গুগল প্লে স্টোর সম্পর্কিত ৫ টি প্রশ্ন

গুগল প্লে স্টোর কি? আচ্ছা যদি আপনি মোবাইলের পারস্পেক্টিভ থেকে ধরেন তাহলে হয়তো আপনি বলবেন এটি সিম্পল অ্যাপ। কিন্তু এটি কিন্তু শুধু একটি এপ নয় বরং একটি প্ল্যাটফর্ম। তবে এখন হয়তো এমন কোন এন্ড্রয়েড ইউজারকে পাওয়া যাবে না যে গুগল প্লে স্টোর এর ব্যবহারবিধি জানেনা।

Google Play | Img Src: wikipeida

কিন্তু এই আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব গুগল প্লে স্টোর কি এবং বেশ কিছু বহুল আলোচিত প্রশ্নোত্তর নিয়ে। এই আর্টিকেলের মূল উদ্দেশ্য যতটা সম্ভব আপনাকে গুগল প্লে স্টোর সম্পর্কে বেশি তথ্য জানানো। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

 

১. গুগল প্লে স্টোর কি?

আপনি হয়তো আগে থেকেই বলবেন এটা কেমন প্রশ্ন ? গুগল প্লে স্টোর যে একটি সাধারণ অ্যাপ আমরা তো সেটা জানি। এখান থেকে আমার চাইলেই যে কোন অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারি। কিন্তু যেহেতু আমরা পূর্বেই বলেছি যে শুধু এটি একটি অ্যাপ নয় বরং একটি প্লাটফর্ম সেটি আমরা এখন এখান থেকে জানার চেষ্টা করব।

আপনি হয়তো গুগল প্লে স্টোরকে শুধুমাত্র অ্যাপস্টোর হিসেবে জানেন। কিন্তু আপনার ধারণা আসলে ভুল, গুগল প্লে স্টোর শুধুমাত্র একটি অ্যাপ স্টোর নয় এখানে আপনি মুভি গান ছাড়াও পাবেন আরো অনেক অনেক কনটেন্ট। গুগল প্লে স্টোর আপনাকে অনেক অনেক মুভি, বই, গান অফার করে থাকে যেগুলো আপনি ওয়ানটাইম সাবস্ক্রিপশন কিংবা পার আইটেম সাবস্ক্রিপশনের কিনে ব্যবহার করতে পারবেন।

ঠিক যেমন মুভি বই গান এগুলো গুগল প্লে স্টোরে আপনি কিনতে পারবেন তেমনি চাইলে সহজেই আপনার প্রয়োজনে অ্যাপটি ও আপনি কিনতে পারবেন। তবে শুধুমাত্র যে এখানে কেনার জন্য অ্যাপ রয়েছে এমন নয় বরং অনেক অনেক ফ্রী অ্যাপ রয়েছে এবং সব থেকে বড় কথা অ্যাপ ডাউনলোড এর পূর্বেই আপনি জানতে পারবেন যে এপটি ফ্রি কিনা।

মোটামুটি সহজ ভাবে বললে এই হচ্ছে গুগল প্লে স্টোর। আপনি যদি আগে থেকে ভেবে থাকতেন গুগোল একটি অ্যাপ স্টোর তাহলে হয়তো আপনি নতুন কিছু জানলেন।

২. সব ফোনে কি গুগল প্লে স্টোর আছে?

যেহেতু আমরা এখানে শুধুমাত্র এন্ড্রয়েড ফোনের কথা বলছি তাই আপনি হয়তো ভাবেন সব ফোনেই তো দেখা যায় গুগল প্লে স্টোর ইন্সটল আছে। কিন্তু এটি একটি ভুল ধারণা, যেহেতু অ্যান্ড্রয়েড একটি ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম তাই ম্যানুফ্যাকচারার চাইলে অপারেটিং সিস্টেমে গুগল প্লে স্টোর রাখতে পারেন কিংবা পারেন না।

কিন্তু দেখা যায় বেশিরভাগ ফোন ম্যানুফ্যাকচারার গুগলের সার্ভিস ব্যবহার করেন যে ক্ষেত্রে তার গুগল প্লে স্টোর জিমেইল গুগোল সার্চ গুগোল ফটোস এ ধরনের বহু জনপ্রিয় এবং ইউটিউবসহ বহুল জনপ্রিয় অ্যাপ ইনস্টল পাবেন।

তবে ব্যতিক্রম হিসেবে রয়েছে অনেক জনপ্রিয় ফোন ম্যানুফ্যাকচারার কোম্পানি হুয়াওয়ে যারা এতদিন গুগল GMS সার্ভিস ব্যবহার করলেও ইউএসএ থেকে হুয়াওয়ে কে চীনা কোম্পানি হিসেবে ব্যান করার পর থেকে তারা এখন আর গুগলের সার্ভিস ব্যবহার করবে না অর্থাৎ আপনি গুগলের অ্যাপগুলো প্রিইনস্টল পাবেন না। যদিও এর পেছনে অনেক বড় গল্প রয়েছে তবে আজকের আলোচনা এখানেই শেষ।

৩. গুগল প্লে স্টোর এ কি কি পাবেন?

