুডেন্ট হ্যাকস বইটি পথ প্রদর্শক হয়ে কাজ করবে।

বইয়ের নামঃ স্টুডেন্ট হ্যাকস

বইয়ের লেখকঃ আয়মান সাদিক ও সাদমান সাদিক 
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৪৭ টি।
ক্যাটেগরিঃ ছাত্রজীবন উন্নয়ন 
পিডিএফ সাইজঃ ১৭  মেগাবাইট প্রায়।
ডাউনলোডঃ
Download


২। কমিউনিকেশন হ্যাকস – আয়মান সাদিক ও সাদমান সাদিক।

কমিউনিকেশন হ্যাকস কি?

কমিউনিকেশন হ্যাকস হলো, যখন কারো সাথে যোগাযোগ করা হয়, তখন তার মনের ভিতরে প্রবেশ করে নিজের সার্থ হাসিল করাই হলো কমিউনিকেশন হ্যাকস😉 অথবা সহজ ভাষায় বলা যায়, কারো সাথে কথা বলে বা যোগাযোগ করার পরে আপনার নিজের সার্থ হাসিল করাকেই কমিউনিকেশন হ্যাকস বলে।

কাদের জন্য কমিউনিকেশন হ্যাকস বইটি?

১। আপনি যদি স্টুডেন্ট হন

আপনি যদি স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন তাহলে আপনার কমিউনিকেশন স্কিলসে এক্সপার্ট হতে হবে।  যেকোনো প্রতিষ্ঠানের সবচেয়ে কারিজম্যাটিক স্টুডেন্টের প্রতি যদি  লক্ষ্য করেন তাহলে দেখতে পাবেন তার মুল কারিজমা হচ্ছে তার কমিউনিকেশন স্কিল।

২। আপনি যদি ডিজিটাল জগতে কাজ করেন

কমিউনিকেশন সম্পর্কে যদি আপনি যদি শিখতে চান তাহলে আপনি যতো যা কিছু পাবেন।  অর্থাৎ আপনি যতো ভিডিও এবং আর্টিকেল এবং যতো বই পাবেন সেগুলো সব এ্যানালগ যুগের।     আর এই বইটিতে আপনি ডিজিটাল যুগের কথা মাথায় রেখে চাপ্টার গুলো সাজিয়েছে।  অর্থাৎ ডিজিটাল জগতে কাজ করার জন্য যে কমিউনিকেশন স্কিলস গুলোর প্রয়োজন সেগুলো স্টেপ বাই স্টেপ লিখেছে।

৩। যদি নিজেকে কমিউনিকেশনে এক্সপার্ট করতে চান 


আয়মান সাদিক ও সাদমান সাদিক অনেকগুলো কমিউনিকেশন, সাইকোলজি, সেলস বিষয়ের বইগুলো আগে তারা ভালোকরে পড়ে রিসার্চ করে তারপরে এই বইটি লিখেছেন।

৪। যদি পেশাগত জীবনে আরো ভালো করতে চান 

লিডারশিপের জন্য আপনি যে জায়গাতেই যাননা কেনো আপনাকে সর্বপ্রথম যে বিষয়টি অর্জন করতে হবে সেটি হলো কমিউনিকেশন স্কিলস।  পেশাগত জীবনে আরো ভালো করতে হলে আপনাকে কমিউনিকেশন স্কিলস প্রয়োজন হবেই।


বইয়ের নামঃ কমিউনিকেশন হ্যাকস 
বইয়ের লেখকঃ আয়মান সাদিক ও সাদমান সাদিক 
প্রকাশনীঃ অধ্যায়ন 
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৪২ টি।
বইয়ের ধরনঃ ছাত্রজীবন – উন্নয়ন 
পিডিএফ সাইজঃ ৭৫ মেগাবাইট প্রায়।
ডাউনলোডঃ
 Download


৩।

লোকে কী বলবে?

