কুকুরের “প্রাণ” আছে বলে সে প্রাণী আর মানুষের “মন” বা “আত্না” আছে বলে সে মানুষ; কিন্তু এই আত্না আসলে কি?? এই আত্মা শরীরের ভেতর কিভাবে থাকে? আত্মার সাথে ব্রেইনের কি সম্পর্ক? আত্মা কিভাবে শরীর হয়ে বের হয়ে যায়?

এইসকল প্রশ্নের উত্তরে ১৯০৭ সালে একটি সন্দিগ্ধ পরীক্ষা করেন ম্যাসাচুসেটসের হাভারহিলের চিকিৎসক ম্যাকডোগাল ডানকান; তিনি একজন মানুষের মৃত্যুর আগের ওজন পরিমাপ করেন এবং মৃত্যুর পরের ওজন পরিমাপ করে ২১.৩ গ্রাম ওজনের তারতম্য খেয়াল করেন; এ থেকেই একটি হাইপোথিসিস পাওয়া যায় যে আত্নার ওজন ২১.৩ গ্রাম। একইসাথে তিনি কুকুকের বেলায় এমন পরীক্ষা করলেও সেখানে ওজের তফাত পাওয়া যায়নি। সুতরাং আপাতভাবে এটা ধারনা করা যেতে পারে যে “আত্নার ভর বা ওজন আছে যা ২১.৩ গ্রাম”।

[লেখনীর এই অংশের জন্য কেবলমাত্র আমিই নিশান আহম্মেদ নিয়ন দায়ী; এর সহিত সরাসরি সায়েন্সের কোন প্রুফ নেই, বিষয়টা সায়েন্স ফিকশনের মতোই কল্পনা প্রসূত যৌক্তিক সমীকরণ প্রতিষ্ঠার চেস্টা মাত্র]

আচ্ছা এই ২১.৩ গ্রাম ওজন আসলে কি?
এটা ভরটুকু কি ব্রেইন অর্থাৎ মাথার দিকে থাকে নাকি হার্ট অর্থাৎ বুকের দিকে থাকে নাকি সারা শরীর জুড়েই এর অবস্থান?
মানুষ জীবিত এবং মৃত অবস্থায় এক্সরে বা স্ক্যানারে এমন কোন ২১.৩ গ্রাম ভরের নির্দিষ্ট বস্তু খুজে পাওয়া যায়না যা মৃত্যুর পর শরীর হতে মিসিং হয়ে যায় তাহলে এটা কি?
এখন একটা ডেড বডিকে মৃত্যুর পর কেটে কেটে এক্সপেরিমেন্ট করা এবং ইউনিক তথ্যের একাধিকবার পুনরাবৃত্তি করা যেমন অমানবিকতা তেমনি অনেকের নিকটই অযৌক্তিক মনে হবে, যদিনা আপনি Mad Scientist হয়ে থাকেন।
আবার এটাও হতে পারে এই ২১.৩ গ্রাম শরীরের ভেতর হার্টের প্রকোষ্ঠে জমা থাকা কার্বন-ডাই-অক্সাইড বা অক্সিজেন কিংবা তদ্রুপ গ্যাসীয় পদার্থ। কিন্তু তাহলে এই বিষয়টা কেন কুকুরের ক্ষেত্রে খাটে না??
এখানেই বিষয়টি জটিল রহস্যময় হয়ে যায়!!!!
তাহলে এই আত্মারূপী ২১.৩ গ্রাম এমন হতে পারে:
(১) কোন তরল পদার্থ যা মৃত্যুর সাথে সাথে বায়বীয় পদার্থ আকারে উদগিরিত হয়।
(২) কোন কঠিন পদার্থ যা সরাসরি তরল অবস্থা এড়িয়েই বাষ্প হয়ে যায় ( যেমন ন্যাপথলিন,কর্পূর ইত্যাদি পদার্থ তাপের প্রভাবে কঠিন হতে সরাসরি সাবলিমেশন প্রক্রিয়ায় বাষ্পে রূপান্তরিত হয়)

(৩) স্বাভাবিক গ্যাসীয় পদার্থ ব্যতিরেকেই এমন একটা গ্যাসীয় পদার্থ যা সরাসরি শরীর হতে বেরিয়ে যায়।

