প্রিপেইড ব্যবস্থা চালু করল বিটিসিএল

টেলিফোন ও উচ্চগতির ইন্টারনেট সেবার জন্য প্রথমবারের মতো প্রিপেইড সেবা চালুর মাধ্যমে ‘ডিজিটাল বিলিং’ কার্যক্রম শুরু করেছে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশনস কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল)। রোববার বিটিসিএলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই প্রিপেইড সেবার উদ্বোধন করেন টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

 

মন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষ এখনো রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানের প্রতি আস্থা রাখে। বিটিসিএলের ইন্টারনেট ও কলিং অ্যাপ সেবায় গ্রাহক বৃদ্ধি তারই প্রমাণ।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার, বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রফিকুল মতিন, টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মাহবুবুল আলম প্রমুখ।

 

বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার বলেন, এমওটিএন (মডার্নাইজেশন অব টেলিকমিউনিকেশন নেটওয়ার্ক) প্রকল্পের মাধ্যমে বিটিসিএল আধুনিকতম প্রযুক্তির সক্ষমতা অর্জন করেছে। এ কারণেই গ্রাহকসেবায় উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে।

ডিজিটাল ব্যবস্থাপনায় টেলিসেবা অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহকের অভিযোগের সমাধান, নতুন সংযোগের আবেদনব্যবস্থা চালু, সফলভাবে কলিং অ্যাপ আলাপ চালুসহ গত তিন বছরে বিটিসিএলের অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরেন বিটিসিএলের এমডি রফিকুল মতিন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, প্রিপেইড প্যাকেজে রয়েছে টেলিফোন ও ইন্টারনেট প্যাকেজ (টেলিফোনসহ)। ১৫০ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে টেলিফোন প্যাকেজ পাওয়া যাবে। আর ইন্টারনেট সেবার জন্য ৫ এমবিপিএস থেকে ১০০ এমবিপিএস পর্যন্ত গতির ক্ষেত্রে ১১টি প্যাকেজ রয়েছে। দাম ৫০০ থেকে ৪ হাজার ২০০ টাকা।

4 thoughts on "প্রিপেইড ব্যবস্থা চালু করল বিটিসিএল"

  1. BORNO Contributor says:
    বুঝলাম না ভাই ?
  2. MD FAYSAL Contributor says:
    বিস্তারিত পোস্ট দেন কোনো কিছুই বুজলাম না
  3. MD FAYSAL Contributor says:
    বিস্তারিত পোস্ট দেন কোনো কিছুই বুজলাম না

Leave a Reply