প্রযুক্তি দিন দিন এক অন্য মাত্রায় চলে যাচ্ছে উদ্ভাবন হচ্ছে নিত্য নতুন প্রযুক্তি। বর্তমান সময়ে বহুল ব্যবহৃত দুটি প্রযুক্তির নাম হলো কম্পিউটার এবং ল্যাপটপ, পড়াশোনা থেকে শুরু করে অফিসের কাজ অথবা বিনোদনের মাধ্যম প্রতিক্ষেত্রেই একটি নিজস্ব কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপের প্রোজনীয়তা হয়ে থাকে। কোন ডিভাইস কেনার পূর্বে সর্বপ্রথম যে বিষয়টি মাথায় রাখা উচিৎ তা হলো কনফিগারেশন এবং দাম।

আজ যে দুটো বাজারের জনপ্রিয় দুটি ল্যাপটপ নিয়ে কথা বলব, তুলনামূলক দাম কিছুটা বেশি হলেও এদের প্রসেসর, ব্যাটারি ব্যাকআপ, গ্রাফিক্স কার্ড, পোর্টেবিলিটি সহ নানা সুবিধার কারনে টেকপ্রেমীদের জন্য হতে পারে দূর্দান্ত ডিভাইস।  চলুন দেখে আসি কি রয়েছে এই ল্যাপটপগুলিতে:

ASUS TUF A15 FA506Q-Gaming Laptop

ROG সিরিজের মত এই TUF সিরিজের ল্যাপটপ  মূলত একটি গেমিং ডিভাইস। AMD Ryzen™ 7 5800H Processor এর এই ল্যাপটপের ওজন প্রায় ২.৩০ কেজি। এই ল্যাপটপটিতে রয়েছে শক্তিশালী DDR4 16GB 3200Mhz র‍্যম। প্রতিদিনের সকল ধরনের কাজের পাশাপাশি গেমিং, গ্রাফিক্স ডিজাইনিং,  অটোক্যাডের সহ সব কাজ ল্যাগিং ছাড়ায় করা যায়।  আর এই কাজকে স্মুথ করতে আছে NVIDIA® GeForce RTX™ 3060 6GB GDDR6 গ্রাফিক্স কার্ড। ১৫ ইঞ্চির FHD (1920 x 1080) ১৬:৯  রেটিওয়ের এই ল্যাপটপের কিবোর্ড হল All zone RGB lightning Keyboard with Transparent WASD।

যেহেতু এটি একটি গেমিং ডিভাইস, তাই মেকাররা এটির মেমরির দিকে বিশেষ নজর দিয়েছেন, এতে ব্যবহার করেছে  512GB PCIE NVME SSD মেমরি এবং এই ল্যাপটপটিতে রয়েছে উইনডোজ ১০ হোম অপারেটিং সিস্টেম।  ২ বছরের ও্যারেন্টির এই ল্যাপটপে ওয়াই ফাই আর বলুটুথের ক্ষেত্রে আছে লেটেস্ট ভার্শন।

এই ল্যাপটপের অডিও সিস্টেম ও দূর্দান্ত,  মুভি দেখা কিংবা গেম খেলার ক্ষেত্রে পাবেন নয়েজ ফ্রি অডিও। এছড়া অসাধারণ ডিসপ্লের সিস্টেমের সাথে আছে শক্তিশালী স্পিকার। হেডফোনের সাহায্য ছাড়াও অনায়াসে বিল্ট ইন ল্যাপটপের স্পিকার ব্যবহার করা যাবে। এছাড়া মুভি দেখা কিংবা গেম খেলার ক্ষেত্রে পাবেন অসাধারণ অনুভূতি। তবে আমার পরামর্শ থাকবে শুধু ফিচার দেখেই বিবেচনা করবেন অবশ্যই কতটা অর্থযোগ্য সেটাও বিবেচনা করবেন, আসুসের এই রেঞ্জের আরো মডেলের বাজার মূল্য জানতে এখানে ভিজিট করতে পারেন asus laptop price in bangladesh, যে বিবেচনার মাধ্যমে আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন ভিভাইস গুলো কতটা অর্থযোগ্য।

Lenovo Yoga C940 2 in 1 Laptop 14

বাজারে প্রচলিত সাধারণ ল্যাপটপের বাইরে  একের মধ্যে দুই ল্যাপটপগুলোর সংখ্যা কম হলেও ব্যবহারকারীদের কাছে বেশ আকাঙ্ক্ষার বস্তু। এই ২ ইন ১ ডিভাইস আপনি যেমন ল্যাপটপ হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন আবার ট্যাব হিসেবেও ব্যবহার করতে পারবেন।মোটামুটি সব টেক জায়ান্ট কোম্পানীর এই ধরনের ডিভাইস  থাকলেও অধিকাংশ মানুষ তা জানেনা। এই ল্যাপটপটিতে রয়েছে Intel® Core™ i7-1065G7 এর প্রসেসর এছাড়া এই ডিভাইসে রয়েছে আপডেটেড সব ফিচার। যেমন  8 GB LPDDR4X 3733MHz৷ র‍্যাম আর 512 GB PCIe SSD মেমরি কার্ড।