উপরের (১) এবং (২) নং সম্ভাব্য পয়েন্টে তাপের একটি বিশেষ বিষয় পরিলক্ষিত হয়; মানুষের মৃত্যুর পর শরীর ঠান্ডা হয় অর্থাৎ শরীরের উত্তাপ হারানো বিষয়টিও পরস্পর সম্পর্কযুক্ত হতেই পারে। আর (৩) নং পয়েন্টে অবশ্য তাপের কোন প্রভাব প্রত্যক্ষভাবে পরিলক্ষিত হয়না।

আচ্ছা এবার যদি আত্মাকে অশরীরী বিবেচনা করা হয় এবং শক্তির একটি বিশেষ রূপ ( Special Stage Of Energy) বিবেচনা করা হয় তবুও তার সাথে ভরের (Mass) একটি সম্পর্ক বা সমীকরণ পাওয়া যায় আইনাস্টাইনের E=mc^2 যেখানে ধ্রুবক c এর সমানুপাতে E (এনার্জি) নির্ভর করে m (ভর) এর উপর; অর্থাৎ ভর একটি বিশেষ অবস্থায় (সমীকরণ মতে অবশ্য তা যখন আলোর গতির বর্গের সমান গতি প্রাপ্ত হয়) শক্তিতে রূপ নিতে পারে; আবার উক্ত শক্তিও এনার্জি উদগীরন করে পদার্থে পরিণত হতেই পারে।
এখন এমনটা হতেও পারে যে এই আত্মারূপী ২১.৩ গ্রাম পদার্থ মানুষ শরীরে জীবিত অবস্থায় একটি অনাবিষ্কৃত পদার্থ (matter) হিসেবে থাকে যা মৃত্যুর পর শক্তি হিসেবে উদগীরিত হয় (এখানে পদার্থের শক্তিতে পরিণত হওয়ার ক্ষেত্রে প্রভাবক হিসেবে হয়তো তাপ শক্তি কাজ করে)।

আবার পদার্থ ভাঙ্গতে ভাঙ্গতে অনু>পরমাণু>ইলেকট্রন, প্রোটন, নিউট্রন সহ মৌলিক কণিকা>ফোটন পাওয়া যায়; এখানে ফোটন হলো শক্তির একটি প্যাকেট বা প্যাকেজ যা কোয়ান্টাম থিউরির দ্বারা উপলব্ধ হয়; এই কোয়ান্টাম বিষয়টিও আবার বহু রহস্যঘেরা সমস্যা সমাধানের একমাত্র সলুউশান হিসেবে বিভিন্ন সায়েন্টিফিক থিউরি ব্যাখ্যা করতে ব্যবহার করা হয়।
এখন এই ২১.৩ গ্রাম আত্মা যদি আদতে বিশেষ পদার্থ হয় তবে সেটা মৃত্যুর সময় কোয়ান্টাম থিউরি মতে সর্বনিম্ন ফোটন এবং সর্বোচ্চ আরও ক্ষুদ্রতম রূপে শক্তি হিসেবে শরীর হতে নির্গত হয় বা বেরিয়ে যায়।

এখন মানুষের মৃত্যুর বিভিন্ন কারন হতে পারে যেমন অসুস্থ হওয়া, এক্সিডেন্ট হওয়া ইত্যাদি ইত্যাদি; তাহলে মানব শরীর অসুস্থ হলেই এই ২১.৩ গ্রাম পদার্থ আস্তে আস্তে কমতে থাকে বা ধীরে শক্তিতে রূপান্তরিত হতে থাকে এমনটা মোটেই নয় কেননা এক্সিডেন্ট করলে সেটা তো সুস্থ সবল মানুষের শরীর হতেও ঐ ২১.৩ গ্রাম পদার্থ একইসাথে মিসিং হয়।
আবার ম্যাকডোগাল ডানকানের পরীক্ষাতে তিনি গিনিপিগ হিসেবে একজন অসুস্থ মানুষকেই বেছে নিয়েছিলেন বটে।
সুতরাং এটা অন্তত সুস্পষ্ট মানুষের অসুস্থ হওয়ার সাথে এই আত্মার বিনাশের কোন সম্পর্ক নেই। তবে অনেক সময় মানুষ অসুস্থ হলে তার ব্রেইনের কার্যক্ষমতা হারান, সেক্ষত্রেও কিন্তু ঐ ২১.৩ গ্রাম পদার্থ কনস্ট্যান্স হিসেবেই থাকে তাই মানুষের ব্রেইনের সাথে আত্মার কোন সম্পর্ক নেই, এমনকি ব্রেইনের কোন অংশে এই ২১.৩ গ্রাম পদার্থ থাকে বলেও আমার মনে হয়না; তবে আত্মা তথা ২১.৩ গ্রাম পদার্থ ব্রেইনকে নিয়ন্ত্রণ করলেও করতে পারে (হয়তো)।

