প্রথমে যাকে ম্যাজিক দেখাবেন
তাকে বলুন এক প্যাকেট তাস হতে ১০ এর
বেশি যতগুলো ইচ্ছা তাস নিতে।
তারপর আপনাকে না জানিয়ে
তাসগুলো গুনতে বলুন। গুনা শেষ হলে
তাকে বলুন যে সংখ্যক তাস সে গুনেছে
তার একক ও দশক মান যোগ করতে।
[অর্থাৎ যদি সে ২১টি তাস গুনে থাকে
তবে এখানে একক সংখ্যাটি হলঃ ২
এবং দশক সংখ্যাটি হলঃ ১ সুতরং একক ও
দশক সংখ্যার যোগফল হল (২+১=৩)] এবার
একক ও দশক মানের যোগফলের সমান
সংখ্যক তাস তার মোট নেয়া তাস হতে
বাদ দিতে বলুন।
[ অর্থাৎ যদি সে ২১টি তাস গুনে
থাকে তবে আপনার কথামত দর্শকটি ৩টি
তাস তার নেয়া ২১টি তাস হতে বাদ
দিল। তহলে তাঁর হাতে থাকল ২১ – ৩ =
১৮ টি তাস।] এবার আপনি তার কাছ
থেকে অবশিষ্ট তাসগুলি হাতে নিয়ে
তাসের পরিমাপ অনুযায়ী তাকে
অনায়াসে বলে দিতে পারবেন
সেখানে মোট ১৮টি তাস আছে। কিন্তু
কি ভাবে???
হ্যাঁ। যে ভাবে আপনি বলে দিতে
পারবেনঃ
এই ম্যাজিকটির কৌশল খুব সোজা।
ম্যাজিক দেখানোর আগে আপনাকে শুধু
দেখে নিতে হবে ৯টি তাস কতখানি
মোটা, ১৮টি তাস কতখানি মোটা,
ঠিক তেমনি ২৭, ৩৬ এবং ৪৫টি তাস
কতখানি মোটা। শুধু এটুকো ধারণা
থাকলেই চলবে। কারন দর্শক ইচ্ছামত যত
তাসই গ্রহণ করুক না কেন, তার একক ও
দশকের যোগফলের সংখ্যক তাস বাদ
দিলে সেখানে ( ৯, ১৮, ২৭, ৩৬, ৪৫ ) এর
যে কোন একটির সংখ্যক তাস অবশ্যই
থাকবে। যেমনঃ-
১১ – ২ (২ + ১) = ৯
১৪ – ৫ (১ + ৪) = ৯
২০ – ২ (২ + ০) = ১৮
৩১ – ৪ (৩ + ১) = ২৭
৪২ – ৬ (৪ + ২) = ৩৬
৫২ – ৭ (৫ + ২) = ৪৫
দেখলেনতো সব সময় ঐ একটা ধারাই ( ৯,
১৮, ২৭, ৩৬ , ৪৫ ) হচ্ছে। তো শুরু করুন
ম্যাজিক দেখাতে। আর আপনার বন্ধু
বান্ধবকে চমকিয়ে দিন।

Leave a Reply