ব্লগার এসইও: এখনকার সময়ে প্রায় প্রত্যেকের একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ রয়েছে এবং বেশিরভাগ সময় যারা নতুন ব্লগিং শুরু করে তারা প্রধানত গুগলের ব্লগার ব্লগস্পট থেকে ব্লগ সাইট বানিয়ে ব্লগিং শুরু করে। 

এছাড়াও যারা নতুন আর্টিকেল লেখা শুরু করে ব্লগার থেকে তারা অনেকেই জানেনা যে কিভাবে আর্টিকেল এসইও করে লিখতে হয়।

ব্লগার আর্টিকেল এসইও

ব্লগার আর্টিকেল এসইও

হ্যালো TrickBD ভিয়ার… আজকে আপনাদেরকে দেখাবো কিভাবে ব্লগার ব্লগস্পট ওয়েবসাইটে আর্টিকেল লেখার সময় এসিও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে হয়।

বেশিরভাগই নতুন ব্লগারগণ এসইওর সাধারণ অর্থাৎ বেসিক জিনিস গুলো না বোঝার কারণে ব্লগে আর্টিকেল লিখার সময় এসইও ফ্রেন্ডলি লিখতে পারেনা। আবার অনেকেই মনে করে যে তাদের দ্বারা এসইও করে আর্টিকেল লেখা সম্ভব নয়।

যে বিষয়গুলো জানতে পারবেন আর্টিকেল থেকে…

  • কেন এসিও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখবেন
  • কিভাবে এসিও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখব
  • ব্লগার ব্লগ এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লেখার উপায়
  •  ম্যাটা ডেসক্রিপশন দেওয়া
  • ব্লগ পোস্টের URL এর গঠন
  • ব্লগ পোস্ট টাইটেল অপটিমাইজেশন
  • আর্টিকেলের Image অপটিমাইজেশন
  • আর্টিকেলের Label and Related Post

আপনি যদি ব্লগিং ক্যারিয়ারে নতুন হয়ে থাকেন তবুও আজকে আমার আর্টিকেল পড়ার পর এসইওর বেসিক বিষয়গুলো বুঝতে পারবেন অর্থাৎ ব্লগে এসইও করে আর্টিকেল লেখার বিষয়গুলো জানতে পারবেন।

এসিও কি?

এসইও কি বা কিভাবে করতে হয় বা কেমনে করতে হয় এই বিষয়গুলো এখনও অনেক নতুন ব্লগে যারা রয়েছে তারা জানে না বা বুঝতে চেষ্টা করে না। অনেকেই তো আছে যারা এসইও বলতে শুধু ব্যাকলিংক করায বোঝায় এবং ফেসবুকে লিংক শেয়ার করা বোঝায়।

আসলে এসিও বলতে শুধু ব্যাকলিংক এবং সোশ্যাল শেয়ারি বুঝায় না। সহজ ভাবে বললে বলা যায়। ওয়েবসাইটের আর্টিকেল অর্থাৎ ওয়েবসাইট র‍্যাংক করার জন্য ওয়েবসাইটের ভিতরে এবং বাইরে যে সমস্ত আবশ্যিক কাজগুলো করা হয় তাকে এসিও বলে।

এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল কি?

আর্টিকেল বা পোস্ট হল একটি ওয়েবসাইটের কিং আপনার আর্টিকেল যত বেশি এসইও ফ্রেন্ডলি হবে তত বেশি আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর বৃদ্ধি পেতে থাকবে।

আপনার আর্টিকেল পড়ে যদি ভিজিটররা মজা না পায় সঠিক তথ্য না পায় তাহলে কেন আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ প্রতিনিয়ত ভিজিট করবে? অবশ্যই না।

আর যদি আপনার ব্লগ থেকে ভালো ভালো ইনফরমেশন পায় তাহলে পরবর্তীতে সে ভিজিটর আবার আপনার ব্লগে চলে আসবে।

