এলন মাস্ক, সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে আলোচিত ব্যক্তি। অনেক দিন একচেটিয়া ভাবে বিশ্বের সেরা ধনীর লিস্টে টপ নাম যখন জেফ বেজোস এবং বিল গেটস ছিল ঠিক তখনই সব হিসাব কিতাব চুকিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছেন এলন মাস্ক।
Elon Mask | Image Source : Wikipedia
Elon Mask | Image Source : Wikipedia
উনার এত এত সৃষ্টির মধ্য থেকে ৫টি অসাধারণ সৃষ্টি নিয়েই আজকের লেখা। এই লেখাতে আপনি জানতে পারবেন এলন মাস্ক কেনই বা এত দ্রুত বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি হয়ে উঠলেন এবং পৃথিবীর সব প্রযুক্তি পাগল মানুষেরা কেনই বা তাকে গুরু মনে করেন।
তাহলে আর দেরি কিসের? চলুন দেখে নেই এলন মাস্কের অসাধারণ ১০টি সৃষ্টি

 

Tesla Motor | Photo by Craig Adderley from Pexels

১। টেসলা মোটর

লিস্টের প্রথমেই যে টেসলা মোটর এর নাম থাকবে এতো জানা কথা। হাজার হলেও এই একটা ইনোভেশন এর জন্যই রাতারাতি আলোচনার কেন্দ্রে উঠে এসেছেন এলন মাস্ক। সারা বিশ্বের মোটর শিল্প যখন পেট্রোল জ্বালানির উপর নির্ভর করছে ঠিক তখন ই মাঠে এনেছেন পরিবেশ বান্ধব ইলেক্ট্রিক কার। যা পরিবেশ দূষণ যেমন কমাবে তেমনি দুর্ঘটনাকে নিয়ে আসবে ০ কৌঠায়। কারন, এই টেসলা মোটর শুধু ইলেক্ট্রিক কার ই নয় এর আছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ Auto Pilot সুবিধা। আপনি বড় রাস্তায় গিয়ে Auto Pilot ইনেবল করে লম্বা ঘুম দিলেও নিশ্চিন্তে গন্তব্য স্থলে পৌছে যাবেন। এখন অবধি এলন মাস্কের বড় বড় প্রকল্পের মধ্যে এটাই সবথেকে বেশি এগিয়ে আছে। গত আড়াই বছরে এর শেয়ার মুল্য বেড়েছে ৭০০ শতাংশ এবং রেভিনিউ দাড়িয়েছে 1.24 বিলিয়ন ডলার।
Space X | Image Source : Wikipedia
Space X | Image Source : Wikipedia

২। SpaceX, Falcon Rocket

একটু যারা চিন্তাশীল তারা হয়তো কখনো না কখনো ভেবেছেন যে রকেট পাঠানোর পরে তা ফেরত কিভাবে নিয়ে আসে। হ্যাঁ, এই প্রশ্নের উত্তর খুজতে গিয়েই এলন মাস্ক সর্বপ্রথম পৃথিবীতে ফেরানো যোগ্য রকেট তৈরি করেন। ২০০২ সালে মহাকাশ বিচরণ খরচ কমানোর লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত হয় স্পেস এক্স। শুরুর দিকে মুল লক্ষ্য ছিল মঙ্গল গ্রহে বসবাস এবং পুনরায় ব্যবহার যোগ্য রকেট তৈরি করা। Falcon 1, Falcon 9 যেই লক্ষ্য পূরণ এ সম্ভব হয়েছে। যদিও এখনো অবধি খুব বেশি আলোচনায় আসতে পারেনি স্পেস এক্স তবুও এক অনন্য প্রকল্প হিসেবে আমাদের লিস্টের ২য় জায়গা করে নিয়েছে SpaceX.
PayPal | Tech Blogger
PayPal | Img Src: Wikipedia

 