– আয়মান সাদিক ও সাকিব বিন রশীদ  Loke ki bolbe by ayman sadiq sakib bin rashid pdf download

লোকে কি বলবে? বইটিতে লেখক শিখিয়েছেন কিভাবে সমালোচকদের কথায় কান না দিয়ে মুষল হাতে নিয়ে স্বপ্নের পথে হাটবেন।

আপনি যে কাজই করতে চাননা কেনো, আপনি সে কাজটি করার সময়ে কিছু সমালোচক দেখতে পাবেনই।সমালোচক একটা মানুযের পেছনে লাগা নাই এমন মানুষ খুজলে পাওয়া যাবেনা।    প্রত্যেকটি লোকের পেছনেই রয়েছে কিছু সমালোচক।   আর এই সমালোচকদের ভয়েই নিজের কাজ করতে  পারতেছেন না?

একটা মানুষের সফলতা অর্জন করার ক্ষেত্রে সমালোচকদের ভূমিকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

ধরুন আমি ইউটিউবিং শুরু করলাম, এখন আমার প্রতিবেশী এক চাচায় বললো হৃদয় তোর এই চ্যানেল ১ বছরের মধ্যেও গ্রো করতে পারবিনা, বলে দিলাম।   কারন তোকে দিয়ে হবেনা।   আমাকে এ কথাগুলো বললো।   এখন আমার মনের মধ্যে জেদ আমাকে পারতেই হবে, পারবোনা কেনো আরো দশজনের পারলে আমিও পারবো।

আবার অপরদিক থেকে চিন্তা করলে, ধুর প্রতিবেশীরা আমাকে নিয়ে ঠাট্টা বিদ্রুপ করতেছে, আমি এই কাজ করবোই না।  যে কাজ করলে লোকের হাসির পাত্র হবো সে কাজ না করাই ভালো, এতো কষ্ট করে কাজ করে সেই কাজের মূল্যায়ন না করে যদি উল্টো হাসাহাসি করে তাহলে সে কাজ কে করে?  আমি আর করবো না?

আমরা ৯৯% লোকেরাই কিন্তু এটা বলে থাকি, এবং আমাদের স্বপ্নের পথে আর অগ্রসর হওয়া হয়না। 😢😥

কখনো মাছ ধরার সময় বাইং মাছ দেখেছেন? পুকুরে বা নদীতে কাদা থাকতেও বাইং মাছের গায়ে কখনো কাদা দেখবেননা।  আপনি যদি কাদার মধ্যে ওকে ছেড়ে ও দেন তাহলেও ওর গায়ে কাদা লাগবেনা কারন ওর গায়ে প্রচুর লোড জাতীয় পদার্থ থাকায় বাহিরের কিছু ওকে স্পর্শ করতে পারেনা। আপনি যদি আপনার স্বপ্নটাকে বাস্তবায়ন করতে চান তাহলে আপনাকে বাইং মাছের স্বভাবের ন্যায় হতে হবে ।  বাহির থেকে যতই সমালোচকরা আপনাকে নিয়ে হাসি ঠাট্টা করুক না কেনো সেটা যেনো আপনার মাথায় আর ব্রেইনে গিয়ে না পৌছায়।

বইয়ের নামঃ লোকে কী বলবে?
বইয়ের লেখকঃ আয়মান সাদিক ও সাকিব বিন রশীদ
প্রকাশনীঃ আদর্শ 
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ  ১৩৬ টি।
বইয়ের ধরনঃ ছাত্রজীবন – উন্নয়ন 
পিডিএফ সাইজঃ ৭৮ মেগাবাইট প্রায়।
ডাউনলোডঃ 
Download


৪।

ভাল্লাগে না

– আয়মান সাদিক ও আন্তিক মাহমুদ 

ভাল্লাগেনা বইয়ের রিভিউঃ

রিভিউ লিওে কি হবে! লোকজনতো এমনিতেও রিভিউ পড়ে না । মাথায় এখন বইটি সম্পর্কে ভালো কোনো আইডিয়াও আসতেছেনা । ধ্যাত আজকে সকালে আর ভূমিকা লিখতে ভাল্লাগছে না, বিকালে ভাল্লাগলে লিখবো।

বিকাল বেলা………………(এখনও লিখতে ভাল্লাগছে না)বইয়ের রিভিউটা আর লেখা সম্ভব হলোনা।

এই ভাল্লাগেনা বইটির রিভিউ টি দেখে যদি “ভাল্লাগে না, ভাল্লাগে না “” করে আপনার জীবনের নানা রকমের ফেলে আসা কাজগুলোর কথা মনে পড়ে যায়, তাহলে বইটি আপনার জন্য।

রিভিউ একটু লিখি কি বলেন?