খুব সহজ ভাষায় বললে, আর্টিকেলে প্রয়োজনীয় ইনফর্মেশন দিয়ে সঠিক কিওয়ার্ড রিসার্চ করে, ছবি ব্যবহার করে এবং লেখার রিডিবিলিটি ঠিক রেখে যে আর্টিকেল পাবলিশ করা হয় তাকেই  এসইও ফ্রেইন্ডি আর্টিকেল বলে।

কেন এসিও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখবেন

আপনার ওয়েবসাইটকে র‍্যাঙ্ক করতে সাহায্য করে। আপনার আর্টিকেল এর লেখাগুলো ভিজিটরদের কাছে প্রাণবন্ত করার জন্য অবশ্যই এসইও ফ্রেন্ডরা আর্টিকেল লিখতে হবে। কারন একটি ভিজিটর যখন আপনার ব্লগে পোষ্ট পড়ার সময় দেখবে যে আপনি হিবিজিবি আকারে লিখে রেখেছেন তা হলে ভিজিটরের কাছে পড়তে সুবিধা লাগবে।

যার জন্য আপনার ওয়েবসাইট ট্যাগ করতে পারে অর্থাৎ ওয়েবসাইট থেকে বের হয়ে যেতে পারে পরবর্তীতে ফিরে আসবে না কারন আপনার ওয়েবসাইটে লেখাগুলো এলোমেলো ভাবে সাজানো।

সে জন্য আপনার ব্লগ পোস্ট সব সময় এসইও ফ্রেন্ডলি লিখতে হবে যাতে করে আপনার ওয়েবসাইট ব্যাংক এবং ভিজিটরের কাছে সুন্দর ও সাবলীল মনে হয়। যার কারণে পরবর্তীতে সেই ভিজিটর আবার পুনরায় ফিরে আসবে আপনার ব্লগে।

কিভাবে এসিও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখবেন

এসইও ফ্রেন্ডলি লেখার জন্য সবার প্রথম আপনাকে নির্বাচন করতে হবে যে আপনি কোন বিষয়টি নিয়ে লিখতে চাচ্ছেন এবং কেন লিখে যাচ্ছেন।

আপনি যে বিষয় নিয়ে লিখতে চাচ্ছেন সেই বিষয় নিয়ে গুগলের সার্চ করুন আপনার কম্পিটিটর কে অর্থাৎ যারা টপে রয়েছে তারা কি কি ইনফরমেশন প্রদান করেছে।

কি কি ইনফরমেশন দিলে আরো ভালো হতো এ বিষয়গুলো আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে তারপর লেখা শুরু করবেন। আর সব সময় চেষ্টা করবেন ছোট ছোট প্যারাগ্রাফ লিখতে।

যথাসম্ভব আর্টিকেলের ভিতরে সাব হেডিং গুলো ব্যবহার করবেন এতে করে আপনার আর্টিকেল কে দেখতে সুন্দর এবং সাবলীল মনে হবে এবং ভিজিটরদের পড়তে সুবিধা হবে।

ব্লগার ব্লগ এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লেখার উপায়

আর্টিকেল লেখার আগে অবশ্যই সেই ট্রপিক অথবা কী-ওয়ার্ডটি গুগলের সার্চ করুন কে কিভাবে লিখেছে  এবং দেখুন কে কোন ধরণের ইনফর্মেশন প্রদান করেছে এবং কে কিভাবে লেগেছে।

আপনি যদি ব্লগিং করেন তাহলে অবশ্যই একটি উদ্দেশ্য আছে। অনেকেই ব্লগিং করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় বেছে নেয়। আপনি এফিলিয়েট মার্কেটিং করুন বা অ্যাডসেন্স টার্গেট করুন।

সবার আগে আপনাকে ব্লগে জনপ্রিয়তা অর্জন করতে হবে তারপর না আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের ভিজিটর আসবে। যত বেশি ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে আসবে তত বেশি আপনার ইনকাম হবে। সেজন্য আর্টিকেল লেখার সময় সবদিক বিবেচনা করে লিখতে হবে।

