বাংলাদেশের বাজারে
স্মার্টফোন এখন অনেকটাই
সহজলভ্য। স্মার্টফোন কেনার সময়
এখনও বহু মানুষ দামের বিষয়টির
পাশাপাশি, র্যাম, প্রসেসর,
ব্যাটারি ব্যাকআপ ইত্যাদি
বিষয়ে জোর দিয়ে থাকেন।
আবার যারা গেম খেলেন বা
নিয়মিত ভিডিও দেখেন
ফোনে, তারা আবার ডিসপ্লে
নিয়ে বেশী মাথা ঘামান।
বেশিরভাগ ক্রেতা ‘ফুল এইচডি’
ডিসপ্লে শুনেই চোখ বন্ধ করে
ফোনটি কিনে ফেলেন।
.
কিন্তু
কীভাবে বুঝবেন সেটি আদৌ
সেরা ডিসপ্লে কিনা?
★★১. ডিসপ্লের ক্ষেত্রে বাজারে
সেরা এখন দু’টি প্রযুক্তি। একটি
হলো অ্যামোলেড বা সুপার
অ্যামোলেড এবং অন্যটি হল
আইপিএস এলসিডি। দু’টিরই ভাল-
মন্দ রয়েছে।
.
★★২. অ্যামোলেড ডিসপ্লের
বিশেষত্ব হল এতে স্ক্রিনের
প্রত্যেকটি পিক্সেল আলাদা
ভাবে আলোকিত হয়। এই ধরনের
ডিসপ্লেতে একটি পাতলা
ফিল্ম ট্রানসিস্টর বা টিএফটি
থাকে যার মধ্য দিয়ে বিদ্যুৎ
প্রবাহিত হয়ে পিক্সেলগুলি
আলোকিত করে।
.
★★৩. আইপিএস এলসিডি (ইন-প্লেন
সুইচিং লিকুইড ক্রিস্টাল
ডিসপ্লে) প্রযুক্তি
অ্যামোলেডের থেকে
অনেকটাই আলাদা। এক্ষেত্রে
একটি পোলারাইজড
আলোকরশ্মিকে একটি কালার
ফিল্টারের মধ্যে দিয়ে
প্রবাহিত করা হয়।
.
এবার আসা যাক তুলনামূলক
আলোচনায়। কোন ডিসপ্লে ভাল?
আইপিএস না অ্যামোলেড?
আইফোনে ব্যবহার করা হয়
আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে।
অন্যদিকে বেশিরভাগ
অ্যানড্রয়েড ডিভাইসে সুপার
অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়।
বিশেষ করে স্যামসাংয়ের
গ্যালাক্সি এস[img id=189570]সিরিজের
বেশি দামের ফোনগুলিতে
সুপার অ্যামোলেড তো রয়েইছে,
কয়েকটি মাঝারি রেঞ্জের
ফোনেও এই ডিসপ্লে দেখা যায়।
.
আইপিএস এলসিডি প্রযুক্তি
ব্যবহারের পেছনে আইফোনএর
বক্তব্য হলো এই প্রযুক্তি
অ্যামোলেডের তুলনায় অনেক
[img id=189
570] বেশি সস্তা। ওদিকে
স্যামসাংয়ের মতে, সুপার
অ্যামোলেড প্রযুক্তিতে
ডিসপ্লের রং অনেক বেশি উজ্বল
লাগে। নিঃসন্দেহে সুপার
অ্যামোলেড ডিসপ্লে
অসাধারণ। শোনা যাচ্ছে,
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ৮-এ
থাকবে কার্ভাড ফোরকে
অ্যামোলেড ডিসপ্লে।
.
তাই বলে আইপিএস এলসিডি
ডিসপ্লে যে খারাপ তা কিন্তু
একেবারেই নয়। আইপিএস
ডিসপ্লের ইউএসপি হল শার্পনেস
আর ক্ল্যারিটি বা স্বচ্ছতা। তবে
রোদের মধ্যে খুব স্পষ্ট হয়
অ্যামোলেড ডিসপ্লে আবার
অনেকের মতে, কৌণিক অবস্থান
থেক ভাল দেখা যায় আইপিএস
প্রযুক্তিতে। আইফোন ছাড়াও
এলজি, এইচটিসি এবং লুমিয়া
ফোনগুলিতেও আইপিএস এলসিডি
প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়।
.
তবে ক্রেতারা কোনদিকে
যাবেন? সেরা উপায় হল—
দোকানে দু’টি ধরনের ডিসপ্লে
পাশাপাশি রেখে বিচার করা।
যে ডিসপ্লেটি[img id=189570]আকর্ষণীয় মনে
হবে সেটিই কিনুন, কিন্তু নিজে
যাচাই করাটা জরুরি। কারণ
ডিসপ্লের চাহিদাটা একেক
জনের একেক রকম। তাই
সেলসম্যানের কথার উপরে ভরসা
না করে নিজের পছন্দমতো কিনুন।


ধন্যবাদ

〘♚♔ ফেসবুকে আমি♚♔〙

তথ্য প্রযুক্তি সেবায় আপনাদের পাশে

5 thoughts on "আইপিএস না অ্যামোলেড? স্মার্টফোন স্ক্রীন হিসেবে কোনটি ভাল?"

  1. Afnan Rakib Afnan Rakib Contributor says:
    আমি ওয়াল্টন এ আইপিএস+ওজিএস ডিসপ্লে ব্যবহার করছি


    1. Tajik Ahsan Tajik Ahsan Author Post Creator says:
      কেমন সািভর্স দেয়?
  2. Afnan Rakib Afnan Rakib Contributor says:
    অনেক ভালো। HD ডিসপ্লে এর মতই। আর কোনো নেগেটিভ সাইড নেই। চারদিক থেকেই একরম।
  3. Mintu Contributor says:
    স্কিনশট ঠিক করুন
  4. dravil dravil Contributor says:
    Amoled display er jonno prochur charge er proyojon hoy…?

Leave a Reply