দ্যাটস অল….. আপাতত আমার ব্রেইন কিংবা ২১.৩ গ্রাম পদার্থ এই পর্যন্তই ভাবতে পারে এরবেশী কল্পনার ক্ষমতা অধম অক্ষম নিয়নটার নেই!!!

পরীক্ষার বিপরীত সমালোচনা:
উপরের ডানকানে এই পরীক্ষা যে শতভাগ সহীহ এমনটা ভাববেন না বরং এটি অবৈজ্ঞানিক বলেই ঘোষিত হয়েছে। কেননা এই পরীক্ষার না তো কোন মানদণ্ড ছিলো আর না তো এটা সর্বজন স্বীকৃত কোন এক্সপেরিমেন্ট ছিলো। এমনকি এই পরীক্ষাতে ব্যবহার করা স্কেল যদিও সূক্ষ্ম মাপ নিতে পারতো তবুও তাতে যান্ত্রিক ত্রুটি থাকা অস্বাভাবিক নয়। আবার পরীক্ষাটিতে প্রাপ্ত ফলাফল শুদ্ধতর হতে আরও অধিক সংখ্যাতে পরীক্ষা করা উচিত ছিলো কেননা একটি রিপোর্ট দিয়েই ডিসিশন নেওয়া অযৌক্তিক।
এমনি ডেডবডি হতে ঘাম বাষ্পীভূত হতে পারে যার কারনে ২১.৩ গ্রাম ওজন কম হয়, আর কুকুরের বেলায় তাদের ঘাম গ্রন্থি থাকে না বলেই হয়তো ২১.৩ গ্রাম ওজন হ্রাস পায়না।

ইসলাম কি বলে??
উপরের সকল কথাতে ইসলাম বিপরীত বহু বক্তব্য থাকতেই পারে; তাইবলে কথায় কথায় নাস্তিক উপাধি টানা বোকামি হবে।
আমি এখানে সায়েন্স নিয়ে কথা বলছি তাই সেন্সটি সায়েন্টিফিক হওয়া চাই, সায়েন্সের প্লাটফর্মে ধর্ম টেনে আনা সবচেয়ে বড় অধর্মের কাজ কেননা এখনো বিজ্ঞান এবং ইসলাম ধর্ম ( এমনকি অন্যান্য ধর্মও) এখনো সর্বসম নয় আর কখনো হতেও পারবে না (কেননা ইসলামের পরিসর ব্যাপক তাতে শতভাগ প্রমাণ করা একা সায়েন্সের সাধ্যি নেই)।

ইসলামের সাথে ঈমানের ওতপ্রোত সম্পর্ক আর ঈমান মানে হলো “বিশ্বাস” সুতরাং লজিক না পেলেই “ইসলাম অসাড়” এমন চিন্তাতে একজন মানুষ আদৌ মুসলিম হতে পারে না।

সুতরাং ইসলাম’কে বিশ্বাসে রাখুন এবং মুসলিম হিসেবে মনে প্রানে মানুন; ইসলাম কোন তর্কের বিষয় নয় বরং বিশ্লেষণপূর্বক পূণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা তাই এখানে সন্দেহের কোন অবকাশ নেই।

শেষকথা:
২১.৩ গ্রাম আত্মা হউক আর প্রানশক্তি হউক; এটা সৃষ্টিকর্তার দান সুতরাং এখনই লাইফটাকে শাইন করার সময়….সময় অপচয় করলেন তো হেরে গেলেন।

ফেসবুকে আমি→নিশান আহম্মেদ নিয়ন

আল্লাহ হাফেজ

48 thoughts on "নিয়নবাতি [পর্ব-৫৯] :: মানুষের আত্মার সন্ধান লাভ :: এক্সপেরিমেন্ট ২১.৩ গ্রাম!!!"