আপনাকে অবশ্যই চেষ্টা করতে হবে তাদের থেকে বেটার কিছু লিখতে এবং সুন্দরভাবে গুছিয়ে বোঝাতে তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে ব্লগার ব্লগে এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে হয়

 ব্লগ টাইটেল দেওয়া

ব্লগ সাইট অথবা ওয়েবসাইট টি ভিজিট করার পর ব্রাউজার এর উপরে যে লেখাটি থাকে তাকে ব্লগ টাইটেল বলা হয়। আপনি ইচ্ছা করলে যেকোনো টাইটেল আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটে দিতে পারবেন।

আপনি যদি ব্লগার ওয়েবসাইট ইউজ করেন তাহলে খুব সহজেই blogger.com লগিন করার পর সেটিং থেকে ওয়েবসাইটের টাইটেলটি যোগ করে নিতে পারবেন।

ব্লগ টাইটেল

ব্লগ টাইটেল

এই অপশনটি আপনার blogger.com এ লগিন করার পর সেটিং থেকে Title লেখাতে ক্লিক করলেই পেয়ে যাবেন। পর আপনার ব্লগের টাইটেলটি লিখে সেভ বাটনে ক্লিক দিন এবং ব্যাস হয়ে গেল।

ব্লগে ম্যাটা ডেসক্রিপশন দেওয়া

ব্লগের ম্যাটা ডেসক্রিপশন দেয়ার কারণ হলো, অনেক সময় ব্লগ সাইটটি অনেক যায়গাতে শেরার করার দরকার হয়। আপনার ওয়েব সাইটের টাইটেল এর পাশাপাশি আপনার ব্লগ সাইটের ডিসক্রিপশন শো করবে এখানে যে ডেসক্রিপশন দিবেন।

এতে করে যে কোন ভিজিটর বা যেকোনো নতুন লোক আপনার ব্লগ সাইট সম্পর্কে খুব সহজেই জেনে যাবে। আপনার ব্লগ সাইটের মেটা ডিস্ক্রিপশন দেয়ার জন্য blogger.com এ লগিন করার পর সেটিং অপশন থেকে Description বক্সে আপনার ব্লগ নিয়ে Description লিখে সেভ দিন।

ব্লগ ডিস্ক্রিপশন

ডিসক্রিপশন লেখা শেষ হওয়ার পর অবশ্যই আপনাকে ডিসক্রিপশন বক্স গুগল সার্চের জন্য অন করে দিতে হবে তার জন্য সেটিং থেকে নিচের দিকে আসতে করতে থাকুন এবং দেখতে পারবেন।

Meta tags থেকে অফ করা বাটনটি অন করে দিন তার পর আগের লেখাটা এখানে পাস্ট করে দিন কাজ শেষ। এটা দেওয়ার কারণ হলো গুগলে আপনার সাইটের ডেসক্রিপশন টি দেখা যাবে।

এবং যেকোন ওয়েবসাইট সম্পর্কে বুঝতে পারবে কি নিয়ে কাজ করা হয়।

ব্লগ পোস্টের URL এর গঠন

ব্লগ পোস্টের URLঅত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। যার কারণ হলো সার্চ ইঞ্জিন একজন ভিজিটরকে Link এর  দ্বারা যে কোন ওয়েবসাইটের পোস্টে পৌছে দেয়।

