একটা সময় ছিলো, সবাই স্বপ্ন দেখতো ডক্টর হবে, ইঞ্জিনিয়ার হবে। কিন্তু এখন ডক্টর আর ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার পাশাপাশি আরেকটা স্বপ্নও মানুষ দেখে। তৃতীয় এই স্বপ্নটা হলো একটি সরকারি চাকরি পাওয়া। বাস্তব জগতে আমাদের সবার আশেপাশে এমন কিছু লোক আমরা দেখতে পাই যাদের পায়ের স্যান্ডেল খয় হয়েছে শুধু সরকারি চাকুরী খুঁজতে খুঁজতে। কিন্তু কেন সরকারি চাকরির জন্য মানুষ এমন পাগল?

 

আজ আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে এই প্রশ্নের উত্তর জানবো। জানবো ১০ টি কারণ কেন সবাই সরকারি চাকরি পেতে এতো আগ্রহী। চলুন তাহলে শুরু করা যাক।

 

১. সম্মান

আমাদের সমাজে সরকারি চাকরি তুলনামূলকভাবে সম্মানজনক চাকরি হিসাবে দেখা হয়। কারণ, সমাজের বেশীর ভাগ মানুষ মনে করেন বেসরকারি চাকরির থেকে সরকারি চাকরি অনেক বেশী ভাল। কেউ যদি সরকারি চাকুরী করেন তাহলে সবাই তাকে সাকসেসফুল মানুষ হিসাবে দেখেন।

আপনি একটু চিন্তা করেন তো, আপনার বড় ভাই পুলিশের এসআই পদে চাকুরী পেয়েছে। সমাজে আপনাদের পজিশন রাতারাতি কোথায় উঠবে?

২. নিরাপত্তা

আপনি একবার সরকারি চাকরিতে জয়েন করলে কেউ আপনাকে চাকরি থেকে সরাতে পারবে না যদি না আপনি কোন নিয়ম ভাঙ্গেন। অর্থাৎ আপনি যদি সরকার প্রদত্ত সকল নিয়মানুসারে থাকেন আপনি নির্ধারিত সময়সীমা পর্যন্ত চাকুরী করতে পারবেন।

৩. বেতন-ভাতা

সরকারি চাকরি করলে বেতন নিয়ে চিন্তা করতে হয় না। যেটি অনেক বেসরকারি চাকরির ক্ষেত্রে করতে হয়। অনেক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরি করলে মাস শেষে খোঁজ রাখতে হয় “স্যার, স্যালারিটা…”।

আবার দেখা যায় অনেক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান কোন মাসের বেতন পরের মাসে নিয়ে যায়। যদিও এটা খুবই কম তারপরও বেসরকারি চাকরির ক্ষেত্রে এরকমটা হয়। কিন্তু সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে এ ধরণের কোন টেনশন করতে হয় না। এছাড়াও বেতনের সাথে বিভিন্ন ধরণের ভাতাও পাওয়া যায়।

৪. কম কাজের চাপ

সাধারণত ডিফেন্সের চাকুরী বাদে সরকারি চাকরিতে কাজের চাপ খুব বেশী থাকে না। প্রতিদিন নিয়ম করে একটা নির্দিষ্ট টাইমে অফিসে যাওয়া আবার বাসায় আশা এই ধরণের চাকুরী করাও অনেকের স্বপ্ন থাকে।

৫. স্বাস্থ্য নিরাপত্তা

এখনকার সময়ে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সাধারণ মানুষের জন্য একটি ব্যয়বহুল জিনিস বলা যায়। কিন্তু সরকারি চাকরিতে কর্মরত কর্মচারীদের জন্য সরকার স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিয়ে থাকে। সরকারি বিভিন্ন হসপিটাল রয়েছে যেখান থেকে ফ্রিতে চিকিৎসা পাওয়া যায়।

৬. দক্ষতা ছাড়া চাকরি

গ্রাম বা প্রত্যন্ত অঞ্চলের অনেক শিক্ষার্থী আছে যারা পারিবারিক ভাবে অস্বচ্ছল হওয়া পড়া-শোনা কোন মতে চালিয়ে যায়। এসব শিক্ষার্থীদের আলাদা কোন দক্ষতা নেই। এধরনের শিক্ষার্থীদের জন্য সরকারি চাকরির কোন বিকল্প নেই। কারণ, সরকারি চাকুরী পেতে বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই আলাদা কোন দক্ষতা দেখানোর প্রয়োজন হয় না।

৭. দেশের জন্য অবদান

আপনি যদি দেশের জন্য কিছু করতে চান, সমাজের অবহেলিত মানুষের জন্য কিছু করতে চান, সরকারি চাকরি আপনার পছন্দের তালিকায় শীর্ষে থাকবে। কারণ, বর্তমান সময়ে আপনার দুর্নীতি না করাটাই দেশের জন্য কিছু করা হিসাবে বিবেচনা করা যায়।

৮. বেতন বৃদ্ধি

বেসরকারি চাকুরীর ক্ষেত্রে দেখা যায় আপনার পদোন্নতি বা বেতন বৃদ্ধির বিষয়টা অনেকটা আপনার বসের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করে। কিন্তু সরকারি চাকুরীর ক্ষেত্রে এ ধরণের কিছু নেই। আপনার যোগ্যতা থাকলে আপনার পদোন্নতি হবে। বেতন বৃদ্ধিটাও ঠিক সময় মত হয়ে যাবে।

৯. অতিরিক্ত টাকা (ঘুষ)

আমি বা আমার পাঠক আমরা কেউ ঘুষে দেওয়া-নেওয়ার পক্ষে না। কারণ, দু’টোই দণ্ডনীয় অপরাধ। কিন্তু বাস্তব সত্য হচ্ছে, এই অতিরিক্ত টাকার লোভে পরে এখন বেশীর ভাগ মানুষ সরকারি চাকরি করতে এতো আগ্রহী হয়ে থাকে। এটা আমরা আশে পাশের অনেক লোক দেখলেই বুঝতে পারি।

১০. পেনশন

অনেকেই সরকারি চাকরি করতে চায় শুধুমাত্র এই একটি কারণেই। পেনশন। চাকরি থেকে অবসর গ্রহণ করলে সরকার আপনাকে পেনশন প্রদান করবে। এককালীন বা মৃত্যুর আগ পর্যন্ত অনেকগুলো টাকা প্রদান করে যা দিয়ে আপনার শেষ বয়স খুব সুন্দরভাবেই কাটাতে পারবেন। কারো উপর আপনাকে নির্ভরশীল হতে হবে না।

 

তো আপনিও কি তাদের মধ্যে একজন যারা সরকারি চাকরি খুঁজছেন? যদি আপনার উত্তর ‘হ্যাঁ’ হয় তবে আমার ওয়েবসাইট www.notice24x7.com আপনার জন্যই। সকল সরকারি চাকরির খবরা-খবর বিস্তারিত ভাবে জানুন আমার ওয়েবসাইট থেকে।

তাহলে ভাল থাকবেন। লেখাটি পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

3 thoughts on "আপনি কি জানেন সবাই কেন সরকারি চাকরি পেতে এতো পাগল?"

  1. shantomb Contributor says:
    জেনে ধন্য হলাম

Leave a Reply