আমরা আগে যেহেতু বলছি গুগল প্লে স্টোরে শুধু এক নয় বরং আরো অনেক কন্টেন্ট রয়েছে, সেটাকে যদি আরো একটি সমৃদ্ধ করে বলতে চাই তাহলে বলতে হবে গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপ এর পাশাপাশি রয়েছে মুভি বুক সহ সব ধরনের অনেক ডিজিটাল কনটেন্ট। প্রথমত গুগল প্লে চালু হয়েছিল একটা হাব হিসেবে যে কেন্দ্রীয় হাবে আপনি সব ডিজিটাল কনটেন্ট পেয়ে যাবেন এবং চাইলে সেগুলো ফ্রিতে আপনি পেতে পারেন কিংবা আপনার কিনে ব্যবহার করতে হতে পারে।

তবে দিন শেষে দেখা গেছে সবথেকে বেশি ব্যবহৃত হচ্ছে তার অ্যাপের জন্য। বিশেষ করে এশিয়া মহাদেশের গুগল প্লে স্টোর পরিচিতি পেয়েছে অ্যাপস্টোর হিসেবে, কিন্তু ইউরোপসহ অন্যান্য অন্যান্য অঞ্চলের এলাকাতে দেখা যায় গুগল প্লে স্টোর অ্যাপ স্টোর সার্ভিস এর পাশাপাশি সবাই তাদের ডিজিটাল কনটেন্ট এর যে সমৃদ্ধ ভান্ডার সেগুলো ব্যবহার করে থাকেন।

তবে আপনি যদি বাংলাদেশে কাউকে জিজ্ঞাসা করেন সে গুগল প্লে স্টোর কেন ব্যবহার করে তাহলে হয়তো সে এক বাক্যে উত্তর দেবে অ্যাপ ডাউনলোড করার জন্য। যেহেতু আমাদের দেশে কেউই সাধারণত কোন অ্যাপ বা কোন ডিজিটাল কনটেন্ট পারচেজ করতে চায় না তাই এই গুগল প্লে স্টোর অ্যাপ সার্ভিস থেকে সবথেকে বেশি ডাউনলোড হয় ফ্রী অ্যাপ।

৪. গুগল প্লে স্টোর থেকে ছাড়া এপ ডাউনলোড করা যাবেনা?

গুগল প্লে স্টোর থাকলেই যে আপনাকে আপনার ফোনে শুধুমাত্র গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে হবে এমনটি ভাবা ভুল। আপনি চাইলে যেকোন থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট থেকে আপনার অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারেন। কিন্তু ফোন ম্যানুফ্যাকচারার সহ অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম এটা আপনাকে রেকমেন্ড করে এই গুগল প্লে স্টোর থেকে আপনি অ্যাপ ডাউনলোড করবেন।

কারণ সেক্ষেত্রে যে গুগলের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে সিকিউর থাকতে পারবেন এবং সেইসঙ্গে আপনার প্রয়োজনে অ্যাপটি আপনার দ্রুত সময়ে ডাউনলোড এর মত আপডেট করতে পারবেন এবং সেইসাথে আপনি যেকোন রিভিউ গুগল প্লে স্টোর এর মাধ্যমে দিতে পারবেন। এবং অ্যাপ ডেভলপার আপনাকে রেকমেন্ড করবে তাদের অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর এর মাধ্যমে ব্যবহার করার জন্য।

তবে এমন কিছু এপ দেখা যায় যেমন ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সহ third-party অনেক যেগুলো গুগল প্লে স্টোরে আপনি পাবেন না কারণ সেগুলো গুগলের পলিসি ঠিকঠাক ভাবে মেইনটেইন করে না। সে ক্ষেত্রে আপনি চাইলেই third-party অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে পারেন । কিন্তু ইনস্টল এক্ষেত্রে আপনাকে ফোনে সেটিং থেকে আনসোর্স অ্যাপ ইনস্টল অপশনটি এনাবল করে নিতে হবে।

৫. গুগল প্লে স্টোরে কি কোন অল্টারনেটিভ নাই?

আমরা অনেকেই ভেবে থাকি গুগলের গুগল প্লে স্টোর একমাত্র অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ স্টোর। কিন্তু সাধারণত বেশিরভাগ জনপ্রিয় ফোন কোম্পানিগুলোর তাদের নিজস্ব অ্যাপ স্টরে থাকে যেমন স্যামসাংয়ের অ্যাপস্টোর অনেকদিন ধরে বেশ জনপ্রিয়।

অ্যামাজনের অ্যাপস স্টোর এগুলো বেশ জনপ্রিয় এবং গুগলের প্রতিদ্বন্দ্বী। তাই আপনি যদি কোনো কারণে গুগলের অ্যাপ স্টোর বা প্লে স্টোর ব্যবহারে উৎসাহিত না হন চাইলে যেকোন অন্যান্য অ্যাপ স্টোর আপনি ব্যবহার করতে পারেন।

পরিশেষে

তো এই ছিল আজকের মতো এখানে আমরা আলোচনা করেছি গুগোল অ্যাপ স্টোর প্লে স্টোরের বেশ অনেকগুলো বিষয় সম্পর্কে এবং বিশেষ পাঁচটি প্রশ্নের উত্তর দেয়ার চেষ্টা করেছি আজকের মত এখানেই। কোন সমস্যা বা কোন মতামত থাকলে কমেন্ট করুন এবং শেয়ার করুন, ধন্যবাদ।

আরো ভালো আর্টিকেল পেতে চলে যান এই লিংক এ গুগল লাইটহাউস টুল কিভাবে ব্যবহার করবেন ?

4 thoughts on "গুগল প্লে স্টোর সম্পর্কিত ৫ টি প্রশ্ন"

  1. Md Al-Amin Islam Md Al-Amin Islam Contributor says:
    Awesome Post


    1. Shahriar Ahmed Shovon Shahriar Ahmed Shovon Author Post Creator says:
      Thank you brother 🙂
  2. MD YANUR MD YANUR Contributor says:
    Bro.. vivo y91 phn ta root korbo kivabe? Janaben aktu plz plz
    1. Sakibur Rahman Sakibur Rahman Contributor says:
      Root kno korben,jodi kono specify app use er jonno korte hoy tobe Vmos app theke root permission diye root needed app run korte parben,tao abr apnr phone root na korei

Leave a Reply