আপনি যখন একটি নতুন পোস্ট করবেন তখন পোস্ট পাবলিশ করার পূর্বে URL পোস্টের বিষয়ের সাথে মিল রেখে ৫০ টি অক্ষরের মধ্যে সুন্দরভাবে গঠন করবেন।
যখন আর্টিকেল পোস্ট করবেন পোস্ট করার আগে অবশ্যই ইউআরএলটি ছোট এবং আর্টিকেল রিলেটেড ওয়ার্ড ব্যবহার করে পাবলিশ করুন।
blog post parmalink
 আর্টিকেল URL এর ভীতরে কোন কমা, সেমিকোলন ব্যবহার করা ঠিক না। অনেকে এটি না করে পোস্টের বিষয়বস্তুর সাথে মিল না রেখে যা ইচ্ছা কে পোস্ট পাবলিশ করে এতে করে সার্চ ইঞ্জিন এর কাছে ভ্যালু কমে যায়।
ব্লগার ব্লগের পার্মালিনক সেট করার জন্য আর্টিকেলর ডান দিকে দেখতে পারবেন Permalink লেখা। পোস্টে পার্মালিংক সেট করার জন্য আর্টিকেল লেখার ডানদিকে পানেলিং লেখাতে ক্লটিকেল্র।
এবং সেখানে দেখতে পাবেন অটোমেটিক পার্মালিনক ওইখান থেকে কাস্টম লিংকে ক্লিক করার পর খালি বক্স দেখতে পাবেন সেখানে আপনার আর্টিকেল রিলেটেড ওয়ার্ড দিয়ে সেট করে নিন।

সার্চ ডেসক্রিপশন (আর্টিকেল পেজ)

সার্চ ডেসক্রিপশন হলো আপনার পোস্ট যখন  ইন্ডেক্স হয়ে যাবে তখন গুগলে আপনার টাইটেলটি লিখে সার্চ দেওয়ার পর আপনার টাইটেলের নিচে আর্টিকেল নিয়ে একটি ছোট ডিসক্রিপশন দেখতে পাওয়া যাবে।

এটি আপনার এসইও জন্য কার্যকরী এবং আপনার ব্লগ পোস্টটি কি নিয়ে সংক্ষিপ্ত আকারে বুঝতে পারা যায়।

সার্চ ডেসক্রিপশন এড করার জন্য পোষ্ট বোর্ডের ডানদিকে পার্মালিনক এবং লোকেশন এর নিচে দেখতে পাবেন Search Description

search box

সেখানে আপনার আর্টিকেল নিয়ে 150 টি অক্ষরের দ্বারা ছোট আকারে সংক্ষিপ্ত করে আপনার পোস্টের বণনা প্রদান করেছে বাটনে ক্লিক করুন।

আর্টিকেলের Image অপটিমাইজেশন

Image হচ্ছে ব্লগ পোষ্টের গুরুত্বপূর্ণ একটি ভাগ । ব্লগ পোষ্টে Image ব্যবহার করে যে কোন বিষয় সম্পর্কে ভিজিটরদের  সুস্পষ্ট ধারনা দেয়া যায়।

কিছু কিছু পোষ্ট থাকে যে গুলিতে Image ব্যবহার না করলে সঠিক ধারনা দেয়া যায়না না। অপর দিকে সার্চ ইঞ্জিনও আপনার ব্লগে সাইটের জন্য Image কে সার্চ রেজাল্টে নিয়ে আসে।

ইমেজ এসইও

ব্লগার ব্লগে ইমেজ এসইও করার জন্য সেই ইমেজ অফ ছবিতে ক্লিক করুন। তারপর সেটিং আইকন দেখতে পাবেন সেখানে ক্লিক করার পর দুটি বক্স দেখতে পাবেন।

alt Text

Title text

এই দুটি বক্সে আপনার পোস্টের অথবা ইমেজ রিলেটেড লেখা গুলো লিখে আপডেট বাটনে অথবা সেভ বাটনে ক্লিক করুন শেষ হয়ে গেল ইমেজ এসইও। তবে চেষ্টা করবেন অবশ্যই আপনার ব্লগ সাইটে ইমেজ এগুলোর রেজুলেশন ঠিক রেখে ইমেজ সাইজ যাতে কম হয় এতে করে আপনার ওয়েবসাইট ফাস্ট লোড হবে।

