Be a Trainer! Share your knowledge.
Home » Uncategorized » লিনাক্স কী, কেন, কিভাবে…? [পর্ব-০৩]

2 weeks ago (Feb 08, 2018)

লিনাক্স কী, কেন, কিভাবে…? [পর্ব-০৩]

Category: Uncategorized, Windows PC Tags: , , by

লিনাক্স কি, কেন, কিভাবে এর তৃতীয় পর্বে আপনাদেরকে স্বাগতম। আগের দুই পর্বে আমি আলোচনে করেছি লিনাক্স কি আর এতো অপারেটিং সিস্টেম থাকতে লিনাক্স কেনো ব্যবহার করবেন তা নিয়ে। এই পর্বে থাকছে লিনাক্সের কোন ভার্সনটি আপনি ব্যবহার করবেন, আপনার জন্য উপযুক্ত ভার্সনটি কিভাবে নির্ধারণ করবেন তা নিয়ে। তাহলে শুরু করা যাক…

লিনাক্স কার্নেল এর ভিত্তিতে বানানো অপারেটিং সিস্টেমকে বলাহয় লিনাক্স ডিস্ট্রো (linux Distro)। লিনাক্স যেহেতু ওপেনসোর্স একটি অপারেটিং সিস্টেম সো বিভিন্ন ব্যাক্তি, টেকি কোম্পানি তাদের নিজেদের মতো করে পরিবর্তিত, পরিবর্ধিত করে বিভিন্ন নামে লিনাক্সকে বাজারে এনেছে। তারমধ্যে কোনোটা হয়তো হ্যাকারদের প্রিয় কোনোটা আবার টেকি লাভারদের আবার কোনোটা সাধারণ ব্যাবহারকারীদের কাছে সহজবোধ্য।

যেমনঃ

  • লিনাক্স মিন্ট
  • ফেডোরা

মিন্ট বা ফেডোরা হলো লিনাক্স ডিস্ট্রো। মানে তাদের মধ্যে “লিনাক্স কার্নেল” থাকবেই। তাদের আলাদা ডিস্ট্রো বলার কারন হলো ডেক্সটপ এনভায়রমেন্ট, উইন্ডো ম্যানাজার, প্যাকেজ ম্যানাজার ইত্যাদির মতো সফটয়্যার এক এক ডিস্ট্রোতে একেকটা ব্যাবহার করা হয়রছে।

ডেক্সটপ এনভায়রমেন্ট: এখানে ডেক্সটপ এনভায়রমেন্ট বলতে বুঝায় অপারেটিং সিস্টেমের চেহারা কেমন হবে তা। মানে আপনার ডেক্সটপ হোমস্ক্রিন দেখতে কেমন হবে। উইন্ডোজ ৭ আর উইন্ডোজ ১০ দেখতে নিশ্চই এক না… তাইনা? আর লিনাক্সের সুবিধা এইখানে, আপনি অনেক ডেক্সটপ এনভায়রমেন্ট বা সংক্ষেপে DE পাবেন আপনার ডেক্সটপকে সাজাতে। তেমন কিছু DE এর ছবি নিচে দেয়া হলো

ডিস্ট্রো রিলিজঃ এই ডিস্ট্রো গুলির নিউ ভার্সন রিলিজ বা আপডেটের একটা ধারা আছে। যেমনঃ

Standard release: সাধারণত ছয় মাস থেকে এক বছরে ডিস্ট্রোর একটা নতুন ভার্সন বের হয়।

LTS (Long Term Support): একটা LTS release প্রায় ৫-৭ বছর চলার মতোকরে তৈরি হয়। প্রতি ২ বছর অন্তর অন্তর একটা LTS রিলিজ পাওয়া যায়।

Rolling release: রোলিং রিলিজ গুলায় একবারে আপডেট না দিয়ে প্রয়োজন অনুসারে প্রতি মুহূর্তে আপডেট দেয়া হয়।

এইখানে আমি লিনাক্সের জনপ্রিয় কিছু ডিস্ট্রো নিয়ে আলোচনা করবো। লিনাক্সের প্রায় সকল ডিস্ট্রো নিয়ে আরো জানতে চাইলে আপনারে এই সাইটটায় দেখতে পারেন।

ডেবিয়ান (Debian): এটা একটা কমিউনিটি নির্ভর ডিস্ট্রো অর্থাৎ কোনো নির্দিষ্ট কোম্পানি এইটাকে ডেভলাপ করেনা। লিনাক্সের যতোগুলি ডিস্ট্রো আছে তার মধ্যে ডেবিয়ানই সবচাইতে ত্রুটিমুক্ত আর পরীক্ষিত ডিস্ট্রো।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ GNOME

ব্যাবহারঃ নেটওয়ার্ক ও সিস্টেম এডমিনিস্ট্রেটরদের প্রিয়।

লিনাক্স মিন্টঃ কমিউনিটি নির্ভর ডিস্ট্রো। ডেবিয়ান আর উবন্টু এর উপর ভিত্তি করে বানানো।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ Cinnamon, MATE, KDE, XFCE