আপনার কোনো কাজ করতে গেলে যদি ভালো না লাগে বা  আপনি যদি স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন তাহলে পড়তে যদি ভালো না লাগে। এই ভাল্লাগেনা রোগকে দূর করতে এই ভাল্লাগে না বইটি পড়ুন। আশাকরি আপনার ব্যাধি দূর হয়ে যাবে।

[b]বইয়ের নামঃ ভাল্লাগে না
বইয়ের লেখকঃ আয়মান সাদিক ও আন্তিক মাহমুদ 
প্রকাশনীঃ আদর্শ 
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৭২ টি।
বইয়ের ধরনঃ ছাত্রজীবন – উন্নয়ন 
পিডিএফ সাইজঃ  ১৭ মেগাবাইট প্রায়।
ডাউনলোডঃ  
Download


৫।

নেভার স্টপ লার্নিং

– আয়মান সাদিক।

বাজারের একটি বেস্ট সেলার বই এটি।
বইটিতে ৪৭ টি অধ্যায় রয়েছে, বা টপিক ও বলা যায়।[b]

নেভার স্টপ লার্নিং বই রিভিউঃ

[b]আয়মান সাদিক ভাই এ বইতে ছাত্রদের কিছু কৌশল শিখিয়ে দিয়েছেন যেগুলো লাখ টাকা মূল্যর।
আপনি সারাজীবন বোর্ড বইয়ের পাঠ্যপুস্তক পড়লে এ হ্যাকস গুলো কখনোই শিখতে পারবেননা।
বইটিতে অনেক গল্পের মাধ্যমে অনেক কিছু বোঝানোর চেষ্টা করেছেন, যা পড়ে একটা ছাত্রের জীবন পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে।
যেমনঃ চিনা বাশের গল্প, একটানা ৩ বছর শুধু বাশের বীজে পানি শেচ দিতে হয় ।
এরপরে বাশটির চারা গজায়, এ দ্বারা কিছু তো একটা বুঝিয়েছেন তাইনা?
এছাড়াও অনেক অনেক কিছু শিখিয়েছন এ বইটিতে। 

১। প্রাসঙ্গিক থাকুনঃ

পিছনে রাখা হবে না। ট্রেন্ডগুলির সাথে আপ টু ডেট রেখে এবং আপনার দক্ষতার সেটটি মানিয়ে নিয়ে আপনি আপনার শিল্পের সাথে প্রাসঙ্গিক রয়েছেন তা নিশ্চিত করুন। প্রযুক্তির এই দ্রুত পরিবর্তিত বিশ্বের মধ্যে কার্যকরভাবে কাজ করার জন্য, মূল্যবান থাকার জন্য আপনাকে নতুন জিনিস শিখতে হবে। 

২। অপ্রত্যাশিত জন্য প্রস্তুতঃ

আজীবন শিক্ষা আপনাকে অপ্রত্যাশিত পরিবর্তনের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে সহায়তা করবে, উদাহরণস্বরূপ, আপনার চাকরি হারানো এবং কাজ সন্ধান করার জন্য নতুন দক্ষতার উপর নির্ভর করা  শেখা চালিয়ে যাওয়ার মাধ্যমে আপনি আরও সহজেই আপনার আরাম অঞ্চল থেকে সরে যাবেন এবং নতুন কাজের সুযোগ গ্রহণ করবেন। 