আর্টিকেলের Label and Related Post

পোস্টের  লেখার ডান পাশের Label অপশনে ক্লিক করে আর্টিকেলের Label লিখতে পারেন।  তবে আপনার আর্টিকেল রিলেটেড লেবেল টি আপনি লিখে দেবেন অর্থাৎ আপনি যদি অনলাইনে আয় নিয়ে লিখতে চান তাহলে অবশ্যই অনলাইন ইনকাম নিয়ে একটি লেভেল তৈরি করে সেই লেভেলের দিবেন।

আর আপনি যদি ফেসবুক টিপস নিয়ে আর্টিকেল লিখেন তাহলে ফেসবুক টিপস রিলেটেড কোন একটি লেভেল সেট করে দিবেন।

[Pro Tips: কিভাবে ইউটিউব ভিডিও এসইও করতে হয় এই নিয়ে আমার ব্লগের লেখা বাংলা আর্টিকেলটি পড়তে পারেন ]

আজকে যেহেতু আমরা শুধু ব্লগস্পট ব্লগে আর্টিকেল লেখার সময় কিভাবে এসইও ফ্রেন্ডলি লিখতে হয় এ বিষয় নিয়ে আলোচনা করব তাই এসিওর খুটি-নাটি সম্পর্কে আজকে আলোচনা করতে চাচ্ছি না।

লেভেল সেট করার জন্য অফ পোস্ট লেখার বোর্ডের ডানদিকে লেভেল নামের অপশন দেখতে পারবেন সেখানে ক্লিক করে আপনার আর্টিকেল রিলেটেড level লিখে সেভ বাটনে ক্লিক দিন।

আশা করি আজকের এই আর্টিকেল পড়ার পর আপনি যদি একজন নতুন ব্লগার হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই কিভাবে এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে হয় ধারনা পেয়ে গেছেন।

কিভাবে অনলাইন থেকে আয় করতে হয় এবং ব্লগিং এসইও রিলেটেড যাবতীয় প্রয়োজনীয় আর্টিকেল আমার ব্লগে অলরেডি পাবলিশ করেছি। আপনি চাইলে আমার ব্লগ সাইটটি ঘুরে আপনার প্রয়োজনে আর্টিকেলটি পড়ে নিতে পারেন।

আমাদের শেষ কথা

আজকের আর্টিকেল নির্যাট আপনার যদি কোন প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকে অথবা কোনো বিশেষ যদি বুঝতে না পারেন অবশ্যই কমেন্ট বক্স এর মাধ্যমে জানাতে পারেন।

আমি আমার যথাসাধ্য চেষ্টা করব আপনার সমস্যাটা সমাধান করার জন্য। এছাড়া অন্যান্য পোস্ট খুব শীঘ্রই পাবলিশ করব আমাদের সবার প্রিয় ট্রিকবিডি সাইটে।

Note for user: অনলাইনে ইনকাম করার উপায়, এসিও টিপস এন্ড গুগল এডসেন্স নিয়ে বাংলা টেকের এক অন্য ব্লগসাইটের নাম www.banglaitblog.com 

8 thoughts on "Blogger এসইও: ব্লগার ওয়েবসাইটে এসইও করে আর্টিকেল লিখার নিয়ম"

  1. Satoru Sajid Author says:
    bro apner site er moto design korar tutorial den
    1. MrAlam Author Post Creator says:
      এই ডিজাইনটি করা হয়েছে এক্সরা CSS Code + Premium theme ব্যবহার করে ।
  2. Satoru Sajid Author says:
    share korle valo hoy
    1. MrAlam Author Post Creator says:
      এটা এখন কমন ডিজাইন … আপাদত এটা শেয়ার করার চিন্তা নাই তবে আপনার কথাটা ভেবে দেখবো …
  3. zeroisback Contributor says:
    Vai Apnr website Ar design ta free Te share kra Jabe?
    1. MrAlam Author Post Creator says:
      এটা একটি প্রিমিয়াম থেম থেকে ডিজাইন করা …
    2. zeroisback Contributor says:
      Vaiya Apnr Page A Nock Krsi Reply Den Please
  4. MrAlam Author Post Creator says:
    already ans দিয়েছি

Leave a Reply