  1. JABER JABER Author says:
    nice bro😍✌


    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
  2. Masum Ahmad Kafil Contributor says:
    অসাধারণ লিখা।
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
  3. Shabbir Rahman Shabbir Rahman Contributor says:
    Valo Kisu Janlam. Tnx
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      welcome
  4. Farhan Ahmed Faruk Farhan Ahmed Faruk Contributor says:
    apnar post gula eto sundor hoy kebo??amar hingse hoy..

    nice

    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      😷😷😷😷
  5. Arafatkhan Contributor says:
    নিশ্চই চলন্ত মিশিনের ওজন বন্ধ মেশিনের তুলনায় বেশী হবে এটাই সাভাবিক
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ভাইয়া ভর সবসময় নিত্যতা সূত্র মেনে চলে
  6. md mamun rahman sikder md mamun rahman sikder Contributor says:
    Tnx


    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      welcome
  7. Jobidul Islam Mamun Jobidul Islam Mamun Contributor says:
    ভাই সময় অপচয় কিভাবে হয়? আমি তো প্রতিনিয়ত কোন কিছু না কিছু জানছি। আসলে ভাই কখন সময় অপচয় করছি কখন করছি না এটা বুঝে উঠতে পারছি না। শুধু কি পড়ালেখা করলে সময়ের অপচয় হয় না। বিষয়টা একটু ক্লিয়ার করে বলবেন।
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      সময়কে এমন কাজে লাগান যা আপনার জীবনের উন্নতির কাজে লাগবে
    2. Jobidul Islam Mamun Jobidul Islam Mamun Contributor says:
      🤔🤔🤔🤔🤔
  8. OndhoKobi OndhoKobi Author says:
    ভাই! আপনে তো কামাল কর দিয়া..!
    জিতে রহো…!
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      🙂
  9. RR Rokib Contributor says:
    আমার Dent app এর রেফারেল সঠিকভাবে ব্যাবহার করতে পারলে আপনি 1530 Dent Bouns পাবেন,,এই লিংকটা ব্যাবহার করুন,,https://dent.app.link/h6w6LtGraT
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      সস্তা রেফারে রেপুটেশন নষ্ট কর বড়জোর ২ টাকা লাভ করতে পারবেন তবে তাতে সম্মান কি পাবেন ; অবান্তর স্পামিং বাদ দিন
  10. Tanvir Ahmed Tanvir Ahmed Author says:
    ভাই ইউটুবে কিছু ভিডিও দেখছি যে মানুষের দেহ থেকে আত্মা ট্রাভেলিং করা যায় মানে আউট আফ বডি এক্সপেরিমেন্ট করা যায় জীবিত থাকা অবস্হায় এটা কি সম্ভব?
    আর
    সব মানুষের নাকি থার্ড আই বা তৃতীয় নেত্র আছে এটা ওপেন করলে নাকি অসম্ভব শক্তিলাভ করে! এটা কি সত্য?
    যদি জানেন অবস্যই বলবেন। ধন্যবাদ
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      আমার মনে হয়না; আসলে একবার আত্মা শরীর হতে বেরিয়ে আবার শরীরে ফিরে আসা যেটাকে বলা হয় “নিয়ার ডেথ” এক্সাম এটা আদতে ব্রেইনের ভ্রম মাত্র।
      দেখুন যদি তর্কের খাতিরে মেনে নিই যে সত্যিই প্রাণশক্তি ২১.৩ গ্রাম ভরের পদার্থ যা মৃত্যুর পর শক্তিতে পরিণত হয় (যেহেতু ভর ও শক্তি নিত্যতা সূ্ত্র মানে এবং ভরের সাথে শক্তির E=mc^2 সম্পর্ক) তাহলে “ভরের শক্তিতে রূপান্তরিত হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় শক্তি সে শরীর হতে পাচ্ছে বটে; তবে সেই শক্তি সে কোথায় উৎগীরণ করে আবার দেহে ফিরবে???
      (১) প্রকৃতিতে শক্তি উদগীরণ করে আবার শরীরে ফেরা তো সম্ভব নয় কেননা তখন তা নিশ্চল ভরের পদার্থ বিশেষ।
      (২) আমার শরীরে শক্তি ফিরে পদার্থে রূপান্তর হওয়ার ব্যাখ্যা পাওয়া যায়না (অন্তত আমার জানা নেই)