৩। আপনার প্রোফাইল বুস্ট করুনঃ

আপনি যখন সর্বদা শিখছেন, আপনি আপনার ক্যারিয়ারে উন্নতি এবং বিকাশ চালিয়ে যাবেন এবং সহকর্মী এবং পরিচালকদের কাছ থেকে সুপারিশ পেতে শুরু করবেন। সম্ভাবনা হ’ল আপনি সারা জীবন একাধিকবার চাকরী স্যুইচ করবেন এবং সেই অনুসারে অভিযোজন করার জন্য আপনার নতুন দক্ষতা শিখতে হবে। 

৪। যোগ্যতা আত্মবিশ্বাসের দিকে পরিচালিত করেঃ

নতুন জিনিস শেখা আমাদের সাফল্যের অনুভূতি দেয়, যার ফলে আমাদের নিজস্ব ক্ষমতার প্রতি আমাদের আস্থা বাড়ে। এছাড়াও, আপনি চ্যালেঞ্জগুলি গ্রহণ করতে এবং নতুন ব্যবসায় উদ্যোগগুলি অন্বেষণ করতে আরও প্রস্তুত বোধ করবেন। 

৫। নতুন ধারণার সূচনা করেঃ

নতুন দক্ষতা অর্জন নতুন সুযোগ উন্মোচন করবে এবং সমস্যার নতুনত্ব সমাধান খুঁজতে সহায়তা করবে। এটি আপনার আরও অর্থ উপার্জন করতে পারে। 

৬। আপনার দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করুনঃ

অবিচ্ছিন্ন পড়াশুনা আপনার মনকে উন্মুক্ত করে এবং আপনি ইতিমধ্যে যা জানেন তার উপর ভিত্তি করে আপনার মনোভাব পরিবর্তন করে। আপনি যত বেশি শিখবেন, একই পরিস্থিতির আরও দিকগুলি দেখার পক্ষে আপনি তত উন্নত হবেন, আপনাকে আরও গভীরভাবে বুঝতে সাহায্য করবে। 

৭। এটি এগিয়ে দিতেঃ

অবিচ্ছিন্ন শিক্ষা কেবল আপনার সম্পর্কে নয় আজীবন শিক্ষা আপনার নেতৃত্বের দক্ষতা বিকাশে সহায়তা করে যা পরবর্তী ব্যক্তিদের আরও জীবনযাত্রার জন্য উৎসাহিত করে আজীবন শিক্ষার উৎসাহ দেয়।  

 

এবার আরেকটু পড়ুন, পাঠকদের ২টি রিভিউ তুলে ধরলাম 

🙂

পাঠক রিভিউ (১)

পড়াশোনা আমাদের অস্তিত্বের জন্য প্রয়োজনীয়। ঠিক যেমন খাদ্য আমাদের দেহ, তথ্য এবং অবিরাম শেখার দ্বারা আমাদের মনকে পুষ্টি জোগায়। আজীবন শিক্ষা প্রতিটি কর্মজীবন এবং সংস্থার জন্য একটি অপরিহার্য সরঞ্জাম। 

আজ, ক্রমাগত শেখা সমালোচনামূলক চিন্তা দক্ষতা অর্জন এবং বিভিন্ন সংস্কৃতি থেকে মানুষের সাথে সম্পর্কিত নতুন উপায় আবিষ্কার করার জন্য একটি প্রয়োজনীয় অংশ গঠন করে। অবিরাম শেখা ছাড়া জীবন যাপন করা কল্পনাতীত।
হেরাক্লিটাস “” কেবলমাত্র স্থির থাকা পরিবর্তন ” 