১৪ ইঞ্চি এই ল্যাপটপটি সহজে বহনযোগ্য কারন এটার ওজন ১.৩৫ কেজি। এর রয়েছে শক্তিশালী ব্যাটারি লাইফ। একবার চার্জ দিলে প্রায় ১১ ঘন্টা ব্যাক আপ দিতে পারে। তবে আপডেটেড আর শক্তিশালী প্রসেসর, ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সসর, টাচ স্ক্রিন এনাবলড পেন ইত্যাদি সুবিধার জন্য দামটা মেনে নেয়ায় যায়। ইয়োগা সিরিজের অন্যতম বৈশিষ্ট হল এর অত্যাধুনিক অডিও সিস্টেম। নয়েজ ফ্রি আর ল্যাগ ফ্রি অডিও সিস্টেম এর জন্য আপনার মুভি দেখা, গান শোনা  কিংবা অনলাইন মিটিং চলবে পুরোদমে কোন অডিও ইস্যু ছাড়ায়।

দুটো ল্যাপটপেই কম বেশি এক থেকে দুই বছরের মত ওয়ারেন্টি পাবেন। প্রতিনিয়ত আপডেট করবেন আপনার ডিভাইসটি । টাফ সিরিজের ল্যাপটপ সব কাজ অনায়েশে করতে পারবেন । যদি আপনি গেমার তবে এই ল্যাপটপটি আপনার গেমিং এক্সেপিরিয়েন্সকে নিয়ে যাবে এক অন্য মাত্রায়, অপরদিকে আবার ইয়োগা সিরিজের ল্যাপটপটি তার উচ্চমানের ডিসপ্লের মাধ্যমে আপনার দেখার এক্সপেরিয়েন্সকে করবে আরো উন্নত । এই ল্যাপটপটি এবং লেনোভোর অন্যান্য মডেলের দাম জানতে এখানে ভিজিট করতে পারেন এই ল্যাপটপটি এবং লেনোভোর অন্যান্য মডেলের দাম জানতে এখানে ভিজিট করতে পারেন lenovo laptop price in bangladesh  কারন এরা ব্রান্ড দ্বারা প্রকাশিত হওয়া প্রাইসটাই দিয়ে থাকে এবং আমার দেখায় mcsolutionbd এরাই কিছুটা সাশ্রয়ী মূল্যে ব্রান্ডেড প্রোডাক্টগুলি দেয়।

আমার মতামত:

দুই ল্যাপটপটি একটি অপরটি থেকে কম নয় তবে প্রয়োজনীয় সব দিক বিবেচনা করেই যে ডিভাইসটি আপনার কেনা উচিৎ। যদি অফিশিয়াল কাজ  এবং একটু ভালো স্ট্রিমিং করতে চান তবে Lenovo Yoga C940 এই ল্যাপটপটিপ নিতে পারেন। কারন এই ল্যাপটপটিতে রয়েছে উচ্চ রেজুলেশনের একটি ডিসপ্লে এবং যাতে ৫০০ nits এর উপরে ব্রাইটনেস রয়েছে। এই ল্যাপটপটি তুলনামূলক ওজন কম হওয়াই আপনি যে কোন জায়গায় সহজেই বহন করতে পারবেন। অন্যদিকে যদি প্রো গেমার বা এডিটর হন, ভারী ব্যবহার এর জন্য নিতে চান তবে ASUS TUF A15 এই নিতে পারেন। কারন ASUS TUF A15 এই ল্যাপটপটিতে রয়েছে দ্রুততম Ryzen7 5800H এর Processor এবং যার ক্লক স্পিড খুবই ভালো।  তবে সব দিক বিবেচনা করার পর  যদি আমার থেকে জানতে কোন নির্দিষ্ট প্রোডাক্টটিকে আমি এগিয়ে রাখবো আমার দিক থেকে তাহলে সেটি হলো Lenovo Yoga C940। আপনাদের মতামত আমাকে জানাবেন

3 thoughts on "বতর্মান বাজারে ব্যাপক সাড়া পাওয়া দুইটি ল্যাপটপ"

    1. Mamun Ahmed Author Post Creator says:
      included on link: asus laptop price in bangladesh
  1. Ahmed+Rabbi Contributor says:
    ২ টার মধ্যে TUF এর টাই সেরা।
    যুক্তিহীনভাবে।

Leave a Reply