      বিষয়টা অনেকটা হাচি দেওয়ার মতোই। হাচি দিলে শরীর হতে অনেক উপাদান বাইরে বের হয় তবে সেটা কি আবার ঐ একই হাচির বিপরীত হয়ে শরীরে প্রবেশ করতে পারে??

      আসলে আমার মনে হয় বিষয়টা ব্রেইনের একটি ভ্রম মাত্র ;যেমনটা কোমাতে থাকলে পেশেন্টের ক্ষেত্রে হয় ( কোমার পেশেন্টের কোয়ান্টাম টাইম ট্রাভেলের মতোই দীর্ঘ সময়কে সংক্ষিপ্ত করে উপলব্ধ করায় মাত্র)



    2. Tanvir Ahmed Tanvir Ahmed Author says:
      হুম জঠিল লজিক। কিন্তু থার্ড আই ওপেন হলে নাকি হিউম্যান আউট অফ বডি এক্সপেরিমেন্ট করা যায়। থার্ড আই খোলার জন্য আমাদের মাইন্ডের ৪-৫(কনসিয়াস মাইন্ড,সাব কনসিয়াস মাইন্ড,কসমিক কনসিয়াস মাইন্ড, কসমিক সাব কনশিশাস মাইন্ড..) লেভেল পার হতে হয় তারপর নাকি টেলিপ্যাথি,হিলিংপাওয়ার,আত্মা ভ্রমন এগুলা নাকি করা যায়।
      ভাই এগুলা কি বিশ্বাস করার মত কিছু আছে??
    3. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ভাই, মূল বিষয়টা হলো সিক্স সেন্স; সুতরাং শুধুমাত্র অনুশীলন কখনোই তীব্র ক্ষমতাবান সিক্স সেন্স তৈরী করতে পরেনা, এটা ঈশ্বরপ্রদত্ত।
      তবে এটাও ঠিক যে কিছু বিশেষ নিয়ম মেনে অনুশীলন করলে থার্ড আই অর্থাৎ আপনি যেই কনসিয়াস মাইন্ডের কথা বলছেন সেটি আপাত সম্ভব হতে পারে।
    4. Labib Labib Author says:
      বের হয়ে আবার শরীরে আত্মা ডুকতে পারে, তবে তা একবারই হয়েছিলো – আল্লাহর আদেশে আর এক নবীর অনুরুধে।
    5. AMRITAMSU AMRITAMSU Contributor says:
      At dream in sleeping time soul come out from body., and at that time our brain control our breathing, digestion, blood circulation & other internal process. So soul easily can move under the control of mind .
  11. Forhad Rahman Forhad Rahman Contributor says:
    Amazing writing 😍
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
    2. Forhad Rahman Forhad Rahman Contributor says:
      স্বাগতম
  12. FAIHAD Contributor says:
    অনেক ভালো লাগল
    সুন্দর পোস্ট
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
  13. Tasrif24 Contributor says:
    Bro apnar fb link den,,, help lagbe
  14. Morol Contributor says:
    সত্যি কথা বলতে কি neon ভাই আছে বলে আমি এখন ও Trickbd তে আছি , কারন রানা ভাই যাদের মডারেটর বানিয়েছে তারা নিয়মিত Trickbd তে আসেই না , আবার বাজে বাজে লোকদের trick পাবলিশ করে, আমি জোর গলায় বলতে পারি , Neon ভাই ছাড়া আর কেউ ই নাই ভালো মানসম্মত post লিখতে পারে , সবাই সবার Channel আর YouTube এর সার্থে পোষ্ট লিখে , আর যারা পারে তারা তো বছরের পর বছর ট্রেইনার রিকোয়েষ্ট দিয়ে আসছে , তারা না পারে বলতে না পারে কইতে ,