আপনার কর্মজীবনে পরিবর্তন, আপনার ব্যক্তিগত জীবনে পরিবর্তন, আপনার সম্প্রদায় এবং সংস্থাগুলিতে পরিবর্তন। পরিবর্তন মোকাবেলার অন্যতম কার্যকর উপায় হ’ল আজীবন শেখা।   অবিরাম শেখা কি? আপনার দক্ষতা সেটকে প্রসারিত করতে এবং ভবিষ্যতের সুযোগগুলি বিকশিত করার জন্য জ্ঞান এবং দক্ষতা অর্জনে আপনার স্ব-অনুপ্রাণিত অধ্যবসায় শেখা চালিয়ে যাওয়া অব্যাহত। স্থবিরতা এড়াতে এবং আপনার সম্পূর্ণ সম্ভাবনায় পৌঁছানোর প্রয়াসে এটি আপনার ব্যক্তিগত এবং পেশাদার বিকাশের অংশ গঠন করে।  আজীবন শেখা আপনার পক্ষে উপকৃত হবে  জ্ঞান এখন সবার নখদর্পণে। যারা এই সুযোগটি ব্যবহার করে না তারা যেখানে থাকবে সেখানেই থাকবে, তাদের ক্ষমতাগুলি এর গুরুত্ব হ্রাস পাচ্ছে। এই সাতটি সুবিধাগুলি পড়াশোনা বন্ধ না করার যথেষ্ট কারণ হওয়া উচিত। 

নেভার স্টপ লার্নিং পাঠক রিভিউ (২)

এটি কোনও ব্যক্তিকে জ্ঞান অর্জনে এবং আজীবন আত্মবিশ্বাসের স্তর উন্নত করতে সহায়তা করে। এটি আমাদের ক্যারিয়ারের বৃদ্ধির পাশাপাশি ব্যক্তিগত বৃদ্ধিতেও দুর্দান্ত ভূমিকা পালন করে। এর কোনও সীমাবদ্ধতা নেই; যে কোনও বয়সের লোক যে কোনও সময় শিক্ষা পেতে পারেন। এটি আমাদের ভাল এবং খারাপ জিনিস নির্ধারণে সহায়তা করে। 

সুশিক্ষিত শিক্ষিত ব্যক্তি সমাজে ভাল নাগরিক হন। আমরা সকলেই আমাদের বাচ্চাদের সাফল্যের দিকে যেতে দেখতে চাই যা কেবলমাত্র ভাল এবং সঠিক শিক্ষার মাধ্যমেই সম্ভব। প্রতিটি পিতামাতাই তাদের বাচ্চাদের জীবনে শিক্ষার গুরুত্ব এবং ভবিষ্যতে আরও ভাল অধ্যয়নের দিকে মনোযোগ দেওয়ার জন্য শিক্ষার সমস্ত সুযোগ-সুবিধাগুলি সম্পর্কে তাদের বাচ্চাদের জানান আপনার বাচ্চা এবং বাচ্চাদের নিবন্ধ রচনার অভ্যাস করুন, বিতর্ক এবং আলোচনায় অংশ নিন এবং স্কুলগুলিতে বা বাড়িতে এ জাতীয় সহজ প্রবন্ধগুলি ব্যবহার করে আরও অনেক দক্ষতা বর্ধনমূলক ক্রিয়াকলাপ। তাই নেবার স্টপ লার্নিং।  

বইয়ের নামঃ নেভার স্টপ লার্নিং
বইয়ের লেখকঃ আয়মান সাদিক
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৩৯ টি।
বইয়ের ধরনঃ ছাত্রজীবন উন্নয়ন 
পিডিএফ সাইজঃ ২৯ মেগাবাইট প্রায়।
ডাউনলোডঃ
 Download

ভুলত্রুটি ক্ষমার দৃ‌ষ্টিতে দেখবেন।

8 thoughts on "আয়মান সাদিক ও সাদমান সাদিক ভাইয়ের ৫ টি সেরা pdf বই"

  1. Sarfraj Yousuf yousuf66 Contributor says:
    bro download hoy na🙂💔


    1. স্বপ্ন স্বপ্ন Author Post Creator says:
      গুগল ড্রাইভে আপলোড করা সব তারপরেও, আচ্ছা কোন বইটা ডাউনলোড হয়না একটু জানাবেন ভাই।
  2. kdsm Contributor says:
    Thanks a lot brother
    1. স্বপ্ন স্বপ্ন Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ ভাই
    1. স্বপ্ন স্বপ্ন Author Post Creator says:
      Welcome
    1. স্বপ্ন স্বপ্ন Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ

Leave a Reply