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ ডেবিয়ান DPKG

ব্যাবহারঃ সহজ ইউজার ইন্টারফেস, নতুন ব্যাবহার কারী।

ফেডোরাঃ কমিউনিটি নির্ভর ডিস্ট্রো তবে রেডহ্যাট ডেভেলপাররাও সাথে যুক্ত আছে।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ GNOME, Cinnamon, KDE, XFCE, LXDE

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ RPM

ব্যাবহারঃ ওয়ার্কস্টেশন, সার্ভার, ক্লাউড।

সেন্ট ওএসঃ কমিউনিটি নির্ভর ডিস্ট্রো। এটা রেডহ্যাট এন্টারপ্রাইজের এর ক্লোন ডিস্ট্রোও বলা হয়।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ GNOME, KDE Plasma

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ RPM

ব্যাবহারঃ সাধারণ ব্যাবহার, সার্ভার, ক্লাউড।

ওপেন সোসেঃ SUSE কম্পানির তৈরি জনপ্রিয় ডিস্ট্রো।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ KDE Plasma

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ RPM

ব্যাবহারঃ সাধারণ ব্যাবহারকারী, পাওয়ার ইউজার, ওয়ার্কস্টেশন, সিস্টেম এডমিনিস্ট্রেটর, ডেভেলপার।

ম্যাজিয়াঃ ম্যান্ড্রিভা প্রজেক্ট বন্ধ হলে এর প্রাক্তন ডেভেলপাররা তৈরি করে এই ডিস্ট্রো।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ KDE Plasma, GNOME, LXDE

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ RPM

ব্যাবহারঃ সাধারন ব্যাবহার।

পিসি লিনাক্সঃ এটি তৈরি করেছেন বিল রেনোল্ডস নামের একজন ডেভেলপার।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ KDE, MATE

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ RPM

ব্যাবহারঃ নতুন এবং সাধারন কম্পিউটার ব্যাবহারকারী।

উবুন্টুঃ Mother Disto ডেবিয়ানের উপর ভিত্তি করে ক্যানোনিকাল কোম্পানির তৈরি এই ডিস্ট্রো। এটি একটি অত্যন্ত জনপ্রিয়ো ডিস্ট্রো।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ Unity desktop

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ ডেবিয়ান DPKG

ব্যাবহারঃ সাধারন কম্পিউটার ব্যাবহারকারী, সার্ভার, ওয়ার্কস্টেশন, স্মার্ট টিভি।

উবুন্টু এর আবার বিভিন্ন ভার্সন রয়েছে। যেমনঃ

  • Ubuntu Gnome
  • Ubuntu MATE
  • Kubuntu
  • Lubuntu
  • Xubuntu
  • Edubuntu
  • Mythbuntu
  • Ubuntu Studio
  • Ubuntu Kylin ইত্যাদি

জোরিন ওএসঃ লিনাক্সে আসা নতুন ব্যাবহারকারীদের কথা মাথায় রেখে তৈরি হয়েছে এই ডিস্ট্রো। উইন্ডোজের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ সফটয়্যার ব্যাবহার করা হয়েছে এতে।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ GNOME, LXDE

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ ডেবিয়ান DPKG

ব্যাবহারঃ উইন্ডোজের সফটয়্যার চালানো যায়।

এলিমেন্টারি ওএসঃ উবুন্টুর উপর ভিত্তি করে বানানো দারুণ একটি ডিস্ট্রো।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ Pantheon

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ ডেবিয়ান DPKG

ব্যাবহারঃ MAC OS (OS X) এর সাথে সাদৃশ্য আছে।

কালি লিনাক্সঃ ডেবিয়ান হতে উদ্ভূত। অফেনসিক সিকিউটি লিমিটেড নামের একটি কোম্পানি মূলত ডিজিটাল ফরেনসিক এবং পেনিট্রেশন টেস্টিং এর জন্য এটি তৈরি করেছে। এতে তিনশতাধিক পেনিট্রেশন টেস্টিং সফটয়্যার প্রি-ইনস্টলড থাকে।

ডেক্সটপ এনভায়রনমেন্টঃ GNOME

প্যাকেজ ম্যানাজারঃ synaptic

ব্যাবহারঃ এক্সপার্ট ও প্রায় সব হ্যাকার।

রেড হ্যাড এন্টারপ্রাইজঃ এইটি রেড হ্যাড কর্পোরেশনের তৈরি একটি বানিজ্যিক ডিস্ট্রো। বিভিন্ন প্রসেসর আর্কিটেকচারের জন্য এর সার্ভার ডিস্ট্রো পাওয়া যায়। এইটা প্রায় ফেডেরার মতোই তবে স্ট্যাবল আর বানিজ্যিক বলে রেড হ্যাটের হেল্প সাপোর্ট পাওয়া যায় এতে।

