বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) প্রথম
তিন আসরে ছিলেন না কোনো
ভারতীয় ক্রিকেটার। তার পেছনে
আছে ভারতীয় ক্রিকেটের
সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বোর্ড অব
কনট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার
(বিসিসিআই) অলিখিত এক নিষেধাজ্ঞা।
শুধু বিপিএলই না, অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ
কিংবা পাকিস্তান সুপার লিগেও (পিএসএল)
কোনো ভারতীয় খেলেন না।

তবে, সম্প্রতি বিসিসিআই একটু নিয়ম শিথিল
করেছে। বিদেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক
টি-টোয়েন্টি ‍টুর্নামেন্টে দেশের
কোন ক্রিকেটারদের এনওসি বা
অনাপত্তিপত্র না দিলেও লিস্ট ‘এ’ বা
ঘরোয়া ওয়ানডে ক্রিকেট খেলতে
ভারতীয়দের কোনো বাধা নেই।

সেই সুবাদেই এবার বাংলাদেশে চলমান
ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে দেখা
যাচ্ছে এক ঝাঁক ভারতীয় ক্রিকেটারের
মেলা। তারা হলেন কলাবাগান ক্রিকেট
অ্যাকাডেমি ও লিজেন্ডস অব
রুপগঞ্জে খেলা দুই ভাই যতিন ও জালাজ
সাক্সেনা, ব্রাদার্স ইউনিয়নে খেলা
দিল্লির ক্রিকেটার মিলিন্দ কুমার, প্রাইম
ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবে খেলা হরিয়ানার

সচিন রানা, প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং
ক্লাবে খেলা অশোক মানেরিয়া।

তবে ভারতীয় ক্রিকেটার আনার দিক
থেকে এবার লিগে বাকি সবাইকে
ছাড়িয়ে গেছে আবাহনী লিমিটেড।
সর্বশেষ তারা চুক্তিবদ্ধ করেছে সদ্য
শেষ হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও
(আইপিএল) ১৫ ম্যাচে ৩৬১ রান করা
কলকাতা নাইট রাইডার্সের ইউসুফ পাঠানকে।

আর এই দলটির হয়েই খেলছেন
আইপিএলে তার সতীর্থ সাকিব আল
হাসান। চলতি লিগে আগে থেকেই
দলের হয়ে খেলেছেন মনোজ
তিওয়ারী, মানবিন্দর বিসলা, রজত ভাটিয়া ও
উদয় কউল। এবার পালা তাই বিপিএলের
অচলায়তন ভাঙার!

এমনকি, নিষেধাজ্ঞা জারির আগ অবধি
বেশ নামিদামি ভারতীয় ক্রিকেটারদের
দেখা মিলতো বাংলাদেশের ঘরোয়া
ক্রিকেটে। এখানে রমন লাম্বা, যুবরাজ
সিং, অজয় জাদেজা, অরুণ লাল, অশোক
মালহোত্র, ইকবাল আবদুল্লাহ, রজত
ভাটিয়া, চেতন শর্মা, সঞ্জয় শর্মা,
রোহান গাভাস্কার, অমল মজুমদার ও আকাশ
চোপড়ারা খেলে গেছেন।

বিপিএলের চতুর্থ আসর মাঠে গড়াবে
আসছে নভেম্বরে। বাংলাদেশ
ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জানিয়েছে
প্রতিবারের মত এবারও অন্যান্য ক্রিকেট
বোর্ড গুলোর সাথে বিসিসিআইকেও

খেলোয়াড় পাঠানোর ‘দাওয়াত পত্র’
পাঠানো হবে। আর সংস্থাটি অন্যান্য
সময়ের চেয়ে এবার ভারতীয়
খেলোয়াড় পাওয়ার ব্যাপারে একটু
বেশিই আশাবাদী।

বিপিএলের টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান ও
বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল
ইউনুস এ ব্যাপারে বলেন, ‘ওদের
(বিসিসিআই) পলিসি হল, বাইরের লিস্ট এ
ক্রিকেটে খেলোয়াড়দের
খেলতে দেয়া। বিপিএল এর মধ্যে
পড়ে না। বরাবরের মত এবারও ওদের
আমরা চিঠি পাঠাবো। আমরা আশাবাদী।’
বিপিএলে খেলোয়াড় পাঠানোর
ব্যাপারে বিসিবি-বিসিসিআইয়ের সমঝোতা
হবে কি না সেটা সময়ই বলে দেবে!

-প্রিয়.কম

One thought on "ভারতীয় ক্রিকেটাররা কি এবার বিপিএলে খেলতে পারবেন?"

  1. Sobuj ahammed Contributor says:
    parbe

    trickbd.in



Leave a Reply