যেকোনো মার্কেটপ্লেসেই আপনার প্রোফাইলের তথ্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। আর এ কারণে প্রোফাইল লেখার সময় অবশ্যই সময় নিয়ে আপনার বিস্তারিত তথ্য ও দক্ষতা তুলে ধরতে হবে। আপনি যে মার্কেটপ্লেসেই কাজ করেন না কেন, আপনাকে অবশ্যই ক্লায়েন্টদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে নিজের প্রোফাইল সাজাতে হবে। অর্থাৎ ক্লায়েন্টরা আপনার সম্পর্কে কোন কোন তথ্য জানতে চায়, তা পর্যায়ক্রমে যুক্ত করে প্রোফাইল তৈরি করতে হবে। আমরা আজকের পর্বে ক্লায়েন্টদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে সক্ষম ভালোমানের প্রোফাইল তৈরির পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করব।

প্রোফাইলের প্রতীকী ছবি

হেডশট ছবি

story-element">

প্রোফাইলের প্রথমেই যে অংশটিতে সবার চোখে পড়ে, সেটি হলো ছবি। ছবি কেমন হবে তা নিয়ে আমরা আগের পর্বগুলোয় আলোচনা করেছি। বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় আবারও বলছি, ছবি অবশ্যই ফ্রন্ট ফেসিং বা সোজা হতে হবে। স্টুডিওতে তোলা পাসপোর্ট আকারের ছবি, সেলফি বা বাঁকা হয়ে তোলা ছবি দেওয়া যাবে না। ক্যামেরার দিকে সরাসরি তাকানো হালকা হাসিমুখের ছবি দেওয়ার চেষ্টা করবেন।

Profile (2018) - IMDb

আপনার সেবা ব্যবহার করে কোন ধরনের ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান উপকার পাবে, তা প্রোফাইলে উল্লেখ করে দিলে ভালো হয়। কারণ, একজন লোগো ডিজাইনার সচরাচর সব ধরনের লোগো তৈরি করতে পারেন না। আর তাই আপনি যদি ফ্যাশন ও প্রযুক্তিনির্ভর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বা সেবার লোগো তৈরিতে দক্ষ হন, তবে প্রোফাইলে বিষয়টি উল্লেখ করতে হবে। ফলে ক্লায়েন্টরা আগে থেকেই আপনার কাজের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা সম্পর্কে ধারণা নিতে পারবে এবং তাদের চাহিদামতো আপনাকে কাজের অর্ডার দেবে। এতে অন্য বিষয়ে কাজ করাতে আগ্রহী ক্লায়েন্টদের সঙ্গে আপনাকে বারবার যোগাযোগ করতে হবে না। ফলে সময়ও বাঁচবে।

55 Email pfps ideas | cute profile pictures, picture icon, creative profile  picture

ক্লায়েন্টদের কাছ থেকে অর্ডার নেওয়ার পর কাজের ক্ষেত্রে সচরাচর যেসব সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়, তা তুলে ধরার পাশাপাশি সেগুলো সমাধানের কৌশলও লিখতে হবে। যেমন আপনি যদি ওয়েব ডেভেলপার হোন, ক্লায়েন্টের উদ্দেশে লিখতে পারেন, ‘ওয়েবসাইট থেকে সেলস জেনারেট না হওয়া খুবই হতাশাজনক। আমি তোমার ওয়েবসাইট পর্যালোচনা করে সমস্যা সমাধানে তোমাকে কী কী কাজ করতে হবে তা জানাব।’ এ ধরনের কয়েকটি প্রশ্ন এবং উত্তর এ অংশে লিখবেন। এর পাশাপাশি আগে করা কোনো কাজের বিষয়ে অন্য ক্লায়েন্টদের প্রশংসাপত্রও যুক্ত করে দিতে পারেন। ফলে ক্লায়েন্টরা কাজ দেওয়ার আগেই আপনার সম্পর্কে ভালো ধারণা পাবে এবং কাজ দিতে আগ্রহী হবে।

 

Leave a Reply