    সবশেষে বলব rana ভাই আপনি neon ভাইকে মডারেটর বানান ,

    I like Neon vai

    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ভাই আপনার ভালোবাসা পেয়ে আমি সত্যিই ধন্য; বিনিময়ে আপনার জন্যও রইলো অন্তরের অন্তঃস্থল হতে ভালোবাসা।
      আর ভাইয়া, ট্রিকবিডি আসলে এতো বড় একটা প্লাটফর্ম যখানে ২/১ জন মানুষের পক্ষে যাবতীয় বিষয় কনট্রোল করা কঠিন আর সবারই তো একটা ব্যক্তিগত লাইফ আছে।
      অন্যদিকে এতো বড় একটা প্লাটফর্ম হতে আর্ন এখনো এডসেন্স নির্ভর তাই আর্থিক দিক হতে ট্রিকবিডি ততোটা ডেণলপ না- এই জন্যই আমি কোন একটা জায়গায় রানা ভাইকে রিকুয়েস্ট করেছিলাম যেন ডোনেশন এর প্রয়োজন হলে যেন সবিনয়পূর্বক আমাকে জানানো হয়।আমি চাই প্লাটফর্ম’টি আরও ডেভেলপ হয়।

      আর মোডারেটর হওয়া আমার পক্ষেও সম্ভব নয় কেননা এই বছরের কোন একটি সময় আমাকে প্রবাসে পাড়ি জমাতে হবে যদিও ভিসা আটকে আছে একটি অযৌক্তিক কারনে; তাই সময়টা আমার জন্যও একটু টাফ হয়ে যায়।
      এছাড়াও আমার পরিবার,ওয়াইফ,ওয়ার্কিং প্লেস সবকিছুতে সময় দেবার পর আসলে আমিই অবসর পাইনা।

      তবে এইটুকু বলতে পারি আমার সেরা প্রাপ্তি আপনার ভালোবাসা

    2. Maruf Maruf Contributor says:
      ভাইয়া আপনি Married
    3. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      জ্বী
  15. Tarifkhanbd Contributor says:
    ধন্যবাদ জ্ঞান নির্ভর পোস্ট এর জন্য।
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
  16. Su mon Su mon Contributor says:
    পরের কোন এক experiment এ নাকি মিত্যুর পর ওজন কিছু গ্রাম বেড়ে গিয়েছিল ৷ এটা কি ঠিক….?
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      এই পরীক্ষাটি ৬ জনের সাথে করা হয় যেটিতে ১ জনের বোলাতে খাটে; তবে পুরো বিষয়টি রহস্য!
      (১) তিনি জানতেন কিভাবে তাদের মৃত্যুর পূর্বমুহূর্ত?
      (২) যন্ত্রটি একজনের বেলায় কোন রেজাল্ট না দেখিয়েই উল্টো গানিতিক হিসাব ক্যালকুলেট করছিলো
      (৩) তিনি অন্য আরেকজনের ফলাফল কেন ইচ্ছাকৃত বাদ দিয়েছিলেন?
      (৪) তিনি আরও কেন পরীক্ষা করেননি?
      (৫) আত্মার ফটো তোলার পরীক্ষা বলেও তিনি কেন সেটা করেন’নি?
      (৬) এই বিষয়টা নিয়ে পরে কেন আর কেউই পরীক্ষা করেনি?

      মূলত এটা একটা রহস্য; আর এই রহস্যের পেছনেও হয়তো আছে আরেকটা ধোয়াশে কন্সপারেন্সি

  17. Maruf Maruf Contributor says:
    ভালো লাগল
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
  18. Junayed Reza Junayed Reza Contributor says:
    জিও গুরু জিও,আজ অনেক ভালো জিনিস শিখতে পারলাম ।
    1. Nishan Ahammed Neon Nishan Ahammed Neon Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
  19. MD Mannan MD Mannan Contributor says:
    এটা অক্সিজেন এর পরিমাপ
  20. Labib Labib Author says:
    ভালো লিখেছেন। বেষ্ট অফ লাক ফর নেক্সট।
  21. jokerman jokerman Contributor says:
    nieon va! ♥♥♥♥♥ kon desh e jaben?

Leave a Reply