আরো কিছু লিনাক্স ডিস্ট্রো আছে, যেমনঃ বিবিকিউ লিনাক্স, সিএই লিনাক্স, কিমো, স্টিম ওএস ইত্যাদি। অল্প কথায় অনেকগুলি ডিস্ট্রো নিয়ে লেখার চেস্টা করেছি। আশা করি আপনার প্রয়োজনীয় ডিস্ট্রোটি এবার সহজেই খুজে পাবেন।

অনেক কস্ট করে লেখা পোস্টটি। কেমন হয়েছে জানাতে ভুলবেননা।

আমি Fourkanul Islam Mobin

ফেসবুকে আমি

gmail: [email protected]

Report

About Post: 4

mobin1234

a simple person

23 responses to “লিনাক্স কী, কেন, কিভাবে…? [পর্ব-০৩]”

  1. Neymar Jr Neymar Jr (Contributor) says:

    আমার ল্যাপটপে লিনাক্স ব্যবহার কর‍্যে চাই হেল্প।

  2. mobin1234 mobin1234 (Author) says:

    আগের দুইটা পোস্ট দেখেন প্রথমে। তারপর এই পোস্টে দেখেন কোন ভার্সনটি আপনার জন্য বেস্ট হবে। তারপরও সমস্যা হলে পরের পোস্টের জন্য অপেক্ষা করুন। 😊

  3. mdmamunrahman5@ [email protected] (Contributor) says:

    bhai bhaki 2 ta post ki aponi korece

    awesome post

    • mobin1234 mobin1234 (Author) says:

      ধন্যবাদ আপনাকে।
      জ্বী বাকি দুইটা পোস্ট আমি করেছি। এই পোস্টে পরে লিংক এড করে দিবো।
      আর আপনি চাইলে আমার প্রোফাইল থেকেও দেখে নিতে পারেন বাকি দুইটা পোস্ট।

  4. mobin1234 mobin1234 (Author) says:

    ধন্যবাদ আপনাকে।

    জ্বী বাকি দুইটা পোস্ট আমি করেছি। এই পোস্টে পরে লিংক এড করে দিবো।
    আর আপনি চাইলে আমার প্রোফাইল থেকেও দেখে নিতে পারেন বাকি দুইটা পোস্ট।

  5. mobin1234 mobin1234 (Author) says:

    ধন্যবাদ আপনাকে।
    জ্বী বাকি দুইটা পোস্ট আমি করেছি। এই পোস্টে পরে লিংক এড করে দিবো।
    আর আপনি চাইলে আমার প্রোফাইল থেকেও দেখে নিতে পারেন বাকি দুইটা পোস্ট।

  6. ইমরুজ ইমরুজ (Author) says:

    ভালো পোষ্ট করছেন ভাইয়া।
    চালিয়ে যান।

  7. kingabir (Contributor) says:

    ডুয়াল বুট করে ও লিনাক্স ইউজ করতে পারেন।

  8. mobin1234 mobin1234 (Author) says:

    ধন্যবাদ

  9. তড়িৎ তড়িৎ (Contributor) says:

    ধন্যবাদ।স্বপ্ন দেখি পাইরেটেড জানালা ছেড়ে একদিন বাঙালী লিনাক্সের দিকে ঝুঁকবে!

    • mobin1234 mobin1234 (Author) says:

      সেই স্বপ্ন আমারও

      জানালা ছেড়ে যতো মানুষ লিনাক্সে ঝোকবে ততো ডেভেলপার আসবে লিনাক্সে তত সমৃদ্ধ হবে লিনাক্স।

  10. Yaseen Yaseen (Contributor) says:

    ভাই ,কালি লিনাক্স কি ইউজার ফ্রেন্ডলি ?

    • mobin1234 mobin1234 (Author) says:

      না, নতুনদের জন্য একটু ঝামেলার… তবে একবার ভালো লেগে গেলে কালি ছাড়া আর চলবেইনা।

      • Yaseen Yaseen (Contributor) says:

        Windows এর সফ্টওয়ার কি কালি লিনাক্সে চলবে ? বা এর একই ভার্শনের সফ্টওয়ার পাওয়া যাবে কি , ভাই?

        • mobin1234 mobin1234 (Author) says:

          প্রয়োজনীয় প্রায় সব সফটওয়্যার-ই লিনাক্সে পাওয়া যায়। তবে উইন্ডোজের সফটয়্যার চালাতে চাইলে Wine ব্যবহার করতে পারেন।
          Wine লিখে google এ সার্চ দিলেই বুঝতে পারবেন।

          • Yaseen Yaseen (Contributor) says:

            ধন্যবাদ , যে কোনো প্রশ্ন লিনাক্স সম্পর্কে জিগ্গাসা করতে পারবো কি?

Leave a Reply