৩। X.com -> PayPal

এই আর্টিকেল পড়ছেন অতচ পেপ্যাল এর নাম শুনেন নি এরকম মানুষ হয়তো নেই। বাংলাদেশে যদিও পেপ্যাল সমর্থন করেনা বা সাপোর্ট করেনা তবুও সবার মুখের এক পরিচিত শব্দ পেপ্যাল। কিন্তু পেপ্যাল আজকের এই পেপ্যাল হয়ে ওঠার সময় এক বিশেষ অবদান রেখেছেন এলন মাস্ক। এলন মাস্ক অনলাইন পেমেন্ট সম্পন্ন করতে প্রতিষ্ঠা করেন x.com এবং যেটা প্রতিযোগিতা করত পেপ্যাল এর সঙ্গে। কিন্তু মার্কেট এ টিকে থাকতে এবং উভয়ে লাভবান হতে তারা একসঙ্গে মার্জ করে PayPal তৈরি করে যা এখনো মার্কেটের সিংহ ভাগ শেয়ার দখল করে নিয়ে বসে আছে। এক সময় PayPal এর CEO পদেও নিযুক্ত ছিলেন এলন মাস্ক।
HyperLoop | Img Src : Wikipedia
HyperLoop | Img Src : Wikipedia

৪। Hyperloop

এক সময় বুলেট ট্রেন এর হাইপ ছিল খুব বেশি। দ্রুত গতির স্থল ট্রান্সপোর্ট এর ক্ষেত্রে যা ছিল যুগান্তরী। কিন্তু সেই দিন হয়েছি বাসি, এখন সময় হাইপারলুপ এর। সবচেয়ে দ্রুত যাতায়াত এর এই প্রকল্পও এসেছে এলন মাস্কের মাথা থেকেই। ২০১৩ সালে এর কাজ শুরু হয়ে এখনো চলমান। মাত্র ৩৫ মিনিটে লস এঞ্জেল থেকে সান ফ্রান্সসিস্কো তে পৌছাতে সক্ষম এই হাইপারলুপ ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম যা একটা কমার্শিয়াল ফ্লাইট জেট এর থেকেও দ্রুত। মুলত ট্রেন কে টানেল এর মধ্যে দিয়ে চালনা করাই হাইপার লুপ এর আসল আইডিয়া। প্রতি ঘণ্টায় ৮০০ মাইল বেগে চলতে সক্ষম এই সিস্টেম বাস্তবে রুপ নিতে এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা।

৫। Zip2

এলন মাস্কের প্রথম সফটওয়্যার কোম্পানী ছিল Zip2 যা ১৯৯৯ সালে তার ভাই এর সঙ্গে মিলে প্রতিষ্ঠা করে। মুলত এটি ছিল একটি ট্রাভেল গাইড সফটওয়্যার। বেশ অনেকদিন পরে এই প্রোজেক্ট সফলতার মুখ দেখে এবং ৩০৭ মিলিয়ন ডলারে তা বিক্রি করে। সেখান থেকে এলন মাস্ক ২২ মিলিয়ন ডলার শেয়ার পেয়েছিল।

তো এই ছিল এলন মাস্কের অনেক অনেক ইনোভেশন এর মধ্য থেকে সামান্য কিছু অংশ। নেক্সট পর্বে আরো কিছু ইনোভেশন নিয়ে হাজির হবো ইনশাল্লাহ।
সেই অবধি ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। কমেন্টে জানান আপনার মতামত।
আরো ভালো আর্টিকেল পেতে চলে যান এই লিংক এ লিনাক্সের জন্য সেরা ৩ টি ভিডিও এডিটর

3 thoughts on "এলন মাস্কের ৫টি অসাধারণ সৃষ্টি । পর্ব ১"

  1. sohag9999 Contributor says:
    nice post vaiya


    1. Shahriar Ahmed Shovon Shahriar Ahmed Shovon Author Post Creator says:
      Thanks vaiya apnakeo 🙂

Leave a Reply